বাংলাদেশ ১১:০৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
তালতলীর খালাকে হত্যার পর কানের রিং বিক্রি করে খুনিকে টাকা দেয় ভাগ্নে কলাপাড়ায় এক সন্তানের জননীকে ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগ নতুন কারিকুলাম বাস্তবায়নের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সুপারিশ রাঙ্গাবালীতে মৎস্য ব্যবসায়ী রাসাদ হত্যাকারীর ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন। পিঠা উৎসব ও বসন্ত বরনকে কেন্দ্র করে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মিলন মেলায় পরিনত  নাটোরের বড়াইগ্রামে বর্ণিল আয়োজনে পিঠা উৎসব ও বসন্ত বরণ। পঞ্চগড়ের বোদায় ট্যাপেন্ডাডল ট্যাবলেটসহ ২ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। রায়গঞ্জের বিভিন্ন গাছে গাছে দেখা যাচ্ছে আমের মুকুল মুক্তিযোদ্বা প্রজন্ম লীগ সভাপতিকে কুপিয়ে জখমকে কেন্দ্র করে পিরোজপুর শহরে উত্তেজনা রাবিতে চাঁদপুর পরিবারের নেতৃত্বে ইমন-রাহিম ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ইঞ্জিঃ পিলাব মল্লিক (গোল্ডেন) -এর সংবাদ  সম্মেলন    ঝালকাঠিতে ৮টি গাঁজাগাছ ও ১৫পিস ইয়াবাসহ আটক-২ ঝালকাঠির নবগ্রামের শতবর্ষী রেইন্ট্রি গাছ নিয়ে গুনাই বিবি নাটকের রূপ কথার গল্প চার শিশুর জন্ম দিল এক মা। শিশুরা সবাই সুস্থ আছেন। ভান্ডারিয়ায় ৯৬ হাজার স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণে শুভ উদ্বোধন

ফুলবাড়ীতে রঙ্গীন বাঁধা কপি চাষে সফল মিলন রানা

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৪:৪৩:৪৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • ১৭৩০ বার পড়া হয়েছে

ফুলবাড়ীতে রঙ্গীন বাঁধা কপি চাষে সফল মিলন রানা

 

 

 

মোঃ হারুন-উর-রশীদ, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) থেকে:
দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলা কৃষি সস্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে দিনাজপুর অঞ্চলে টেকসই কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় রুবি কিং নামে রঙ্গীন বাঁধাকপি প্রদর্শনী চাষ করে সফল হয়েছেন উপজেলার খয়েরবাড়ী কৃষক মিলন রানা।

এবার সারা দেশে বাণিজ্যিকভাবে শুরু হয়েছে রঙিন ফুলকপির আবাদ। দেখতে সুন্দর, খেতে সুস্বাদু এবং ক্রেতাদের চাহিদা বেশি থাকায় দাম বেশ ভালো। সবসময় কৃষকরা সাদা ফুলকপি আবাদ করে থাকেন। তবে এবার বাজারের দাম ভালো পাওয়ার আশায় কৃষি অফিসের পরামর্শে ও সহযোগিতায় কৃষকরা চাষ করছেন রঙিন ফুলকপি। গাছ দেখতে সাদা ফুলকপির মতো হলেও ফুল বিভিন্ন রঙের। এর মধ্যে হলুদ ও গাঢ় গোলাপি/বেগুনি রঙের ফুলকপি চাষ করছেন কৃষকরা।

কৃষক মিলন রানা জানান, উপজেলা কৃষি অফিস থেকে আমাকে রঙ্গীন বাঁধা কপি চাষের জন্য সার ও বীজের পাশাপাশি সবধরনের পরামর্শ দিয়েছিলো। আমি প্রথমবারের মতো আমার ২০ শতক জমিতে এই কপি চাষ করি। বর্তমানে বাজারে এই কপির চাহিদা রয়েছে। এক একটা কপি প্রায় এক কেজি ওজনের হয়েছে। ৫০ থেকে ৬০ টাকা কেজি দরে কপি বিক্রয় করেছি। বেশ লাভবান হয়েছি। আগামীতে আরো বেশি জমিতে এই কপি চাষ করবো।

১১ ফেব্রæয়ারী বোববার সকাল ১১টায় উপজেলার খয়েরবাড়ীতে রুবি কিং নামে রঙ্গীন বাঁধাকপি প্রদর্শনী চাষের সার্বিক বিষয়ে পরিদর্শন করেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোছাঃ রুম্মান আক্তার ও কৃষি সম্প্রসারন অফিসার মোঃ সাহানুর রহমান।

প্ররিদর্শনে এসে কৃষি কর্মকর্তা মোছাঃ রুম্মান আক্তার জানান, দিনাজপুর ফুলবাড়ী উপজেলা  একটি খাদ্য উৎবৃদ্ধি একটি উপজেলা এ উপজেলায় ধান, ভ্ট্টুা দানাদার ফসলের পাশাপাশি বর্তমানে উচ্চ মুল্যে নিরাপদ সবজি উৎপাদিত হচ্ছে। টেকসই কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় আমাদের এই কৃষককে একটি প্রদর্শনী দিয়েছিলাম। যা তিনি সফলতার সাথে প্রর্দশিত করেছে। এখানকার রঙ্গীন বাঁধা কপি এক একটি এক কেজি ওজনের হয়েছে যা বাজারে ৫০ থেকে ৬০ টাকা দরে বিক্রয় করেছে। এতে কৃষক বেশ লাভবান হচ্ছে। আমরা আশা করছি আগামীতে এই উপজেলায় এধরনের বাঁধা কপি চাষির সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে। আমরা কৃষি অফিস থেকে কৃষকের সবধরনের সহযোগীতা দিয়ে আসছি। ভবিষ্যতেও থাকবে।

পাইকারি সবজি ব্যবসায়ী সেলিম আহম্মেদ বলেন, বাজারে ক্রেতারা যেটাতে আকৃষ্ট হয়, সেটার দাম ভালো পাওয়া যায়। আমরা পাইকারি সাদা ফুলকপি ২৫-৩০ টাকা কেজি হিসেবে বিক্রি করি। তার তুলনায় রঙিন ফুলকপির দাম পাইকারি ৫০-৬০ টাকা কেজি, তবে খুরচা বাজারে এলাকা ভেদে এর দাম কমবেশি হয়।

 

 

 

 

 

আপলোডকারীর তথ্য

Banglar Alo News

hello
জনপ্রিয় সংবাদ

তালতলীর খালাকে হত্যার পর কানের রিং বিক্রি করে খুনিকে টাকা দেয় ভাগ্নে

ফুলবাড়ীতে রঙ্গীন বাঁধা কপি চাষে সফল মিলন রানা

আপডেট সময় ০৪:৪৩:৪৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

 

 

 

মোঃ হারুন-উর-রশীদ, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) থেকে:
দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলা কৃষি সস্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে দিনাজপুর অঞ্চলে টেকসই কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় রুবি কিং নামে রঙ্গীন বাঁধাকপি প্রদর্শনী চাষ করে সফল হয়েছেন উপজেলার খয়েরবাড়ী কৃষক মিলন রানা।

এবার সারা দেশে বাণিজ্যিকভাবে শুরু হয়েছে রঙিন ফুলকপির আবাদ। দেখতে সুন্দর, খেতে সুস্বাদু এবং ক্রেতাদের চাহিদা বেশি থাকায় দাম বেশ ভালো। সবসময় কৃষকরা সাদা ফুলকপি আবাদ করে থাকেন। তবে এবার বাজারের দাম ভালো পাওয়ার আশায় কৃষি অফিসের পরামর্শে ও সহযোগিতায় কৃষকরা চাষ করছেন রঙিন ফুলকপি। গাছ দেখতে সাদা ফুলকপির মতো হলেও ফুল বিভিন্ন রঙের। এর মধ্যে হলুদ ও গাঢ় গোলাপি/বেগুনি রঙের ফুলকপি চাষ করছেন কৃষকরা।

কৃষক মিলন রানা জানান, উপজেলা কৃষি অফিস থেকে আমাকে রঙ্গীন বাঁধা কপি চাষের জন্য সার ও বীজের পাশাপাশি সবধরনের পরামর্শ দিয়েছিলো। আমি প্রথমবারের মতো আমার ২০ শতক জমিতে এই কপি চাষ করি। বর্তমানে বাজারে এই কপির চাহিদা রয়েছে। এক একটা কপি প্রায় এক কেজি ওজনের হয়েছে। ৫০ থেকে ৬০ টাকা কেজি দরে কপি বিক্রয় করেছি। বেশ লাভবান হয়েছি। আগামীতে আরো বেশি জমিতে এই কপি চাষ করবো।

১১ ফেব্রæয়ারী বোববার সকাল ১১টায় উপজেলার খয়েরবাড়ীতে রুবি কিং নামে রঙ্গীন বাঁধাকপি প্রদর্শনী চাষের সার্বিক বিষয়ে পরিদর্শন করেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোছাঃ রুম্মান আক্তার ও কৃষি সম্প্রসারন অফিসার মোঃ সাহানুর রহমান।

প্ররিদর্শনে এসে কৃষি কর্মকর্তা মোছাঃ রুম্মান আক্তার জানান, দিনাজপুর ফুলবাড়ী উপজেলা  একটি খাদ্য উৎবৃদ্ধি একটি উপজেলা এ উপজেলায় ধান, ভ্ট্টুা দানাদার ফসলের পাশাপাশি বর্তমানে উচ্চ মুল্যে নিরাপদ সবজি উৎপাদিত হচ্ছে। টেকসই কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় আমাদের এই কৃষককে একটি প্রদর্শনী দিয়েছিলাম। যা তিনি সফলতার সাথে প্রর্দশিত করেছে। এখানকার রঙ্গীন বাঁধা কপি এক একটি এক কেজি ওজনের হয়েছে যা বাজারে ৫০ থেকে ৬০ টাকা দরে বিক্রয় করেছে। এতে কৃষক বেশ লাভবান হচ্ছে। আমরা আশা করছি আগামীতে এই উপজেলায় এধরনের বাঁধা কপি চাষির সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে। আমরা কৃষি অফিস থেকে কৃষকের সবধরনের সহযোগীতা দিয়ে আসছি। ভবিষ্যতেও থাকবে।

পাইকারি সবজি ব্যবসায়ী সেলিম আহম্মেদ বলেন, বাজারে ক্রেতারা যেটাতে আকৃষ্ট হয়, সেটার দাম ভালো পাওয়া যায়। আমরা পাইকারি সাদা ফুলকপি ২৫-৩০ টাকা কেজি হিসেবে বিক্রি করি। তার তুলনায় রঙিন ফুলকপির দাম পাইকারি ৫০-৬০ টাকা কেজি, তবে খুরচা বাজারে এলাকা ভেদে এর দাম কমবেশি হয়।