বাংলাদেশ ০১:৫৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জনপ্রিয় নেতা এহসাম হাওলাদার শাহজাদপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে অটোরিক্সা চালকের মৃত্যু পঞ্চগড়ে নিখোঁজের একদিন পর পকুরে মিললো কলেজ ছাত্রীর লাশ ভান্ডারিয়ায় ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্থ ৩ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিলেন সমাজ সেবক মিঠু মিয়া বিপুল পরিমান ইয়াবাসহ ০১ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। বুড়িচং ফজলুর রহমান মেমোরিয়াল কলেজ অব টেকনোলজির শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে মাদক সাপ্লাইয়ের অভিযোগ  পেকুয়ায় ইভটিজিংয়ের দায়ে ২ জনকে কারাদণ্ড পীরগঞ্জ মহিলা কলেজে মেহেদী উৎসব অনুষ্ঠিত। পীরগঞ্জে ডিজিটাল প্রযুক্তি ও জীবন জীবীকা বিষয়ক প্রশিক্ষণ চলছে পাঠক শূন্য রাজশাহীর পুঠিয়ার সাধারণ পাঠাগার হত্যা মামলার পলাতক অন্যতম আসামী নুরুলকে র‍্যাব কর্তৃক গ্রেফতার। রাজশাহীর পুঠিয়ায় যাবজ্জাীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেপ্তার কলাপাড়ায় জেলেদের জালে শিকার হলো জীবিত এক ডলফিন। দৈনিক আমার সংবাদ পত্রিকার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত রাজশাহী মহানগরীতে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেপ্তার

বর্ষাকালে রায়গঞ্জে বেড়েছে ছাতা কারিগরদের ব্যস্ততা

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৪:১১:১০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ জুলাই ২০২২
  • ১৬৯১ বার পড়া হয়েছে

বর্ষাকালে রায়গঞ্জে বেড়েছে ছাতা কারিগরদের ব্যস্ততা

 

মোঃ মোকাদ্দেস হোসাইন সোহান, রায়গঞ্জ, সিরাজগঞ্জঃ

এখন বর্ষাকাল। প্রায় প্রতিদিনই চলছে রোদ আর বৃস্টির খেলা। গতকালও দেশের বিভিন্ন যায়গায় থেমে থেমে হয়েছে বৃস্টি। ফলে সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জের বিভিন্ন উপজেলার হাট-বাজারে বেড়েছে ছাতা কারিগরদের ব্যস্ততা। কে কার আগে তার ছাতাটি মেরামত করে নিবেন শুরু হয় প্রতিযোগিতা।

 

 

উপজেলার নিমগাছী, চান্দাইকোনা, ধানগড়া ও পাঙ্গাসী বাজারে গিয়ে দেখা যায়, ছাতা মেরামতে ব্যস্ত সময়পার করছেন অনেকেই। এর মধ্যে উপজেলার পাঙ্গাসী বাজারের এক ছাতা কারিগর জানান, বর্তমানে প্রতিটি জিনিসের দাম বেড়ে গেছে। ফলে ছাতার কাপড়, হাতল, স্প্রিং সহ প্রভৃতির জিনিসপত্র কিনতে হচ্ছে বেশি দামে।

 

 

তিনি আরও জানান, আগের মতো এখন আর ৪/৫ দিন একটানা বৃস্টি হয় না। এই বৃস্টি হচ্ছে আবার কিছুক্ষণের মধ্যেই রোদ ভের হচ্ছে। ফলে আগের চেয়ে ছাতা মেরামতের কাজ অনেকটায় কমে গেছে। এছাড়াও সারা বছর প্রায় বসেই থাকতে হয়। তবে বর্তমান সময়টাতে কিছুটা হলেও ব্যস্ত থাকতে হয় ছাতা কারিগরদের।

 

 

উপজেলার এরান্দহ গ্রাম থেকে হাটপাঙ্গাসী বাজারে এসে ছিলেন, মোঃ রুবেল সরকার। তিনি বলেন, আমার ঘরে কয়েকটি ছাতা নস্ট হয়ে পড়ে আছে বেশ কয়েক বছর ধরে। দেখলাম গতকাল থেকে দেখছি আবহাওয়া বেশ খারাপ। মাঝে মধ্যে নামছে বৃস্টিও। তাছাড়া বৃস্টির সময় ছাতা ছাড়া কোনো বিকল্প নেই। তাই দুইটা ছাতা সারাতে এসেছি।

