বাংলাদেশ ১০:২৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
পাষন্ড দুই সন্তানের হাতে মার খেয়ে মায়ের ঠাই হলো মাদ্রাসায় নাজিরপুরে ট্রাক চাপায় ভ্যান চালকের মৃত্যু রাজশাহী মহানগরীতে গ্রেফতার ৩জন ছিনতাইকারী দেবীগঞ্জে যৌতুকের বলি শাহনাজ হত্যার ৫দিন পর আদালতে মামলা মহানগরীতে ৮টি মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী রবিউল গ্রেফতার ত্রিশালে শুভেচ্ছা ও গণসংযোগে মাজহারুল ইসলাম জুয়েল পিরোজপুরে তিন উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ১০ প্রার্থীর মনোয়নপত্র দাখিল বাঙ্গালহালিয়া ধলিয়াপাড়া শিক্ষা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ রায়গঞ্জের হাটপাঙ্গাসীতে পহেলা বৈশাখ উদযাপিত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ ব্রাহ্মণপাড়া ভগবান সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে ৮৯ ব্যাচের ঈদ পূণর্মিলনী অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কাউনিয়ায় ১৩ প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল বগুড়া-নন্দীগ্রাম (উত্তর-কচুগাড়ী) গ্রামে ১৬ প্রহর ব্যাপী হরিবাসর অনুষ্ঠিত..!! হরিপুর চেয়ারম্যান পদে ৫ জনসহ ৯ জনের মনোনয়ন দাখিল কুমিল্লায় মাই টিভির ১৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন

স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা সেভ হিউম্যান লাইফের পক্ষ থেকে ঘর পেলেন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ফরিদ 

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৮:২৫:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১১ মার্চ ২০২২
  • ১৭৩৬ বার পড়া হয়েছে

স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা সেভ হিউম্যান লাইফের পক্ষ থেকে ঘর পেলেন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ফরিদ 

আব্দুল্লাহ আল সুমন স্টাফ রিপোর্টার ঠাকুরগাঁও:
শুক্রবার (১১ মার্চ) সকাল ১১ ঘটিকায়  দৃষ্টি প্রতিবন্ধি ফরিদের ঘর উদ্বোধন করা হয়েছে। দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী ফরিদ মাত্র দুই বছর বয়সে টাইফয়েড জ্বরে আক্রান্ত হয়ে চোখের দৃষ্টি হারান। তারপর থেকে অন্যের সহযোগিতা নিয়ে চলতেন তিনি। পরবর্তী সময়ে আবছা আলো আর আন্দাজের ওপর ভর করেই জীবনের গণ্ডি পাড়ি দিয়ে চলছেন।
সংসারজীবনে দুই ছেলে ও দুই মেয়ের বাবা তিনি। ছোটবেলা থেকেই শাক, আর কুমড়া বিক্রি করে আয়-রোজগার করতেন। স্ত্রী নাজমা বেগম কাজ করেন অন্যের বাসায়। আর বাড়িতে পালন করেন একটি গরু ও দুটি ছাগল। স্ত্রী-সন্তানসহ থাকেন অনেক বছর আগের তৈরি করা একটি মাটির ঘরে। আলাদা কোনো ঘর না থাকায় গরু, ছাগলের সঙ্গে স্ত্রী-সন্তানসহ বসবাস করে আসছেন ফরিদ হোসেন।
ফাটল ধরা ও জরাজীর্ণ সেই মাটির ঘরটির অবস্থা বেশ নাজুক। যেকোনো সময় ভেঙে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। বৃষ্টিতে ঘরের ভেতরে পানি পড়ে। অন্যদিকে এক চৌকিতে জায়গা হয় না সবার। আর রাতে গরু-ছাগলের মলমূত্রের গন্ধে ঘুমাতে পারেন না তারা। তাই রাতের বেলায় রাস্তায় পায়চারী বা চৌকির পাশে বসে রাত কাটাতে হতো ফরিদ হোসেনকে।
আজ থেকে ফরিদকে আর কষ্ট করে থাকতে হবে না। গরু ও নতুন ঘর পেয়ে অনেক আনন্দিত। ফরিদ বলেন, “আমি অত্যান্ত কষ্টে দিন পার করছিলাম, আমার থাকার ঘর ছিলো না। আমার সেই স্বপ্ন পূরণ করেছে সেভ হিউম্যান লাইফ। আমি দোয়া করি যারা আমার এই ঘরের কাজের জন্য সহযোগিতা করেছেন।
উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সেভ হিউম্যান লাইফ এর প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক সাইফুল্লাহ আল হেলাল, প্রজেক্ট কো অর্ডিনেটর রেজাউল করিম রানা, রাজশাহী বিভাগের বিভাগীয় সমন্বয় আব্দুল কাদের বিপ্লব, স্থানীয় লোকজন ও গণমাধ্যম কর্মীগণ।
সেভ হিউম্যান লাইফ এর প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক বলেন, ” ফরিদ ভাই নাগরিক ও মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত। তাকে ঘর দেয়ার মাধ্যমে আমরা তার মৌলিক অধিকার ফিরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করেছি।
জনপ্রিয় সংবাদ

