ঢাকা ১১:৩৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৬ জুন ২০২৩, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, যোগাযোগ: মোবাইল : 01712-446306, 01999-953970
ব্রেকিং নিউজ ::
বরিশালের কাজিরহাট থানায় মাদক ব্যবসায়ী ও জুয়ারুদের আড্ডা, প্রশাসন নিরব।  নোয়াখালীতে ট্রাকের ধাক্কায় বৃদ্ধের মৃত্যু মেম্বারকে টাকা না দিলে মিলছে না ভাতার কার্ড! চাখারে মোটরসাইকেল দূর্ঘটনায় কলেজ ছাত্রের মর্মান্তিক মৃত্যু আ.লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক বন্ধ জগন্নাথপুরে মোটরসাইকেলের নিচে চাপা পড়ে ৭ বছর বয়সী এক শিশু নিহত  ধর্ষণ মামলায় পলাতক আসামী ফারুককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৩। ভালুকায় রাতের অধাঁরে কোটি টাকা মূল্যের জমি দখল চেষ্টার অভিযোগ বালাগঞ্জ বাজারে ব্যবসায়ীদের অর্থায়নে টিউবওয়েল পুনঃস্থাপন নাটোরের নলডাঙ্গায় যৌন নিপীড়নের চেষ্টার অভিযোগে একজন আটক। বৈদেশিক মুদ্রা চোরাচালান চক্রের ০২ সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০। অপহরণ ও গণধর্ষণ মামলায় আসামী মজনু মিয়া র‍্যাব-১৩ ও র‍্যাব-১ এর যৌথ অভিযানে গ্রেফতার কাউখালীতে মৎস্য কার্ডধারী জেলেদের মধ্যে ছাগল বিতরণ। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ কর্মক্ষেত্রে যৌন হয়রানির শাস্তির দাবি ভালুকায় বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালন 
সরিষাবাড়ীতে জমি অধিগ্রহণ বন্ধের দাবীতে নদীভাঙা মানুষদের মানববন্ধন

সরিষাবাড়ীতে জমি অধিগ্রহণ বন্ধের দাবীতে নদীভাঙা মানুষদের মানববন্ধন

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৫:৩৮:৩৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২২
  • ১৬৬৫ বার পড়া হয়েছে

সরিষাবাড়ীতে জমি অধিগ্রহণ বন্ধের দাবীতে নদীভাঙা মানুষদের মানববন্ধন

মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ভিডিও প্রতিযোগিতা: বিস্তারিত ফেইসবুক পেইজে

শাকিল আহম্মেদ সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি
জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার আওনা ইউনিয়নের দয়ালপুর মৌজায় ভুয়াপুর-তারাকান্দি মহাসড়ক প্রশস্তকরণ প্রকল্পের আওতায় এক্সেল লোড কন্ট্রোল স্টেশন নির্মাণে জমি অধিগ্রহণ বন্ধের দাবীতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী।
আজ শনিবার দুপুরে বসতবাড়ি রক্ষা সংগ্রাম কমিটির উদ্যোগ ভুয়াপুর-তারাকান্দি মহাসড়কে ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধন করা হয়। এতে চেচিয়াবাঁধা, দৌলতপুরসহ কয়েকটি গ্রামের নদীভাঙা ও দিনমজুর শ্রেণির তিন শতাধিক নারী-পুরুষ অংশগ্রহণ করেন।
মানববন্ধনে বক্তারা জানান, এক্সেল লোড কন্ট্রোল স্টেশন নির্মাণের জন্য জমি অধিগ্রহণ করতে জামালপুর ভূমি অধিগ্রহণ শাখা গত ১০ জানুয়ারি এলাকার শতাধিক লোককে নোটিশ দিয়েছে। এলাকার অধিকাংশ মানুষ নদীভাঙা ও খেটে খাওয়া প্রান্তিক শ্রেণির। ইতোপূর্বে বাংলাদেশ রেলওয়ে, যমুনা সারকারখানা এবং সড়ক ও জনপথ আরো তিন-চারবার এ এলাকার জমি অধিগ্রহণ করে। বারবার তারা জমিহারা হয়ে মাত্র ৬০০ মিটার জমির মধ্যে প্রায় ৫০০ পরিবার বস্তির মতো বসবাস করে আসছেন।
তারা অভিযোগ করেন, প্রায় ১০০ জনের নামে নোটিশ দেয়া হলেও এদের ওয়ারিশগণ বিভক্ত হয়ে ৫ শতাধিক পরিবার হয়ে গেছে। এছাড়া দীর্ঘদিন আগের রেকর্ডভূক্ত জমিগুলো কাগজে-কলমে ডোবা-নালা থাকলেও বর্তমানে সেগুলো উঁচু বসতঘর। সরকার অধিগ্রহণের ফলে আগের ডোবা-নালা হিসেবে ভর্তুকির টাকা প্রদান করবে। এতে তারা একদিকে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত ও অন্যদিকে বসতভিটা হারিয়ে নিঃস্ব হওয়ার শঙ্কা প্রকাশ করেন।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন জামালপুর জেলা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এডভোকেট ইউসুফ আলী, বসতবাড়ি রক্ষা সংগ্রাম কমিটির নেতা মিরন আহম্মেদ, স্থানীয় নুরুল ইসলাম, কমলা বেগম, সাদ্দাম হোসেন, আনিসুর রহমান, কামরুল হাসান, মোকাদ্দেস আলী প্রমুখ।
জনপ্রিয় সংবাদ

