বাংলাদেশ ০৬:৩৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
উপজেলা নির্বাচনে এমপি-মন্ত্রীদের স্বজনদের প্রার্থীতা প্রত্যাহারের নির্দেশ কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ীর আজহারুল কে ফেন্সিডিল ও ইয়াবা ট্যাবলেটসহ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। ফুলবাড়ীতে তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির স্মরণসভা হত্যা মামলার মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি মামুনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। নাটোরে বাগাতিপাড়ায় পূর্ব শত্রুতার জেরে যুবককে কুপিয়ে হত্যা! মধুপুরে অবৈধভাবে মাটিকাটার অপরাধে ১লক্ষ টাকা জরিমানা  পেকুয়ায় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত শের-ই- বাংলা পাবলিক লাইব্রেরীতে পিরোজপুর সাহিত্য পরিষদের ঈদপূনর্মিলনী অনুষ্ঠিত সিংড়া উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী’কে শোকজ করল আ.লীগ যশোরে তিনদিন ব্যাপী চিত্র প্রদর্শনী শুরু  এক পিস ডাবের দাম ১৮০ টাকা! সার্বজনীন পেনশন স্কিম নিবন্ধনে ‘রাজশাহী’ এগিয়ে ভান্ডারিয়ায় ঐতিহ্যবাহী ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতা দেখতে দর্শনার্থীদের ঢল বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধ কটিয়াদীতে ভাতিজার হাতে চাচা খুন শিক্ষক আবু তালেবের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া

ভোলার অপহৃত ৭ জেলে ২৩ ঘন্টা পর মুক্তিপণে উদ্ধার

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১০:২৭:২৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২২
  • ১৭০০ বার পড়া হয়েছে

ভোলার অপহৃত ৭ জেলে ২৩ ঘন্টা পর মুক্তিপণে উদ্ধার

 

 

 

ভোলা প্রতিনিধি॥

ভোলার মনপুরায় মেঘনায় অপহৃত এক ট্রলারসহ ৭ জেলেকে মুক্তিপনের বিনিময়ে ২৩ ঘন্টা পর ছেড়ে দিয়েছে জলদস্যূরা। তবে অপহৃত জেলেদের উদ্ধারের ঘটনা নিয়ে আড়তদার ইউপি চেয়ারম্যান ও কোস্টগার্ডের কন্টিজেন্ট কমান্ডারের পাল্টাপাল্টি বক্তব্য পাওয়া গেছে। রোববার (২০ ফেব্রুয়ারী) সকাল সাড়ে ১০ টায় হাতিয়া কোস্টগার্ড লিখিত সংবাদ সম্মেলনে দাবী করে রোববার ভোর ৫ টায় হাতিয়ার চর আতাউরে অভিযান পরিচালনা করে অপহৃত ৭ জেলেসহ একটি ট্রলারসহ উদ্ধার করা হয়। কিন্তু এসময় কোন জলদস্যূ আটক করা সম্ভব হয়নি।

 

 

 

এদিকে অপহৃত জেলেদের আড়তদার ও ইউপি চেয়ারম্যান অলি উল্লা কাজল দাবী করেন মুক্তিপণের বিনিময় জেলেদের উদ্ধার করা হয়। মুক্তিপণের ২ লক্ষ ২ হাজার টাকা জলদস্যুদের ৫টি বিকাশ একাউন্টে দেওয়ার পর জলদস্যূরা অপহৃত জেলেদের মুক্তি দেয়। তিনি আরও অভিযোগ করে জানান, হাতিয়া কোস্টগার্ডে কন্টিজেন্ট কমান্ডারের সাথে মুক্তিপণে উদ্ধার হওয়া জেলেদের ছেড়ে দেওয়ার ব্যাপারে মোবাইলে ফোনে কথা বললে কন্টিজেন্ট কমান্ডার উত্তেজিত হয়ে তাকে তুলে নিয়ে যাওয়ার হুমকি দেন।

 

 

 

ওই কথাবার্তার অডিও রেকর্ড রয়েছে বলে দাবী চেয়ারম্যানের। এ ব্যাপারে নোয়াখালী জেলার হাতিয়া কোস্টগার্ডের স্টেশন কমান্ডার লেঃ ইফতেখারুল আলম লিখিত বক্তব্যে জানান, কোস্টগার্ডের অভিযানে উদ্ধার হওয়া জেলেদের তাদের আত্মীয়দের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে চেয়ারম্যানের অভিযোগের ব্যাপারে কথা বলতে রাজি নন।

 

 

এদিকে (বিকেল ৫ টায়) উদ্ধার হওয়া জেলেরা মনপুরায় আসার পর জানান, মুক্তিপণের টাকা পাওয়ার পর জলদ্যূরা শনিবার রাত ৯ টার দিকে তাদের ছেড়ে দেয়। পরে ট্রলার চালিয়ে মনপুরা আসার পথে কোস্টগার্ড তাদের হাতিয়া ক্যাম্পে নিয়ে যায়। পরে রোববার বেলা ১১ টার সময় উদ্ধার হওয়া জেলেদের স্বজনরা হাতিয়া কোস্টগার্ডের ক্যাম্পে গেলে তাদের কাছে হস্তান্তর করে কোস্টগার্ড। উদ্ধার হওয়া জেলেরা হলেন, মো. বাবুল মাঝি (৩২), ইসমাইল মাঝি (৩৫) সোহেল সুকানি (৪০), জাহাঙ্গীর মাঝি (৩৫), সোহেল মুন্সি (৩৮), রিয়াজ মাঝি (৩২) ও বাছেত মাঝি (৪৫)।

