বাংলাদেশ ১০:০২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
রাবিতে চাঁদপুর পরিবারের নেতৃত্বে ইমন-রাহিম ঝালকাঠিতে ৮টি গাঁজাগাছ ও ১৫পিস ইয়াবাসহ আটক-২ ঝালকাঠির নবগ্রামের শতবর্ষী রেইন্ট্রি গাছ নিয়ে গুনাই বিবি নাটকের রূপ কথার গল্প চার শিশুর জন্ম দিল এক মা। শিশুরা সবাই সুস্থ আছেন। ভান্ডারিয়ায় ৯৬ হাজার স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণে শুভ উদ্বোধন বিপুল পরিমাণে গাঁজাসহ ০২ জন মাদক কারবারী কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪: মাদক পরিবহণে ব্যবহৃত পিকআপ জব্দ। ওয়াশিংটনে পিঠা উৎসব ও বসন্ত বরণে রাবিয়ানদের মিলন মেলা অতিথি পাখির অভ্যায়রণ্য রানীশংকেলের রামরাই দিঘি তানোরে জিয়ারুল হত্যার ঘটনায় ১৫ জনের নামে মামলা তানোরে পূর্বশত্রুতার জের ধরে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় রাস্তা থেকে উদ্ধার হলো মরদেহ বরুন হত্যা মামলার পলাতক আসামীকে গ্রেফতার এলাকার উন্নয়ন আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে করব: মহিউদ্দিন মহারাজ এমপি। জগন্নাথপুরে কিশোরীকে নিয়ে পলায়ন, ১৮ দিন পর ফিরে প্রেমিক কারাগারে ভালুকায় বাজারের ইজারা নিয়ে মারামারির ঘটনায় আটক- ১ বানারীপাড়ায় বন্দর মডেল স্কুলে তিনদিন ব্যাপি বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ভোলার ১৪ গ্রামে ঈদুল ফিতর উদযাপন

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৫:৪৯:২১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২ মে ২০২২
  • ১৬৬৬ বার পড়া হয়েছে

সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ভোলার ১৪ গ্রামে ঈদুল ফিতর উদযাপন

 

 

 

ভোলা প্রতিনিধি॥

সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ভোলার ৫ উপজেলার ১৪ টি গ্রামের প্রায় ৩ হাজার পরিবার একদিন আগে ঈদুল ফিতর উদযাপন করছেন। সোমবার (২ মে) সকাল সাড়ে ৮ টায় বোরহানউদ্দিন উপজেলা টবগী গ্রামে খলিফা মজনু মিয়ার নিজ বাড়িতে ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়। শরিয়তপুরের নুরিয়া উপজেলা দরবারে আউলিয়ার সুরেশ^র দরবার পীরের মুরিদ ও ভোলা জেলার দায়িত্বে নিয়োজিত খলিফা মজনু মিয়া বলেন, সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ভোলা জেলার ৫ উপজেলার ১৪ টি গ্রামের প্রায় ৩ হাজার পরিবার ঈদুল ফিতর উদযাপন করছেন।

 

 

 

সকাল সাড়ে ৮ টায় বোরহানউদ্দিন উপজেলা টবগী গ্রামে আমার নিজ বাড়িতে ঈদুল ফিতরের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। আমি নিজেই ওই জামাতে ইমামতি করেছি। একই সঙ্গে গ্রামের চৌকিদার বাড়ির জামে মসজিদে সকাল ৯ টায় এবং পঞ্চায়েত বাড়ির জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৯ টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। মজনু মিয়া আরও বলেন, ভোলা সদর উপজেলার ইলিশা ও রতনপুর গ্রাম। বোরহানউদ্দিন উপজেলার টবগী ও মুলাইপত্তন গ্রাম।

 

 

 

