বাংলাদেশ ১১:২০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
নতুন কারিকুলাম বাস্তবায়নের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সুপারিশ রাঙ্গাবালীতে মৎস্য ব্যবসায়ী রাসাদ হত্যাকারীর ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন। পিঠা উৎসব ও বসন্ত বরনকে কেন্দ্র করে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মিলন মেলায় পরিনত  নাটোরের বড়াইগ্রামে বর্ণিল আয়োজনে পিঠা উৎসব ও বসন্ত বরণ। পঞ্চগড়ের বোদায় ট্যাপেন্ডাডল ট্যাবলেটসহ ২ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। রায়গঞ্জের বিভিন্ন গাছে গাছে দেখা যাচ্ছে আমের মুকুল মুক্তিযোদ্বা প্রজন্ম লীগ সভাপতিকে কুপিয়ে জখমকে কেন্দ্র করে পিরোজপুর শহরে উত্তেজনা রাবিতে চাঁদপুর পরিবারের নেতৃত্বে ইমন-রাহিম ঝালকাঠিতে ৮টি গাঁজাগাছ ও ১৫পিস ইয়াবাসহ আটক-২ ঝালকাঠির নবগ্রামের শতবর্ষী রেইন্ট্রি গাছ নিয়ে গুনাই বিবি নাটকের রূপ কথার গল্প চার শিশুর জন্ম দিল এক মা। শিশুরা সবাই সুস্থ আছেন। ভান্ডারিয়ায় ৯৬ হাজার স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণে শুভ উদ্বোধন বিপুল পরিমাণে গাঁজাসহ ০২ জন মাদক কারবারী কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪: মাদক পরিবহণে ব্যবহৃত পিকআপ জব্দ। ওয়াশিংটনে পিঠা উৎসব ও বসন্ত বরণে রাবিয়ানদের মিলন মেলা অতিথি পাখির অভ্যায়রণ্য রানীশংকেলের রামরাই দিঘি

আটোয়ারীতে ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে জালিয়াতির অভিযোগ 

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৫:৪০:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৮ মার্চ ২০২২
  • ১৬৭২ বার পড়া হয়েছে
পঞ্চগড় প্রতিনিধি ।।
পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের মিমাংসার আশ্বাস দিয়ে ডেকে ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে একটি পক্ষের বিরুদ্ধে । ফাকা সাক্ষর করা স্ট্যাম্প উদ্ধার করতে না পেরে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন কায়ছার আলম (৫০) নামের ভুক্তভোগি বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) বিকেলে ৯ জনকে আসামী করে পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছেন।ভুক্তভোগি কায়ছার আলমের বাড়ি আটোয়ারী উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের নলপুখুরী গ্রামে। তিনি সেখানকার মৃত- ইউসুফ আলীর ছেলে।
আসামীরা হলেন- একই উপজেলার তোড়িয়া ইউনিয়নের সুখাতী এলাকার মৃত- আহামদ্দীনের ছেলে ফজলুল করিম (৫৮), ছোটধাপ এলাকার মৃত- মাহাতাব উদ্দীনের ছেলে মামুনুর রহমান (৫৭), তোড়িয়া ইউনিয়নের ছেপড়াঝার এলাকার মৃত- তৈয়ব হোসেনের ছেলে আবু তাহের (৬৫), আবু সালেক (৬২), গোলাম আজম (৫৮), হেমায়েল হোসেন (৪৫), বদগাঁও এলাকার মৃত- খাজিব উদ্দীনের ছেলে খোরশেদ আলম (৫০), ছেপরাঝাড় এলাকার মৃত- আজিজুল ইসলামের ছেলে তরিকুল ইসলাম (৬০) এবং একই এলাকার সফিকুল ইসলাম (৪৫)।
মামলা সূত্রে জানা যায়, কায়ছার আলম এবং অভিযুক্তরা নিকটাত্মীয়। তাদের মধ্যে কয়েকজনের সঙ্গে কায়ছারের জমি সংক্রান্ত বিরোধ দীর্ঘদিনের। এই বিরোধ নিরসনের জন্য আটোয়ারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের ছোট ভাই ফজলুল করিম গত বছরের ৭ অক্টোবর উভয়পক্ষকে আটোয়ারী মহিলা কলেজে ডাকেন। কিন্তু সেখানে বিরোধ নিরসন না করে কায়ছার আলম এবং তার বড় ভাই খাইরুল ইসলাম তপনকে জিম্মি করে এবং বিভিন্ন ভয় দেখিয়ে ১০০ টাকা মূল্যের তিনটি ফাঁকা স্ট্যাম্পে তাদের স্বাক্ষর নেন। কায়ছার আলম বলেন, ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয়ার পর আমাকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিতে শুরু করে তারা। পরে একই বছরের ৩ নভেম্বর আটোয়ারী থানেয় একটি সাধারণ ডায়েরীও করি। এর পরেও স্ট্যাম্প ফেরত না পেয়ে আইনগত ব্যবস্থা নিতে চাইলে স্ট্যাম্প ফেরৎ দেয়ার আশ্বাস দেয়। কিন্তু দীর্ঘ সময় পার হলেও ফেরত পাইনি। তাই বাধ্য হয়ে আদালতের শরণাপন্ন হয়েছি।
এ বিষয়ে ফজলুল হকের সঙ্গে কথা বললে তিনি এড়িয়ে যান। তবে তরিকুল ইসলাম বলেন, ফাঁকা স্ট্যাম্পগুলো পূরণ করে আদালতে জমা দেয়া হয়েছে। বাদী পক্ষের আইনজীবি এ্যাড. আব্দুল বারী বলেন,ফাঁকা স্ট্যাম্পে সই নিয়ে জালিয়াতির চেষ্টা, মামলাটি আদালত আমলে নিয়েছে । তদন্ত চলমান রয়েছে । আশাকরছি বাদী ন্যায় বিচার পাবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

