বাংলাদেশ ১১:৩৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
মাগুরা প্রতারক চঞ্চল ও তার সহযোগীদের প্রতারণার শিকার জেড এম রাইচ এন্ড কনজুমার লিমিটেড এর এমডি বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানা পুলিশ কর্তৃক প্রায় ১০কেজি গাঁজাসহ মাদক কারবারি আটক পটুয়াখালীতে খাদ্য ও পুষ্টি মেলা অনুষ্ঠিত স্থানীয় কাউন্সিলর তোফায়েল আহমদ সেপুলের কোনো সম্পৃক্ততা ছিল না। মাধ্যমিক শিক্ষা ও শিক্ষকের বর্তমান অবস্থা: উন্নয়নে করণীয়। বেইলী রোডের কাচ্চিভাই নামক রেস্টুরেন্টে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় সাহসী ভূমিকা পালন করছে র‌্যাব-৩। অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা মিজানুর রহমানকে জনতা ব্যাংকের নির্বাহী কর্মকর্তা হওয়ায় বেইলি রোডে একটি রেস্টুরেন্টে লাগা আগুন ফায়ার সার্ভিসের ১৩ টি ইউনিটের চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে। বেইলি রোডে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এপর্যন্ত ৬৮ জন জীবিত উদ্ধার, বদলগাছী উপজেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত।  ভোটের সার্বিক কার্যক্রম কমিশন থেকে মনিটরিং ইসি সচিব জাহাঙ্গীর আলম কিশোর গ্যাং আমির গ্রুপের লীডার আমির সহ ০৯ সদস্য গ্রেফতার। নলছিটি তালতলা বাজার থেকে ৫ কেজি গাজা সহ গোশত ব্যবসায়ি ফারুক আটক বঙ্গবন্ধু মুক্তির সংগ্রাম বলতে অর্থনৈতিক মুক্তি বুঝিয়েছেন: কাজী খলীকুজ্জমান প্রায় অর্ধ কোটি টাকার অবৈধ মাদকদ্রব্য উদ্ধার: বিপুল পরিমান ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ০৩ জন বড় মাদক ব্যবসায়ী আটক এবং মাদক পরিবহনকারী গাড়ী জব্দ। জবিতে ‘আমরা তোমাদের ভুলবো না’ শীর্ষক অনুষ্ঠান আয়োজিত 

বাংলাদেশে মেডিকেল টেকনোলজিস্টরা কি শ্রমের মূল্য আদৌ পাবে?

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৩:২০:৫৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১ মে ২০২২
  • ১৭২৬ বার পড়া হয়েছে

বাংলাদেশে মেডিকেল টেকনোলজিস্টরা কি শ্রমের মূল্য আদৌ পাবে?

