বাংলাদেশ ০৯:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন সন্ধ্যার মধ্যে উপাচার্য, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাসভবন ছাড়ার আল্টিমেটাম কুবি শিক্ষার্থীদের রাবিতে জড়ো হওয়া আন্দোলনকারীদের পুলিশ-বিজিবির ধাওয়া মেহেন্দিগঞ্জে অজ্ঞাতনামা নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার। মুন্সীগঞ্জে গায়েবানা জানাযা থেকে ঈমাম ও বিএনপি নেতাকে ধরে নিয়ে গেলো পুলিশ কোটা আন্দোলনের পক্ষে সংহতি জানিয়ে ফেনী ইউনিভার্সিটির বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বিবৃতি চলমান পরিস্থিতিতে রাবি ক্যাম্পাসে ছাত্র রাজনীতি আপাতত স্থগিত: উপাচার্য বিদেশের পাঠানো টাকা চাইতে গিয়ে বিপাকে প্রবাসী স্বামী রাজশাহীতে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পবিত্র আশুরা পালিত চট্রগ্রামের কোটা সংস্কার আন্দোলনে নিহত ওয়াসিমের জানাজায় মানুষের ঢল পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া পৌরসভার রাস্তায় সমবায় সমিতি ভবনের ট্যাংকির ময়লা: জনদুর্ভোগ মুন্সীগঞ্জে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের উপর হামলা, আহত ৫ হরিপুরে, প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড এর পক্ষ থেকে কর্মী মিটিং ও গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্ঠিত। গৌরীপুরে উদীচী কার্য়ালয়ে হামলা ও ভাংচুর স্ত্রীর যৌতুক মামলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কারাগারে

নওগাঁয় চুরির অপবাদ দিয়ে যুবক কে অমানবিক নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগ

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৫:২১:৩২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • ১৬০৩ বার পড়া হয়েছে
মোঃ সারোয়ার হোসেন অপু নওগাঁ প্রতিনিধি,
নওগাঁয় চুরির মিথ্যা অপবাদ দিয়ে লিটন মোল্লা ওরফে ভুট্টু (৩৬) কে দিন-দুপুরে আটকে রেখে অমানবিক নির্যাতন (মারপিট) করায় দীর্ঘ ২৫ দিন হাসপাতাল বেডে যন্ত্রনায় ছটফট করে অবশেষে মৃত্যু হয়েছে লিটন মোল্লা ওরফে ভুট্টুর।
নিহত লিটন মোল্লা ওরফে ভুট্টু নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার সরস্বতীপুর বাজার এর পার্শ্ববর্তী ভীমপুর ভেবরী পাড়া গ্রামের মৃত মিরাজ মোল্লার ছেলে।
নিহতের পরিবার ও স্থানিয়রা জানান, সরস্বতীপুর বাজার এর পার্শ্ববর্তী ভীমপুর ভেবরী পাড়া গ্রামের মৃত মিরাজ মোল্লার ছেলে লিটন মোল্লা ওরফে ভুট্টু ছোট থাকতেই তার মা ও বাবার মৃত্যু হয়। দরিদ্র পরিবারে বেড়ে ওঠা লিটন মোল্লা ওরফে ভুট্টু বাসের শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন। এরিমাঝে সরস্বতীপুর বাজার দীঘির পাড়ে অবৈধ্য ভাবে গড়ে তোলা (পুরাতন যানবাহন) ভাঙ্গার কারখানা মালিক একই গ্রামের মামুন লিটন মোল্লা ওরফে ভুট্টু কে তার কারখানাতে শ্রমিক হিসেবে কাজে নেয়। এক পর্যায়ে কারখানাতে কাজ করতে না চাওয়ায় কারখানা মালিক মামুন তার উপর ক্ষিপ্ত হয়। এরিমাঝে লিটন মোল্লা ওরফে ভুট্টু কারখানাতে কাজ করা বন্ধ করেন।
ঘটনার দিন গত ১ সেপ্টেম্বর বিকেল ৪ টারদিকে লিটন মোল্লা ওরফে ভুট্টু তার শ্রমের পাওনা টাকা নিতে ঐ কারখানাতে গেলে সে সময় কারকানা মালিক মামুন আলী সরদার এর নের্তৃত্বে সাইদুল দেওয়ান, দুলাল দেওয়ান ও রামিম দেওয়ান সহ কয়েকজন লিটন মোল্লা ভুট্টুকে প্রথমে ভাংরি কারখানার ভেতর আটক করে রেখে অমানবিক নির্যার্তন চালান। এক পর্যায়ে হত্যার উদ্দেশ্য সেখান সাইদুর দেওয়ান এর বাড়িতে নিয়ে আবারো অমানবিক নির্যাতন ( মারপিট) করাকালে বাজারের ব্যবসায়ী ওতার স্বজনরা ঘটনাটি জানতে পেরে সেখান থেকে গুরুতর রক্তাক্ত জখম অবস্থায় লিটন মোল্লা ভুট্টুকে উদ্ধার পূর্বক দ্রুত চিকিৎসার জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করালে অবস্থা গুরুতর হওয়ায় ঐ দিনই দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে বগুড়াতে রেফার্ড করেন। স্বজনরা ঐ রাতেই তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করান এবং সরস্বতীপুর বাজারের দোকানী, (বয়লার) ধান চাতাল মালিক ও গ্রামের লোকজন চাঁদা টাকা তুলে তার চিকিৎসা চালিয়ে আসছিলেন। এরি মাঝে অবস্থা সংকট জনক হওয়ায় চিকিৎসক সাথে থাকা স্বজনদের বলেন, এরোগীর অবস্থা খুবই ঝুকিপূর্ণ সময়ের অপেক্ষা এজন্য বাসায় নেওয়া ভালো বলে গত সোমবার সন্ধার দিকে ছাড়পত্র দিলে স্বজনরা তাকে নিজ বাড়িতে নিয়ে আসেন। বাড়িতে আনার মাত্র কয়েক ঘন্টা ব্যবধানে বুধবার পূর্বরাত ২টারদিকে দীর্ঘ ২৬ দিন মৃত্যু যন্ত্রনায় ছটপট বা মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে লিটন মোল্লা ভুট্টুর মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুর খবর পেয়ে অভিযুক্তরা সবাই পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্ট অন্তে মৃতদেহ উদ্ধার পূর্বক ময়না তদন্ত শেষে বুধবার বিকেলে মৃতদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করলে ঐ দিন সন্ধায় দাফন সম্পূর্ণ করা হয় বলে জানিয়েছেন নিহতের স্বজন সহ স্থানিয়রা।
এ বিষয়ে মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোজাফফর হোসেন বলেন, ভুট্টুকে মারপিটের ঘটনার পর গত ৪ সেপ্টেম্বর তার চাচা মান্নান মোল্লা বাদী হয়ে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় একটি মামলা করেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন

নওগাঁয় চুরির অপবাদ দিয়ে যুবক কে অমানবিক নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগ

আপডেট সময় ০৫:২১:৩২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩
মোঃ সারোয়ার হোসেন অপু নওগাঁ প্রতিনিধি,
নওগাঁয় চুরির মিথ্যা অপবাদ দিয়ে লিটন মোল্লা ওরফে ভুট্টু (৩৬) কে দিন-দুপুরে আটকে রেখে অমানবিক নির্যাতন (মারপিট) করায় দীর্ঘ ২৫ দিন হাসপাতাল বেডে যন্ত্রনায় ছটফট করে অবশেষে মৃত্যু হয়েছে লিটন মোল্লা ওরফে ভুট্টুর।
নিহত লিটন মোল্লা ওরফে ভুট্টু নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার সরস্বতীপুর বাজার এর পার্শ্ববর্তী ভীমপুর ভেবরী পাড়া গ্রামের মৃত মিরাজ মোল্লার ছেলে।
নিহতের পরিবার ও স্থানিয়রা জানান, সরস্বতীপুর বাজার এর পার্শ্ববর্তী ভীমপুর ভেবরী পাড়া গ্রামের মৃত মিরাজ মোল্লার ছেলে লিটন মোল্লা ওরফে ভুট্টু ছোট থাকতেই তার মা ও বাবার মৃত্যু হয়। দরিদ্র পরিবারে বেড়ে ওঠা লিটন মোল্লা ওরফে ভুট্টু বাসের শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন। এরিমাঝে সরস্বতীপুর বাজার দীঘির পাড়ে অবৈধ্য ভাবে গড়ে তোলা (পুরাতন যানবাহন) ভাঙ্গার কারখানা মালিক একই গ্রামের মামুন লিটন মোল্লা ওরফে ভুট্টু কে তার কারখানাতে শ্রমিক হিসেবে কাজে নেয়। এক পর্যায়ে কারখানাতে কাজ করতে না চাওয়ায় কারখানা মালিক মামুন তার উপর ক্ষিপ্ত হয়। এরিমাঝে লিটন মোল্লা ওরফে ভুট্টু কারখানাতে কাজ করা বন্ধ করেন।
ঘটনার দিন গত ১ সেপ্টেম্বর বিকেল ৪ টারদিকে লিটন মোল্লা ওরফে ভুট্টু তার শ্রমের পাওনা টাকা নিতে ঐ কারখানাতে গেলে সে সময় কারকানা মালিক মামুন আলী সরদার এর নের্তৃত্বে সাইদুল দেওয়ান, দুলাল দেওয়ান ও রামিম দেওয়ান সহ কয়েকজন লিটন মোল্লা ভুট্টুকে প্রথমে ভাংরি কারখানার ভেতর আটক করে রেখে অমানবিক নির্যার্তন চালান। এক পর্যায়ে হত্যার উদ্দেশ্য সেখান সাইদুর দেওয়ান এর বাড়িতে নিয়ে আবারো অমানবিক নির্যাতন ( মারপিট) করাকালে বাজারের ব্যবসায়ী ওতার স্বজনরা ঘটনাটি জানতে পেরে সেখান থেকে গুরুতর রক্তাক্ত জখম অবস্থায় লিটন মোল্লা ভুট্টুকে উদ্ধার পূর্বক দ্রুত চিকিৎসার জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করালে অবস্থা গুরুতর হওয়ায় ঐ দিনই দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে বগুড়াতে রেফার্ড করেন। স্বজনরা ঐ রাতেই তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করান এবং সরস্বতীপুর বাজারের দোকানী, (বয়লার) ধান চাতাল মালিক ও গ্রামের লোকজন চাঁদা টাকা তুলে তার চিকিৎসা চালিয়ে আসছিলেন। এরি মাঝে অবস্থা সংকট জনক হওয়ায় চিকিৎসক সাথে থাকা স্বজনদের বলেন, এরোগীর অবস্থা খুবই ঝুকিপূর্ণ সময়ের অপেক্ষা এজন্য বাসায় নেওয়া ভালো বলে গত সোমবার সন্ধার দিকে ছাড়পত্র দিলে স্বজনরা তাকে নিজ বাড়িতে নিয়ে আসেন। বাড়িতে আনার মাত্র কয়েক ঘন্টা ব্যবধানে বুধবার পূর্বরাত ২টারদিকে দীর্ঘ ২৬ দিন মৃত্যু যন্ত্রনায় ছটপট বা মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে লিটন মোল্লা ভুট্টুর মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুর খবর পেয়ে অভিযুক্তরা সবাই পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্ট অন্তে মৃতদেহ উদ্ধার পূর্বক ময়না তদন্ত শেষে বুধবার বিকেলে মৃতদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করলে ঐ দিন সন্ধায় দাফন সম্পূর্ণ করা হয় বলে জানিয়েছেন নিহতের স্বজন সহ স্থানিয়রা।
এ বিষয়ে মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোজাফফর হোসেন বলেন, ভুট্টুকে মারপিটের ঘটনার পর গত ৪ সেপ্টেম্বর তার চাচা মান্নান মোল্লা বাদী হয়ে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় একটি মামলা করেন।