বাংলাদেশ ০১:০৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
রামপুর মধ্যপাড়া মরহুম হাজী নিতু মন্ডল এর বাড়ির উদ্যোগে-৪র্থ বার্ষিক ওয়াজ ও দোয়ার মাহফিল। রাজশাহী মহানগরীতে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই! দুই ভুয়া ডিবি গ্রেফতার পটুয়াখালী মহিপুর ইয়াবাসহ একজন গ্রেফতার। চন্দ্রকোনায় অনুষ্ঠিত হয়ে গেল এক ব্যতিক্রমী চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা। আজ শেরপুর জেলার জন্মদিন অবৈধ গ্যাস সংযোগ উচ্ছেদ অভিযান শুরু মুহম্মদ ফয়সল আকন্দের ‘চন্দ্রপুর’ গ্রন্থের পাঠ উন্মোচন সভা অনুষ্ঠিত  বর্তমান সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য অনেক কিছু করেছে : আমু মতলব ব্রহ্মানন্দ যোগাশ্রমে শ্রী শ্রী বিশ্ব শান্তি গীতা যজ্ঞ ও সনাতন ধর্ম সম্মেলন ২৪ ফেব্রুয়ারী রাজশাহীতে লংকাবাংলা সিকিউরিটিজের ডিজিটাল বুথের উদ্বোধন রাজশাহী পুলিশ লাইন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত জবিতে শুরু হচ্ছে ৬ দিন ব্যাপি সিনেশো ব্যরিস্টার শাহজাহান ওমরের বিকল্পে জামালকে মূল্যায়ন পিরোজপুরের নেছারাবাদে দুই দিনে পাগলা কুকুরের কামড়ে নারী শিশু, বৃদ্ধসহ ১৭ জন আহত নলছিটি বন্দর স্কুলের নতুন ভবন নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন আমির হোসেন আমু

আক্কেলপুরে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ”হত্যার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে একজনকে পিটিয়ে আহত করেছে দুর্বৃত্তরা

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৮:০২:২২ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৯ মার্চ ২০২২
  • ১৭৬৭ বার পড়া হয়েছে

আক্কেলপুরে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ"হত্যার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে একজনকে পিটিয়ে আহত করেছে দুর্বৃত্তরা

 

