বাংলাদেশ ০৩:৩৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
জণগণের পাশে ছিলাম, আছি এবং আজীবন থাকবো-অ্যাড. অরুনাংশু দত্ত টিটো দোকানের বাকির টাকা দিতে দেরি করায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে যখম, থানায় অভিযোগ।  সকল দলের মানুষের সেবক হিসেবে পাশে থাকতে চাই- অধ্যক্ষ সইদুল হক  পিরোজপুরে বর্ণাঢ্য আয়োজনে বাংলা টিভি’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে ঘোড়া মার্কার প্রার্থীকে জরিমানা রায়গঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় গাছে গাছে শোভা পাচ্ছে জামরুল ফল বিদেশী মদসহ ০৩ জন কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। সরকারের অনিচ্ছাতেই উচ্চ শিক্ষায় স্বদেশি ভাষা চালু হয়নি: ড. সলিমুল্লাহ খান রাজশাহীতে ৩০ ছাত্রকে বলাৎকার করে ভিডিও ধারণ করেন শিক্ষক ওয়াকেল ঠাকুরগাঁওয়ে উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে জেলা আওয়ামী রাজনীতিতে বিভক্তি হওয়ার আশঙ্কা রাজশাহীর পুঠিয়ায় তিন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে সম্পদশালী মাসুদ পুঠিয়া উপজেলায় নির্বাচন: চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীদের কার সম্পদ কত? রাজশাহী মহানগরীতে চেকপোস্টে দুই পুলিশ পিটিয়ে আহত! দুইভাই আটক কাউনিয়ায় লিগ্যাল এইড সার্ভিসেস ট্রাস্ট এর সভা অনুষ্ঠিত ধর্ষণ ও পর্নোগ্রাফি মামলার আসামী নাজিবুল ইসলাম নাজিমকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। উল্লাপাড়ায় সড়ক দূর্ঘনায় ১ জনের মৃত্যু 
ভাষার ভালোবাসায় চেতনার নির্মাণে শহীদ মিনার হোক সকল শিক্ষা প্রাঙ্গণে'

ভাষার ভালোবাসায় চেতনার নির্মাণে শহীদ মিনার হোক সকল শিক্ষা প্রাঙ্গণে’

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৩:৩১:১৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২২
  • ১৭১৭ বার পড়া হয়েছে

ভাষার ভালোবাসায় চেতনার নির্মাণে শহীদ মিনার হোক সকল শিক্ষা প্রাঙ্গণে'

 ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:
৪  যুগ ধরে ক্ষুদে শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা প্রতিবছর ২১ ফেব্রুয়ারী মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করে আসছে কাঁচা কলাগাছ ও বাঁশ বেশ,  রঙ্গিণ কাগজ দিয়ে অস্থায়ী ভাবে নির্মিত শহীদ মিনার তৈরি করে। কলাগাছের তৈরি শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে আসছে নিদারাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিক্ষার্থী ও শিক্ষকবৃন্দ।
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার হরষপুর ইউনিয়নে ১৯৭৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়  নিদারাবাদ সরকারি প্রাথমিক  বিদ্যালয়। প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ বিদ্যালয়ে ভাষা শহীদদের স্মৃতিস্তম্ভ শহীদ মিনার না থাকায় কলাগাছের তৈরী শহীদ মিনার তৈরি করে প্রতিবছর স্মরণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হতো।  এমন চিত্র উক্ত প্রতিষ্ঠানের প্রাক্তন ছাত্র সাংবাদিক  এস এম জহিরুল আলম চৌধুরী( টিপু)র মাধ্যমে  বিগত ২০১৯ সালে এ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে কলাগাছ, বাঁশ বেত,রঙ্গিণ কাগজ দিয়ে শিক্ষার্থীরা শহীদ মিনার তৈরী করে যে শ্রদ্ধা নিবেদন জানাতো তার স্বচিত্র নিয়ে একাধিক সংবাদপত্রে সংবাদ প্রকাশ ও প্রচার করেন। এরই প্রেক্ষিতে চলতি বছরে ‘ মেট্টোসেম গ্রুপ’ কর্তৃপক্ষের   দৃষ্টিতে আসে বিদ্যালয়ে সেই ব্যতিক্রম আয়োজনে ভাষা দিবস পালনের চিত্রটি। এর ধারাবাহিকতায় চলতি বছরের ফেব্রুয়ারী মাসে এবিদ্যালয়ে ‘ভাষার ভালোবাসায় চেতনার নির্মাণে, শহীদ মিনার হোক সকল শিক্ষা প্রাঙ্গণে’ এই স্লোগান সামনে রেখে একটি স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করেন মেট্টোসেম গ্রুপ। মেট্টোসেম গ্রুপের উদ্যোগে দীর্ঘ ৪৮ বছর পর নিদারাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নির্মিত হতে যাচ্ছে  ভাষা শহীদদের স্মৃতিসম্বলিত দৃষ্টিনন্দন একটি শহীদ মিনার।
২১শে ফ্রেব্রুয়ারী সোমবার বিকালে মেট্টোসেম গ্রুপের নিজস্ব অর্থায়নে দৃষ্টিনন্দন শহীদ মিনারে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়।  ভিত্তিপ্রস্তর শেষে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে মেট্টোসেম গ্রুপের আয়োজনে উপজেলা শিক্ষা অফিসার শাহেনেওয়াজ পারভীন এর সভাপতিত্বে ও সাংবাদিক এস এম জহিরুল আলম চৌধুরী ( টিপু) সঞ্চলনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ এইচ ইরফান উদ্দিন আহমেদ।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি)  রাবেয়া আসফার সায়মা, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শাহিনুর জাহান, মেট্টোসেম গ্রুপের হেড অব ব্রান্ড হুমায়ন মোর্শেদ খান, ইউপি চেয়ারম্যান সারোয়ার রহমান ভূঞা,  উপজেলা রির্সোস সেন্টারের প্রশিক্ষক আব্দুস ছাত্তার, সাংবাদিক মৃণাল চৌধুরী, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুন নূর, মোঃ শাহজাহান প্রমুখ।
জনপ্রিয় সংবাদ

