বাংলাদেশ ১১:৪৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন সন্ধ্যার মধ্যে উপাচার্য, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাসভবন ছাড়ার আল্টিমেটাম কুবি শিক্ষার্থীদের রাবিতে জড়ো হওয়া আন্দোলনকারীদের পুলিশ-বিজিবির ধাওয়া মেহেন্দিগঞ্জে অজ্ঞাতনামা নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার। মুন্সীগঞ্জে গায়েবানা জানাযা থেকে ঈমাম ও বিএনপি নেতাকে ধরে নিয়ে গেলো পুলিশ কোটা আন্দোলনের পক্ষে সংহতি জানিয়ে ফেনী ইউনিভার্সিটির বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বিবৃতি চলমান পরিস্থিতিতে রাবি ক্যাম্পাসে ছাত্র রাজনীতি আপাতত স্থগিত: উপাচার্য বিদেশের পাঠানো টাকা চাইতে গিয়ে বিপাকে প্রবাসী স্বামী রাজশাহীতে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পবিত্র আশুরা পালিত চট্রগ্রামের কোটা সংস্কার আন্দোলনে নিহত ওয়াসিমের জানাজায় মানুষের ঢল পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া পৌরসভার রাস্তায় সমবায় সমিতি ভবনের ট্যাংকির ময়লা: জনদুর্ভোগ মুন্সীগঞ্জে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের উপর হামলা, আহত ৫ হরিপুরে, প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড এর পক্ষ থেকে কর্মী মিটিং ও গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্ঠিত। গৌরীপুরে উদীচী কার্য়ালয়ে হামলা ও ভাংচুর স্ত্রীর যৌতুক মামলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কারাগারে

আটোয়ারীতে ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে জালিয়াতির অভিযোগ 

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৫:৪০:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৮ মার্চ ২০২২
  • ১৬৯৪ বার পড়া হয়েছে
পঞ্চগড় প্রতিনিধি ।।
পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের মিমাংসার আশ্বাস দিয়ে ডেকে ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে একটি পক্ষের বিরুদ্ধে । ফাকা সাক্ষর করা স্ট্যাম্প উদ্ধার করতে না পেরে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন কায়ছার আলম (৫০) নামের ভুক্তভোগি বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) বিকেলে ৯ জনকে আসামী করে পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছেন।ভুক্তভোগি কায়ছার আলমের বাড়ি আটোয়ারী উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের নলপুখুরী গ্রামে। তিনি সেখানকার মৃত- ইউসুফ আলীর ছেলে।
আসামীরা হলেন- একই উপজেলার তোড়িয়া ইউনিয়নের সুখাতী এলাকার মৃত- আহামদ্দীনের ছেলে ফজলুল করিম (৫৮), ছোটধাপ এলাকার মৃত- মাহাতাব উদ্দীনের ছেলে মামুনুর রহমান (৫৭), তোড়িয়া ইউনিয়নের ছেপড়াঝার এলাকার মৃত- তৈয়ব হোসেনের ছেলে আবু তাহের (৬৫), আবু সালেক (৬২), গোলাম আজম (৫৮), হেমায়েল হোসেন (৪৫), বদগাঁও এলাকার মৃত- খাজিব উদ্দীনের ছেলে খোরশেদ আলম (৫০), ছেপরাঝাড় এলাকার মৃত- আজিজুল ইসলামের ছেলে তরিকুল ইসলাম (৬০) এবং একই এলাকার সফিকুল ইসলাম (৪৫)।
মামলা সূত্রে জানা যায়, কায়ছার আলম এবং অভিযুক্তরা নিকটাত্মীয়। তাদের মধ্যে কয়েকজনের সঙ্গে কায়ছারের জমি সংক্রান্ত বিরোধ দীর্ঘদিনের। এই বিরোধ নিরসনের জন্য আটোয়ারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের ছোট ভাই ফজলুল করিম গত বছরের ৭ অক্টোবর উভয়পক্ষকে আটোয়ারী মহিলা কলেজে ডাকেন। কিন্তু সেখানে বিরোধ নিরসন না করে কায়ছার আলম এবং তার বড় ভাই খাইরুল ইসলাম তপনকে জিম্মি করে এবং বিভিন্ন ভয় দেখিয়ে ১০০ টাকা মূল্যের তিনটি ফাঁকা স্ট্যাম্পে তাদের স্বাক্ষর নেন। কায়ছার আলম বলেন, ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয়ার পর আমাকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিতে শুরু করে তারা। পরে একই বছরের ৩ নভেম্বর আটোয়ারী থানেয় একটি সাধারণ ডায়েরীও করি। এর পরেও স্ট্যাম্প ফেরত না পেয়ে আইনগত ব্যবস্থা নিতে চাইলে স্ট্যাম্প ফেরৎ দেয়ার আশ্বাস দেয়। কিন্তু দীর্ঘ সময় পার হলেও ফেরত পাইনি। তাই বাধ্য হয়ে আদালতের শরণাপন্ন হয়েছি।
এ বিষয়ে ফজলুল হকের সঙ্গে কথা বললে তিনি এড়িয়ে যান। তবে তরিকুল ইসলাম বলেন, ফাঁকা স্ট্যাম্পগুলো পূরণ করে আদালতে জমা দেয়া হয়েছে। বাদী পক্ষের আইনজীবি এ্যাড. আব্দুল বারী বলেন,ফাঁকা স্ট্যাম্পে সই নিয়ে জালিয়াতির চেষ্টা, মামলাটি আদালত আমলে নিয়েছে । তদন্ত চলমান রয়েছে । আশাকরছি বাদী ন্যায় বিচার পাবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন

