বাংলাদেশ ০১:৫১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন সন্ধ্যার মধ্যে উপাচার্য, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাসভবন ছাড়ার আল্টিমেটাম কুবি শিক্ষার্থীদের রাবিতে জড়ো হওয়া আন্দোলনকারীদের পুলিশ-বিজিবির ধাওয়া মেহেন্দিগঞ্জে অজ্ঞাতনামা নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার। মুন্সীগঞ্জে গায়েবানা জানাযা থেকে ঈমাম ও বিএনপি নেতাকে ধরে নিয়ে গেলো পুলিশ কোটা আন্দোলনের পক্ষে সংহতি জানিয়ে ফেনী ইউনিভার্সিটির বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বিবৃতি চলমান পরিস্থিতিতে রাবি ক্যাম্পাসে ছাত্র রাজনীতি আপাতত স্থগিত: উপাচার্য বিদেশের পাঠানো টাকা চাইতে গিয়ে বিপাকে প্রবাসী স্বামী রাজশাহীতে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পবিত্র আশুরা পালিত চট্রগ্রামের কোটা সংস্কার আন্দোলনে নিহত ওয়াসিমের জানাজায় মানুষের ঢল পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া পৌরসভার রাস্তায় সমবায় সমিতি ভবনের ট্যাংকির ময়লা: জনদুর্ভোগ মুন্সীগঞ্জে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের উপর হামলা, আহত ৫ হরিপুরে, প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড এর পক্ষ থেকে কর্মী মিটিং ও গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্ঠিত। গৌরীপুরে উদীচী কার্য়ালয়ে হামলা ও ভাংচুর স্ত্রীর যৌতুক মামলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কারাগারে

শক্ত অবস্থানে আ লীগ, অস্তিত্ব লড়াইয়ে বিএনপি, মৌন জাপা, জামায়াতের সম্ভাবনা

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৩:৩০:৩২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১ অক্টোবর ২০২৩
  • ১৫৯৮ বার পড়া হয়েছে

আ লীগে প্রকাশ্যে বিভক্তি, বিএনপিতে অভ্যন্তরীণ কোন্দোল

দিনাজপুর-৪ (খানসামা-চিরিরবন্দর)
আওয়ামী লীগ-১২
বিএনপি-৩
জাতীয় পার্টি-২
জামায়াত-১

মো. আজিজার রহমান, খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: বৃহৎ জেলা দিনাজপুর জেলায় ছয়টি আসনের মধ্যে অন্যতম দিনাজপুর-৪। খানসামা ও চিরিরবন্দর উপজেলা নিয়ে এ আসন গঠিত। আসছে আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। সময়ের সাথে সাথে বাড়ছে নির্বাচনী আমেজ। এই আসনে নির্বাচনকে সামনে রেখে ইতোমধ্যেই মাঠ গরম করে বেড়াচ্ছেন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা ছুটছেন, পাড়া মহল্লায় ও হাট-বাজারে। মনোনয়ন প্রত্যাশীদের চলছে পোস্টার, ব্যানার, বিলবোর্ড ও ফেস্টুনের প্রতিযোগিতা। এ প্রতিযোগিতা এখানেই শেষ নয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সরগম। প্রধান দু’টি দলের মধ্যে আওয়ামী লীগ ইতিমধ্যেই মাঠে নেমেছে এবং বিএনপি অপেক্ষায় আছে কেন্দ্রীয় নির্দেশনার। পিছিয়ে নেই জাতীয় পার্টি ও জামায়াত। দলের সম্ভাব্য প্রার্থীরা নিজ নিজ এলাকায় ঘন ঘন যাতায়াত শুরু করেছেন। প্রার্থীরা সাধারণ মানুষের কাছে ‘মাটির মানুষে’ পরিণত হয়েছেন। সকলেরই লক্ষ্য দল মনোনয়ন দিলে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। তবে অধিকাংশই দলের মনোনয়ন না পেলে নির্বাচন করবেন না। মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা, যদিও সময় আছে এখনো।