নতুন কারিকুলাম বাস্তবায়নের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সুপারিশ

আটোয়ারীতে ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে জালিয়াতির অভিযোগ 

আপডেট সময় ০৫:৪০:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৮ মার্চ ২০২২
পঞ্চগড় প্রতিনিধি ।।
পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের মিমাংসার আশ্বাস দিয়ে ডেকে ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে একটি পক্ষের বিরুদ্ধে । ফাকা সাক্ষর করা স্ট্যাম্প উদ্ধার করতে না পেরে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন কায়ছার আলম (৫০) নামের ভুক্তভোগি বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) বিকেলে ৯ জনকে আসামী করে পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছেন।ভুক্তভোগি কায়ছার আলমের বাড়ি আটোয়ারী উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের নলপুখুরী গ্রামে। তিনি সেখানকার মৃত- ইউসুফ আলীর ছেলে।
আসামীরা হলেন- একই উপজেলার তোড়িয়া ইউনিয়নের সুখাতী এলাকার মৃত- আহামদ্দীনের ছেলে ফজলুল করিম (৫৮), ছোটধাপ এলাকার মৃত- মাহাতাব উদ্দীনের ছেলে মামুনুর রহমান (৫৭), তোড়িয়া ইউনিয়নের ছেপড়াঝার এলাকার মৃত- তৈয়ব হোসেনের ছেলে আবু তাহের (৬৫), আবু সালেক (৬২), গোলাম আজম (৫৮), হেমায়েল হোসেন (৪৫), বদগাঁও এলাকার মৃত- খাজিব উদ্দীনের ছেলে খোরশেদ আলম (৫০), ছেপরাঝাড় এলাকার মৃত- আজিজুল ইসলামের ছেলে তরিকুল ইসলাম (৬০) এবং একই এলাকার সফিকুল ইসলাম (৪৫)।
মামলা সূত্রে জানা যায়, কায়ছার আলম এবং অভিযুক্তরা নিকটাত্মীয়। তাদের মধ্যে কয়েকজনের সঙ্গে কায়ছারের জমি সংক্রান্ত বিরোধ দীর্ঘদিনের। এই বিরোধ নিরসনের জন্য আটোয়ারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের ছোট ভাই ফজলুল করিম গত বছরের ৭ অক্টোবর উভয়পক্ষকে আটোয়ারী মহিলা কলেজে ডাকেন। কিন্তু সেখানে বিরোধ নিরসন না করে কায়ছার আলম এবং তার বড় ভাই খাইরুল ইসলাম তপনকে জিম্মি করে এবং বিভিন্ন ভয় দেখিয়ে ১০০ টাকা মূল্যের তিনটি ফাঁকা স্ট্যাম্পে তাদের স্বাক্ষর নেন। কায়ছার আলম বলেন, ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয়ার পর আমাকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিতে শুরু করে তারা। পরে একই বছরের ৩ নভেম্বর আটোয়ারী থানেয় একটি সাধারণ ডায়েরীও করি। এর পরেও স্ট্যাম্প ফেরত না পেয়ে আইনগত ব্যবস্থা নিতে চাইলে স্ট্যাম্প ফেরৎ দেয়ার আশ্বাস দেয়। কিন্তু দীর্ঘ সময় পার হলেও ফেরত পাইনি। তাই বাধ্য হয়ে আদালতের শরণাপন্ন হয়েছি।
এ বিষয়ে ফজলুল হকের সঙ্গে কথা বললে তিনি এড়িয়ে যান। তবে তরিকুল ইসলাম বলেন, ফাঁকা স্ট্যাম্পগুলো পূরণ করে আদালতে জমা দেয়া হয়েছে। বাদী পক্ষের আইনজীবি এ্যাড. আব্দুল বারী বলেন,ফাঁকা স্ট্যাম্পে সই নিয়ে জালিয়াতির চেষ্টা, মামলাটি আদালত আমলে নিয়েছে । তদন্ত চলমান রয়েছে । আশাকরছি বাদী ন্যায় বিচার পাবেন।