জয়পুরহাট, প্রতিনিধিঃ-
জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলা প্রেসক্লাবে গত ১৬ -ইং মার্চ সকাল ১১ টায় এক সংবাদ সম্মেলনে তার লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন। আক্কেলপুর উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়নের স্থায়ী বাসিন্দা ও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি গোলাম ফারুক অভি।
তিনি তার নিজ বাড়ি ভিটায় দীর্ঘ দিনযাবৎ বসবাস করে আসছেন এবং তিনি একটি বে-সরকারি কোম্পানিতে কর্মরত ছিলেন কিন্তু বর্তমানে তাহার চাকরী না থাকায় বেকারত্ব জীবনযাপন করে আসছেন।এমন বেকার অবস্থায় থাকায় তার সংসার পরিচালনার জন্য টাকার প্রয়োজন হওয়ায় তার নিজ ৩ শতক ও তার বড় ভাই মাহবুব আলম মাবু এর ১ শতক সর্বমোট ৪ শতক জমি বিক্রয়ের জন্য একই এলাকার বিবাদী মৃত. বিনছের আলী সরদারের ছেলে মো.রফিকুল ইসলাম গংদের (৪৪) নিকট জমিটি বিক্রয়ের জন্য মূল্য নির্ধারণ করেন। এসময় রফিকুল ইসলামের বড় দুই ভাই গিয়াস উদ্দিন সরদার (৫৮) ও নাসির উদ্দিন সরদার (৫২) উপস্থিত ছিলেন।
গোলাম ফারুক অভি’র টাকার ভীষণ প্রয়োজন হওয়ায়  তিনি বিবাদী রফিকুল ইসলামকে জমি বিক্রয়ের বায়না নামার টাকা চাইলে রফিকুল ইসলাম বারবার সময় চেয়ে অপারগতা দেখাতে থাকে। গোলাম ফারুক অভি’র জরুরি টাকার প্রয়োজন হওয়ায় জমটি একই এলাকার আলহাজ্ব আব্দুল করিম মণ্ডল ওরফে দুদু’র স্ত্রী মোছাঃ বেনু আরা বেগম ও তার মেয়ে মোছাঃ পারভিন আক্তারের এর নিটক গত ১০,২,২০২২ ইং তারিকে  জমিটি বিক্রয় করেন গোলাম ফারুক অভি ও তার বড় ভাই মাহবুব আলম মাবু।
জমি বিক্রয়ের পর গত ১১-০২-২০২২-ইং তারিখ রোজ শুক্রবার সকাল আনুমানিক ৯ ঘটিকায় বিক্রয়কৃত জমিটি জমির ক্রেতা মোছাঃ বেনু আরা বেগমকে মাফজোক করে বুঝিয়া দেওয়ার সময় জমি বিক্রয়ের বিষয়টি জানতে পেড়ে রফিকুল ইসলামের বাড়ির পূর্ব  দক্ষিণ কোণায় গোলাম ফারুক অভি’র নিজস্ব দখলীকৃত পুকুরপাড় এ গোলাম ফারুক অভি’কে গিয়াস উদ্দিন সরদার দেখিতে পেড়ে তার সহধর ছোট দুই ভাইকে হুকুম করে সালারে ধর আমাদের কাছে জমি না দিয়ে অন্য জনের নিকট জমি কিভাবে বিক্রয় করে আমরাও দেখি দ্বারা তোকে মেরেই ফেলবো।
এমন হুকুম পেয়ে গোলাম ফারুক অভি’কে তারা দুই ভাই এলোপাথাড়ি মারতে মারতে টেনে হিচরে গোলাম ফারুক অভিগণের পুকুরের পশ্চিমা ধার পুকুরে যাওয়ার রাস্তার পূর্বপাশ্বে অবস্থিত রফিকুল ইসলাম এর বাড়িতে হত্যার উদ্দেশ্যে নিয়ে গিয়ে তাদের বাড়ির দরজা বন্ধ করিয়া তারা তিন ভাই মিলিয়া নারিকেলের গাছের সঙ্গে গোলাম ফারুক অভিকে দড়ি দ্বারা বাঁধিয়া হত্যার উদ্দেশ্যে রফিকুল ইসলাম একটি বাঁশের লাঠি দ্বারা মাথা বরাবর আঘাত করিলে গোলাম ফারুক অভি নিজের জীবন রক্ষার্থে সুকৌশলে বাম হাত দ্বারা রফিকুলের বাঁশের লাঠি টি আটকাইতে চেষ্টা কালে তার বাম হাতের কুনুই ভেঙে গেলে।
গোলাম ফারুক অভি সজোরে আতৎচিৎকার দিলে তার আতৎচিৎকারে শুনে রফিকুলের মেজভাই নাসির উদ্দিন সরদার রাঙ্গানিত হয়ে দেশীয় অস্ত্র তথা লোহার শাবল দ্বারা গোলাম ফারুক অভি’র মুখোমন্ডল বরাবর আঘাত করলে তার উপরের শাড়ির দাত গুলি ভেঙে রক্তাক্ত অবস্থা ঘটিলে তাতেও ক্ষান্ত না হয়ে নাসির উদ্দিন সরদারের হাত থেকে লোহার শাবল টি রফিকুল ইসলাম সরদার কেড়ে নিয়ে গোলাম ফারুক অভি’র পেটের বাম পার্শে প্রায় কিডনি বরাবর সজোরে আঘাত করলে আঘাতটি কিডনিতে না লাগলেও উপরের স্থানে আঘাতটি লাগলে গোলাম ফারুক অভি জ্ঞান হারিয়ে ফেললে। বাহিরে দাঁড়িয়ে থাকা গোলাম ফারুক অভি’র মাতৃহারা ১১ বছরের সন্তান শাদমান আল সামি আমার বাবাকে বাঁচাও বাঁচাও বলে চিৎকার দিলে।
তার আতৎচিৎকার শুনে এলাকাবাসী হুমায়ন সরদার ও বেনু আরাসহ আরও কয়েক জন দরজা ভেঙে গোলাম ফারুক অভিকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে  স্থানীয় চিকিৎসা নিয়ে দ্রুত জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করালে। সেখানে একদিন চিকিৎসা নিলে তার অবস্থার অবনতি দেখে কর্মরত চিকিৎসক তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে রেফার করেন।
রেফারকৃত অবস্থায় আইনের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে উক্ত রফিকুল ইসলাম সরদার, নাসির উদ্দিন সরদার ও গিয়াস উদ্দিন সরদারকে আসামী করে গত ১৬-০২-২০২২-ইং তারিখে গোলাম ফারুক অভি আহত অবস্থায় নিজে সশরীরে হাজির হয়ে জয়পুরহাট চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন। যাহার মামলা নম্বর ২০ পি/২০২২ (আঃ) উক্ত মামলটি আমলে নিয়ে বিজ্ঞ আদালত মামলটি তদন্তের জন্য জেলা গোয়েন্দা শাখার (ডিবিপুলিশ) অফিসার ইনচার্জ কে নির্দেশ প্রদান করেছেন। আমি গোলাম ফারুক অভি ন্যায্য বিচারের আশায় আক্কেলপুর উপজেলা প্রেসক্লাবে উপস্থিত হয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, স্থানীয় সাংসদ ও জেলা প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তাদের সুদৃষ্টি আকর্ষণ করছি।
নিবেদকঃ- গোলাম ফারুক অভি
(সাবেক ইউপি ছাত্রলীগ সভাপতি ও বর্তমান বলিষ্ঠ আ”লীগের সক্রিয় কর্মী)
পিতা মোঃ- মতিয়র রহমান প্রাং
সাং- গোপীনাথপুর, উপজেলা আক্কেলপুর, জেলা জয়পুুরহাট।
জনপ্রিয় সংবাদ

