বাংলাদেশ ১১:০২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
বিপুল পরিমান ইয়াবাসহ ০১ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। বুড়িচং ফজলুর রহমান মেমোরিয়াল কলেজ অব টেকনোলজির শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে মাদক সাপ্লাইয়ের অভিযোগ  পেকুয়ায় ইভটিজিংয়ের দায়ে ২ জনকে কারাদণ্ড পীরগঞ্জ মহিলা কলেজে মেহেদী উৎসব অনুষ্ঠিত। পীরগঞ্জে ডিজিটাল প্রযুক্তি ও জীবন জীবীকা বিষয়ক প্রশিক্ষণ চলছে পাঠক শূন্য রাজশাহীর পুঠিয়ার সাধারণ পাঠাগার হত্যা মামলার পলাতক অন্যতম আসামী নুরুলকে র‍্যাব কর্তৃক গ্রেফতার। রাজশাহীর পুঠিয়ায় যাবজ্জাীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেপ্তার কলাপাড়ায় জেলেদের জালে শিকার হলো জীবিত এক ডলফিন। দৈনিক আমার সংবাদ পত্রিকার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত রাজশাহী মহানগরীতে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেপ্তার মির্জাগঞ্জে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ শেখ কামাল আইটি ট্রেনিংয়ে সারাদেশের মধ্যে প্রথম হয়েছে রাজাপুরের মশিউর রহমান তামিম ত্রিশালে রেইজ’র অভিবাসী বিষয়ক ওরিয়েন্টেশন চট্টগ্রামে শ্রমিক ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে শ্রমিকদের কর্মবিরতি

আসামীদের নামে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা থাকলেও গ্রেফতার করছে না পুলিশ! প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন।  

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৩:৫৭:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২
  • ১৬৮৪ বার পড়া হয়েছে

আসামীদের নামে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা থাকলেও গ্রেফতার করছে না পুলিশ! প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন।  

গাজী এনামুল হক (লিটন) 
স্টাফ রিপোর্টারঃ
পিরোজপুরে যুবলীগ নেতাদের  উপর হামলার আসামীদের নামে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা থাকলেও পুলিশ অজ্ঞাত  কারণে তাদের গ্রেপ্তার করছে না। বৃহস্পতিবার বেলা ১২ টার সময় পিরোজপুর জেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।
এ সময় জেলার বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার কর্মরত সকল সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন। 
তারা আরো বলেন গত ২১ সালের ০৮ ডিসেম্বর সকালে শিকদারমল্লিক ইউনিয়ের ৯ নং ওয়ার্ডের নির্বাচিত ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মোঃ রুহুল আমীন শেখ নিজ বাড়ি হতে পিরোজপুর সদর উপজেলা পরিষদে ইউনিয়ন পরিষদের একটি কাজের জন্য রওনা দিলে কদমতলা ঝনঝনিয়া এলাকায় আসলে পথ আটকে কিছু সন্ত্রাসীরা তার মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে তাকে জোড়পূর্বক ধরে পোরগোলা গ্রামের একটি বাগানের নিয়ে গিয়ে সন্ত্রাসী ফারুক শেখ, সন্ত্রাসী গোলাম রব্বানী পিন্টু ও এস এম বায়জিদ হোসেন।
পরে ধারালো অস্ত্র ও লোহার পাইপ দিয়ে পিটিয়ে তাকে দুই পা পঙ্গু করে দেয়। পরে তাকে মৃত ভেবে সন্ত্রাসীরা পোরগোলার একটি বাগানে ফেলে রেখে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে। পরে এ ঘটনায় পিরোজপুর সদর থানায় মামলা দিতে চাইলেও অজ্ঞাত করেন সদর থানায় মামলা না নিলে আদালতে মামলা দায়ের করলে আদালতের আদেশে থানায় মামলা গ্রহণ করে।
এছাড়া ২০২২ সালের ১৩ জানুয়ারী কদমতলা ইউনিয়ন যুবলীগের সদস্য নাদিম খান পিরোজপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে যোগ দিয়ে পিরোজপুর থেকে কদমতলা ইউনিয়নে নিজ বাড়িতে যাওয়ার সময় সন্ত্রাসী সিহাব শেখ, সন্ত্রাসী ফারুক শেখ ও এস এম বায়জিদ হোসেন  তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। পরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে নাদিম খানের দেহ থেকে হাত বিচ্ছিন্ন করে। এ ঘটনায় হামলাকারী সন্ত্রাসীদের নাম উল্লেখ করে পিরোজপুর সদর থানায় মামলা দায়ের করা হয়।
আমাদের উপর হামলার মামলা হলেও অভিযুক্ত আসামীরা বীরদর্পে এলাকা ঘুড়ে বেরাচ্ছে। এ দুইটি মামলার গ্রেপ্তারী পরোয়ানা নিয়ে আসামী এস এম বায়জিদ প্রকাশ্যে পুলিশের সাথে পিরোজপুর সদরের বিভিন্ন এলাকায় এক সাথে সভা সমাবেশ যোগদান করছে। পিরোজপুর এসপি অফিস ও সদর থানার সামনের রাস্তা দিয়ে দিচ্ছে মোটরসাইকলে মোহড়া।
মামলার বাদী সহ স্বাক্ষীদের মামলা তুলে নিতে দিচ্ছে হামলা ও নানা রকমের হুমকি। হামলার শিকার হয়ে অঙ্গ হারিয়ে বিচারের দাবীতে মামলা দিয়ে আমার এখন আসামীদের সন্ত্রাসী হামলার ভয়ে এক প্রকার পলাতক অবস্থায় আছি স্বাক্ষীদের নিয়ে। আসামীদের নামে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা থাকলেও পুলিশ অজ্ঞাত কারণে তাদের গ্রেপ্তার করছে না। পিরোজপুর সদর থানার ওসি আসামী গ্রেপ্তারের এ বিষয়ে কোন প্রকার প্রদক্ষে নিচ্ছে না। তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও পুলিশ সুপার মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষন করছি। যাহাতে আমাদের হামলার আসামীদের পুলিশ গ্রেপ্তার করে এবং আমার আমাদের উপর হামলার সঠিক বিচার পাই।
আপলোডকারীর তথ্য

Banglar Alo News

hello
জনপ্রিয় সংবাদ

বিপুল পরিমান ইয়াবাসহ ০১ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার।

আসামীদের নামে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা থাকলেও গ্রেফতার করছে না পুলিশ! প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন।  

আপডেট সময় ০৩:৫৭:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২
গাজী এনামুল হক (লিটন) 
স্টাফ রিপোর্টারঃ
পিরোজপুরে যুবলীগ নেতাদের  উপর হামলার আসামীদের নামে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা থাকলেও পুলিশ অজ্ঞাত  কারণে তাদের গ্রেপ্তার করছে না। বৃহস্পতিবার বেলা ১২ টার সময় পিরোজপুর জেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।
এ সময় জেলার বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার কর্মরত সকল সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন। 
তারা আরো বলেন গত ২১ সালের ০৮ ডিসেম্বর সকালে শিকদারমল্লিক ইউনিয়ের ৯ নং ওয়ার্ডের নির্বাচিত ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মোঃ রুহুল আমীন শেখ নিজ বাড়ি হতে পিরোজপুর সদর উপজেলা পরিষদে ইউনিয়ন পরিষদের একটি কাজের জন্য রওনা দিলে কদমতলা ঝনঝনিয়া এলাকায় আসলে পথ আটকে কিছু সন্ত্রাসীরা তার মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে তাকে জোড়পূর্বক ধরে পোরগোলা গ্রামের একটি বাগানের নিয়ে গিয়ে সন্ত্রাসী ফারুক শেখ, সন্ত্রাসী গোলাম রব্বানী পিন্টু ও এস এম বায়জিদ হোসেন।
পরে ধারালো অস্ত্র ও লোহার পাইপ দিয়ে পিটিয়ে তাকে দুই পা পঙ্গু করে দেয়। পরে তাকে মৃত ভেবে সন্ত্রাসীরা পোরগোলার একটি বাগানে ফেলে রেখে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে। পরে এ ঘটনায় পিরোজপুর সদর থানায় মামলা দিতে চাইলেও অজ্ঞাত করেন সদর থানায় মামলা না নিলে আদালতে মামলা দায়ের করলে আদালতের আদেশে থানায় মামলা গ্রহণ করে।
এছাড়া ২০২২ সালের ১৩ জানুয়ারী কদমতলা ইউনিয়ন যুবলীগের সদস্য নাদিম খান পিরোজপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে যোগ দিয়ে পিরোজপুর থেকে কদমতলা ইউনিয়নে নিজ বাড়িতে যাওয়ার সময় সন্ত্রাসী সিহাব শেখ, সন্ত্রাসী ফারুক শেখ ও এস এম বায়জিদ হোসেন  তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। পরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে নাদিম খানের দেহ থেকে হাত বিচ্ছিন্ন করে। এ ঘটনায় হামলাকারী সন্ত্রাসীদের নাম উল্লেখ করে পিরোজপুর সদর থানায় মামলা দায়ের করা হয়।
আমাদের উপর হামলার মামলা হলেও অভিযুক্ত আসামীরা বীরদর্পে এলাকা ঘুড়ে বেরাচ্ছে। এ দুইটি মামলার গ্রেপ্তারী পরোয়ানা নিয়ে আসামী এস এম বায়জিদ প্রকাশ্যে পুলিশের সাথে পিরোজপুর সদরের বিভিন্ন এলাকায় এক সাথে সভা সমাবেশ যোগদান করছে। পিরোজপুর এসপি অফিস ও সদর থানার সামনের রাস্তা দিয়ে দিচ্ছে মোটরসাইকলে মোহড়া।
মামলার বাদী সহ স্বাক্ষীদের মামলা তুলে নিতে দিচ্ছে হামলা ও নানা রকমের হুমকি। হামলার শিকার হয়ে অঙ্গ হারিয়ে বিচারের দাবীতে মামলা দিয়ে আমার এখন আসামীদের সন্ত্রাসী হামলার ভয়ে এক প্রকার পলাতক অবস্থায় আছি স্বাক্ষীদের নিয়ে। আসামীদের নামে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা থাকলেও পুলিশ অজ্ঞাত কারণে তাদের গ্রেপ্তার করছে না। পিরোজপুর সদর থানার ওসি আসামী গ্রেপ্তারের এ বিষয়ে কোন প্রকার প্রদক্ষে নিচ্ছে না। তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও পুলিশ সুপার মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষন করছি। যাহাতে আমাদের হামলার আসামীদের পুলিশ গ্রেপ্তার করে এবং আমার আমাদের উপর হামলার সঠিক বিচার পাই।