বাংলাদেশ ০৫:৫২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
নারায়ণগঞ্জ সাংবাদিক ফেরামের কার্যালয় উদ্বোধন ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত পটুয়াখালী পৌরসভার ১০ কোটি টাকা বিদ্যুৎ বিল বকেয়া, সারারাত জ্বলে কোম্পানির বিলবোর্ড। বরগুনা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সাংসদ গোলাম সরোয়ার টুকু’র শুভেচ্ছা বিনিময় নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা  ইউএস অ্যাগ্রিমেন্টে অ্যাপস প্রতারণায় রাজশাহীতে ১০ মামলা নারায়ণগঞ্জে শ্রমিকদের বেতন ভাতা ও ঘোষিত মজুরি বাস্তবায়নের জন্য জনসভা আরএমপি’র কমিশনারসহ ৬ পুলিশ সদস্য পেলেন বিপিএম-পিপিএম পদক রাজশাহীতে প্রতিবছর বাড়ছে পেঁয়াজ বীজের চাষ এসএসসি ’৯৪ ব্যাচের প্রয়াত বন্ধুদের স্মরণানুষ্ঠান হত্যা মামলার দীর্ঘ ২৩ বছর যাবত পলাতক আসামী নজরুল মাঝি গ্রেফতার।  আমতলীতে গরুসহ চোর গ্রেপ্তার অপরূপ সৌন্দর্যে ঘেরা রাঙ্গাবালী, হতে পারে পর্যটনের কেন্দ্রবিন্দু। বুড়িচংয়ে বিল্লাল হোসেন ঠিকাদার ডাবল হোল্ডা কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন রায়গঞ্জে এনডিপির উদ্যোগে মিনি ম্যারাথন অনুষ্ঠিত এক প্রার্থীর বিরুদ্ধে কালো টাকা ছড়ানোর তুলে এক নারী মেয়র প্রার্থীর প্রার্থীতা প্রত্যাহার

নাটোরে ছাত্র ও যুবলীগ কর্মীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১২:০৫:০০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৮ মার্চ ২০২২
  • ১৬৯৮ বার পড়া হয়েছে

