বাংলাদেশ ০২:৫৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন সন্ধ্যার মধ্যে উপাচার্য, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাসভবন ছাড়ার আল্টিমেটাম কুবি শিক্ষার্থীদের রাবিতে জড়ো হওয়া আন্দোলনকারীদের পুলিশ-বিজিবির ধাওয়া মেহেন্দিগঞ্জে অজ্ঞাতনামা নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার। মুন্সীগঞ্জে গায়েবানা জানাযা থেকে ঈমাম ও বিএনপি নেতাকে ধরে নিয়ে গেলো পুলিশ কোটা আন্দোলনের পক্ষে সংহতি জানিয়ে ফেনী ইউনিভার্সিটির বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বিবৃতি চলমান পরিস্থিতিতে রাবি ক্যাম্পাসে ছাত্র রাজনীতি আপাতত স্থগিত: উপাচার্য বিদেশের পাঠানো টাকা চাইতে গিয়ে বিপাকে প্রবাসী স্বামী রাজশাহীতে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পবিত্র আশুরা পালিত চট্রগ্রামের কোটা সংস্কার আন্দোলনে নিহত ওয়াসিমের জানাজায় মানুষের ঢল পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া পৌরসভার রাস্তায় সমবায় সমিতি ভবনের ট্যাংকির ময়লা: জনদুর্ভোগ মুন্সীগঞ্জে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের উপর হামলা, আহত ৫ হরিপুরে, প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড এর পক্ষ থেকে কর্মী মিটিং ও গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্ঠিত। গৌরীপুরে উদীচী কার্য়ালয়ে হামলা ও ভাংচুর স্ত্রীর যৌতুক মামলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কারাগারে

২০ লাখ টাকা নিয়ে গায়েব আত্মসেবা ফাউন্ডেশন নামে ভূয়া এনজিও

২০ লাখ টাকা নিয়ে গায়েব আত্মসেবা ফাউন্ডেশন নামে ভূয়া এনজিও

 

রুহুল আমিন, জেলা প্রতিনিধি মানিকগঞ্জ

মানিকগঞ্জের সিংগাইরে আত্মসেবা ফাউন্ডেশন নামে একটি হায় হায় ভূয়া কোম্পানি (এনজিও) ঋণ দেওয়ার কথা বলে গ্রাহকের ২০ লাখ টাকা নিয়ে গায়েব হয়েছে। এ খবরে ওই হায় হায় কোম্পানির কার্যালয়ে সমবেত হয়েছে প্রতারিত গ্রাহকরা।সোমবার বিকেলা সিংগাইর পৌরসভার আজিমপুর এলাকায় প্রতিষ্ঠানটির অফিসে গেলে তাতে তালা ঝুলতে দেখা যায়।

 

জানা যায়, ১৫/২০ দিন আগে ওই এলাকার আবুল হোসেনের দোতলা বাড়ি বাড়া নেন অজ্ঞত ৬/৭ জন যুবক।সেই বাড়িতে আত্মসেবা ফাউন্ডেশনের সাইনবোর্ড টানিয়ে ঋণদানের নামে গ্রাহকের কাছ থেকে সঞ্চয় সংগ্রহ  শুরু করেণ। এনজিওটি গ্রাহকের কাছ থেকে ১০ শতাংশ হারে অগ্রীম সঞ্চয় সংগ্রহ করে উপজেলা থেকে প্রায় ২০ লাখ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। ভুক্তভুগী ইউসুফ খান বলেন,ওই এনজিওর ম্যানেজার ফয়সাল আহমেদ আমাকে ১০ লাখ টাকা ঋণ দেবে বলে ১ লক্ষ টাকা সঞ্চয় দাবী করেণ।আমি ৮০ হাজার ৫০০ টাকা দেই।

 

আগামী বুধবার আমাকে ঋণ দেওয়ার কথা। ম্যানেজারের মোবাইল বন্ধ পেয়ে অফিসে আসি, এসে দেখি তালা ঝুলানো। অপর এক ভুক্তভুগী নুরজাহান বেগম বলেন, আমাকে ৫ লাখ টাকা ঋণ দেওয়ার কথা। অগ্রীম ৫০ হাজার টাকা সঞ্চয় দিতে হবে। আমি অনেক কষ্টে গরু-ছাগল বিক্রি করে ৫০ হাজার টাকা দেই।

 

এক সাপ্তহ পর ঋণ দেওয়ার কথা ছিলো। বাড়ির মালিক আবুল হোসেনের স্ত্রী বলেন, অন্য জেলার ৬/৭ জন ব্যক্তি মাসে ১০ হাজার টাকা ভাড়ার কথা বলে আমাদের একটি ফ্ল্যাট ভাড়া নেন। আগামী মাসের ৫ তারিখে তাদের পরিচয়পত্র ও এনজিওর কাগজপত্র দেওয়ার কথা ছিলো। আজ তারা পালিয়ে গেছে।সিংগাইর থানার ওসি সফিকুল ইসলাম মোল্যা বলেন, এ বিষয়ে এখনো কোন অভিযোগ পাইনি।