ভোটাররা বলছেন, উন্নয়ন এখানে বড় বিষয় নয়, জয় নির্ভর করবে প্রার্থীর উপর। স্থানীয়দের অভিযোগ, বর্তমান এমপি এলাকায় কম আসেন, জনগণের সঙ্গে সম্পৃক্ততাও কম, এ নিয়ে তৃণমূল আওয়ামী লীগের ক্ষোভ। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের একাধিক মনোনয়ন প্রত্যাশীর কোন্দলের ভিড়ে সুযোগ পাওয়ার চেষ্টা করছেন দলটির নতুন নতুন মুখ। সময় বাড়লে আরো মনোনয়ন প্রত্যাশী সংখ্যা বাড়ার আশঙ্কা করছেন অনেকে। বিএনপি’র তিন প্রার্থী থাকলেও নেই নতুনত্ব। হাটি হাটি পা পা করে জাতীয় পার্টির দুই প্রার্থী। প্রকাশ্যে না থাকলেও, জামায়াত এই আসন থেকে মনোনয়ন চাইতে পারেন বলে জোর গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।

দিনাজপুর-৪ আসনে খানসামা উপজেলার ৬টি ও চিরিরবন্দর উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। বর্তমানে এই আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী এমপি। তিনি এই আসন থেকে ২০০৮, ২০১৪ এবং সর্বশেষ ২০১৮ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে টানা তৃতীয় বারের মত সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। আগামী নির্বাচনে তিনি ছাড়াও মনোনয়ন পাওয়ার দৌড়ে রয়েছেন এই আসন থেকে নির্বাচিত কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো. মিজানুর রহমান মানু। একই সঙ্গে সমান তালে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন মনোনয়ন প্রত্যাশী জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক, সাবেক জেলা যুবলীগ ও আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এবং জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড.. হাজী মো. সাইফুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. সামসুর রহমান পারভেজ, এছাড়া একই দল থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে কাজ করছেন ঢাকাস্থ ল্যাব এইড হাসপাতালের অর্থোপেডিক বিভাগের চিফ কনসালট্যান্ট, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য, স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক ডা. এম আমজাদ হোসেন। এছাড়াও রয়েছেন চিরিরবন্দর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য তারিকুল ইসলাম তারিক, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানব সম্পদ সম্পাদক শেখ রফিকুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক ব্যাক্তিগত নিরাপত্তা সহকারী, চিরিরবন্দর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জ্যোতিষ চন্দ্র রায়, কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সাবেক সদস্য ও জেলা কৃষক লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আহসানুল হাবিব, খানসামা উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক প্রমথ চন্দ্র রায়, চিরিরবন্দর উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার।

অপর দিকে এই আসন থেকে বিএনপি’র মনোনয়ন পাওয়ার দৌড়ে রয়েছেন ২০০১ সালে নির্বাচিত সংসদ সদস্য ও বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি সদস্য আলহাজ্ব আখতারুজ্জামান মিয়া, জেলা বিএনপি সহ-সভাপতি হাফিজুর রহমান এবং সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল হালিম। জাতীয় পার্টির মনোনয়ন পাওয়ার দৌড়ে রয়েছেন খানসামা উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মোনাজাত চৌধুরী মিলন ও জেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আব্দুল আলীম হাওলাদার। জামায়াত থেকে মনোনয়ন পেতে পারেন চিরিরবন্দর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা জামায়াতের সাবেক আমির আফতাব উদ্দিন মোল্লা।

জনপ্রিয় সংবাদ

মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন

শক্ত অবস্থানে আ লীগ, অস্তিত্ব লড়াইয়ে বিএনপি, মৌন জাপা, জামায়াতের সম্ভাবনা

আপডেট সময় ০৩:৩০:৩২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১ অক্টোবর ২০২৩

আ লীগে প্রকাশ্যে বিভক্তি, বিএনপিতে অভ্যন্তরীণ কোন্দোল

দিনাজপুর-৪ (খানসামা-চিরিরবন্দর)
আওয়ামী লীগ-১২
বিএনপি-৩
জাতীয় পার্টি-২
জামায়াত-১

মো. আজিজার রহমান, খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: বৃহৎ জেলা দিনাজপুর জেলায় ছয়টি আসনের মধ্যে অন্যতম দিনাজপুর-৪। খানসামা ও চিরিরবন্দর উপজেলা নিয়ে এ আসন গঠিত। আসছে আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। সময়ের সাথে সাথে বাড়ছে নির্বাচনী আমেজ। এই আসনে নির্বাচনকে সামনে রেখে ইতোমধ্যেই মাঠ গরম করে বেড়াচ্ছেন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা ছুটছেন, পাড়া মহল্লায় ও হাট-বাজারে। মনোনয়ন প্রত্যাশীদের চলছে পোস্টার, ব্যানার, বিলবোর্ড ও ফেস্টুনের প্রতিযোগিতা। এ প্রতিযোগিতা এখানেই শেষ নয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সরগম। প্রধান দু’টি দলের মধ্যে আওয়ামী লীগ ইতিমধ্যেই মাঠে নেমেছে এবং বিএনপি অপেক্ষায় আছে কেন্দ্রীয় নির্দেশনার। পিছিয়ে নেই জাতীয় পার্টি ও জামায়াত। দলের সম্ভাব্য প্রার্থীরা নিজ নিজ এলাকায় ঘন ঘন যাতায়াত শুরু করেছেন। প্রার্থীরা সাধারণ মানুষের কাছে ‘মাটির মানুষে’ পরিণত হয়েছেন। সকলেরই লক্ষ্য দল মনোনয়ন দিলে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। তবে অধিকাংশই দলের মনোনয়ন না পেলে নির্বাচন করবেন না। মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা, যদিও সময় আছে এখনো।

ভোটাররা বলছেন, উন্নয়ন এখানে বড় বিষয় নয়, জয় নির্ভর করবে প্রার্থীর উপর। স্থানীয়দের অভিযোগ, বর্তমান এমপি এলাকায় কম আসেন, জনগণের সঙ্গে সম্পৃক্ততাও কম, এ নিয়ে তৃণমূল আওয়ামী লীগের ক্ষোভ। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের একাধিক মনোনয়ন প্রত্যাশীর কোন্দলের ভিড়ে সুযোগ পাওয়ার চেষ্টা করছেন দলটির নতুন নতুন মুখ। সময় বাড়লে আরো মনোনয়ন প্রত্যাশী সংখ্যা বাড়ার আশঙ্কা করছেন অনেকে। বিএনপি’র তিন প্রার্থী থাকলেও নেই নতুনত্ব। হাটি হাটি পা পা করে জাতীয় পার্টির দুই প্রার্থী। প্রকাশ্যে না থাকলেও, জামায়াত এই আসন থেকে মনোনয়ন চাইতে পারেন বলে জোর গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।

দিনাজপুর-৪ আসনে খানসামা উপজেলার ৬টি ও চিরিরবন্দর উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। বর্তমানে এই আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী এমপি। তিনি এই আসন থেকে ২০০৮, ২০১৪ এবং সর্বশেষ ২০১৮ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে টানা তৃতীয় বারের মত সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। আগামী নির্বাচনে তিনি ছাড়াও মনোনয়ন পাওয়ার দৌড়ে রয়েছেন এই আসন থেকে নির্বাচিত কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো. মিজানুর রহমান মানু। একই সঙ্গে সমান তালে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন মনোনয়ন প্রত্যাশী জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক, সাবেক জেলা যুবলীগ ও আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এবং জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড.. হাজী মো. সাইফুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. সামসুর রহমান পারভেজ, এছাড়া একই দল থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে কাজ করছেন ঢাকাস্থ ল্যাব এইড হাসপাতালের অর্থোপেডিক বিভাগের চিফ কনসালট্যান্ট, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য, স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক ডা. এম আমজাদ হোসেন। এছাড়াও রয়েছেন চিরিরবন্দর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য তারিকুল ইসলাম তারিক, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানব সম্পদ সম্পাদক শেখ রফিকুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক ব্যাক্তিগত নিরাপত্তা সহকারী, চিরিরবন্দর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জ্যোতিষ চন্দ্র রায়, কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সাবেক সদস্য ও জেলা কৃষক লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আহসানুল হাবিব, খানসামা উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক প্রমথ চন্দ্র রায়, চিরিরবন্দর উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার।

অপর দিকে এই আসন থেকে বিএনপি’র মনোনয়ন পাওয়ার দৌড়ে রয়েছেন ২০০১ সালে নির্বাচিত সংসদ সদস্য ও বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি সদস্য আলহাজ্ব আখতারুজ্জামান মিয়া, জেলা বিএনপি সহ-সভাপতি হাফিজুর রহমান এবং সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল হালিম। জাতীয় পার্টির মনোনয়ন পাওয়ার দৌড়ে রয়েছেন খানসামা উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মোনাজাত চৌধুরী মিলন ও জেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আব্দুল আলীম হাওলাদার। জামায়াত থেকে মনোনয়ন পেতে পারেন চিরিরবন্দর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা জামায়াতের সাবেক আমির আফতাব উদ্দিন মোল্লা।