বাংলাদেশ ১০:২৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
পাষন্ড দুই সন্তানের হাতে মার খেয়ে মায়ের ঠাই হলো মাদ্রাসায় নাজিরপুরে ট্রাক চাপায় ভ্যান চালকের মৃত্যু রাজশাহী মহানগরীতে গ্রেফতার ৩জন ছিনতাইকারী দেবীগঞ্জে যৌতুকের বলি শাহনাজ হত্যার ৫দিন পর আদালতে মামলা মহানগরীতে ৮টি মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী রবিউল গ্রেফতার ত্রিশালে শুভেচ্ছা ও গণসংযোগে মাজহারুল ইসলাম জুয়েল পিরোজপুরে তিন উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ১০ প্রার্থীর মনোয়নপত্র দাখিল বাঙ্গালহালিয়া ধলিয়াপাড়া শিক্ষা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ রায়গঞ্জের হাটপাঙ্গাসীতে পহেলা বৈশাখ উদযাপিত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ ব্রাহ্মণপাড়া ভগবান সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে ৮৯ ব্যাচের ঈদ পূণর্মিলনী অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কাউনিয়ায় ১৩ প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল বগুড়া-নন্দীগ্রাম (উত্তর-কচুগাড়ী) গ্রামে ১৬ প্রহর ব্যাপী হরিবাসর অনুষ্ঠিত..!! হরিপুর চেয়ারম্যান পদে ৫ জনসহ ৯ জনের মনোনয়ন দাখিল কুমিল্লায় মাই টিভির ১৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন

ভোলায় স্কুল শিক্ষিকার নির্মম নির্যাতনে শিকার শিশু গৃহপরিচারিকা

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৭:২২:৩০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৫ মার্চ ২০২২
  • ১৭১২ বার পড়া হয়েছে

ভোলায় স্কুল শিক্ষিকার নির্মম নির্যাতনে শিকার শিশু গৃহপরিচারিকা

 

ভোলা প্রতিনিধি॥

ভোলার লালমোহনে পূর্বচরকচ্চপিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা মেরিয়া জাহানের নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়ে হাসপাতালের বেডে কাতরাচ্ছেন চাঁদনী (১২) নামে এক শিশু গৃহপরিচারিকা। প্রতিদিনের নির্যাতন সইতে না পেরে গত রবিবার ওই শিক্ষিকার বাসা থেকে পালিয়ে গিয়ে নিজ এলাকার বাউফল হাসপাতালে ভর্তি ওই শিশু গৃহপরিচারিকা।

 

 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত দেড় বছর আগে পটুয়াখালীর বাউফল পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের সবুজ হাওলাদার নামের এক অসহায় ব্যক্তির মেয়ে চাঁদনী লালমোহন পৌরসভার ওয়েষ্টার্ণপাড়া এলাকায় বসবাস করা শিক্ষিকা মেরিয়া জাহান- মামুন দস্পতির বাসায় আসেন। মেরিয়ার বাবার বাড়ি বাউফল উপজেলায়। সে সুবাধে চাঁদনীকে বাসার কাজ করার জন্য নিয়ে আসেন শিক্ষিকা মেরিয়া জাহান।

 

 

তবে চাঁদনী মাঝে মধ্যে কাজে ভুল করলে তাকে বেধরক মারধর করে আটকে রাখে গৃহকত্রী শিক্ষিকা ও তার স্বামী মামুন। সাদ্দাম ওরপে মামুন ওয়েষ্টার্ণ পাড়া এলাকার জামাল ডাক্তার বাড়ির নূরুজ্জামান ডাক্তারের ছেলে। শিশু গৃহপরিচারিকা চাঁদনী জানান, বাসায় কাজ করতে এনে ভূল হলেই মামুন ও তার স্ত্রী মেরিয়া প্রায় সময় মারধর করতো। শিশুটিকে বাড়িতে কোন যোগাযোগ করতে দেয়নি এই দম্পতি। রোববারও মারধর করলে সুযোগ পেয়ে পালিয়ে নিজ বাড়ি বাউফলে চলে আসি। অসুস্থ শরীর নিয়ে বাড়িতে গেলে পরিবারের লোকজন তাকে বাউফল উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন।

 

