বাংলাদেশ ০১:৫৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
জবিতে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও প্রজন্মের নতুন কমিটির দায়িত্ব গ্রহণ  মুলাদীতে নিজস্ব অর্থায়নে সামাজিক উন্নয়ন করে ব্যাপক সাড়া ফেলেছেন ইউপি সদস্য ইরান হোসেন॥ ভালুকায় প্রধান শিক্ষকের অপসারণ দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ সাংবাদিক জিগারুল ইসলাম রাঙ্গুনিয়ার মদিনাতুল উলুম মাদ্রাসার সভাপতি নির্বাচিত। পার্বতীপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে বিশিষ্ট সাংবাদিক আতিকুর রহমান আতিকের জোর তৎপরতা॥ ফুলবাড়ীতে কুকুরের কামড়ে ৮টি ছাগলে মৃত্যু বদলগাছীতে অভিনব কায়দায় লুকায়িত ৭২ কেজি গাঁজা উদ্ধার গ্রেফতার-১  ভালুকায় যুবলীগ নেতাকে ফাসানোর চেষ্টার প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত  রাবির ভোলা জেলা ছাত্রকল্যাণ সমিতির নেতৃত্বে জুলিয়া-মমিন বুড়িচংয়ে আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা  শিক্ষার্থীদের অনলাইন সেবা দিতে আমতলী সোনালী ব্যাংকের চুক্তিপত্র স্বাক্ষর রাবি ফটোগ্রাফিক ক্লাবের সভাপতি রেজওয়ান, সম্পাদক নাজমুল কার মদদে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে অবৈধ ট্রলি?রামগঞ্জে নিষিদ্ধ ট্রাক্টরের দাপট বিলিন হচ্ছে ফসলি জমি প্রেসিডেন্ট পুলিশ পদক ভূষিত হলেন গলাচিপা থানার ওসি ফেরদৌস খান গৌরীপুর উপজেলা সিপিবি’র সম্মেলনে নতুন কমিটি গঠন

খানসামায় আবাদি কৃষি জমি সেচ দেওয়ার ড্রেন বন্ধের অভিযোগ 

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৭:৪৫:৪৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১২ মার্চ ২০২২
  • ১৬৮৪ বার পড়া হয়েছে

খানসামায় আবাদি কৃষি জমি সেচ দেওয়ার ড্রেন বন্ধের অভিযোগ 

মোঃ নুরনবী ইসলাম, খানসামা ( দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ
দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার খামারপাড়া ইউপির দক্ষিণ বালাপাড়া গ্রামে আবাদি কৃষি জমি সেচ দেওয়ার ড্রেন বন্ধের অভিযোগ উঠেছে। এতে ঐ এলাকার প্রায় ১০ একর জমিতে সেচ না দেওয়ায় হুমকিতে পড়েছে ধান চাষ।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, দক্ষিণ বালাপাড়া গ্রামের মোস্তাক আহমেদ দীর্ঘদিন ধরে ঐ এলাকায় তার ও এলাকাবাসীর জমিতে মোটারের মাধ্যমে সেচ দিয়ে আসছিল। কিন্তু একই এলাকার লোকমান তার বাড়ির পার্শ্বে দিয়ে চলমান ড্রেনটি হঠাৎ করে বন্ধ করে দেওয়ায় সেচ প্রদানে বাধাগ্রস্ত হয়ে পড়ে। হুমকিতে পড়ে প্রায় ১০ একর জমিতে ধান চাষ ও ভুট্টা চাষ। এমনকি সেচের অভাবে অনেক জমি খালি পরে রয়েছে।
ভুক্তভোগী মোস্তাক আহমেদ বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই মোটারের মাধ্যমে জমিতে সেচ দিয়ে আমার ও এলাকার প্রায় ১০ একর জমিতে ধান চাষ করে আসছি। কিন্তু হঠাৎ করে ড্রেন বন্ধ করে দেওয়ায় আমরা বিপাকে পরি। ইউএনও, কৃষি কর্মকর্তা, বি.এম.ডি. এ ও খামারপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বরাবর লিখিত অভিযোগ করেও কোন সুরাহা না হওয়ায় কৃষি মন্ত্রীর সুনজর কামনা করেন তিনি।
অভিযুক্ত লোকমান বলেন, আমি বাড়ি করার জন্য মাটি ভরাট করেছি। এছাড়াও আমার ছোট সন্তান রয়েছে। ড্রেনের পানিতে পড়ে যেকোন সময় দূর্ঘটনা ঘটতে পারে।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাশিদা আক্তার বলেন, অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা সরেজমিনে তদন্ত করে অভিযোগকারীকে ঐ দিক দিয়ে ৬০ ফিট পাইপ দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।
জনপ্রিয় সংবাদ

জবিতে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও প্রজন্মের নতুন কমিটির দায়িত্ব গ্রহণ 

খানসামায় আবাদি কৃষি জমি সেচ দেওয়ার ড্রেন বন্ধের অভিযোগ 

আপডেট সময় ০৭:৪৫:৪৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১২ মার্চ ২০২২
মোঃ নুরনবী ইসলাম, খানসামা ( দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ
দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার খামারপাড়া ইউপির দক্ষিণ বালাপাড়া গ্রামে আবাদি কৃষি জমি সেচ দেওয়ার ড্রেন বন্ধের অভিযোগ উঠেছে। এতে ঐ এলাকার প্রায় ১০ একর জমিতে সেচ না দেওয়ায় হুমকিতে পড়েছে ধান চাষ।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, দক্ষিণ বালাপাড়া গ্রামের মোস্তাক আহমেদ দীর্ঘদিন ধরে ঐ এলাকায় তার ও এলাকাবাসীর জমিতে মোটারের মাধ্যমে সেচ দিয়ে আসছিল। কিন্তু একই এলাকার লোকমান তার বাড়ির পার্শ্বে দিয়ে চলমান ড্রেনটি হঠাৎ করে বন্ধ করে দেওয়ায় সেচ প্রদানে বাধাগ্রস্ত হয়ে পড়ে। হুমকিতে পড়ে প্রায় ১০ একর জমিতে ধান চাষ ও ভুট্টা চাষ। এমনকি সেচের অভাবে অনেক জমি খালি পরে রয়েছে।
ভুক্তভোগী মোস্তাক আহমেদ বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই মোটারের মাধ্যমে জমিতে সেচ দিয়ে আমার ও এলাকার প্রায় ১০ একর জমিতে ধান চাষ করে আসছি। কিন্তু হঠাৎ করে ড্রেন বন্ধ করে দেওয়ায় আমরা বিপাকে পরি। ইউএনও, কৃষি কর্মকর্তা, বি.এম.ডি. এ ও খামারপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বরাবর লিখিত অভিযোগ করেও কোন সুরাহা না হওয়ায় কৃষি মন্ত্রীর সুনজর কামনা করেন তিনি।
অভিযুক্ত লোকমান বলেন, আমি বাড়ি করার জন্য মাটি ভরাট করেছি। এছাড়াও আমার ছোট সন্তান রয়েছে। ড্রেনের পানিতে পড়ে যেকোন সময় দূর্ঘটনা ঘটতে পারে।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাশিদা আক্তার বলেন, অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা সরেজমিনে তদন্ত করে অভিযোগকারীকে ঐ দিক দিয়ে ৬০ ফিট পাইপ দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।