আটোয়ারীতে ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে জালিয়াতির অভিযোগ 

আপডেট সময় ০৫:৪০:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৮ মার্চ ২০২২
পঞ্চগড় প্রতিনিধি ।।
পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের মিমাংসার আশ্বাস দিয়ে ডেকে ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে একটি পক্ষের বিরুদ্ধে । ফাকা সাক্ষর করা স্ট্যাম্প উদ্ধার করতে না পেরে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন কায়ছার আলম (৫০) নামের ভুক্তভোগি বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) বিকেলে ৯ জনকে আসামী করে পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছেন।ভুক্তভোগি কায়ছার আলমের বাড়ি আটোয়ারী উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের নলপুখুরী গ্রামে। তিনি সেখানকার মৃত- ইউসুফ আলীর ছেলে।
আসামীরা হলেন- একই উপজেলার তোড়িয়া ইউনিয়নের সুখাতী এলাকার মৃত- আহামদ্দীনের ছেলে ফজলুল করিম (৫৮), ছোটধাপ এলাকার মৃত- মাহাতাব উদ্দীনের ছেলে মামুনুর রহমান (৫৭), তোড়িয়া ইউনিয়নের ছেপড়াঝার এলাকার মৃত- তৈয়ব হোসেনের ছেলে আবু তাহের (৬৫), আবু সালেক (৬২), গোলাম আজম (৫৮), হেমায়েল হোসেন (৪৫), বদগাঁও এলাকার মৃত- খাজিব উদ্দীনের ছেলে খোরশেদ আলম (৫০), ছেপরাঝাড় এলাকার মৃত- আজিজুল ইসলামের ছেলে তরিকুল ইসলাম (৬০) এবং একই এলাকার সফিকুল ইসলাম (৪৫)।
মামলা সূত্রে জানা যায়, কায়ছার আলম এবং অভিযুক্তরা নিকটাত্মীয়। তাদের মধ্যে কয়েকজনের সঙ্গে কায়ছারের জমি সংক্রান্ত বিরোধ দীর্ঘদিনের। এই বিরোধ নিরসনের জন্য আটোয়ারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের ছোট ভাই ফজলুল করিম গত বছরের ৭ অক্টোবর উভয়পক্ষকে আটোয়ারী মহিলা কলেজে ডাকেন। কিন্তু সেখানে বিরোধ নিরসন না করে কায়ছার আলম এবং তার বড় ভাই খাইরুল ইসলাম তপনকে জিম্মি করে এবং বিভিন্ন ভয় দেখিয়ে ১০০ টাকা মূল্যের তিনটি ফাঁকা স্ট্যাম্পে তাদের স্বাক্ষর নেন। কায়ছার আলম বলেন, ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয়ার পর আমাকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিতে শুরু করে তারা। পরে একই বছরের ৩ নভেম্বর আটোয়ারী থানেয় একটি সাধারণ ডায়েরীও করি। এর পরেও স্ট্যাম্প ফেরত না পেয়ে আইনগত ব্যবস্থা নিতে চাইলে স্ট্যাম্প ফেরৎ দেয়ার আশ্বাস দেয়। কিন্তু দীর্ঘ সময় পার হলেও ফেরত পাইনি। তাই বাধ্য হয়ে আদালতের শরণাপন্ন হয়েছি।
এ বিষয়ে ফজলুল হকের সঙ্গে কথা বললে তিনি এড়িয়ে যান। তবে তরিকুল ইসলাম বলেন, ফাঁকা স্ট্যাম্পগুলো পূরণ করে আদালতে জমা দেয়া হয়েছে। বাদী পক্ষের আইনজীবি এ্যাড. আব্দুল বারী বলেন,ফাঁকা স্ট্যাম্পে সই নিয়ে জালিয়াতির চেষ্টা, মামলাটি আদালত আমলে নিয়েছে । তদন্ত চলমান রয়েছে । আশাকরছি বাদী ন্যায় বিচার পাবেন।