 

 

এ বিষয়ে অভিযুক্ত স্কুল শিক্ষিকার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি। তাবে শিক্ষিকার স্বামী সাদ্দাম ওরপে মামুনের কাছে ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মেয়েটি আমাদের দূর সম্পর্কের আত্মীয় হয়। বিষয়টি ভূল বুঝাবুঝি হয়েয়ে। আমরা ওই মেয়ের পরিবারের সাথে যোগাযোগ করে সমাধান করার চেষ্টা করছি। এ বিষয়ে লালমোহন থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাকসুদুর রহমান মুরাদ বলেন বিষয়টি এক সাংবাদিক আমাকে জানিয়েছেন। এ বিষয়ে কেউ কোন অভিযোগ দায়ের করেনি। অগিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

 

 

 

জনপ্রিয় সংবাদ

পাষন্ড দুই সন্তানের হাতে মার খেয়ে মায়ের ঠাই হলো মাদ্রাসায়

ভোলায় স্কুল শিক্ষিকার নির্মম নির্যাতনে শিকার শিশু গৃহপরিচারিকা

আপডেট সময় ০৭:২২:৩০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৫ মার্চ ২০২২

 

ভোলা প্রতিনিধি॥

ভোলার লালমোহনে পূর্বচরকচ্চপিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা মেরিয়া জাহানের নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়ে হাসপাতালের বেডে কাতরাচ্ছেন চাঁদনী (১২) নামে এক শিশু গৃহপরিচারিকা। প্রতিদিনের নির্যাতন সইতে না পেরে গত রবিবার ওই শিক্ষিকার বাসা থেকে পালিয়ে গিয়ে নিজ এলাকার বাউফল হাসপাতালে ভর্তি ওই শিশু গৃহপরিচারিকা।

 

 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত দেড় বছর আগে পটুয়াখালীর বাউফল পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের সবুজ হাওলাদার নামের এক অসহায় ব্যক্তির মেয়ে চাঁদনী লালমোহন পৌরসভার ওয়েষ্টার্ণপাড়া এলাকায় বসবাস করা শিক্ষিকা মেরিয়া জাহান- মামুন দস্পতির বাসায় আসেন। মেরিয়ার বাবার বাড়ি বাউফল উপজেলায়। সে সুবাধে চাঁদনীকে বাসার কাজ করার জন্য নিয়ে আসেন শিক্ষিকা মেরিয়া জাহান।

 

 

তবে চাঁদনী মাঝে মধ্যে কাজে ভুল করলে তাকে বেধরক মারধর করে আটকে রাখে গৃহকত্রী শিক্ষিকা ও তার স্বামী মামুন। সাদ্দাম ওরপে মামুন ওয়েষ্টার্ণ পাড়া এলাকার জামাল ডাক্তার বাড়ির নূরুজ্জামান ডাক্তারের ছেলে। শিশু গৃহপরিচারিকা চাঁদনী জানান, বাসায় কাজ করতে এনে ভূল হলেই মামুন ও তার স্ত্রী মেরিয়া প্রায় সময় মারধর করতো। শিশুটিকে বাড়িতে কোন যোগাযোগ করতে দেয়নি এই দম্পতি। রোববারও মারধর করলে সুযোগ পেয়ে পালিয়ে নিজ বাড়ি বাউফলে চলে আসি। অসুস্থ শরীর নিয়ে বাড়িতে গেলে পরিবারের লোকজন তাকে বাউফল উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন।

 

 

 

এ বিষয়ে অভিযুক্ত স্কুল শিক্ষিকার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি। তাবে শিক্ষিকার স্বামী সাদ্দাম ওরপে মামুনের কাছে ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মেয়েটি আমাদের দূর সম্পর্কের আত্মীয় হয়। বিষয়টি ভূল বুঝাবুঝি হয়েয়ে। আমরা ওই মেয়ের পরিবারের সাথে যোগাযোগ করে সমাধান করার চেষ্টা করছি। এ বিষয়ে লালমোহন থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাকসুদুর রহমান মুরাদ বলেন বিষয়টি এক সাংবাদিক আমাকে জানিয়েছেন। এ বিষয়ে কেউ কোন অভিযোগ দায়ের করেনি। অগিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।