বাংলাদেশ ০৯:০৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
মেহেন্দিগঞ্জে কিশোর গ্যাং এর ৬ সদস্য পুলিশের হাতে আটক। পঞ্চগড়ে বঞ্চিত শিশুদের আনন্দ দিতে শিশুস্বর্গের নানা আয়োজন শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের চার নেতা কর্মীকে বহিষ্কার। অস্বাস্থ্যকর জেলি পুশকৃত চিংড়ি বাজারজাতকরণের উদ্দেশ্যে পরিবহনে সহায়তা করার অপরাধে চিংড়ি মালিককে জরিমানা ও জেলি পুশ চিংড়ি ধ্বংস করেছে র‌্যাব। কাউখালীতে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতিসহ ৪ প্রার্থী জামানত হারান  চাকরি পেয়ে তো ঠিকই ঘুষ নিবেন আমরা একটু বেশি নিলে সমস্যা কি; রাবির দোকানি নরসিংদীর রায়পুরায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীকে পিটিয়ে হত্যা কালকিনি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী তৌফিকুজ্জামান শাহীন সাহস করে উঠে দাঁড়ান নইলে কাল আপনার পালা: মঈন উদ্দিন খান মতিহারে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেপ্তার সাপাহারে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী হলেন যারা ঘাটাইলে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার শ্রমজীবী-পথচারীদের মাঝে দাগনভূঞা সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের শরবত বিতরণ  কামারগাঁ ইউপি বাসীর পক্ষ থেকে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ময়নাকে সংবর্ধনা  সকল বাধা বিপত্তি অতিক্রম করে এগিয়ে চলেছেন রায়গঞ্জের ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ রফিকুল ইসলাম নান্নু

নামুজা ডিগ্রি কলেজে ৭ই মার্চ উপলক্ষে আলোচনা সভা।

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৪:১৭:১১ অপরাহ্ন, সোমবার, ৭ মার্চ ২০২২
  • ১৬৯৭ বার পড়া হয়েছে

নামুজা ডিগ্রি কলেজে ৭ই মার্চ উপলক্ষে আলোচনা সভা।

মোঃ রিফাত হোসেন, নামুজা কলেজ, ক্যাম্পাস প্রতিনিধি:
৭ই মার্চ রোজ সোমবার বগুড়া সদরের নামুজা ডিগ্রি কলেজে ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত আলোচনা সভার শুরুতে জতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পা অর্পন করেন অত্র কলেজের অধ্যক্ষ সহ শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। তারপর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এতে শুভ উদ্বোধন করেন নামুজা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ জনাব মোঃ সহিদুল ইসলাম দুলু।
তারপর বিস্তারিত বক্তব্য রাখেন নামুজা ডিগ্রি কলেজের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক জনাব মোঃ আব্দুল মজিদ। তারপর বক্তব্য রাখেন ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক মোঃ রফিকুল ইসলাম। তারপর বক্তব্য রাখেন সহকারী অধ্যাপক জনাব মোঃ গোলাম রব্বানী। পরিশেষে সমাপনী বক্তব্য রাখেন নামুজা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ জনাব মোঃ সহিদুল ইসলাম দুলু। তিনি বলেন- ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চের ভাষণের মধ্য দিয়ে বাঙালি জাতির স্বাধীনতার সূচনা হয়। ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ ঢাকার রেসকোর্স ময়দানে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালি জাতির স্বাধীনতার জন্য ১৮ মিনিটের ভাষণ দেন।
এসময় তিনি বলেন “এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম” এর জবাবে সকল বাঙালি বলে ওঠে “জয় বাংলা”। দৈর্ঘ্য ৯মাস রক্ত ক্ষযী যুদ্ধের পর বাংলাদেশ স্বাধীনতা লাভ করে। ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণের মধ্য দিয়েই বাঙালি জাতিয়তা বাদ চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে উঠেছিল।
এই ৭ই মার্চের ভাষণটি বিশ্বের বিরল একটি ভাষণ। যা বিশ্বের ইতিহাসে ঐতিহাসিক ভাষণ হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। তিনি বলেন বর্তমানে একটি মহল আমাদের স্বাধীনতার ভাব মূর্তি নষ্ট করতে চায়। তাই তোমাদের সঠিক ইতিহাস জানতে হবে এবং দেশ প্রেমে উদ্বুদ্ধ হতে হবে।
জনপ্রিয় সংবাদ

মেহেন্দিগঞ্জে কিশোর গ্যাং এর ৬ সদস্য পুলিশের হাতে আটক।

নামুজা ডিগ্রি কলেজে ৭ই মার্চ উপলক্ষে আলোচনা সভা।

আপডেট সময় ০৪:১৭:১১ অপরাহ্ন, সোমবার, ৭ মার্চ ২০২২
মোঃ রিফাত হোসেন, নামুজা কলেজ, ক্যাম্পাস প্রতিনিধি:
৭ই মার্চ রোজ সোমবার বগুড়া সদরের নামুজা ডিগ্রি কলেজে ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত আলোচনা সভার শুরুতে জতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পা অর্পন করেন অত্র কলেজের অধ্যক্ষ সহ শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। তারপর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এতে শুভ উদ্বোধন করেন নামুজা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ জনাব মোঃ সহিদুল ইসলাম দুলু।
তারপর বিস্তারিত বক্তব্য রাখেন নামুজা ডিগ্রি কলেজের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক জনাব মোঃ আব্দুল মজিদ। তারপর বক্তব্য রাখেন ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক মোঃ রফিকুল ইসলাম। তারপর বক্তব্য রাখেন সহকারী অধ্যাপক জনাব মোঃ গোলাম রব্বানী। পরিশেষে সমাপনী বক্তব্য রাখেন নামুজা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ জনাব মোঃ সহিদুল ইসলাম দুলু। তিনি বলেন- ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চের ভাষণের মধ্য দিয়ে বাঙালি জাতির স্বাধীনতার সূচনা হয়। ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ ঢাকার রেসকোর্স ময়দানে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালি জাতির স্বাধীনতার জন্য ১৮ মিনিটের ভাষণ দেন।
এসময় তিনি বলেন “এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম” এর জবাবে সকল বাঙালি বলে ওঠে “জয় বাংলা”। দৈর্ঘ্য ৯মাস রক্ত ক্ষযী যুদ্ধের পর বাংলাদেশ স্বাধীনতা লাভ করে। ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণের মধ্য দিয়েই বাঙালি জাতিয়তা বাদ চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে উঠেছিল।
এই ৭ই মার্চের ভাষণটি বিশ্বের বিরল একটি ভাষণ। যা বিশ্বের ইতিহাসে ঐতিহাসিক ভাষণ হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। তিনি বলেন বর্তমানে একটি মহল আমাদের স্বাধীনতার ভাব মূর্তি নষ্ট করতে চায়। তাই তোমাদের সঠিক ইতিহাস জানতে হবে এবং দেশ প্রেমে উদ্বুদ্ধ হতে হবে।