বাংলাদেশ ০৮:৩৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
পিরোজপুরে তিন উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ১০ প্রার্থীর মনোয়নপত্র দাখিল বাঙ্গালহালিয়া ধলিয়াপাড়া শিক্ষা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ রায়গঞ্জের হাটপাঙ্গাসীতে পহেলা বৈশাখ উদযাপিত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ ব্রাহ্মণপাড়া ভগবান সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে ৮৯ ব্যাচের ঈদ পূণর্মিলনী অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কাউনিয়ায় ১৩ প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল হরিপুর চেয়ারম্যান পদে ৫ জনসহ ৯ জনের মনোনয়ন দাখিল কুমিল্লায় মাই টিভির ১৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন নরসিংদীতে ইউপি সদস্যকে গুলি ও জবাই করে হত্যা ক্লাস-পরীক্ষা চালু রেখেই জবিতে ১৮ এপ্রিল বাংলা নববর্ষ উদযাপনের সিদ্ধান্ত  পঞ্চগড়ে পেঁয়াজ চাষে ভাগ্য পরিবর্তন। পীরগঞ্জে হেরোইন, গাঁজাসহ ৩ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার ভালুকায় প্রাইভেটকারের ভিতরে ধর্ষণের ঘটনায় বিএনপি নেতার ছেলে গ্রেফতার মুলাদী রামারপোল ফাজিল মাদ্রাসা এ্যালামনাই এসোসিয়েশনের ৩০১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন মির্জাগঞ্জে ইসি সচিব’র সাথে মতবিনিময় সভা

মিঠাপুকুরে চরিত্রহীনতার অপবাদ দিয়ে বিপত্নীক মহিলার বাড়ি ভাংচুর

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৬:২০:০৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১১ মার্চ ২০২২
  • ১৭২৮ বার পড়া হয়েছে

মিঠাপুকুরে চরিত্রহীনতার অপবাদ দিয়ে বিপত্নীক মহিলার বাড়ি ভাংচুর

রুবেল হোসাইন (সংগ্রাম)
মিঠাপুকুর উপজেলায় চরিত্রহৃীনতার অপবাদ দিয়ে বিপত্নীক মহিলার সরকারী রাস্তার তিন মোড়স্থ বাড়ি ভাংচুর করা হয়েছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ছবিরন বেগম (৪৭) খোলা আকাশের নিচে অবস্থান করছেন।
বৃহস্পতিবার (১০ই মার্চ) সকাল আনুমানিক ৯ টায় উপজেলার পায়রাবন্দ ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ভিতর লোহানী নামক গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।
স্থানীয় মসজিদের ইমাম, মুয়াজ্জিন ও প্রভাবশালী কর্তৃক বাড়ি ভেঙ্গে দিয়েছে বলে ভুক্তভোগী ছবিরন বেগম অভিযোগ করেন। সরেজমিনে স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়-ছবিরন বেগম নামে মহিলার জন্মস্থান এখানে, বর্তমানে তার কেউ নেই! নেই নিজস্ব কোন বাপ দাদার পাওয়া সম্পতি। কালের বিবর্তনে হারিয়েছেন তিন স্বামী,মায়ের নামে এক টুকরো জমি সেটাও তার মা দিয়েছেন ছোট বোনের নামে। বোনকে দেয়া জমিতে ঠাঁই হয়নি তার।
আশেপাশের লোকের বাড়িতে ক্ষেত খামারে উপার্জিত অর্থ দিয়ে তার সংসার চলতো।ছবিরন রাস্তার মোড়স্থ একটু ফাঁকা জায়গায় টিনের চালা তুলে থাকতেন। তবে কোন দিন কেউ তার খারাপ কিছু দেখেনি কিংবা কোন লোক তাকে হাতে নাতে ধরেনি শুধু মানুষের মুখে চলছিলো তাকে নিয়ে তার চারিত্রিক সমালোচনা। আর এই কানাকানি থেকেই চারিত্রিক অপবাদ দিয়ে বাড়িটি ভেঙ্গে দেয় প্রভাবশালী ববি ও স্থানীয় মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিন।
ভুক্তভোগীর ছবিরন বলেন, অনেক কষ্ট করে মানুষের বাড়িতে কাজকর্ম করে একটি গরু পালন করে তা বিক্রি করেছেন কয়েক শতক জমি কেনার আশায়। রাস্তার মোড়স্থ জায়গায় বাড়ি করে থাকায় দীর্ঘদিন ধরে তার বিরুদ্ধে নানা অপবাদ দিয়ে আসছেন স্থানীয়রা। মোড়স্হ টিনের চালা তুলে বসবাস করায় কিছু লোক তার বিরোধিতা করে আসছিলো। এবং তারা অনেকে বিভিন্ন সময়ে তার কাছে টাকা দাবী করতেন। টাকা না দেওয়ায় চরিত্রহৃীন কলঙ্ক  রটিয়ে তার বাড়ি ভেঙ্গে দিয়েছেন।
ছবিরন জানান, ১০ মার্চ সকালে ঘুম থেকে উঠে তিনি মেম্বারের বাড়িতে রেশনের কার্ডের জন্য আইডি কার্ড দিতে যান, সেখান থেকে ফিরে এসে তার বাড়ি ভাংচুর করা দেখে বাধা দিলে প্রাণে মারার হুমকি দেয় ববি, ভয়ে তিনি চলে যান থানায়। সহযোগী কোন পরিচিত কাউকে না পাওয়ায় থানায় অভিযোগ না দিয়েই ফিরে আসেন তিনি। পরে গিয়ে তার গরু বিক্রির ৩০ হাজার টাকা খোঁজ করলে তা পাননি।
প্রভাবশালী ববি জানান-মহিলা বিভিন্ন অনৈতিক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত,দীর্ঘদিন ধরে তাকে নিষেধ করেছেন কিন্তু শোনেন নি। তার বাড়ি ভাংচুর করে দেওয়ার সময় তার ঘর থেকে চোলাই মদ উদ্ধার করা হয়।ইতিপূর্বে তার নামে মিঠাপুকুর থানায় অনৈতিক কার্যক্রম করার কারণে সাধারণ অভিযোগ করা হয়েছিল বলে তিনি জানান। এছাড়া আলু তোলার সময় ফসল নিয়ে যাওয়ার জন্য যাতায়াতের অসুবিধার কথা তিনি দাবী করেন।
স্থানীয় নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য সুলতান মাহমুদ  জানান-আমার কাছে কোন অভিযোগ আসেনি এবং একাধিকবার আমি ছবিরন এর সামনে দিয়ে গিয়েছি কিন্তু সে আমাকে কিছু বলেনি। তাছাড়া এই মুহুর্তে তিনি কিছু করতে পারবেন না, কারণ এখন পর্যন্ত তিনি দায়িত্ব গ্রহণ করেননি। মিঠাপুকুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তাফিজার রহমান বলেন-বাড়ি ভাঙ্গার বিষয়ে কেউ কোন অভিযোগ থানায় করেনি ।যদি অভিযোগ আসে তাহলে ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

পিরোজপুরে তিন উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ১০ প্রার্থীর মনোয়নপত্র দাখিল