জণগণের পাশে ছিলাম, আছি এবং আজীবন থাকবো-অ্যাড. অরুনাংশু দত্ত টিটো

ভাষার ভালোবাসায় চেতনার নির্মাণে শহীদ মিনার হোক সকল শিক্ষা প্রাঙ্গণে'

ভাষার ভালোবাসায় চেতনার নির্মাণে শহীদ মিনার হোক সকল শিক্ষা প্রাঙ্গণে’

আপডেট সময় ০৩:৩১:১৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২২
 ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:
৪  যুগ ধরে ক্ষুদে শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা প্রতিবছর ২১ ফেব্রুয়ারী মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করে আসছে কাঁচা কলাগাছ ও বাঁশ বেশ,  রঙ্গিণ কাগজ দিয়ে অস্থায়ী ভাবে নির্মিত শহীদ মিনার তৈরি করে। কলাগাছের তৈরি শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে আসছে নিদারাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিক্ষার্থী ও শিক্ষকবৃন্দ।
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার হরষপুর ইউনিয়নে ১৯৭৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়  নিদারাবাদ সরকারি প্রাথমিক  বিদ্যালয়। প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ বিদ্যালয়ে ভাষা শহীদদের স্মৃতিস্তম্ভ শহীদ মিনার না থাকায় কলাগাছের তৈরী শহীদ মিনার তৈরি করে প্রতিবছর স্মরণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হতো।  এমন চিত্র উক্ত প্রতিষ্ঠানের প্রাক্তন ছাত্র সাংবাদিক  এস এম জহিরুল আলম চৌধুরী( টিপু)র মাধ্যমে  বিগত ২০১৯ সালে এ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে কলাগাছ, বাঁশ বেত,রঙ্গিণ কাগজ দিয়ে শিক্ষার্থীরা শহীদ মিনার তৈরী করে যে শ্রদ্ধা নিবেদন জানাতো তার স্বচিত্র নিয়ে একাধিক সংবাদপত্রে সংবাদ প্রকাশ ও প্রচার করেন। এরই প্রেক্ষিতে চলতি বছরে ‘ মেট্টোসেম গ্রুপ’ কর্তৃপক্ষের   দৃষ্টিতে আসে বিদ্যালয়ে সেই ব্যতিক্রম আয়োজনে ভাষা দিবস পালনের চিত্রটি। এর ধারাবাহিকতায় চলতি বছরের ফেব্রুয়ারী মাসে এবিদ্যালয়ে ‘ভাষার ভালোবাসায় চেতনার নির্মাণে, শহীদ মিনার হোক সকল শিক্ষা প্রাঙ্গণে’ এই স্লোগান সামনে রেখে একটি স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করেন মেট্টোসেম গ্রুপ। মেট্টোসেম গ্রুপের উদ্যোগে দীর্ঘ ৪৮ বছর পর নিদারাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নির্মিত হতে যাচ্ছে  ভাষা শহীদদের স্মৃতিসম্বলিত দৃষ্টিনন্দন একটি শহীদ মিনার।
২১শে ফ্রেব্রুয়ারী সোমবার বিকালে মেট্টোসেম গ্রুপের নিজস্ব অর্থায়নে দৃষ্টিনন্দন শহীদ মিনারে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়।  ভিত্তিপ্রস্তর শেষে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে মেট্টোসেম গ্রুপের আয়োজনে উপজেলা শিক্ষা অফিসার শাহেনেওয়াজ পারভীন এর সভাপতিত্বে ও সাংবাদিক এস এম জহিরুল আলম চৌধুরী ( টিপু) সঞ্চলনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ এইচ ইরফান উদ্দিন আহমেদ।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি)  রাবেয়া আসফার সায়মা, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শাহিনুর জাহান, মেট্টোসেম গ্রুপের হেড অব ব্রান্ড হুমায়ন মোর্শেদ খান, ইউপি চেয়ারম্যান সারোয়ার রহমান ভূঞা,  উপজেলা রির্সোস সেন্টারের প্রশিক্ষক আব্দুস ছাত্তার, সাংবাদিক মৃণাল চৌধুরী, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুন নূর, মোঃ শাহজাহান প্রমুখ।