বাংলাদেশ ০৮:১৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
নারায়ণগঞ্জ সাংবাদিক ফেরামের কার্যালয় উদ্বোধন ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত পটুয়াখালী পৌরসভার ১০ কোটি টাকা বিদ্যুৎ বিল বকেয়া, সারারাত জ্বলে কোম্পানির বিলবোর্ড। বরগুনা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সাংসদ গোলাম সরোয়ার টুকু’র শুভেচ্ছা বিনিময় নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা  ইউএস অ্যাগ্রিমেন্টে অ্যাপস প্রতারণায় রাজশাহীতে ১০ মামলা নারায়ণগঞ্জে শ্রমিকদের বেতন ভাতা ও ঘোষিত মজুরি বাস্তবায়নের জন্য জনসভা আরএমপি’র কমিশনারসহ ৬ পুলিশ সদস্য পেলেন বিপিএম-পিপিএম পদক রাজশাহীতে প্রতিবছর বাড়ছে পেঁয়াজ বীজের চাষ এসএসসি ’৯৪ ব্যাচের প্রয়াত বন্ধুদের স্মরণানুষ্ঠান হত্যা মামলার দীর্ঘ ২৩ বছর যাবত পলাতক আসামী নজরুল মাঝি গ্রেফতার।  আমতলীতে গরুসহ চোর গ্রেপ্তার অপরূপ সৌন্দর্যে ঘেরা রাঙ্গাবালী, হতে পারে পর্যটনের কেন্দ্রবিন্দু। বুড়িচংয়ে বিল্লাল হোসেন ঠিকাদার ডাবল হোল্ডা কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন রায়গঞ্জে এনডিপির উদ্যোগে মিনি ম্যারাথন অনুষ্ঠিত এক প্রার্থীর বিরুদ্ধে কালো টাকা ছড়ানোর তুলে এক নারী মেয়র প্রার্থীর প্রার্থীতা প্রত্যাহার

মায়ের চিকিৎসা করাতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলো ছেলে

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৬:৩০:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ এপ্রিল ২০২২
  • ১৬৮৫ বার পড়া হয়েছে

মায়ের চিকিৎসা করাতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলো ছেলে

মোঃ হাবিব ওসমান, ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
মায়ের চিকিৎসা করাতে গিয়ে লাশ হয়ে বাড়ি ফিরেছে মফিজ শেখ (৫৫) নামে এক ব্যক্তি। নিখোঁজ হওয়ার ৩ দিন পর শনিবার দুপুরে যশোরের একটি বেসরকারী হাসপাতালের আন্ডারগ্রাউন্ড ফ্লোরে তার লাশ মিলেছে। তাকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে নিহত’র স্বজনরা অভিযোগ করেছেন। মফিজ শেখ ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের মকবুল হোসেনের ছেলে। তথ্য নিয়ে জানা গেছে, গত ২৬ মার্চ মফিজ শেখ তার মা চান্দু বিবির অপারেশন করানোর জন্য যশোর শহরের রেল রোড এলাকার “যশোর পঙ্গু হাসপাতালে” অর্থপেডিক সার্জন ডাঃ এ এইচ এম এম আব্দুর রউফের তত্ববধানে ভর্তি করেন।
গত বৃহস্পতিবার ( ৩১ মার্চ) হাসপাতালের কাউন্টারে টাকা জমা দিতে এসে আর মায়ের কেবিনে ফিরে যাননি মফিজ। শনিবার দুপুরে পঙ্গু হাসপাতালের আন্ডারগ্রাউন্ড ফ্লোরে মফিজ শেখের মৃত দেহ খুজে পায় পুলিশ। নিহত’র স্ত্রী তরু বেগম জানান, তার স্বামীকে কুপিয়ে ও হাত পা ভেঙ্গে কে বা কারা হত্যা করেছে। তিনি এই হত্যার বিচার দাবী করেন। মফিজের ভাই খোকন অভিযোগ করেন, তার ভাইকে পরিকিল্পত ভাবে সন্ত্রাসীরা হত্যা করে লাশ আন্ডারগ্রাউন্ড ফ্লোরে লুকিয়ে রাখে।
তিনি ঘাতক চক্রকে খুজে বের করে আইনের আওতায় আনার দাবী জানান। বিষয়টি নিয়ে যশোর পঙ্গু হাসপাতালের রিসিপশন থেকে শারমিন নামে এক তরুনী জানান, পুলিশ তাদের হাসপাতালের সবাইকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে গেছে। তাই বক্তব্য দেওয়ার মতো কেও নেই। এ ব্যাপারে যশোর কোতয়ালী মডলে থানার ওসি তাজুল ইসলাম জানান, হত্যার মোটিভ ও ক্লু উদ্ধারের জন্য আমরা তদন্ত শুরু করেছি। পুলিশ ক্লিনিকটির ম্যানেজারসহ স্টাফদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে।
জনপ্রিয় সংবাদ