নাটোরে ছাত্র ও যুবলীগ কর্মীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ

স্টাফ রিপোর্টার নাটোর
নাটোর শহরের জয় বাংলার মোড় এলাকায় ছাত্র ও যুবলীগ কর্মীদের মোটর সাইকেলের সাথে পুলিশের মোটর সাইকেলের সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ ও ছাত্র-যুবলীগ কর্মীদের মধ্যে মারপিটের ঘটনা ঘটে। এতে হাসিব উদ্দিন (২৪) ও সেলিম হোসেন (২৫) নামে দুই পুলিশ কনস্টেবলসহ ৫ জন আহত হয়। আহত ওই দুই পুলিশ সদস্যকে উদ্ধার করে প্রথমে নাটোর সদর হাসপাতাল ও পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
বৃহস্পতিবার(১৭ মার্চ) দুপুর ১২ টার দিকে সদর হাসপাতাল সড়কের জয় বাংলার মোড় এলাকায়  সাদা পোশাকে পুলিশকে প্রকাশ্যে মারপিট করা হয়। আহত হাসিব ও সেলিম নাটোর পুলিশ লাইনে কর্মরত।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, পুলিশ কনস্টেবল হাসিব ও সেলিম জাতীয় শিশু দিবসের মেলায় পুলিশের স্টল সাজানোর জন্য সাদা পোশাকে বেলুন কিনতে পুলিশ লাইন থেকে মোটর সাইকেলে যাচ্ছিলেন। এসময় বঙ্গবন্ধুর জন্ম বার্ষিকী অনুষ্ঠান শেষে যুবলীগ ও ছাত্রলীগ কর্মীরা মোটরসাইকেল নিয়ে যাওয়ার সময় জয় বাংলার মোড় এলাকায় দু’টি মোটর সাইকেলের সংঘর্ষ হয়।
এসময় কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে সাদা পোশাকে থাকা দুই পুলিশ সদস্যের ওপর চড়াও হয় ছাত্র ও যুবলীগ কর্মীরা।পুলিশও তাদের ওপর চড়াও হলে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষে আহত  দুই পুলিশকে উদ্ধার করে প্রথমে নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে  পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এবং পরে  সাগর,নাদিম ও জনি নামে আহত ছাত্র ও যুবলীগের ৩ কর্মীকে পরে হাসপাতালে নেওয়া হয়।
এদিকে  দুই পুলিশ কনস্টেবলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার খবর পেয়ে নাটোর -৪ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলগের সভাপতি অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস,পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজানসহ পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তারা হাসপাতালে গিয়ে আহতদের চিকিৎসার খোঁজ নেন এবং তাদের সাথে কথা বলেন এবং তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন করার কথা বলেন। এসময় আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ ঘটনার সময় আহত তিন দলীয় কর্মীকে পুলিশের জিম্মায় দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করেন।
জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজান বলেন, দুটি মোটর সাইকেলের সংঘর্ষ হলে উভয়ের মধ্যে কথাকাটাকাটি শুরু হয়। এসময় পুলিশ সদস্যরা সাদা পোশাকে ছিলেন। তারাই উত্তেজিত হয়ে মোটর সাইকেল আরোহী দুইজনকে মারপিট শুরু করলে একজনের কপাল ফেটে যায় এবং অপরজন কানে আঘাত প্রাপ্ত হয়।
এসময় তাদের সাথে থাকা আরো একজন একত্রে পুলিশের ওপর চড়াও হলে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষের ঘটনাটি পুলিশের মাধ্যমে জানতে পেরে আমরা জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ সহ হাসপাতালে যাই। এসময় পুলিশের সাথে কথা বলে ছাত্র ও যুবলীগের আহত তিনজনকে পুলিশের হেফাজতে দিয়ে তাদের ভর্তি করা হয়। পুলিশ তদন্ত করে ব্যবস্থা নিবে। নেতৃবৃন্দ পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে এলাকার মানুষের কাছে ঘটনার বর্ননা শুনে মনে হয়েছে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এমন ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয়রা জানান, পুলিশ সাদা পোশাকে থাকায় এমন বিপত্তি হয়েছে। তারাই প্রথমে ওই ছেলেদের মারপিট শুরু করে। যে ঘটনাই ঘটুক পুলিশ তদন্ত করে প্রকৃত ঘটনা জেনে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।
নাটোর পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আহত ওই দুই কনস্টেবল সাদা পোশাকে ছিলেন। তারা জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে পুলিশ লাইনে আয়োজিত মেলায় স্টলের সাজ সজ্জার জন্য বেলুন কিনতে মোটর সাইকেলে যাচ্ছিলেন। পথে অন্য একটি মোটর সাইকেলের সংঘর্ষ হলে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে মোটর সাইকেল আরোহীরা পুলিশ সদস্যদের ওপর চড়াও হয়ে মারপিট করে। হামলাকারীরা ইট দিয়ে আঘাত করে মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে। প্রকাশ্যে এবং জনসমুখ্যে এই হামলা চালানো হয়। কনস্টেবল সেলিমের মাথায় ৭টির মত সেলাই দিতে হয়েছে। তাদের দুজনকেই রামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তদন্ত শেষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
জনপ্রিয় সংবাদ

নারায়ণগঞ্জ সাংবাদিক ফেরামের কার্যালয় উদ্বোধন ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত

নাটোরে ছাত্র ও যুবলীগ কর্মীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ

আপডেট সময় ১২:০৫:০০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৮ মার্চ ২০২২
স্টাফ রিপোর্টার নাটোর
নাটোর শহরের জয় বাংলার মোড় এলাকায় ছাত্র ও যুবলীগ কর্মীদের মোটর সাইকেলের সাথে পুলিশের মোটর সাইকেলের সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ ও ছাত্র-যুবলীগ কর্মীদের মধ্যে মারপিটের ঘটনা ঘটে। এতে হাসিব উদ্দিন (২৪) ও সেলিম হোসেন (২৫) নামে দুই পুলিশ কনস্টেবলসহ ৫ জন আহত হয়। আহত ওই দুই পুলিশ সদস্যকে উদ্ধার করে প্রথমে নাটোর সদর হাসপাতাল ও পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
বৃহস্পতিবার(১৭ মার্চ) দুপুর ১২ টার দিকে সদর হাসপাতাল সড়কের জয় বাংলার মোড় এলাকায়  সাদা পোশাকে পুলিশকে প্রকাশ্যে মারপিট করা হয়। আহত হাসিব ও সেলিম নাটোর পুলিশ লাইনে কর্মরত।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, পুলিশ কনস্টেবল হাসিব ও সেলিম জাতীয় শিশু দিবসের মেলায় পুলিশের স্টল সাজানোর জন্য সাদা পোশাকে বেলুন কিনতে পুলিশ লাইন থেকে মোটর সাইকেলে যাচ্ছিলেন। এসময় বঙ্গবন্ধুর জন্ম বার্ষিকী অনুষ্ঠান শেষে যুবলীগ ও ছাত্রলীগ কর্মীরা মোটরসাইকেল নিয়ে যাওয়ার সময় জয় বাংলার মোড় এলাকায় দু’টি মোটর সাইকেলের সংঘর্ষ হয়।
এসময় কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে সাদা পোশাকে থাকা দুই পুলিশ সদস্যের ওপর চড়াও হয় ছাত্র ও যুবলীগ কর্মীরা।পুলিশও তাদের ওপর চড়াও হলে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষে আহত  দুই পুলিশকে উদ্ধার করে প্রথমে নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে  পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এবং পরে  সাগর,নাদিম ও জনি নামে আহত ছাত্র ও যুবলীগের ৩ কর্মীকে পরে হাসপাতালে নেওয়া হয়।
এদিকে  দুই পুলিশ কনস্টেবলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার খবর পেয়ে নাটোর -৪ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলগের সভাপতি অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস,পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজানসহ পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তারা হাসপাতালে গিয়ে আহতদের চিকিৎসার খোঁজ নেন এবং তাদের সাথে কথা বলেন এবং তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন করার কথা বলেন। এসময় আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ ঘটনার সময় আহত তিন দলীয় কর্মীকে পুলিশের জিম্মায় দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করেন।
জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজান বলেন, দুটি মোটর সাইকেলের সংঘর্ষ হলে উভয়ের মধ্যে কথাকাটাকাটি শুরু হয়। এসময় পুলিশ সদস্যরা সাদা পোশাকে ছিলেন। তারাই উত্তেজিত হয়ে মোটর সাইকেল আরোহী দুইজনকে মারপিট শুরু করলে একজনের কপাল ফেটে যায় এবং অপরজন কানে আঘাত প্রাপ্ত হয়।
এসময় তাদের সাথে থাকা আরো একজন একত্রে পুলিশের ওপর চড়াও হলে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষের ঘটনাটি পুলিশের মাধ্যমে জানতে পেরে আমরা জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ সহ হাসপাতালে যাই। এসময় পুলিশের সাথে কথা বলে ছাত্র ও যুবলীগের আহত তিনজনকে পুলিশের হেফাজতে দিয়ে তাদের ভর্তি করা হয়। পুলিশ তদন্ত করে ব্যবস্থা নিবে। নেতৃবৃন্দ পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে এলাকার মানুষের কাছে ঘটনার বর্ননা শুনে মনে হয়েছে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এমন ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয়রা জানান, পুলিশ সাদা পোশাকে থাকায় এমন বিপত্তি হয়েছে। তারাই প্রথমে ওই ছেলেদের মারপিট শুরু করে। যে ঘটনাই ঘটুক পুলিশ তদন্ত করে প্রকৃত ঘটনা জেনে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।
নাটোর পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আহত ওই দুই কনস্টেবল সাদা পোশাকে ছিলেন। তারা জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে পুলিশ লাইনে আয়োজিত মেলায় স্টলের সাজ সজ্জার জন্য বেলুন কিনতে মোটর সাইকেলে যাচ্ছিলেন। পথে অন্য একটি মোটর সাইকেলের সংঘর্ষ হলে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে মোটর সাইকেল আরোহীরা পুলিশ সদস্যদের ওপর চড়াও হয়ে মারপিট করে। হামলাকারীরা ইট দিয়ে আঘাত করে মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে। প্রকাশ্যে এবং জনসমুখ্যে এই হামলা চালানো হয়। কনস্টেবল সেলিমের মাথায় ৭টির মত সেলাই দিতে হয়েছে। তাদের দুজনকেই রামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তদন্ত শেষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।