পাষন্ড দুই সন্তানের হাতে মার খেয়ে মায়ের ঠাই হলো মাদ্রাসায়

স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা সেভ হিউম্যান লাইফের পক্ষ থেকে ঘর পেলেন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ফরিদ 

আপডেট সময় ০৮:২৫:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১১ মার্চ ২০২২
আব্দুল্লাহ আল সুমন স্টাফ রিপোর্টার ঠাকুরগাঁও:
শুক্রবার (১১ মার্চ) সকাল ১১ ঘটিকায়  দৃষ্টি প্রতিবন্ধি ফরিদের ঘর উদ্বোধন করা হয়েছে। দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী ফরিদ মাত্র দুই বছর বয়সে টাইফয়েড জ্বরে আক্রান্ত হয়ে চোখের দৃষ্টি হারান। তারপর থেকে অন্যের সহযোগিতা নিয়ে চলতেন তিনি। পরবর্তী সময়ে আবছা আলো আর আন্দাজের ওপর ভর করেই জীবনের গণ্ডি পাড়ি দিয়ে চলছেন।
সংসারজীবনে দুই ছেলে ও দুই মেয়ের বাবা তিনি। ছোটবেলা থেকেই শাক, আর কুমড়া বিক্রি করে আয়-রোজগার করতেন। স্ত্রী নাজমা বেগম কাজ করেন অন্যের বাসায়। আর বাড়িতে পালন করেন একটি গরু ও দুটি ছাগল। স্ত্রী-সন্তানসহ থাকেন অনেক বছর আগের তৈরি করা একটি মাটির ঘরে। আলাদা কোনো ঘর না থাকায় গরু, ছাগলের সঙ্গে স্ত্রী-সন্তানসহ বসবাস করে আসছেন ফরিদ হোসেন।
ফাটল ধরা ও জরাজীর্ণ সেই মাটির ঘরটির অবস্থা বেশ নাজুক। যেকোনো সময় ভেঙে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। বৃষ্টিতে ঘরের ভেতরে পানি পড়ে। অন্যদিকে এক চৌকিতে জায়গা হয় না সবার। আর রাতে গরু-ছাগলের মলমূত্রের গন্ধে ঘুমাতে পারেন না তারা। তাই রাতের বেলায় রাস্তায় পায়চারী বা চৌকির পাশে বসে রাত কাটাতে হতো ফরিদ হোসেনকে।
আজ থেকে ফরিদকে আর কষ্ট করে থাকতে হবে না। গরু ও নতুন ঘর পেয়ে অনেক আনন্দিত। ফরিদ বলেন, “আমি অত্যান্ত কষ্টে দিন পার করছিলাম, আমার থাকার ঘর ছিলো না। আমার সেই স্বপ্ন পূরণ করেছে সেভ হিউম্যান লাইফ। আমি দোয়া করি যারা আমার এই ঘরের কাজের জন্য সহযোগিতা করেছেন।
উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সেভ হিউম্যান লাইফ এর প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক সাইফুল্লাহ আল হেলাল, প্রজেক্ট কো অর্ডিনেটর রেজাউল করিম রানা, রাজশাহী বিভাগের বিভাগীয় সমন্বয় আব্দুল কাদের বিপ্লব, স্থানীয় লোকজন ও গণমাধ্যম কর্মীগণ।
সেভ হিউম্যান লাইফ এর প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক বলেন, ” ফরিদ ভাই নাগরিক ও মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত। তাকে ঘর দেয়ার মাধ্যমে আমরা তার মৌলিক অধিকার ফিরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করেছি।