মিঠাপুকুরে চরিত্রহীনতার অপবাদ দিয়ে বিপত্নীক মহিলার বাড়ি ভাংচুর

আপডেট সময় ০৬:২০:০৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১১ মার্চ ২০২২
রুবেল হোসাইন (সংগ্রাম)
মিঠাপুকুর উপজেলায় চরিত্রহৃীনতার অপবাদ দিয়ে বিপত্নীক মহিলার সরকারী রাস্তার তিন মোড়স্থ বাড়ি ভাংচুর করা হয়েছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ছবিরন বেগম (৪৭) খোলা আকাশের নিচে অবস্থান করছেন।
বৃহস্পতিবার (১০ই মার্চ) সকাল আনুমানিক ৯ টায় উপজেলার পায়রাবন্দ ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ভিতর লোহানী নামক গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।
স্থানীয় মসজিদের ইমাম, মুয়াজ্জিন ও প্রভাবশালী কর্তৃক বাড়ি ভেঙ্গে দিয়েছে বলে ভুক্তভোগী ছবিরন বেগম অভিযোগ করেন। সরেজমিনে স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়-ছবিরন বেগম নামে মহিলার জন্মস্থান এখানে, বর্তমানে তার কেউ নেই! নেই নিজস্ব কোন বাপ দাদার পাওয়া সম্পতি। কালের বিবর্তনে হারিয়েছেন তিন স্বামী,মায়ের নামে এক টুকরো জমি সেটাও তার মা দিয়েছেন ছোট বোনের নামে। বোনকে দেয়া জমিতে ঠাঁই হয়নি তার।
আশেপাশের লোকের বাড়িতে ক্ষেত খামারে উপার্জিত অর্থ দিয়ে তার সংসার চলতো।ছবিরন রাস্তার মোড়স্থ একটু ফাঁকা জায়গায় টিনের চালা তুলে থাকতেন। তবে কোন দিন কেউ তার খারাপ কিছু দেখেনি কিংবা কোন লোক তাকে হাতে নাতে ধরেনি শুধু মানুষের মুখে চলছিলো তাকে নিয়ে তার চারিত্রিক সমালোচনা। আর এই কানাকানি থেকেই চারিত্রিক অপবাদ দিয়ে বাড়িটি ভেঙ্গে দেয় প্রভাবশালী ববি ও স্থানীয় মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিন।
ভুক্তভোগীর ছবিরন বলেন, অনেক কষ্ট করে মানুষের বাড়িতে কাজকর্ম করে একটি গরু পালন করে তা বিক্রি করেছেন কয়েক শতক জমি কেনার আশায়। রাস্তার মোড়স্থ জায়গায় বাড়ি করে থাকায় দীর্ঘদিন ধরে তার বিরুদ্ধে নানা অপবাদ দিয়ে আসছেন স্থানীয়রা। মোড়স্হ টিনের চালা তুলে বসবাস করায় কিছু লোক তার বিরোধিতা করে আসছিলো। এবং তারা অনেকে বিভিন্ন সময়ে তার কাছে টাকা দাবী করতেন। টাকা না দেওয়ায় চরিত্রহৃীন কলঙ্ক  রটিয়ে তার বাড়ি ভেঙ্গে দিয়েছেন।
ছবিরন জানান, ১০ মার্চ সকালে ঘুম থেকে উঠে তিনি মেম্বারের বাড়িতে রেশনের কার্ডের জন্য আইডি কার্ড দিতে যান, সেখান থেকে ফিরে এসে তার বাড়ি ভাংচুর করা দেখে বাধা দিলে প্রাণে মারার হুমকি দেয় ববি, ভয়ে তিনি চলে যান থানায়। সহযোগী কোন পরিচিত কাউকে না পাওয়ায় থানায় অভিযোগ না দিয়েই ফিরে আসেন তিনি। পরে গিয়ে তার গরু বিক্রির ৩০ হাজার টাকা খোঁজ করলে তা পাননি।
প্রভাবশালী ববি জানান-মহিলা বিভিন্ন অনৈতিক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত,দীর্ঘদিন ধরে তাকে নিষেধ করেছেন কিন্তু শোনেন নি। তার বাড়ি ভাংচুর করে দেওয়ার সময় তার ঘর থেকে চোলাই মদ উদ্ধার করা হয়।ইতিপূর্বে তার নামে মিঠাপুকুর থানায় অনৈতিক কার্যক্রম করার কারণে সাধারণ অভিযোগ করা হয়েছিল বলে তিনি জানান। এছাড়া আলু তোলার সময় ফসল নিয়ে যাওয়ার জন্য যাতায়াতের অসুবিধার কথা তিনি দাবী করেন।
স্থানীয় নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য সুলতান মাহমুদ  জানান-আমার কাছে কোন অভিযোগ আসেনি এবং একাধিকবার আমি ছবিরন এর সামনে দিয়ে গিয়েছি কিন্তু সে আমাকে কিছু বলেনি। তাছাড়া এই মুহুর্তে তিনি কিছু করতে পারবেন না, কারণ এখন পর্যন্ত তিনি দায়িত্ব গ্রহণ করেননি। মিঠাপুকুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তাফিজার রহমান বলেন-বাড়ি ভাঙ্গার বিষয়ে কেউ কোন অভিযোগ থানায় করেনি ।যদি অভিযোগ আসে তাহলে ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।