বাংলাদেশ ১০:১০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
নাজিরপুরে ট্রাক চাপায় ভ্যান চালকের মৃত্যু রাজশাহী মহানগরীতে গ্রেফতার ৩জন ছিনতাইকারী দেবীগঞ্জে যৌতুকের বলি শাহনাজ হত্যার ৫দিন পর আদালতে মামলা মহানগরীতে ৮টি মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী রবিউল গ্রেফতার ত্রিশালে শুভেচ্ছা ও গণসংযোগে মাজহারুল ইসলাম জুয়েল পিরোজপুরে তিন উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ১০ প্রার্থীর মনোয়নপত্র দাখিল বাঙ্গালহালিয়া ধলিয়াপাড়া শিক্ষা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ রায়গঞ্জের হাটপাঙ্গাসীতে পহেলা বৈশাখ উদযাপিত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ ব্রাহ্মণপাড়া ভগবান সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে ৮৯ ব্যাচের ঈদ পূণর্মিলনী অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কাউনিয়ায় ১৩ প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল বগুড়া-নন্দীগ্রাম (উত্তর-কচুগাড়ী) গ্রামে ১৬ প্রহর ব্যাপী হরিবাসর অনুষ্ঠিত..!! হরিপুর চেয়ারম্যান পদে ৫ জনসহ ৯ জনের মনোনয়ন দাখিল কুমিল্লায় মাই টিভির ১৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন নরসিংদীতে ইউপি সদস্যকে গুলি ও জবাই করে হত্যা

চিকিৎসকের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যু  

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১১:৩১:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১২ মার্চ ২০২২
  • ১৬৯৬ বার পড়া হয়েছে

চিকিৎসকের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যু  

নোয়াখালী প্রতিনিধি
নোয়াখালীর মাইজদী হাসপাতাল সড়কে চিকিৎসকদের অবহেলায় এক নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায়  গতকাল শুক্রবার রাতে নবজাতকের পরিবার সুধারাম থানায় মৌখিক অভিযোগ জানান। একটি বেসরকারী হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নবজাতক বেগমগঞ্জ উপজেলার রাজগঞ্জ ইউনিয়নের মো. সোহেল হোসেন ও আমেনা বেগমের তৃতীয় সন্তান। নবজাতকের বাবা মো. সোহেল হোসেন অভিযোগ করে বলেন, আমার স্ত্রীর আল্ট্রা করানোর পর থেকে ৩ দিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি। শুক্রবার দুপুরে ডাক্তার বলেছে জরুরি অপারেশন করাতে হবে। জি-৮ গ্রামীন প্রাইভেট হাসপাতাল থেকে সন্ধায় ডাক্তার বলেন আমাদের মৃত সন্তান হয়েছে। তাই মরদেহ নিয়ে দাফন করতে বাড়ি চলে যাই।

 

রাতে দাফনের সময় দেখি মাথায় বড় কাটার দাগ। তিনি আরও বলেন, মাথায় বড় কাটার ফলে আমার সন্তান মারা গেছে। আমরা থানায় অভিযোগ দিয়েছি। আমরা এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি। নবজাতকের চাচা মো. রাজু বলেন, আমরা মরদেহ নিয়ে থানায় ঘুরছি। আমরা কঠোর শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। হাসপাতালের পরিচালক মো. স্বপন বলেন, হাসপাতালে কোন সমস্য হয়নি, নবজাতককে বাড়ীতে হয়তো তাদের সমস্যা হয়েছে।

 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চিকিৎক ডা. শায়লা সুলতানা ঝুমু জানান, যেহেতু ৬ মাসের বাচ্চা, তাছাড়া পানি নেই, রোগীর ব্যাথা ছিল এবং হার্টবিট কম ছিল। সিজারে কোন সমস্যা হয়নি। তারা নবজাতককে হাসপাতাল থেকে বুঝে নিয়েছে। পরে এসে যদি কোন সমস্যার কথা বলে সে ঠিক নয়। আমাদের কোন ভুল ছিল না, এটা তার তৃতিয় সিজার। প্রয়োজনে নবজাতকে ময়না তদন্ত করে দেখুক।

 

সুধারাম মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) মো. আনোয়ারুল ইসলাম বলেন মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত ভুক্তভোগী পরিবার থানায় কোন লিখিত অভিযোগ দায়ের করেনি।

 

জনপ্রিয় সংবাদ

নাজিরপুরে ট্রাক চাপায় ভ্যান চালকের মৃত্যু

চিকিৎসকের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যু  

আপডেট সময় ১১:৩১:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১২ মার্চ ২০২২

নোয়াখালী প্রতিনিধি
নোয়াখালীর মাইজদী হাসপাতাল সড়কে চিকিৎসকদের অবহেলায় এক নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায়  গতকাল শুক্রবার রাতে নবজাতকের পরিবার সুধারাম থানায় মৌখিক অভিযোগ জানান। একটি বেসরকারী হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নবজাতক বেগমগঞ্জ উপজেলার রাজগঞ্জ ইউনিয়নের মো. সোহেল হোসেন ও আমেনা বেগমের তৃতীয় সন্তান। নবজাতকের বাবা মো. সোহেল হোসেন অভিযোগ করে বলেন, আমার স্ত্রীর আল্ট্রা করানোর পর থেকে ৩ দিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি। শুক্রবার দুপুরে ডাক্তার বলেছে জরুরি অপারেশন করাতে হবে। জি-৮ গ্রামীন প্রাইভেট হাসপাতাল থেকে সন্ধায় ডাক্তার বলেন আমাদের মৃত সন্তান হয়েছে। তাই মরদেহ নিয়ে দাফন করতে বাড়ি চলে যাই।

 

রাতে দাফনের সময় দেখি মাথায় বড় কাটার দাগ। তিনি আরও বলেন, মাথায় বড় কাটার ফলে আমার সন্তান মারা গেছে। আমরা থানায় অভিযোগ দিয়েছি। আমরা এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি। নবজাতকের চাচা মো. রাজু বলেন, আমরা মরদেহ নিয়ে থানায় ঘুরছি। আমরা কঠোর শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। হাসপাতালের পরিচালক মো. স্বপন বলেন, হাসপাতালে কোন সমস্য হয়নি, নবজাতককে বাড়ীতে হয়তো তাদের সমস্যা হয়েছে।

 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চিকিৎক ডা. শায়লা সুলতানা ঝুমু জানান, যেহেতু ৬ মাসের বাচ্চা, তাছাড়া পানি নেই, রোগীর ব্যাথা ছিল এবং হার্টবিট কম ছিল। সিজারে কোন সমস্যা হয়নি। তারা নবজাতককে হাসপাতাল থেকে বুঝে নিয়েছে। পরে এসে যদি কোন সমস্যার কথা বলে সে ঠিক নয়। আমাদের কোন ভুল ছিল না, এটা তার তৃতিয় সিজার। প্রয়োজনে নবজাতকে ময়না তদন্ত করে দেখুক।

 

সুধারাম মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) মো. আনোয়ারুল ইসলাম বলেন মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত ভুক্তভোগী পরিবার থানায় কোন লিখিত অভিযোগ দায়ের করেনি।