তজুমদ্দিন উপজেলার শিবপুর, খাসেরহাট, চাঁদপুর ও চাঁচড়া গ্রাম। লালমোহন উপজেলার পৌর শহর, ফরাজগঞ্জ গ্রাম এবং চরফ্যাশন উপজেলার পৌর শহর, দুলারহাট, ঢালচর ও চর পাতিলা গ্রামের প্রায় ৩ হাজার পরিবার প্রতি বছর একদিন আগেই ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহা উদযাপন করেন। সুরেশ^র পীরের মুরিদ ছাড়াও চট্টগ্রামের সাতকানিয়া এবং ভান্ডারি শরিফ পীরের মুরিদ এসব পরিবারের সদস্যরা শতাধিক বছর ধরে সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে একদিন আগে রোজা, ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আযহা উদযাপন করে আসছেন। সুরেশ^র পীরের মুরিদ আসমত আলী বোরহানউদ্দিনের টবগী ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার হারুন অর রশিদ বলেন, আমাদের মতে পৃথিবীর যেকোনো স্থানে চাঁদ দেখা গেলেই রোজা এবং ঈদ পালন করা যায়। সে অনুযায়ী আমরা প্রতি বছর একদিন আগে রোজা, ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আযহা উদযাপন করে আসছি।

 

 

 

 

 

আপলোডকারীর তথ্য

Banglar Alo News

hello
জনপ্রিয় সংবাদ

রাবিতে চাঁদপুর পরিবারের নেতৃত্বে ইমন-রাহিম

সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ভোলার ১৪ গ্রামে ঈদুল ফিতর উদযাপন

আপডেট সময় ০৫:৪৯:২১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২ মে ২০২২

 

 

 

ভোলা প্রতিনিধি॥

সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ভোলার ৫ উপজেলার ১৪ টি গ্রামের প্রায় ৩ হাজার পরিবার একদিন আগে ঈদুল ফিতর উদযাপন করছেন। সোমবার (২ মে) সকাল সাড়ে ৮ টায় বোরহানউদ্দিন উপজেলা টবগী গ্রামে খলিফা মজনু মিয়ার নিজ বাড়িতে ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়। শরিয়তপুরের নুরিয়া উপজেলা দরবারে আউলিয়ার সুরেশ^র দরবার পীরের মুরিদ ও ভোলা জেলার দায়িত্বে নিয়োজিত খলিফা মজনু মিয়া বলেন, সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ভোলা জেলার ৫ উপজেলার ১৪ টি গ্রামের প্রায় ৩ হাজার পরিবার ঈদুল ফিতর উদযাপন করছেন।

 

 

 

সকাল সাড়ে ৮ টায় বোরহানউদ্দিন উপজেলা টবগী গ্রামে আমার নিজ বাড়িতে ঈদুল ফিতরের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। আমি নিজেই ওই জামাতে ইমামতি করেছি। একই সঙ্গে গ্রামের চৌকিদার বাড়ির জামে মসজিদে সকাল ৯ টায় এবং পঞ্চায়েত বাড়ির জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৯ টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। মজনু মিয়া আরও বলেন, ভোলা সদর উপজেলার ইলিশা ও রতনপুর গ্রাম। বোরহানউদ্দিন উপজেলার টবগী ও মুলাইপত্তন গ্রাম।

 

 

 

তজুমদ্দিন উপজেলার শিবপুর, খাসেরহাট, চাঁদপুর ও চাঁচড়া গ্রাম। লালমোহন উপজেলার পৌর শহর, ফরাজগঞ্জ গ্রাম এবং চরফ্যাশন উপজেলার পৌর শহর, দুলারহাট, ঢালচর ও চর পাতিলা গ্রামের প্রায় ৩ হাজার পরিবার প্রতি বছর একদিন আগেই ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহা উদযাপন করেন। সুরেশ^র পীরের মুরিদ ছাড়াও চট্টগ্রামের সাতকানিয়া এবং ভান্ডারি শরিফ পীরের মুরিদ এসব পরিবারের সদস্যরা শতাধিক বছর ধরে সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে একদিন আগে রোজা, ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আযহা উদযাপন করে আসছেন। সুরেশ^র পীরের মুরিদ আসমত আলী বোরহানউদ্দিনের টবগী ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার হারুন অর রশিদ বলেন, আমাদের মতে পৃথিবীর যেকোনো স্থানে চাঁদ দেখা গেলেই রোজা এবং ঈদ পালন করা যায়। সে অনুযায়ী আমরা প্রতি বছর একদিন আগে রোজা, ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আযহা উদযাপন করে আসছি।