রামপুর মধ্যপাড়া মরহুম হাজী নিতু মন্ডল এর বাড়ির উদ্যোগে-৪র্থ বার্ষিক ওয়াজ ও দোয়ার মাহফিল।

আক্কেলপুরে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ”হত্যার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে একজনকে পিটিয়ে আহত করেছে দুর্বৃত্তরা

আপডেট সময় ০৮:০২:২২ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৯ মার্চ ২০২২

 

জয়পুরহাট, প্রতিনিধিঃ-
জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলা প্রেসক্লাবে গত ১৬ -ইং মার্চ সকাল ১১ টায় এক সংবাদ সম্মেলনে তার লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন। আক্কেলপুর উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়নের স্থায়ী বাসিন্দা ও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি গোলাম ফারুক অভি।
তিনি তার নিজ বাড়ি ভিটায় দীর্ঘ দিনযাবৎ বসবাস করে আসছেন এবং তিনি একটি বে-সরকারি কোম্পানিতে কর্মরত ছিলেন কিন্তু বর্তমানে তাহার চাকরী না থাকায় বেকারত্ব জীবনযাপন করে আসছেন।এমন বেকার অবস্থায় থাকায় তার সংসার পরিচালনার জন্য টাকার প্রয়োজন হওয়ায় তার নিজ ৩ শতক ও তার বড় ভাই মাহবুব আলম মাবু এর ১ শতক সর্বমোট ৪ শতক জমি বিক্রয়ের জন্য একই এলাকার বিবাদী মৃত. বিনছের আলী সরদারের ছেলে মো.রফিকুল ইসলাম গংদের (৪৪) নিকট জমিটি বিক্রয়ের জন্য মূল্য নির্ধারণ করেন। এসময় রফিকুল ইসলামের বড় দুই ভাই গিয়াস উদ্দিন সরদার (৫৮) ও নাসির উদ্দিন সরদার (৫২) উপস্থিত ছিলেন।
গোলাম ফারুক অভি’র টাকার ভীষণ প্রয়োজন হওয়ায়  তিনি বিবাদী রফিকুল ইসলামকে জমি বিক্রয়ের বায়না নামার টাকা চাইলে রফিকুল ইসলাম বারবার সময় চেয়ে অপারগতা দেখাতে থাকে। গোলাম ফারুক অভি’র জরুরি টাকার প্রয়োজন হওয়ায় জমটি একই এলাকার আলহাজ্ব আব্দুল করিম মণ্ডল ওরফে দুদু’র স্ত্রী মোছাঃ বেনু আরা বেগম ও তার মেয়ে মোছাঃ পারভিন আক্তারের এর নিটক গত ১০,২,২০২২ ইং তারিকে  জমিটি বিক্রয় করেন গোলাম ফারুক অভি ও তার বড় ভাই মাহবুব আলম মাবু।
জমি বিক্রয়ের পর গত ১১-০২-২০২২-ইং তারিখ রোজ শুক্রবার সকাল আনুমানিক ৯ ঘটিকায় বিক্রয়কৃত জমিটি জমির ক্রেতা মোছাঃ বেনু আরা বেগমকে মাফজোক করে বুঝিয়া দেওয়ার সময় জমি বিক্রয়ের বিষয়টি জানতে পেড়ে রফিকুল ইসলামের বাড়ির পূর্ব  দক্ষিণ কোণায় গোলাম ফারুক অভি’র নিজস্ব দখলীকৃত পুকুরপাড় এ গোলাম ফারুক অভি’কে গিয়াস উদ্দিন সরদার দেখিতে পেড়ে তার সহধর ছোট দুই ভাইকে হুকুম করে সালারে ধর আমাদের কাছে জমি না দিয়ে অন্য জনের নিকট জমি কিভাবে বিক্রয় করে আমরাও দেখি দ্বারা তোকে মেরেই ফেলবো।
