বাংলাদেশ ০৯:৩৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
মেহেন্দিগঞ্জে কিশোর গ্যাং এর ৬ সদস্য পুলিশের হাতে আটক। পঞ্চগড়ে বঞ্চিত শিশুদের আনন্দ দিতে শিশুস্বর্গের নানা আয়োজন শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের চার নেতা কর্মীকে বহিষ্কার। অস্বাস্থ্যকর জেলি পুশকৃত চিংড়ি বাজারজাতকরণের উদ্দেশ্যে পরিবহনে সহায়তা করার অপরাধে চিংড়ি মালিককে জরিমানা ও জেলি পুশ চিংড়ি ধ্বংস করেছে র‌্যাব। কাউখালীতে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতিসহ ৪ প্রার্থী জামানত হারান  চাকরি পেয়ে তো ঠিকই ঘুষ নিবেন আমরা একটু বেশি নিলে সমস্যা কি; রাবির দোকানি নরসিংদীর রায়পুরায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীকে পিটিয়ে হত্যা কালকিনি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী তৌফিকুজ্জামান শাহীন সাহস করে উঠে দাঁড়ান নইলে কাল আপনার পালা: মঈন উদ্দিন খান মতিহারে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেপ্তার সাপাহারে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী হলেন যারা ঘাটাইলে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার শ্রমজীবী-পথচারীদের মাঝে দাগনভূঞা সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের শরবত বিতরণ  কামারগাঁ ইউপি বাসীর পক্ষ থেকে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ময়নাকে সংবর্ধনা  সকল বাধা বিপত্তি অতিক্রম করে এগিয়ে চলেছেন রায়গঞ্জের ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ রফিকুল ইসলাম নান্নু

মন ভালো না থাকার কারন জানতে চেয়েছে জবি প্রশাসন

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৫:৪৮:২৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২
  • ১৬৭০ বার পড়া হয়েছে

মন ভালো না থাকার কারন জানতে চেয়েছে জবি প্রশাসন

তারেক হাসান, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়। 
সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া উত্তরপত্রে “স্যার আজকে আমার মন ভালো নেই “ লেখা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র তানভীর মাহতাবের কাছ থেকে এবার আগামী (৪ জুলাই) সোমবারের মধ্যে মন খারাপের কারণ জানতে চেয়েছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) প্রশাসন।
এর আগে গত বুধবার অভিযুক্ত শিক্ষার্থীর কাছ থেকে লিখিত বক্তব্য নেয় ইংরেজি বিভাগ।‌ পরবর্তীতে তানভীরের সেই লিখিত বক্তব্য ইংরেজি বিভাগ কর্তৃপক্ষ প্রক্টর অফিসে পাঠায় ।
এই বিষয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মোস্তফা কামাল বলেন, ওই শিক্ষার্থী যে অপরাধ করেছে। সেগুলোর কারণ তাকে দর্শাতে হবে। যথাযথ কারণ বলতে না পারলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
বৃহস্পতিবার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি বিভাগে ইনকোর্স মিড টার্ম পরীক্ষার অতিরিক্ত উত্তরপত্রের প্রথম পাতায় ‘স্যার আজকে আমার মন ভালো নেই’ বাক্যটি লেখা একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। ছবিতে দেখা গেছে, ইংরেজি বিভাগের প্রথম সেমিস্টারের এক শিক্ষার্থীর পরীক্ষার অতিরিক্ত উত্তরপত্রে বাক্যটি লেখা। পাশেই আবার লাল কালিতে শূন্য নম্বর দিয়ে ‘বাতিল’ লেখা।
ঐ দিন সকালে মজা করে বিষয়টি ফেসবুকে দিলেও রাত গড়াতে সেটি ভাইরাল হয়ে যায়। পরবর্তীতে বিষয়টি‌  বিভাগ কর্তৃপক্ষের নজরে আসার পর সত্যি মাহতাবের মন খারাপ হয়ে যায়। ঘটনার তদন্তে করতে গিয়ে বিভাগ কর্তৃপক্ষ জানান। ভাইরাল উত্তরপত্রটি কোনো পরীক্ষার অংশ নয়।
এ বিষয়ে তানভীর মাহতাব বলেন, ছবি ভাইরাল হওয়ার দিন বিভাগের কোনো পরীক্ষা ছিল না। এই অতিরিক্ত উত্তরপত্রটি কিছুদিন আগে ক্লাসরুমে পড়ে থাকায় বাসায় নিয়ে এসেছিলেন। পরে বৃহস্পতিবার সকালে উত্তরপত্রটিতে “স্যার আজকে আমার মন নেই” লিখেন। তারপর স্যারের স্বাক্ষর নকল করে নিজেই নিজের খাতা যাচাই করেন। উত্তরপত্রে লাল কালি দিয়ে শূণ্য দিয়ে পরীক্ষার খাতা বাতিল লিখেন। পরবর্তীতে সকালে ফেসবুকে পোস্ট করেন। পরে অনেকেই বিষয়টি ঠিক হয়নি জানালে তা সরিয়ে নেন। তবে অনেকে ছবিটি সংগ্রহ করে রাখায় এবং স্ক্রিনশট নেওয়া যায় তা ছড়িয়ে পড়ে।
আপলোডকারীর তথ্য