 

অভিযোগ পেলে প্রয়োজনী ব্যাবস্তা নেয়া হবে। সিংগাইর উপজেলার সমাজসেবা কর্মকর্তা মো,ইমানুর রহমান বলেন, আত্মসেবা ফাউন্ডেশন নামে আমাদের তালিকাভুক্ত কোন এনজিও বা ঋণদানকারী সংস্থা নেই। এ ঘটনায় গ্রাহকরা অভিযোগ করলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

জনপ্রিয় সংবাদ

মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন

২০ লাখ টাকা নিয়ে গায়েব আত্মসেবা ফাউন্ডেশন নামে ভূয়া এনজিও

আপডেট সময় ০৯:২৪:০৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ মার্চ ২০২২

 

রুহুল আমিন, জেলা প্রতিনিধি মানিকগঞ্জ

মানিকগঞ্জের সিংগাইরে আত্মসেবা ফাউন্ডেশন নামে একটি হায় হায় ভূয়া কোম্পানি (এনজিও) ঋণ দেওয়ার কথা বলে গ্রাহকের ২০ লাখ টাকা নিয়ে গায়েব হয়েছে। এ খবরে ওই হায় হায় কোম্পানির কার্যালয়ে সমবেত হয়েছে প্রতারিত গ্রাহকরা।সোমবার বিকেলা সিংগাইর পৌরসভার আজিমপুর এলাকায় প্রতিষ্ঠানটির অফিসে গেলে তাতে তালা ঝুলতে দেখা যায়।

 

জানা যায়, ১৫/২০ দিন আগে ওই এলাকার আবুল হোসেনের দোতলা বাড়ি বাড়া নেন অজ্ঞত ৬/৭ জন যুবক।সেই বাড়িতে আত্মসেবা ফাউন্ডেশনের সাইনবোর্ড টানিয়ে ঋণদানের নামে গ্রাহকের কাছ থেকে সঞ্চয় সংগ্রহ  শুরু করেণ। এনজিওটি গ্রাহকের কাছ থেকে ১০ শতাংশ হারে অগ্রীম সঞ্চয় সংগ্রহ করে উপজেলা থেকে প্রায় ২০ লাখ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। ভুক্তভুগী ইউসুফ খান বলেন,ওই এনজিওর ম্যানেজার ফয়সাল আহমেদ আমাকে ১০ লাখ টাকা ঋণ দেবে বলে ১ লক্ষ টাকা সঞ্চয় দাবী করেণ।আমি ৮০ হাজার ৫০০ টাকা দেই।

 

আগামী বুধবার আমাকে ঋণ দেওয়ার কথা। ম্যানেজারের মোবাইল বন্ধ পেয়ে অফিসে আসি, এসে দেখি তালা ঝুলানো। অপর এক ভুক্তভুগী নুরজাহান বেগম বলেন, আমাকে ৫ লাখ টাকা ঋণ দেওয়ার কথা। অগ্রীম ৫০ হাজার টাকা সঞ্চয় দিতে হবে। আমি অনেক কষ্টে গরু-ছাগল বিক্রি করে ৫০ হাজার টাকা দেই।

 

এক সাপ্তহ পর ঋণ দেওয়ার কথা ছিলো। বাড়ির মালিক আবুল হোসেনের স্ত্রী বলেন, অন্য জেলার ৬/৭ জন ব্যক্তি মাসে ১০ হাজার টাকা ভাড়ার কথা বলে আমাদের একটি ফ্ল্যাট ভাড়া নেন। আগামী মাসের ৫ তারিখে তাদের পরিচয়পত্র ও এনজিওর কাগজপত্র দেওয়ার কথা ছিলো। আজ তারা পালিয়ে গেছে।সিংগাইর থানার ওসি সফিকুল ইসলাম মোল্যা বলেন, এ বিষয়ে এখনো কোন অভিযোগ পাইনি।

 

অভিযোগ পেলে প্রয়োজনী ব্যাবস্তা নেয়া হবে। সিংগাইর উপজেলার সমাজসেবা কর্মকর্তা মো,ইমানুর রহমান বলেন, আত্মসেবা ফাউন্ডেশন নামে আমাদের তালিকাভুক্ত কোন এনজিও বা ঋণদানকারী সংস্থা নেই। এ ঘটনায় গ্রাহকরা অভিযোগ করলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যাবস্থা নেয়া হবে।