(শংকর চৌধুরী, মেডিকেল টেকনোলজিস্ট)
আজ বিশ্ব শ্রমিক দিবস। সারা বিশ্বে শ্রমিকরা আজ সম্মানিত হচ্ছেন, ছুটি উপভোগ করছেন। ১৯৮৬ সালে আমেরিকার শিকাগো শহরে শ্রমিকদের আন্দোলন ও আত্মাহুতিতে বিশ্বের শ্রমিক রা এই সুবিধা আজ পাচ্ছে। কিন্তু অবাক করার বিষয় যা আসলে মমান্তিক ও নির্যাতনের শামিল সেটা হলো বাংলাদেশের মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের বিরতিহীন কর্মযজ্ঞ দেখে।
করোনা মহামারিতে সারা বিশ্বের মানুষ যখন গৃহবন্দী তখন হাসপাতালে, মাঠে লোকালয়ে করোনা ভাইরাসকে উপেক্ষা করে করোনা রোগীর নমুনা সংগ্রহ থেকে শুরু করে পরীক্ষা করে রিপোর্ট দিয়েছেন মেডিকেল টেকনোলজিস্টরা।বাংলাদেশের অনেকেই চিনতো না প্রথম সারির এ করোনা যোদ্ধা মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের। অনেকেই বলেছে এটা ডাক্তার, নার্সদের অবদান।দোষ তাদের নয়, অনেক সিনয়র মেডিকেল পার্সনই যেখানে জানে না মেডিকেল টেকনোলজিস্ট কারা সেখানে সাধারণ মানুষ তো জানার কথাই না। বাংলাদেশে মেডিকেল টেকনোলজিস্টরা সবচেয়ে বেশি অবহেলিত হচ্ছে প্রাইভেট হসপিটাল, ডায়াগনস্টিক সেণ্টার গুলোতে।শ্রম আইনে ৮ ঘণ্টা ডিউটি একজন সাধারণ শ্রমিকের পর্যন্ত।
সাপ্তাহিক কর্মদিবস ৬ দিন। ৮ ঘণ্টার পর ওভার টাইম করলে দ্বিগুন পারিশ্রমিক দিতে হবে। তাও সর্বোচ্চ ২ঘণ্টার বেশি ওভার টাইম করা যাবে না, অর্থাৎ সর্বোচ্চ ১০ ঘণ্টা পর্যন্ত ডিউটি করা যাবে একজন শ্রমিককে দিয়ে। আর এখানে সম্পূর্ণ বিপরীতে মেডিকেল টেকনোলজিস্ট সহ অন্য স্টাফদের দিয়ে কাজ করাচ্ছে প্রাইভেট হাসপাতাল, ল্যাব। ১২/১৪ ঘণ্টা ডিউটি করায়, ছুটির কোন বালাই নাই। বেতন-ভাতা প্রদানের কোন সুনির্দিষ্ট সময় নেই। অথচ এ শ্রমিকদের শ্রমের বিনিময়ে উপার্জিত অর্থে মালিকপক্ষ আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ। মেডিকেল টেকনোলজিস্টরা করোনাকালীন রোগীর সেবা দিতে গিয়ে অনেকেই করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণও করলো।
পাইনি কোন অনুদান এই মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের পরিবার। এমনকি অনেক টেকনোলজিস্ট অসুস্থকালীন ছুটি পর্যন্ত পায়নি। এটা শুধু জুলুম নয় মেডিকেল টেকনোলজিস্ট জাতির সাথে সরাসরি নির্যাতন। প্রতি বছর শ্রমিক দিবস আসে যায়, তবুও দেশের সম্পদ এই টেকনোলজিস্টদের খবর কেউ রাখে না। শ্রমিক দিবসেও তারা কাজ করছে ল্যাবে রোগীর রোগ নির্ণয়ে।অনেক মেডিকেল টেকনোলজিস্টকে এবার ঈদের বোনাস পর্যন্ত দেয়নি মালিক কতৃপক্ষ। ডাক্তার, নাস দিয়ে হাসপাতাল, ডায়াগনষ্টিক চালাতে পারবে মেডিকেল টেকনোলজিস্ট ছাড়া? প্রশ্ন রইলো মানবাধিকার কমিশন ও সংগঠনগুলোর কাছে? প্রশ্ন রইলো প্রতিটা বিবেকবান মানুষের প্রতি?
আপলোডকারীর তথ্য

Banglar Alo News

hello
জনপ্রিয় সংবাদ

মাগুরা প্রতারক চঞ্চল ও তার সহযোগীদের প্রতারণার শিকার জেড এম রাইচ এন্ড কনজুমার লিমিটেড এর এমডি

বাংলাদেশে মেডিকেল টেকনোলজিস্টরা কি শ্রমের মূল্য আদৌ পাবে?