Banglar Alo News

hello
জনপ্রিয় সংবাদ

মেহেন্দিগঞ্জে কিশোর গ্যাং এর ৬ সদস্য পুলিশের হাতে আটক।

মন ভালো না থাকার কারন জানতে চেয়েছে জবি প্রশাসন

আপডেট সময় ০৫:৪৮:২৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২
তারেক হাসান, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়। 
সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া উত্তরপত্রে “স্যার আজকে আমার মন ভালো নেই “ লেখা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র তানভীর মাহতাবের কাছ থেকে এবার আগামী (৪ জুলাই) সোমবারের মধ্যে মন খারাপের কারণ জানতে চেয়েছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) প্রশাসন।
এর আগে গত বুধবার অভিযুক্ত শিক্ষার্থীর কাছ থেকে লিখিত বক্তব্য নেয় ইংরেজি বিভাগ।‌ পরবর্তীতে তানভীরের সেই লিখিত বক্তব্য ইংরেজি বিভাগ কর্তৃপক্ষ প্রক্টর অফিসে পাঠায় ।
এই বিষয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মোস্তফা কামাল বলেন, ওই শিক্ষার্থী যে অপরাধ করেছে। সেগুলোর কারণ তাকে দর্শাতে হবে। যথাযথ কারণ বলতে না পারলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
বৃহস্পতিবার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি বিভাগে ইনকোর্স মিড টার্ম পরীক্ষার অতিরিক্ত উত্তরপত্রের প্রথম পাতায় ‘স্যার আজকে আমার মন ভালো নেই’ বাক্যটি লেখা একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। ছবিতে দেখা গেছে, ইংরেজি বিভাগের প্রথম সেমিস্টারের এক শিক্ষার্থীর পরীক্ষার অতিরিক্ত উত্তরপত্রে বাক্যটি লেখা। পাশেই আবার লাল কালিতে শূন্য নম্বর দিয়ে ‘বাতিল’ লেখা।
ঐ দিন সকালে মজা করে বিষয়টি ফেসবুকে দিলেও রাত গড়াতে সেটি ভাইরাল হয়ে যায়। পরবর্তীতে বিষয়টি‌  বিভাগ কর্তৃপক্ষের নজরে আসার পর সত্যি মাহতাবের মন খারাপ হয়ে যায়। ঘটনার তদন্তে করতে গিয়ে বিভাগ কর্তৃপক্ষ জানান। ভাইরাল উত্তরপত্রটি কোনো পরীক্ষার অংশ নয়।
এ বিষয়ে তানভীর মাহতাব বলেন, ছবি ভাইরাল হওয়ার দিন বিভাগের কোনো পরীক্ষা ছিল না। এই অতিরিক্ত উত্তরপত্রটি কিছুদিন আগে ক্লাসরুমে পড়ে থাকায় বাসায় নিয়ে এসেছিলেন। পরে বৃহস্পতিবার সকালে উত্তরপত্রটিতে “স্যার আজকে আমার মন নেই” লিখেন। তারপর স্যারের স্বাক্ষর নকল করে নিজেই নিজের খাতা যাচাই করেন। উত্তরপত্রে লাল কালি দিয়ে শূণ্য দিয়ে পরীক্ষার খাতা বাতিল লিখেন। পরবর্তীতে সকালে ফেসবুকে পোস্ট করেন। পরে অনেকেই বিষয়টি ঠিক হয়নি জানালে তা সরিয়ে নেন। তবে অনেকে ছবিটি সংগ্রহ করে রাখায় এবং স্ক্রিনশট নেওয়া যায় তা ছড়িয়ে পড়ে।