বাংলাদেশ ১১:২০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন সন্ধ্যার মধ্যে উপাচার্য, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাসভবন ছাড়ার আল্টিমেটাম কুবি শিক্ষার্থীদের রাবিতে জড়ো হওয়া আন্দোলনকারীদের পুলিশ-বিজিবির ধাওয়া মেহেন্দিগঞ্জে অজ্ঞাতনামা নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার। মুন্সীগঞ্জে গায়েবানা জানাযা থেকে ঈমাম ও বিএনপি নেতাকে ধরে নিয়ে গেলো পুলিশ কোটা আন্দোলনের পক্ষে সংহতি জানিয়ে ফেনী ইউনিভার্সিটির বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বিবৃতি চলমান পরিস্থিতিতে রাবি ক্যাম্পাসে ছাত্র রাজনীতি আপাতত স্থগিত: উপাচার্য বিদেশের পাঠানো টাকা চাইতে গিয়ে বিপাকে প্রবাসী স্বামী রাজশাহীতে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পবিত্র আশুরা পালিত চট্রগ্রামের কোটা সংস্কার আন্দোলনে নিহত ওয়াসিমের জানাজায় মানুষের ঢল পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া পৌরসভার রাস্তায় সমবায় সমিতি ভবনের ট্যাংকির ময়লা: জনদুর্ভোগ মুন্সীগঞ্জে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের উপর হামলা, আহত ৫ হরিপুরে, প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড এর পক্ষ থেকে কর্মী মিটিং ও গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্ঠিত। গৌরীপুরে উদীচী কার্য়ালয়ে হামলা ও ভাংচুর স্ত্রীর যৌতুক মামলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কারাগারে

আমতলীতে সভাপতির স্বাক্ষর জাল করে শিক্ষক নিয়োগ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা।। 

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৮:৪৪:৪৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৪ মার্চ ২০২২
  • ১৭১৭ বার পড়া হয়েছে

আমতলীতে সভাপতির স্বাক্ষর জাল করে শিক্ষক নিয়োগ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা।। 

মোঃরনি মল্লিক বরগুনা জেলা প্রতিনিধিঃ০১৭৪২০৯৪২৭৭
বরগুনার  আমতলীতে সভাপতির সাক্ষর জাল করে শিক্ষক নিয়োগ দেয়ার অভিযোগে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষকসহ নিয়োগকৃত কম্পিউটার শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে মধ্যচন্দ্রা নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের তৎকালীন ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোঃ নজরুল ইসলাম মাতুব্বর।
মামলার আসামীরা যথাক্রমে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ সুলতান বিশ্বাস (৫০) এবং নিয়োগকৃত শিক্ষক মোঃ শাহিন মিয়া (৩৮)। মামলাটি অধিকতর তদন্তের জন্য পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)’র প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন আমতলী সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত (৩) এর বিচারক মোঃ নাহিদ হোসেন।
মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক সাক্ষর জাল-জালিয়াতির মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগ দেয়াই শুধু নয়, তার বিরুদ্ধে বিগত সময়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র ও রেজিস্ট্রেশন কার্ড জালিয়াতি করে পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়া সহ রয়েছে একই সময়ে দুটি প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করে বেতনভাতা উত্তোলনের অভিযোগও।
সার্বিক অভিযোগ ও মামলার বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক সুলতান বিশ্বাস জানান, তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের কোন সত্যতা নেই। সরকারি বিধি মেনেই তিনি শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছেন। অপরদিকে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষক শাহীন মিয়ার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে এ বিষয়ে কথা বলতে অস্বীকৃতি জানিয়ে তিনি যাবতীয় যোগাযোগ প্রধান শিক্ষকের সাথে করার জন্য বলেন।
মামলায় বাদীপক্ষের আইনজীবী মোঃ মাহবুব আলম বলেন, প্রধান শিক্ষকের সাক্ষর জালিয়াতির ঘটনাটি সত্য মর্মে বিজ্ঞ বিচারককে বোঝাতে সমর্থ হওয়ায় তিনি মামলাটি আমলে নিয়ে পিবিআইকে নির্দেশ দিয়েছেন তদন্তের জন্য। আশা করছি পিবিআই টিমের তদন্তেও ঘটনাটির সত্যতা প্রমাণিত হবে এবং সংশ্লিষ্ট শিক্ষক দোষী হিসেবে সাব্যস্ত হবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন

আমতলীতে সভাপতির স্বাক্ষর জাল করে শিক্ষক নিয়োগ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা।। 

আপডেট সময় ০৮:৪৪:৪৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৪ মার্চ ২০২২
মোঃরনি মল্লিক বরগুনা জেলা প্রতিনিধিঃ০১৭৪২০৯৪২৭৭
বরগুনার  আমতলীতে সভাপতির সাক্ষর জাল করে শিক্ষক নিয়োগ দেয়ার অভিযোগে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষকসহ নিয়োগকৃত কম্পিউটার শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে মধ্যচন্দ্রা নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের তৎকালীন ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোঃ নজরুল ইসলাম মাতুব্বর।
মামলার আসামীরা যথাক্রমে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ সুলতান বিশ্বাস (৫০) এবং নিয়োগকৃত শিক্ষক মোঃ শাহিন মিয়া (৩৮)। মামলাটি অধিকতর তদন্তের জন্য পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)’র প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন আমতলী সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত (৩) এর বিচারক মোঃ নাহিদ হোসেন।
মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক সাক্ষর জাল-জালিয়াতির মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগ দেয়াই শুধু নয়, তার বিরুদ্ধে বিগত সময়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র ও রেজিস্ট্রেশন কার্ড জালিয়াতি করে পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়া সহ রয়েছে একই সময়ে দুটি প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করে বেতনভাতা উত্তোলনের অভিযোগও।
সার্বিক অভিযোগ ও মামলার বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক সুলতান বিশ্বাস জানান, তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের কোন সত্যতা নেই। সরকারি বিধি মেনেই তিনি শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছেন। অপরদিকে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষক শাহীন মিয়ার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে এ বিষয়ে কথা বলতে অস্বীকৃতি জানিয়ে তিনি যাবতীয় যোগাযোগ প্রধান শিক্ষকের সাথে করার জন্য বলেন।
মামলায় বাদীপক্ষের আইনজীবী মোঃ মাহবুব আলম বলেন, প্রধান শিক্ষকের সাক্ষর জালিয়াতির ঘটনাটি সত্য মর্মে বিজ্ঞ বিচারককে বোঝাতে সমর্থ হওয়ায় তিনি মামলাটি আমলে নিয়ে পিবিআইকে নির্দেশ দিয়েছেন তদন্তের জন্য। আশা করছি পিবিআই টিমের তদন্তেও ঘটনাটির সত্যতা প্রমাণিত হবে এবং সংশ্লিষ্ট শিক্ষক দোষী হিসেবে সাব্যস্ত হবেন।