নারায়ণগঞ্জ সাংবাদিক ফেরামের কার্যালয় উদ্বোধন ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত

মায়ের চিকিৎসা করাতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলো ছেলে

আপডেট সময় ০৬:৩০:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ এপ্রিল ২০২২
মোঃ হাবিব ওসমান, ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
মায়ের চিকিৎসা করাতে গিয়ে লাশ হয়ে বাড়ি ফিরেছে মফিজ শেখ (৫৫) নামে এক ব্যক্তি। নিখোঁজ হওয়ার ৩ দিন পর শনিবার দুপুরে যশোরের একটি বেসরকারী হাসপাতালের আন্ডারগ্রাউন্ড ফ্লোরে তার লাশ মিলেছে। তাকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে নিহত’র স্বজনরা অভিযোগ করেছেন। মফিজ শেখ ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের মকবুল হোসেনের ছেলে। তথ্য নিয়ে জানা গেছে, গত ২৬ মার্চ মফিজ শেখ তার মা চান্দু বিবির অপারেশন করানোর জন্য যশোর শহরের রেল রোড এলাকার “যশোর পঙ্গু হাসপাতালে” অর্থপেডিক সার্জন ডাঃ এ এইচ এম এম আব্দুর রউফের তত্ববধানে ভর্তি করেন।
গত বৃহস্পতিবার ( ৩১ মার্চ) হাসপাতালের কাউন্টারে টাকা জমা দিতে এসে আর মায়ের কেবিনে ফিরে যাননি মফিজ। শনিবার দুপুরে পঙ্গু হাসপাতালের আন্ডারগ্রাউন্ড ফ্লোরে মফিজ শেখের মৃত দেহ খুজে পায় পুলিশ। নিহত’র স্ত্রী তরু বেগম জানান, তার স্বামীকে কুপিয়ে ও হাত পা ভেঙ্গে কে বা কারা হত্যা করেছে। তিনি এই হত্যার বিচার দাবী করেন। মফিজের ভাই খোকন অভিযোগ করেন, তার ভাইকে পরিকিল্পত ভাবে সন্ত্রাসীরা হত্যা করে লাশ আন্ডারগ্রাউন্ড ফ্লোরে লুকিয়ে রাখে।
তিনি ঘাতক চক্রকে খুজে বের করে আইনের আওতায় আনার দাবী জানান। বিষয়টি নিয়ে যশোর পঙ্গু হাসপাতালের রিসিপশন থেকে শারমিন নামে এক তরুনী জানান, পুলিশ তাদের হাসপাতালের সবাইকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে গেছে। তাই বক্তব্য দেওয়ার মতো কেও নেই। এ ব্যাপারে যশোর কোতয়ালী মডলে থানার ওসি তাজুল ইসলাম জানান, হত্যার মোটিভ ও ক্লু উদ্ধারের জন্য আমরা তদন্ত শুরু করেছি। পুলিশ ক্লিনিকটির ম্যানেজারসহ স্টাফদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে।