বাংলাদেশ ১১:৫৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
সরাইলে দুই শিশুর পুকুরে গোসল করা নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ১৫ বাংলা নববর্ষের মঙ্গল শোভাযাত্রা, পান্তা ভোজন ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত  মাদারীপুরের কালকিনিতে নববর্ষ উপলক্ষে মঙ্গল শোভাযাত্রা মঙ্গল শোভাযাত্রার মাধ্যমে নতুন বছরকে বরণ করলো কুবি মানবতার হাত ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত ও নগদ অর্থ প্রদান  ভান্ডারিয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় স্বামী-স্ত্রী সহ আহত ৫ আওয়ামী লীগ রাজনৈতিক দল নেই দেউলিয়া হয়ে গেছে-মহাসচিব মির্জা ফখরুল পিরোজপুরে দোকানের কর্মচারীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে মালিকের বিরুদ্ধে হাটপাঙ্গাসীতে নতুন আঙ্গিকে ঐতিহ্যবাহী গরু-ছাগলের হাট উদ্বোধন মণিরামপুরে নানা আয়োজনে পহেলা বৈশাখ পালিত বর্ণাঢ্য আয়োজনে পহেলা বৈশাখ উদযাপিত কালকিনিতে পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে ঘুড়ি উড়ানো প্রতিযোগিতা নাইক্ষ্যংছড়িতে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বাংলা নববর্ষের বর্ণাঢ্য আয়োজন-পাহাড়িদের বৈশাখী শুরু কচুয়ায় নাস্তিক মুরাদের ফাঁসির দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত। রাজশাহী মহানগরীতে বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে মঙ্গল শোভাযাত্রা

ভালুকায় প্রধান শিক্ষকের অপসারণ দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৩:১৮:১১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • ১৫৯৯ বার পড়া হয়েছে

ভালুকায় প্রধান শিক্ষকের অপসারণ দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

ভালুকা প্রতিনিধিঃ- ময়মনসিংহের ভালুকায় প্রধান শিক্ষকের অপসারণ দাবিতে ক্লাশ বর্জন করে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা । গতকাল (২৮ ফেব্রুয়ারী) বুধবার সকালে উপজেলার ভরাডোবা উচ্চ বিদ্যালয়ে ওই ঘটনাটি ঘটে।
ক্লাশে ছেড়ে মাঠে নেমে আসা শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা জানান, বিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষকগণ প্রধান শিক্ষক মো. আজিজুল হকের বিরুদ্ধে নানান অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে প্রায় এক কোটি ৫৩ লাখ টাকা আত্মসাৎসহ বিভিন্ন অভিযোগ তুলে গত বছরের ১২ জুলাই বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি বরাবরে অভিযোগ দেন।
এদিকে, শিক্ষকদের করা অভিযোগের ভিত্তিতে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান শাহ আলম হবিরবাড়ী সোনার বাংলা স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক মো. নুরুল ইসলাম মানিককে প্রধান করে পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি করে দেন। পরে ওই কমিটি তদন্ত কাজে প্রধান শিক্ষকের সহায়তা চাইলে তিনি তদন্তে সহায়তা না করে গত ১৭ জুলাই থেকে বিদ্যালয়ে আসা বন্ধ করে দেন। এদিকে গত ২৫ ফেব্রুয়ারী প্রধান শিক্ষক আজিজুল হককে তার পদ থেকে সাময়িক অব্যাহতি দিয়ে বিদ্যালয়ের শিক্ষক বীরেন্দ্র চন্দ্র রায়কে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব দেয়া হয়।
এদিকে, সাত মাসেরও বেশী সময় পর মো. আজিজুল হক  ২০ ফেব্রুয়ারী বুধবার সকালে বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে প্রবেশ করেন। বিষয়টি জানাজানি হওয়ায় বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষার্থীরা ক্লাশে না গিয়ে মাঠে অবস্থান নেয় এবং প্রধান শিক্ষকের অপসারণ দাবিতে বিক্ষোভ শুরু করেন। খবর পেয়ে সভাপতি শাহ আলম তরফদারসহ পরিচালনা কমিটির একাধিক সদস্য বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়ে প্রধান শিক্ষককে অন্যত্র সরিয়ে নিলে শিক্ষার্থী শিক্ষকরা ক্লাশে ফিরে যান।
এ ব্যাপারে জানতে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আজিজুল হকের মোবাইল নম্বরে ফোন দিলে তা বন্ধ থাকায় তার বক্তব্য দেয়া সম্ভব হয়নি।
বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি শাহ আলম তরফদার জানান, তদন্ত কমিটির আহবানে সাড়া না দিয়ে এবং বিনানুমতিতে সাত মাসের বেশী সময় বিদ্যালয়ে অনুপস্থিতিত প্রধান শিক্ষক মো. আজিজুল হক বুধবার সকালে হঠাৎ বিদ্যালয়ে উপস্থিত হলে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা মাঠে নেমে আসেন। পরে পরিচালনা কমিটির একাধিক সদস্যকে সাথে নিয়ে প্রধান শিক্ষককে বিদ্যালয়ের বাইরে নিয়ে গেলে পরিস্থিতি শান্ত হয় এবং শিক্ষার্থী ও শিক্ষকগণ ক্লাশে ফিরে যায়।
আপলোডকারীর তথ্য

