বাংলাদেশ ১১:০৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
নাইক্ষ্যংছড়িতে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বাংলা নববর্ষের বর্ণাঢ্য আয়োজন-পাহাড়িদের বৈশাখী শুরু কচুয়ায় নাস্তিক মুরাদের ফাঁসির দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত। রাজশাহী মহানগরীতে বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে মঙ্গল শোভাযাত্রা পহেলা বৈশাখ উপলক্ষ্যে আরএমপিতে শুভেচ্ছা বিনিময় ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পদ্মায় গোসলে নেমে দুই শিশু নিখোঁজ উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বাংলার নববর্ষ পালিত হয় মুন্সীগঞ্জে ১৫ কোটি টাকা মূল্যেও কষ্টিপাথরের মূর্তি উদ্ধার রাঙ্গাবালীতে নবীন আলেম সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়েছে বর্নাঢ্য আয়োজনে হোসেনপুরে পহেলা বৈশাখ উদযাপন।  কাউনিয়ায় উপজেলা প্রশাসনের উদ্দোগেনানা আয়োজনে বাংলা নববর্ষ পালিত ফুলবাড়ীতে মঙ্গল শোভাযাত্রা, বৈশাখী মেলা ও পান্তা, ইলিশের মধ্য দিয়ে বর্ষবরণ অনুষ্ঠিত। বাংলা নববর্ষ ১৪৩১ উদযাপন উপলক্ষে হরিপুরে মঙ্গল শোভাযাত্রা কাউখালীতে নববর্ষ উপলক্ষে বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত। রানীশংকৈলে ১৪৩১ বাংলা নববর্ষ উদযাপন সিরাজগঞ্জে ৯৪ ব্যাচ ঈদ পূর্নমিলনী অনুষ্ঠিত 

পিঠা উৎসব ও বসন্ত বরনকে কেন্দ্র করে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মিলন মেলায় পরিনত 

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১০:৫০:১৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • ১৬০৩ বার পড়া হয়েছে

পিঠা উৎসব ও বসন্ত বরনকে কেন্দ্র করে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মিলন মেলায় পরিনত

পিরোজপুর প্রতিনিধি :
পিঠা উৎসব ও বসন্ত বরনকে কেন্দ্র করে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মিলন মেলায় পরিনত হয়েছে, পিরোজপুর  সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজ ক্যাম্পাস। গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য হারিয়ে  যাওয়া পিঠার স্বাদ নিতে পিরোজপুর  সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজ আয়োজন করে পিঠা উৎসবের। দীর্ঘ দিন পরে অনুষ্ঠিত এ মেলায় আসা দর্শনার্থীদের ভীড়ে মুখরিত মেলা প্রাঙ্গন।
পিরোজপুর সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজ ক্যাম্পাসে আজ শনিবার বেলা ১১ টায় শুরু হয় বসন্ত বরন ও পিঠা উৎসব। নতুন ও পুরাতন শিক্ষার্থী, অভিভাবকদের মিলন মেলায় পরিনত হয় মেলা প্রাঙ্গন। শিক্ষার্থীদের নিঁপুন হাতের ছোয়ায় এক একটি পিঠা নজর কাড়ে যে কারো। গ্রাম বাংলার হারিয়ে যাওয়া বাহারী রকমের পিঠা দেখতে স্টলে স্টলে ছিলো দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভীড়। এক সাথে এতোসব পিঠার স্বাদ পেয়ে ও দেখে মুগ্ধ উৎসবে ঘুরতে আসা দর্শনার্থীরা।
একদিনের এ পিঠা উৎসবে কলেজের বিভিন্ন বিভাগের ১৭ টি স্টল অংশ গ্রহন করে। আর এসব স্টলে ৫০ ধরনের পিঠা প্রদর্শিত হয়।
আগত শিক্ষার্থীরা জানান, বছরের এ দিনটির জন্য আমরা এক বছর ধরে অপেক্ষা করে থাকি। হরেক রকমের পিঠা পাওয়া যায় এ পিঠা উৎসবে। আমরা সবাই মিলে অনেক মজা করছি এ উৎসবে।
বসন্ত বরণ ও পিঠা উৎসব কমিটির আয়োজক মো: শাহাবুদ্দিন শিকদার জানান, প্রাচীন ঐতিহ্য ও বাংলার হারিয়ে যেতে বসা সংস্কৃতির সাথে শিক্ষার্থীদের পরিচয় করিয়ে দিতেই এ আয়োজন। আমাদের এ আয়োজনকে শতভাগ সফল করেছে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। শিক্ষার্থীরা এ আয়োজনকে সুন্দর ভাবে উপভোগ করছে।
আপলোডকারীর তথ্য

Banglar Alo News

hello
জনপ্রিয় সংবাদ

নাইক্ষ্যংছড়িতে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বাংলা নববর্ষের বর্ণাঢ্য আয়োজন-পাহাড়িদের বৈশাখী শুরু

পিঠা উৎসব ও বসন্ত বরনকে কেন্দ্র করে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মিলন মেলায় পরিনত 

আপডেট সময় ১০:৫০:১৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
পিরোজপুর প্রতিনিধি :
পিঠা উৎসব ও বসন্ত বরনকে কেন্দ্র করে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মিলন মেলায় পরিনত হয়েছে, পিরোজপুর  সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজ ক্যাম্পাস। গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য হারিয়ে  যাওয়া পিঠার স্বাদ নিতে পিরোজপুর  সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজ আয়োজন করে পিঠা উৎসবের। দীর্ঘ দিন পরে অনুষ্ঠিত এ মেলায় আসা দর্শনার্থীদের ভীড়ে মুখরিত মেলা প্রাঙ্গন।
পিরোজপুর সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজ ক্যাম্পাসে আজ শনিবার বেলা ১১ টায় শুরু হয় বসন্ত বরন ও পিঠা উৎসব। নতুন ও পুরাতন শিক্ষার্থী, অভিভাবকদের মিলন মেলায় পরিনত হয় মেলা প্রাঙ্গন। শিক্ষার্থীদের নিঁপুন হাতের ছোয়ায় এক একটি পিঠা নজর কাড়ে যে কারো। গ্রাম বাংলার হারিয়ে যাওয়া বাহারী রকমের পিঠা দেখতে স্টলে স্টলে ছিলো দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভীড়। এক সাথে এতোসব পিঠার স্বাদ পেয়ে ও দেখে মুগ্ধ উৎসবে ঘুরতে আসা দর্শনার্থীরা।
একদিনের এ পিঠা উৎসবে কলেজের বিভিন্ন বিভাগের ১৭ টি স্টল অংশ গ্রহন করে। আর এসব স্টলে ৫০ ধরনের পিঠা প্রদর্শিত হয়।
আগত শিক্ষার্থীরা জানান, বছরের এ দিনটির জন্য আমরা এক বছর ধরে অপেক্ষা করে থাকি। হরেক রকমের পিঠা পাওয়া যায় এ পিঠা উৎসবে। আমরা সবাই মিলে অনেক মজা করছি এ উৎসবে।
বসন্ত বরণ ও পিঠা উৎসব কমিটির আয়োজক মো: শাহাবুদ্দিন শিকদার জানান, প্রাচীন ঐতিহ্য ও বাংলার হারিয়ে যেতে বসা সংস্কৃতির সাথে শিক্ষার্থীদের পরিচয় করিয়ে দিতেই এ আয়োজন। আমাদের এ আয়োজনকে শতভাগ সফল করেছে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। শিক্ষার্থীরা এ আয়োজনকে সুন্দর ভাবে উপভোগ করছে।