বাংলাদেশ ০৯:৪৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
মেহেন্দিগঞ্জে কিশোর গ্যাং এর ৬ সদস্য পুলিশের হাতে আটক। পঞ্চগড়ে বঞ্চিত শিশুদের আনন্দ দিতে শিশুস্বর্গের নানা আয়োজন শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের চার নেতা কর্মীকে বহিষ্কার। অস্বাস্থ্যকর জেলি পুশকৃত চিংড়ি বাজারজাতকরণের উদ্দেশ্যে পরিবহনে সহায়তা করার অপরাধে চিংড়ি মালিককে জরিমানা ও জেলি পুশ চিংড়ি ধ্বংস করেছে র‌্যাব। কাউখালীতে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতিসহ ৪ প্রার্থী জামানত হারান  চাকরি পেয়ে তো ঠিকই ঘুষ নিবেন আমরা একটু বেশি নিলে সমস্যা কি; রাবির দোকানি নরসিংদীর রায়পুরায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীকে পিটিয়ে হত্যা কালকিনি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী তৌফিকুজ্জামান শাহীন সাহস করে উঠে দাঁড়ান নইলে কাল আপনার পালা: মঈন উদ্দিন খান মতিহারে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেপ্তার সাপাহারে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী হলেন যারা ঘাটাইলে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার শ্রমজীবী-পথচারীদের মাঝে দাগনভূঞা সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের শরবত বিতরণ  কামারগাঁ ইউপি বাসীর পক্ষ থেকে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ময়নাকে সংবর্ধনা  সকল বাধা বিপত্তি অতিক্রম করে এগিয়ে চলেছেন রায়গঞ্জের ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ রফিকুল ইসলাম নান্নু

অগ্নিকান্ডে স্বামী ও তিন সন্তানের পর না ফেরার দেশে স্ত্রী রেখাও!

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০২:৫৬:১৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১ মার্চ ২০২২
  • ১৭১৪ বার পড়া হয়েছে

অগ্নিকান্ডে স্বামী ও তিন সন্তানের পর না ফেরার দেশে স্ত্রী রেখাও!

 

 

 

 

নিজস্ব প্রতিবেদক।  

 

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে বহুতল ভবনে অগ্নিকান্ডে স্বামী ও ৩ সন্তানের পর এবার মারা গেলেন গৃহবধূ রেখা আক্তার। এর ফলে ওই পরিবারের আর কেউ বেঁচে রইলো না। সোমবার রাত ১১টার দিকে রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আইসিসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রেখা। তার মৃত্যু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার চাচা শ্বশুর ও উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শরীফ হোসাইন।

 

 

গত মঙ্গলবার  (ফেব্রুয়ারী) রাতে  উপজেলার আশুগঞ্জ বাজারের আলাই মোল্লা ভবনে অগ্নিকান্ড হয়। এতে স্কুলশিক্ষক মকবুল মিয়া (৪২), তার স্ত্রী রেখা বেগম (৩৫), বড় ছেলে আরিফ হোসেন জয় (১১) ও জুবায়ের হোসেন (৭) অগ্নিদগ্ধ হয়। এছাড়াও মকবুলেল স্ত্রী রেখার গর্ভে থাকা ৮ মাসের মেয়ে সন্তানও মৃত্যুবরণ করেছেন।  এই ঘটনায় একে একে মারা গেলেন সবাই। রেখাসহ মকবুলের পরিবারের ৫ সদস্যের মৃত্যু ঘটনা নিয়ে এলাকায় চলছে শোকের মাতম।

 

 

পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ১৩ বছরে আগে জেলার নবীনগরের রেখা বেগমকে বিয়ে করেন আশুগঞ্জ উপজেলার শরীফপুরের সফর মিয়ার ছেলে মকবুল মিয়া। মকবুল ছিলেন সাবেক ইউপি সদস্য ও ইউপি সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি। পেশায় ছিলেন একজন সহকারী শিক্ষক। বিয়ের পর তাদের সংসারে দুই ছেলে সন্তান জন্ম নেয়। মকবুল দুই ছেলে ও স্ত্রীকে নিয়ে উপজেলা সদরে ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন।

 

 