Banglar Alo News

hello
জনপ্রিয় সংবাদ

সরাইলে দুই শিশুর পুকুরে গোসল করা নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ১৫

ভালুকায় প্রধান শিক্ষকের অপসারণ দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

আপডেট সময় ০৩:১৮:১১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
ভালুকা প্রতিনিধিঃ- ময়মনসিংহের ভালুকায় প্রধান শিক্ষকের অপসারণ দাবিতে ক্লাশ বর্জন করে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা । গতকাল (২৮ ফেব্রুয়ারী) বুধবার সকালে উপজেলার ভরাডোবা উচ্চ বিদ্যালয়ে ওই ঘটনাটি ঘটে।
ক্লাশে ছেড়ে মাঠে নেমে আসা শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা জানান, বিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষকগণ প্রধান শিক্ষক মো. আজিজুল হকের বিরুদ্ধে নানান অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে প্রায় এক কোটি ৫৩ লাখ টাকা আত্মসাৎসহ বিভিন্ন অভিযোগ তুলে গত বছরের ১২ জুলাই বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি বরাবরে অভিযোগ দেন।
এদিকে, শিক্ষকদের করা অভিযোগের ভিত্তিতে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান শাহ আলম হবিরবাড়ী সোনার বাংলা স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক মো. নুরুল ইসলাম মানিককে প্রধান করে পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি করে দেন। পরে ওই কমিটি তদন্ত কাজে প্রধান শিক্ষকের সহায়তা চাইলে তিনি তদন্তে সহায়তা না করে গত ১৭ জুলাই থেকে বিদ্যালয়ে আসা বন্ধ করে দেন। এদিকে গত ২৫ ফেব্রুয়ারী প্রধান শিক্ষক আজিজুল হককে তার পদ থেকে সাময়িক অব্যাহতি দিয়ে বিদ্যালয়ের শিক্ষক বীরেন্দ্র চন্দ্র রায়কে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব দেয়া হয়।
এদিকে, সাত মাসেরও বেশী সময় পর মো. আজিজুল হক  ২০ ফেব্রুয়ারী বুধবার সকালে বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে প্রবেশ করেন। বিষয়টি জানাজানি হওয়ায় বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষার্থীরা ক্লাশে না গিয়ে মাঠে অবস্থান নেয় এবং প্রধান শিক্ষকের অপসারণ দাবিতে বিক্ষোভ শুরু করেন। খবর পেয়ে সভাপতি শাহ আলম তরফদারসহ পরিচালনা কমিটির একাধিক সদস্য বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়ে প্রধান শিক্ষককে অন্যত্র সরিয়ে নিলে শিক্ষার্থী শিক্ষকরা ক্লাশে ফিরে যান।
এ ব্যাপারে জানতে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আজিজুল হকের মোবাইল নম্বরে ফোন দিলে তা বন্ধ থাকায় তার বক্তব্য দেয়া সম্ভব হয়নি।
বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি শাহ আলম তরফদার জানান, তদন্ত কমিটির আহবানে সাড়া না দিয়ে এবং বিনানুমতিতে সাত মাসের বেশী সময় বিদ্যালয়ে অনুপস্থিতিত প্রধান শিক্ষক মো. আজিজুল হক বুধবার সকালে হঠাৎ বিদ্যালয়ে উপস্থিত হলে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা মাঠে নেমে আসেন। পরে পরিচালনা কমিটির একাধিক সদস্যকে সাথে নিয়ে প্রধান শিক্ষককে বিদ্যালয়ের বাইরে নিয়ে গেলে পরিস্থিতি শান্ত হয় এবং শিক্ষার্থী ও শিক্ষকগণ ক্লাশে ফিরে যায়।