 

 

 

এদের সবার বাড়ি মনপুরা উপজেলার ৪ নং দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়নের রহমানপুর গ্রামে। উল্লেখ্য, গত শনিবার ভোর রাত ৬ টায় ভোলার মনপুরার চরপিয়াল সংলগ্ন মেঘনায় মাছ শিকারের সময় হাতিয়ার জলদস্যূ মহিউদ্দিন বাহিনী ৭ জেলে ট্রলারে হামলা চালিয়ে এক ট্রলারসহ ৭ জেলেকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

 

 

জনপ্রিয় সংবাদ

উপজেলা নির্বাচনে এমপি-মন্ত্রীদের স্বজনদের প্রার্থীতা প্রত্যাহারের নির্দেশ

ভোলার অপহৃত ৭ জেলে ২৩ ঘন্টা পর মুক্তিপণে উদ্ধার

আপডেট সময় ১০:২৭:২৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২২

 

 

 

ভোলা প্রতিনিধি॥

ভোলার মনপুরায় মেঘনায় অপহৃত এক ট্রলারসহ ৭ জেলেকে মুক্তিপনের বিনিময়ে ২৩ ঘন্টা পর ছেড়ে দিয়েছে জলদস্যূরা। তবে অপহৃত জেলেদের উদ্ধারের ঘটনা নিয়ে আড়তদার ইউপি চেয়ারম্যান ও কোস্টগার্ডের কন্টিজেন্ট কমান্ডারের পাল্টাপাল্টি বক্তব্য পাওয়া গেছে। রোববার (২০ ফেব্রুয়ারী) সকাল সাড়ে ১০ টায় হাতিয়া কোস্টগার্ড লিখিত সংবাদ সম্মেলনে দাবী করে রোববার ভোর ৫ টায় হাতিয়ার চর আতাউরে অভিযান পরিচালনা করে অপহৃত ৭ জেলেসহ একটি ট্রলারসহ উদ্ধার করা হয়। কিন্তু এসময় কোন জলদস্যূ আটক করা সম্ভব হয়নি।

 

 

 

এদিকে অপহৃত জেলেদের আড়তদার ও ইউপি চেয়ারম্যান অলি উল্লা কাজল দাবী করেন মুক্তিপণের বিনিময় জেলেদের উদ্ধার করা হয়। মুক্তিপণের ২ লক্ষ ২ হাজার টাকা জলদস্যুদের ৫টি বিকাশ একাউন্টে দেওয়ার পর জলদস্যূরা অপহৃত জেলেদের মুক্তি দেয়। তিনি আরও অভিযোগ করে জানান, হাতিয়া কোস্টগার্ডে কন্টিজেন্ট কমান্ডারের সাথে মুক্তিপণে উদ্ধার হওয়া জেলেদের ছেড়ে দেওয়ার ব্যাপারে মোবাইলে ফোনে কথা বললে কন্টিজেন্ট কমান্ডার উত্তেজিত হয়ে তাকে তুলে নিয়ে যাওয়ার হুমকি দেন।

 

 

 

ওই কথাবার্তার অডিও রেকর্ড রয়েছে বলে দাবী চেয়ারম্যানের। এ ব্যাপারে নোয়াখালী জেলার হাতিয়া কোস্টগার্ডের স্টেশন কমান্ডার লেঃ ইফতেখারুল আলম লিখিত বক্তব্যে জানান, কোস্টগার্ডের অভিযানে উদ্ধার হওয়া জেলেদের তাদের আত্মীয়দের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে চেয়ারম্যানের অভিযোগের ব্যাপারে কথা বলতে রাজি নন।

 

 

এদিকে (বিকেল ৫ টায়) উদ্ধার হওয়া জেলেরা মনপুরায় আসার পর জানান, মুক্তিপণের টাকা পাওয়ার পর জলদ্যূরা শনিবার রাত ৯ টার দিকে তাদের ছেড়ে দেয়। পরে ট্রলার চালিয়ে মনপুরা আসার পথে কোস্টগার্ড তাদের হাতিয়া ক্যাম্পে নিয়ে যায়। পরে রোববার বেলা ১১ টার সময় উদ্ধার হওয়া জেলেদের স্বজনরা হাতিয়া কোস্টগার্ডের ক্যাম্পে গেলে তাদের কাছে হস্তান্তর করে কোস্টগার্ড। উদ্ধার হওয়া জেলেরা হলেন, মো. বাবুল মাঝি (৩২), ইসমাইল মাঝি (৩৫) সোহেল সুকানি (৪০), জাহাঙ্গীর মাঝি (৩৫), সোহেল মুন্সি (৩৮), রিয়াজ মাঝি (৩২) ও বাছেত মাঝি (৪৫)।

 

 

 

এদের সবার বাড়ি মনপুরা উপজেলার ৪ নং দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়নের রহমানপুর গ্রামে। উল্লেখ্য, গত শনিবার ভোর রাত ৬ টায় ভোলার মনপুরার চরপিয়াল সংলগ্ন মেঘনায় মাছ শিকারের সময় হাতিয়ার জলদস্যূ মহিউদ্দিন বাহিনী ৭ জেলে ট্রলারে হামলা চালিয়ে এক ট্রলারসহ ৭ জেলেকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।