এমন হুকুম পেয়ে গোলাম ফারুক অভি’কে তারা দুই ভাই এলোপাথাড়ি মারতে মারতে টেনে হিচরে গোলাম ফারুক অভিগণের পুকুরের পশ্চিমা ধার পুকুরে যাওয়ার রাস্তার পূর্বপাশ্বে অবস্থিত রফিকুল ইসলাম এর বাড়িতে হত্যার উদ্দেশ্যে নিয়ে গিয়ে তাদের বাড়ির দরজা বন্ধ করিয়া তারা তিন ভাই মিলিয়া নারিকেলের গাছের সঙ্গে গোলাম ফারুক অভিকে দড়ি দ্বারা বাঁধিয়া হত্যার উদ্দেশ্যে রফিকুল ইসলাম একটি বাঁশের লাঠি দ্বারা মাথা বরাবর আঘাত করিলে গোলাম ফারুক অভি নিজের জীবন রক্ষার্থে সুকৌশলে বাম হাত দ্বারা রফিকুলের বাঁশের লাঠি টি আটকাইতে চেষ্টা কালে তার বাম হাতের কুনুই ভেঙে গেলে।
গোলাম ফারুক অভি সজোরে আতৎচিৎকার দিলে তার আতৎচিৎকারে শুনে রফিকুলের মেজভাই নাসির উদ্দিন সরদার রাঙ্গানিত হয়ে দেশীয় অস্ত্র তথা লোহার শাবল দ্বারা গোলাম ফারুক অভি’র মুখোমন্ডল বরাবর আঘাত করলে তার উপরের শাড়ির দাত গুলি ভেঙে রক্তাক্ত অবস্থা ঘটিলে তাতেও ক্ষান্ত না হয়ে নাসির উদ্দিন সরদারের হাত থেকে লোহার শাবল টি রফিকুল ইসলাম সরদার কেড়ে নিয়ে গোলাম ফারুক অভি’র পেটের বাম পার্শে প্রায় কিডনি বরাবর সজোরে আঘাত করলে আঘাতটি কিডনিতে না লাগলেও উপরের স্থানে আঘাতটি লাগলে গোলাম ফারুক অভি জ্ঞান হারিয়ে ফেললে। বাহিরে দাঁড়িয়ে থাকা গোলাম ফারুক অভি’র মাতৃহারা ১১ বছরের সন্তান শাদমান আল সামি আমার বাবাকে বাঁচাও বাঁচাও বলে চিৎকার দিলে।
তার আতৎচিৎকার শুনে এলাকাবাসী হুমায়ন সরদার ও বেনু আরাসহ আরও কয়েক জন দরজা ভেঙে গোলাম ফারুক অভিকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে  স্থানীয় চিকিৎসা নিয়ে দ্রুত জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করালে। সেখানে একদিন চিকিৎসা নিলে তার অবস্থার অবনতি দেখে কর্মরত চিকিৎসক তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে রেফার করেন।
রেফারকৃত অবস্থায় আইনের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে উক্ত রফিকুল ইসলাম সরদার, নাসির উদ্দিন সরদার ও গিয়াস উদ্দিন সরদারকে আসামী করে গত ১৬-০২-২০২২-ইং তারিখে গোলাম ফারুক অভি আহত অবস্থায় নিজে সশরীরে হাজির হয়ে জয়পুরহাট চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন। যাহার মামলা নম্বর ২০ পি/২০২২ (আঃ) উক্ত মামলটি আমলে নিয়ে বিজ্ঞ আদালত মামলটি তদন্তের জন্য জেলা গোয়েন্দা শাখার (ডিবিপুলিশ) অফিসার ইনচার্জ কে নির্দেশ প্রদান করেছেন। আমি গোলাম ফারুক অভি ন্যায্য বিচারের আশায় আক্কেলপুর উপজেলা প্রেসক্লাবে উপস্থিত হয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, স্থানীয় সাংসদ ও জেলা প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তাদের সুদৃষ্টি আকর্ষণ করছি।
নিবেদকঃ- গোলাম ফারুক অভি
(সাবেক ইউপি ছাত্রলীগ সভাপতি ও বর্তমান বলিষ্ঠ আ”লীগের সক্রিয় কর্মী)
পিতা মোঃ- মতিয়র রহমান প্রাং
সাং- গোপীনাথপুর, উপজেলা আক্কেলপুর, জেলা জয়পুুরহাট।