আপডেট সময় ০৩:২০:৫৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১ মে ২০২২
(শংকর চৌধুরী, মেডিকেল টেকনোলজিস্ট)
আজ বিশ্ব শ্রমিক দিবস। সারা বিশ্বে শ্রমিকরা আজ সম্মানিত হচ্ছেন, ছুটি উপভোগ করছেন। ১৯৮৬ সালে আমেরিকার শিকাগো শহরে শ্রমিকদের আন্দোলন ও আত্মাহুতিতে বিশ্বের শ্রমিক রা এই সুবিধা আজ পাচ্ছে। কিন্তু অবাক করার বিষয় যা আসলে মমান্তিক ও নির্যাতনের শামিল সেটা হলো বাংলাদেশের মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের বিরতিহীন কর্মযজ্ঞ দেখে।
করোনা মহামারিতে সারা বিশ্বের মানুষ যখন গৃহবন্দী তখন হাসপাতালে, মাঠে লোকালয়ে করোনা ভাইরাসকে উপেক্ষা করে করোনা রোগীর নমুনা সংগ্রহ থেকে শুরু করে পরীক্ষা করে রিপোর্ট দিয়েছেন মেডিকেল টেকনোলজিস্টরা।বাংলাদেশের অনেকেই চিনতো না প্রথম সারির এ করোনা যোদ্ধা মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের। অনেকেই বলেছে এটা ডাক্তার, নার্সদের অবদান।দোষ তাদের নয়, অনেক সিনয়র মেডিকেল পার্সনই যেখানে জানে না মেডিকেল টেকনোলজিস্ট কারা সেখানে সাধারণ মানুষ তো জানার কথাই না। বাংলাদেশে মেডিকেল টেকনোলজিস্টরা সবচেয়ে বেশি অবহেলিত হচ্ছে প্রাইভেট হসপিটাল, ডায়াগনস্টিক সেণ্টার গুলোতে।শ্রম আইনে ৮ ঘণ্টা ডিউটি একজন সাধারণ শ্রমিকের পর্যন্ত।
সাপ্তাহিক কর্মদিবস ৬ দিন। ৮ ঘণ্টার পর ওভার টাইম করলে দ্বিগুন পারিশ্রমিক দিতে হবে। তাও সর্বোচ্চ ২ঘণ্টার বেশি ওভার টাইম করা যাবে না, অর্থাৎ সর্বোচ্চ ১০ ঘণ্টা পর্যন্ত ডিউটি করা যাবে একজন শ্রমিককে দিয়ে। আর এখানে সম্পূর্ণ বিপরীতে মেডিকেল টেকনোলজিস্ট সহ অন্য স্টাফদের দিয়ে কাজ করাচ্ছে প্রাইভেট হাসপাতাল, ল্যাব। ১২/১৪ ঘণ্টা ডিউটি করায়, ছুটির কোন বালাই নাই। বেতন-ভাতা প্রদানের কোন সুনির্দিষ্ট সময় নেই। অথচ এ শ্রমিকদের শ্রমের বিনিময়ে উপার্জিত অর্থে মালিকপক্ষ আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ। মেডিকেল টেকনোলজিস্টরা করোনাকালীন রোগীর সেবা দিতে গিয়ে অনেকেই করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণও করলো।
পাইনি কোন অনুদান এই মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের পরিবার। এমনকি অনেক টেকনোলজিস্ট অসুস্থকালীন ছুটি পর্যন্ত পায়নি। এটা শুধু জুলুম নয় মেডিকেল টেকনোলজিস্ট জাতির সাথে সরাসরি নির্যাতন। প্রতি বছর শ্রমিক দিবস আসে যায়, তবুও দেশের সম্পদ এই টেকনোলজিস্টদের খবর কেউ রাখে না। শ্রমিক দিবসেও তারা কাজ করছে ল্যাবে রোগীর রোগ নির্ণয়ে।অনেক মেডিকেল টেকনোলজিস্টকে এবার ঈদের বোনাস পর্যন্ত দেয়নি মালিক কতৃপক্ষ। ডাক্তার, নাস দিয়ে হাসপাতাল, ডায়াগনষ্টিক চালাতে পারবে মেডিকেল টেকনোলজিস্ট ছাড়া? প্রশ্ন রইলো মানবাধিকার কমিশন ও সংগঠনগুলোর কাছে? প্রশ্ন রইলো প্রতিটা বিবেকবান মানুষের প্রতি?