বাংলাদেশ ০৯:১৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
জণগণের পাশে ছিলাম, আছি এবং আজীবন থাকবো-অ্যাড. অরুনাংশু দত্ত টিটো দোকানের বাকির টাকা দিতে দেরি করায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে যখম, থানায় অভিযোগ।  সকল দলের মানুষের সেবক হিসেবে পাশে থাকতে চাই- অধ্যক্ষ সইদুল হক  পিরোজপুরে বর্ণাঢ্য আয়োজনে বাংলা টিভি’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে ঘোড়া মার্কার প্রার্থীকে জরিমানা রায়গঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় গাছে গাছে শোভা পাচ্ছে জামরুল ফল বিদেশী মদসহ ০৩ জন কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। সরকারের অনিচ্ছাতেই উচ্চ শিক্ষায় স্বদেশি ভাষা চালু হয়নি: ড. সলিমুল্লাহ খান রাজশাহীতে ৩০ ছাত্রকে বলাৎকার করে ভিডিও ধারণ করেন শিক্ষক ওয়াকেল ঠাকুরগাঁওয়ে উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে জেলা আওয়ামী রাজনীতিতে বিভক্তি হওয়ার আশঙ্কা রাজশাহীর পুঠিয়ায় তিন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে সম্পদশালী মাসুদ পুঠিয়া উপজেলায় নির্বাচন: চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীদের কার সম্পদ কত? রাজশাহী মহানগরীতে চেকপোস্টে দুই পুলিশ পিটিয়ে আহত! দুইভাই আটক কাউনিয়ায় লিগ্যাল এইড সার্ভিসেস ট্রাস্ট এর সভা অনুষ্ঠিত ধর্ষণ ও পর্নোগ্রাফি মামলার আসামী নাজিবুল ইসলাম নাজিমকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। উল্লাপাড়ায় সড়ক দূর্ঘনায় ১ জনের মৃত্যু 

ভাষা শহীদদের প্রতি সারা আনোয়ারার শ্রদ্ধা নিবেদন

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১১:৫৮:৩২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২২
  • ১৭০৮ বার পড়া হয়েছে

ভাষা শহীদদের প্রতি সারা আনোয়ারার শ্রদ্ধা নিবেদন

আনোয়ারা (চট্রগ্রাম) প্রতিনিধি

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বিনম্র শ্রদ্ধা, যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্য পরিবেশে আনোয়ারা শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও আলোচনা সভার মধ্যে দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে সামাজিক সংগঠন সারা আনোয়ারা।

রাত ১২টা ১ মিনিটে প্রথমে আনোয়ারা উপজেলা চেয়ারম্যান তৌহিদুল হক চৌধুরী এবং পরপরই আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ জোবায়ের আহমেদ শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এ সময় অমর একুশের ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি’ কালজয়ী গানটি বাজানো হয়।

উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউএনও শেখ জোবায়ের আহমেদ পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে সেখানে কিছুক্ষণ নিরবে দাঁড়িয়ে শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এদিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে নেওয়া হয় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

সোমবার সকালে সংগঠনটির সহ- সভাপতি ছলিম আল আনোয়ারের নেতৃত্বে সংগঠনের সকল সদস্যরা শ্রদ্ধা জানান।

পরে অমর একুশে নিয়ে স্থানীয় একটি রেস্টুরেন্টে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এক ভিডিও বার্তায় সংগঠনটির  প্রতিষ্ঠাতা আবদুল মালেক চৌধুরী বলেন, মাতৃভাষা রক্ষার দাবিতে ১৯৫২ সালের এই দিনে শাসকের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে রাজপথে বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দিয়েছিলেন রফিক, সালাম, বরকত, সফিউর, জব্বারসহ অনেক বাংলা মায়ের দামাল ছেলে। তাদের রক্তের দামে এসেছিল বাংলার স্বীকৃতি। আর তারই সিঁড়ি বেয়ে মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত হয় স্বাধীনতা।

এসময় সংগঠনের অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাজ্জাদ চৌধুরী , মহিউদ্দিন মনজুর , ওমর ফারুক, মাসুদ করিম,শওকত আলী, নেজাম, শিরিন সহ সদস্য ও কর্মকর্তাবৃন্দ।

 

 

 

 

জনপ্রিয় সংবাদ

জণগণের পাশে ছিলাম, আছি এবং আজীবন থাকবো-অ্যাড. অরুনাংশু দত্ত টিটো

ভাষা শহীদদের প্রতি সারা আনোয়ারার শ্রদ্ধা নিবেদন

আপডেট সময় ১১:৫৮:৩২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২২

আনোয়ারা (চট্রগ্রাম) প্রতিনিধি

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বিনম্র শ্রদ্ধা, যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্য পরিবেশে আনোয়ারা শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও আলোচনা সভার মধ্যে দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে সামাজিক সংগঠন সারা আনোয়ারা।

রাত ১২টা ১ মিনিটে প্রথমে আনোয়ারা উপজেলা চেয়ারম্যান তৌহিদুল হক চৌধুরী এবং পরপরই আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ জোবায়ের আহমেদ শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এ সময় অমর একুশের ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি’ কালজয়ী গানটি বাজানো হয়।

উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউএনও শেখ জোবায়ের আহমেদ পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে সেখানে কিছুক্ষণ নিরবে দাঁড়িয়ে শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এদিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে নেওয়া হয় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

সোমবার সকালে সংগঠনটির সহ- সভাপতি ছলিম আল আনোয়ারের নেতৃত্বে সংগঠনের সকল সদস্যরা শ্রদ্ধা জানান।

পরে অমর একুশে নিয়ে স্থানীয় একটি রেস্টুরেন্টে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এক ভিডিও বার্তায় সংগঠনটির  প্রতিষ্ঠাতা আবদুল মালেক চৌধুরী বলেন, মাতৃভাষা রক্ষার দাবিতে ১৯৫২ সালের এই দিনে শাসকের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে রাজপথে বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দিয়েছিলেন রফিক, সালাম, বরকত, সফিউর, জব্বারসহ অনেক বাংলা মায়ের দামাল ছেলে। তাদের রক্তের দামে এসেছিল বাংলার স্বীকৃতি। আর তারই সিঁড়ি বেয়ে মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত হয় স্বাধীনতা।

এসময় সংগঠনের অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাজ্জাদ চৌধুরী , মহিউদ্দিন মনজুর , ওমর ফারুক, মাসুদ করিম,শওকত আলী, নেজাম, শিরিন সহ সদস্য ও কর্মকর্তাবৃন্দ।