 

 

 

বিগত কয়েক বছর আগে ভ্রাম্যমাণ ছাতা কারিগররা গ্রামে গ্রামে ঘুরে ছাতা মেরামত করলেও ইদানিং দেখা মিলছে না এসব ভ্রাম্যমাণ ছাতা কারিগরদের। ফলে বাজারে এসে ছাতা মেরামত করে নিয়ে যাচ্ছি। এদিকে উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে ছাতার দোকানগুলোতে সাভাবিক ভাবে ভির লক্ষ করা গেছে। আবহাওয়া খারাপ থাকলে ও বৃস্টি হলে ছাতার চাহিদা বাড়বে বলে মনে করছেন উপজেলার অধিকাংশ ছাতা বিক্রেতারা।

 

আপলোডকারীর তথ্য

Banglar Alo News

hello
জনপ্রিয় সংবাদ

পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জনপ্রিয় নেতা এহসাম হাওলাদার

বর্ষাকালে রায়গঞ্জে বেড়েছে ছাতা কারিগরদের ব্যস্ততা

আপডেট সময় ০৪:১১:১০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ জুলাই ২০২২

 

মোঃ মোকাদ্দেস হোসাইন সোহান, রায়গঞ্জ, সিরাজগঞ্জঃ

এখন বর্ষাকাল। প্রায় প্রতিদিনই চলছে রোদ আর বৃস্টির খেলা। গতকালও দেশের বিভিন্ন যায়গায় থেমে থেমে হয়েছে বৃস্টি। ফলে সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জের বিভিন্ন উপজেলার হাট-বাজারে বেড়েছে ছাতা কারিগরদের ব্যস্ততা। কে কার আগে তার ছাতাটি মেরামত করে নিবেন শুরু হয় প্রতিযোগিতা।

 

 

উপজেলার নিমগাছী, চান্দাইকোনা, ধানগড়া ও পাঙ্গাসী বাজারে গিয়ে দেখা যায়, ছাতা মেরামতে ব্যস্ত সময়পার করছেন অনেকেই। এর মধ্যে উপজেলার পাঙ্গাসী বাজারের এক ছাতা কারিগর জানান, বর্তমানে প্রতিটি জিনিসের দাম বেড়ে গেছে। ফলে ছাতার কাপড়, হাতল, স্প্রিং সহ প্রভৃতির জিনিসপত্র কিনতে হচ্ছে বেশি দামে।

 

 

তিনি আরও জানান, আগের মতো এখন আর ৪/৫ দিন একটানা বৃস্টি হয় না। এই বৃস্টি হচ্ছে আবার কিছুক্ষণের মধ্যেই রোদ ভের হচ্ছে। ফলে আগের চেয়ে ছাতা মেরামতের কাজ অনেকটায় কমে গেছে। এছাড়াও সারা বছর প্রায় বসেই থাকতে হয়। তবে বর্তমান সময়টাতে কিছুটা হলেও ব্যস্ত থাকতে হয় ছাতা কারিগরদের।

 

 

উপজেলার এরান্দহ গ্রাম থেকে হাটপাঙ্গাসী বাজারে এসে ছিলেন, মোঃ রুবেল সরকার। তিনি বলেন, আমার ঘরে কয়েকটি ছাতা নস্ট হয়ে পড়ে আছে বেশ কয়েক বছর ধরে। দেখলাম গতকাল থেকে দেখছি আবহাওয়া বেশ খারাপ। মাঝে মধ্যে নামছে বৃস্টিও। তাছাড়া বৃস্টির সময় ছাতা ছাড়া কোনো বিকল্প নেই। তাই দুইটা ছাতা সারাতে এসেছি।

 

 

 

বিগত কয়েক বছর আগে ভ্রাম্যমাণ ছাতা কারিগররা গ্রামে গ্রামে ঘুরে ছাতা মেরামত করলেও ইদানিং দেখা মিলছে না এসব ভ্রাম্যমাণ ছাতা কারিগরদের। ফলে বাজারে এসে ছাতা মেরামত করে নিয়ে যাচ্ছি। এদিকে উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে ছাতার দোকানগুলোতে সাভাবিক ভাবে ভির লক্ষ করা গেছে। আবহাওয়া খারাপ থাকলে ও বৃস্টি হলে ছাতার চাহিদা বাড়বে বলে মনে করছেন উপজেলার অধিকাংশ ছাতা বিক্রেতারা।