বরিশালের কাজিরহাট থানায় মাদক ব্যবসায়ী ও জুয়ারুদের আড্ডা, প্রশাসন নিরব। 

সরিষাবাড়ীতে জমি অধিগ্রহণ বন্ধের দাবীতে নদীভাঙা মানুষদের মানববন্ধন

সরিষাবাড়ীতে জমি অধিগ্রহণ বন্ধের দাবীতে নদীভাঙা মানুষদের মানববন্ধন

আপডেট সময় ০৫:৩৮:৩৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২২
শাকিল আহম্মেদ সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি
জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার আওনা ইউনিয়নের দয়ালপুর মৌজায় ভুয়াপুর-তারাকান্দি মহাসড়ক প্রশস্তকরণ প্রকল্পের আওতায় এক্সেল লোড কন্ট্রোল স্টেশন নির্মাণে জমি অধিগ্রহণ বন্ধের দাবীতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী।
আজ শনিবার দুপুরে বসতবাড়ি রক্ষা সংগ্রাম কমিটির উদ্যোগ ভুয়াপুর-তারাকান্দি মহাসড়কে ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধন করা হয়। এতে চেচিয়াবাঁধা, দৌলতপুরসহ কয়েকটি গ্রামের নদীভাঙা ও দিনমজুর শ্রেণির তিন শতাধিক নারী-পুরুষ অংশগ্রহণ করেন।
মানববন্ধনে বক্তারা জানান, এক্সেল লোড কন্ট্রোল স্টেশন নির্মাণের জন্য জমি অধিগ্রহণ করতে জামালপুর ভূমি অধিগ্রহণ শাখা গত ১০ জানুয়ারি এলাকার শতাধিক লোককে নোটিশ দিয়েছে। এলাকার অধিকাংশ মানুষ নদীভাঙা ও খেটে খাওয়া প্রান্তিক শ্রেণির। ইতোপূর্বে বাংলাদেশ রেলওয়ে, যমুনা সারকারখানা এবং সড়ক ও জনপথ আরো তিন-চারবার এ এলাকার জমি অধিগ্রহণ করে। বারবার তারা জমিহারা হয়ে মাত্র ৬০০ মিটার জমির মধ্যে প্রায় ৫০০ পরিবার বস্তির মতো বসবাস করে আসছেন।
তারা অভিযোগ করেন, প্রায় ১০০ জনের নামে নোটিশ দেয়া হলেও এদের ওয়ারিশগণ বিভক্ত হয়ে ৫ শতাধিক পরিবার হয়ে গেছে। এছাড়া দীর্ঘদিন আগের রেকর্ডভূক্ত জমিগুলো কাগজে-কলমে ডোবা-নালা থাকলেও বর্তমানে সেগুলো উঁচু বসতঘর। সরকার অধিগ্রহণের ফলে আগের ডোবা-নালা হিসেবে ভর্তুকির টাকা প্রদান করবে। এতে তারা একদিকে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত ও অন্যদিকে বসতভিটা হারিয়ে নিঃস্ব হওয়ার শঙ্কা প্রকাশ করেন।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন জামালপুর জেলা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এডভোকেট ইউসুফ আলী, বসতবাড়ি রক্ষা সংগ্রাম কমিটির নেতা মিরন আহম্মেদ, স্থানীয় নুরুল ইসলাম, কমলা বেগম, সাদ্দাম হোসেন, আনিসুর রহমান, কামরুল হাসান, মোকাদ্দেস আলী প্রমুখ।