গত মঙ্গলবার (২২ ফেব্রুয়ারী) রাত আনুমানিক সাড়ে ১০ টার দিকে হঠাৎ মকবুলের বাসায় বিস্ফোরণের বিকট শব্দ হং। এতে মকবুল মিয়া, মকবুলের গর্ভবতী স্ত্রী রেখা, বড় ছেলে জয় ও ছোট ছেলে জুবায়ের অগ্নিদগ্ধ হয়। তাদেরকে উদ্ধার করে ঢাকায় নেওয়ার পথে মকবুলের ছোট ছেলে জুবায়ের মারা যায়। ঘটনার পরদিন বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে মকবুল মিয়া মারা যান। স্বামী মারা যাওয়ার একদিন পর গত বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীতে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অগ্নিদগ্ধ রেখা একটি মৃত সন্তান প্রসব করেন। গত রোববার চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় মকবুলের বড় ছেলে জয়। সর্বশেষ সোমবার রাত ১১টার দিকে নিহত মকবুলের স্ত্রী রেখা বেগম আইসিসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেলেন।

 

 

 

 

জনপ্রিয় সংবাদ

মেহেন্দিগঞ্জে কিশোর গ্যাং এর ৬ সদস্য পুলিশের হাতে আটক।

অগ্নিকান্ডে স্বামী ও তিন সন্তানের পর না ফেরার দেশে স্ত্রী রেখাও!

আপডেট সময় ০২:৫৬:১৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১ মার্চ ২০২২

 

 

 

 

নিজস্ব প্রতিবেদক।  

 

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে বহুতল ভবনে অগ্নিকান্ডে স্বামী ও ৩ সন্তানের পর এবার মারা গেলেন গৃহবধূ রেখা আক্তার। এর ফলে ওই পরিবারের আর কেউ বেঁচে রইলো না। সোমবার রাত ১১টার দিকে রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আইসিসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রেখা। তার মৃত্যু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার চাচা শ্বশুর ও উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শরীফ হোসাইন।

 

 

গত মঙ্গলবার  (ফেব্রুয়ারী) রাতে  উপজেলার আশুগঞ্জ বাজারের আলাই মোল্লা ভবনে অগ্নিকান্ড হয়। এতে স্কুলশিক্ষক মকবুল মিয়া (৪২), তার স্ত্রী রেখা বেগম (৩৫), বড় ছেলে আরিফ হোসেন জয় (১১) ও জুবায়ের হোসেন (৭) অগ্নিদগ্ধ হয়। এছাড়াও মকবুলেল স্ত্রী রেখার গর্ভে থাকা ৮ মাসের মেয়ে সন্তানও মৃত্যুবরণ করেছেন।  এই ঘটনায় একে একে মারা গেলেন সবাই। রেখাসহ মকবুলের পরিবারের ৫ সদস্যের মৃত্যু ঘটনা নিয়ে এলাকায় চলছে শোকের মাতম।

 

 

পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ১৩ বছরে আগে জেলার নবীনগরের রেখা বেগমকে বিয়ে করেন আশুগঞ্জ উপজেলার শরীফপুরের সফর মিয়ার ছেলে মকবুল মিয়া। মকবুল ছিলেন সাবেক ইউপি সদস্য ও ইউপি সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি। পেশায় ছিলেন একজন সহকারী শিক্ষক। বিয়ের পর তাদের সংসারে দুই ছেলে সন্তান জন্ম নেয়। মকবুল দুই ছেলে ও স্ত্রীকে নিয়ে উপজেলা সদরে ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন।

 

 

গত মঙ্গলবার (২২ ফেব্রুয়ারী) রাত আনুমানিক সাড়ে ১০ টার দিকে হঠাৎ মকবুলের বাসায় বিস্ফোরণের বিকট শব্দ হং। এতে মকবুল মিয়া, মকবুলের গর্ভবতী স্ত্রী রেখা, বড় ছেলে জয় ও ছোট ছেলে জুবায়ের অগ্নিদগ্ধ হয়। তাদেরকে উদ্ধার করে ঢাকায় নেওয়ার পথে মকবুলের ছোট ছেলে জুবায়ের মারা যায়। ঘটনার পরদিন বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে মকবুল মিয়া মারা যান। স্বামী মারা যাওয়ার একদিন পর গত বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীতে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অগ্নিদগ্ধ রেখা একটি মৃত সন্তান প্রসব করেন। গত রোববার চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় মকবুলের বড় ছেলে জয়। সর্বশেষ সোমবার রাত ১১টার দিকে নিহত মকবুলের স্ত্রী রেখা বেগম আইসিসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেলেন।