বাংলাদেশ ০৮:১৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
গোদাগাড়ীতে বালু মজুদ করতে ১০ একর জমির কাঁচা ধান কর্তন বেপরোয়া গতিতে চলমান রাইদা পরিবহনের বাসের চাপায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যুর ঘটনায় ঘাতক বাস ড্রাইভার গ্রেফতার।  হত্যা মামলার ০১ জন পলাতক আসামীকে ০৬ দিনের মধ্যে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। চট্টগ্রামে বিয়ের নামে ফাঁদ, একাধিক পুরুষকে নিঃস্ব করেছেন সুন্দরী টুম্পা কষ্টিপাথরের নন্দী মূর্তি-সংঘবদ্ধ পাচারকারীচক্রের মূলহোতা সহ ০২জন আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। ভান্ডারিয়ায় আলতাফ হোসেন স্মৃতি সংসদের শুভ উদ্বোধন করলেন শিক্ষানুরাগী ফজলুল করিম মিঠু মিয়া বদলগাছীতে মটর সাইকেল ভুটভুটি সংঘর্ষে ঝরে গেল তাজা একটি প্রান। শতাধিক রোভার সহচরকে দীক্ষা দিলো জবি রোভার স্কাউট গ্রুপ  হত্যা মামলার পলাতক আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রাক্টরচাপায় অটোরিকশা যাত্রী নিহত ১৫ দিনের ঈদযাত্রায় ২৯৪ প্রাণের মৃত্যুমিছিল : সেভ দ্য রোড অতিরিক্ত টোল আদায়, গোনায় ধরছে না কাউকে ইজারাদার ভালুকায় স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর ধর্ষন মামলা স্বামী কারাগারে দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা যশোরে তীব্র তাপদাহে পুড়ছে মানুষ  মাধবপুরে তরুণের বিরুদ্ধে বাবা মা ও ভাইকে নির্যাতনের অভিযোগ

প্রতারণার অভিযোগ পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৯:৩১:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৮ মার্চ ২০২২
  • ১৭২৫ বার পড়া হয়েছে

প্রতারণার অভিযোগ পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

 
রুবেল ইসলাম ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধিঃ
ভুয়া কাবিনে স্বাক্ষর নিয়ে বিয়ের পর দীর্ঘদিন মেলামেশা করে প্রতারণা করেছে বলে অভিযোগ ঠাকুরগাঁওয়ের জাহাঙ্গীর আলম নামে পুলিশের এক উপ পরিদর্শকের  বিরুদ্ধে।
আজ মঙ্গলবার (০৮ মার্চ ) দুপুরে ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যালয়ে এক ভুক্তভোগি নারী সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ তুলে ধরেন।
https://www.youtube.com/watch?v=GJw_2bAMw4Y
অভিযুক্ত ব্যাক্তি পুলিশের উপ পরিদর্শক জাহাঙ্গীর আলম ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ থানায় কর্মরত ছিলেন। সম্প্রতি মাদক সেবন ও নারী কেলেঙ্কারির অভিযোগে ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপারের নিকট অভিযোগ এবং আদালতে মামলার পর তাকে ক্লোজ করে ঠাকুরগাঁও পুলিশ লাইনে বদলী করা হয়েছে। তার বাড়ী পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী উপজেলার মির্জাপুর গ্রামে। সেখানে তার পুর্বের স্ত্রী-সন্তান রয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী ওই নারী লিখিত বক্তব্য পাঠ করে বলেন, পীরগঞ্জ থানায় কর্মরত থাকাবস্থায় ওই নারীর মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে প্রতিনিয়ত বিরক্ত করতো। এক সময়  ওই নারীর ঠিকানা সংগ্রহ করে তার ভাড়া বাড়ীতে নিয়মিত যাতায়াত করে বিয়েসহ শারীরিক মেলামেশার কু-প্রস্তাব দিচ্ছিল জাহাঙ্গীর। তার আগের স্ত্রী-সন্তান থাকার বিষয়টি জানার পর প্রস্তাব প্রত্যাখান করলে গেল বছরের ২২ মে সন্ধ্যায় জোর করে ঘরে ঢুকে ভুয়া কাবিন নামায় স্বাক্ষর নেয়।
এরপরে স্ত্রী হিসেবে স্বীকৃতি এবং সব ধরণের সুযোগ দেওয়ার অঙ্গীকার করে আমার সাথে ঘর-সংসার শুরু করে। কিছুদিন যেতে না যেতেই বাড়ীতে নিয়মিত মাদক সেবন,  জোর করে টাকা পায়সা হাতিয়ে নেওয়াসহ নানা ভাবে শারীরিক নির্যাতন শুরু করে। পুলিশ হওয়ার কারণে পরিবারের লোকজন প্রতিবাদ করার সাহস পায়নি।
তিনি আরও বলেন, পরবর্তীতে স্ত্রী হিসেবে তার বাড়ীতে সংসার করতে নিয়ে যাওয়ার কথা বললে সে যৌতুক বাবদ আড়াই লক্ষ টাকা চায় আসবাবপত্র কেনার জন্য। নিজের অলংকার ও ধার করে টাকা দেওয়ার কিছুদিন পর ভুয়া কাবিনে বিয়ে হয়েছে, আমি তার বৈধ স্ত্রী না, সাময়িক ব্যবহার করার জন্য এসব নাটক করেছে বলে জানিয়ে ছেড়ে চলে যায়। অসহায় নারী হিসেবে নিরুপায় হইয়া ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপার বরাবরে লিখিত অভিযোগ করে কোন সুফল না পাওয়ায় চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে ঠাকুরগাঁও বিজ্ঞ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালতে মামলা করি। মামলাটি আদালত আমলে নিয়ে পিবিআইকে তদন্তের দায়িত্ব দিয়েছেন।
সংবাদ সম্মলেন সাংবাদিকদের মাধ্যমে প্রতারক পুলিশের উপ-পরিদর্শক জাহাঙ্গীর আলমের দৃষ্ট্রান্ত মূলক শাস্তির দাবি করেন ওই নারী।
এ বিষয়ে পুলিশের উপ পরিদর্শক জাহাঙ্গীর আলমের নিকট মুঠোফোনে অভিযোগের বিষয়ে কথা বলার চেষ্টা করলে ওই নারীর নাম শুনেই কোন কথা বলেই ফোন কেটে দেন। পরবতীতে কথা বলার চেষ্টা করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।
জনপ্রিয় সংবাদ

গোদাগাড়ীতে বালু মজুদ করতে ১০ একর জমির কাঁচা ধান কর্তন

প্রতারণার অভিযোগ পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

আপডেট সময় ০৯:৩১:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৮ মার্চ ২০২২
 
রুবেল ইসলাম ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধিঃ
ভুয়া কাবিনে স্বাক্ষর নিয়ে বিয়ের পর দীর্ঘদিন মেলামেশা করে প্রতারণা করেছে বলে অভিযোগ ঠাকুরগাঁওয়ের জাহাঙ্গীর আলম নামে পুলিশের এক উপ পরিদর্শকের  বিরুদ্ধে।
আজ মঙ্গলবার (০৮ মার্চ ) দুপুরে ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যালয়ে এক ভুক্তভোগি নারী সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ তুলে ধরেন।
https://www.youtube.com/watch?v=GJw_2bAMw4Y
অভিযুক্ত ব্যাক্তি পুলিশের উপ পরিদর্শক জাহাঙ্গীর আলম ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ থানায় কর্মরত ছিলেন। সম্প্রতি মাদক সেবন ও নারী কেলেঙ্কারির অভিযোগে ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপারের নিকট অভিযোগ এবং আদালতে মামলার পর তাকে ক্লোজ করে ঠাকুরগাঁও পুলিশ লাইনে বদলী করা হয়েছে। তার বাড়ী পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী উপজেলার মির্জাপুর গ্রামে। সেখানে তার পুর্বের স্ত্রী-সন্তান রয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী ওই নারী লিখিত বক্তব্য পাঠ করে বলেন, পীরগঞ্জ থানায় কর্মরত থাকাবস্থায় ওই নারীর মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে প্রতিনিয়ত বিরক্ত করতো। এক সময়  ওই নারীর ঠিকানা সংগ্রহ করে তার ভাড়া বাড়ীতে নিয়মিত যাতায়াত করে বিয়েসহ শারীরিক মেলামেশার কু-প্রস্তাব দিচ্ছিল জাহাঙ্গীর। তার আগের স্ত্রী-সন্তান থাকার বিষয়টি জানার পর প্রস্তাব প্রত্যাখান করলে গেল বছরের ২২ মে সন্ধ্যায় জোর করে ঘরে ঢুকে ভুয়া কাবিন নামায় স্বাক্ষর নেয়।
এরপরে স্ত্রী হিসেবে স্বীকৃতি এবং সব ধরণের সুযোগ দেওয়ার অঙ্গীকার করে আমার সাথে ঘর-সংসার শুরু করে। কিছুদিন যেতে না যেতেই বাড়ীতে নিয়মিত মাদক সেবন,  জোর করে টাকা পায়সা হাতিয়ে নেওয়াসহ নানা ভাবে শারীরিক নির্যাতন শুরু করে। পুলিশ হওয়ার কারণে পরিবারের লোকজন প্রতিবাদ করার সাহস পায়নি।
তিনি আরও বলেন, পরবর্তীতে স্ত্রী হিসেবে তার বাড়ীতে সংসার করতে নিয়ে যাওয়ার কথা বললে সে যৌতুক বাবদ আড়াই লক্ষ টাকা চায় আসবাবপত্র কেনার জন্য। নিজের অলংকার ও ধার করে টাকা দেওয়ার কিছুদিন পর ভুয়া কাবিনে বিয়ে হয়েছে, আমি তার বৈধ স্ত্রী না, সাময়িক ব্যবহার করার জন্য এসব নাটক করেছে বলে জানিয়ে ছেড়ে চলে যায়। অসহায় নারী হিসেবে নিরুপায় হইয়া ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপার বরাবরে লিখিত অভিযোগ করে কোন সুফল না পাওয়ায় চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে ঠাকুরগাঁও বিজ্ঞ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালতে মামলা করি। মামলাটি আদালত আমলে নিয়ে পিবিআইকে তদন্তের দায়িত্ব দিয়েছেন।
সংবাদ সম্মলেন সাংবাদিকদের মাধ্যমে প্রতারক পুলিশের উপ-পরিদর্শক জাহাঙ্গীর আলমের দৃষ্ট্রান্ত মূলক শাস্তির দাবি করেন ওই নারী।
এ বিষয়ে পুলিশের উপ পরিদর্শক জাহাঙ্গীর আলমের নিকট মুঠোফোনে অভিযোগের বিষয়ে কথা বলার চেষ্টা করলে ওই নারীর নাম শুনেই কোন কথা বলেই ফোন কেটে দেন। পরবতীতে কথা বলার চেষ্টা করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।