বাংলাদেশ ১০:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
মুক্তিযোদ্বা প্রজন্ম লীগ সভাপতিকে কুপিয়ে জখমকে কেন্দ্র করে পিরোজপুর শহরে উত্তেজনা রাবিতে চাঁদপুর পরিবারের নেতৃত্বে ইমন-রাহিম ঝালকাঠিতে ৮টি গাঁজাগাছ ও ১৫পিস ইয়াবাসহ আটক-২ ঝালকাঠির নবগ্রামের শতবর্ষী রেইন্ট্রি গাছ নিয়ে গুনাই বিবি নাটকের রূপ কথার গল্প চার শিশুর জন্ম দিল এক মা। শিশুরা সবাই সুস্থ আছেন। ভান্ডারিয়ায় ৯৬ হাজার স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণে শুভ উদ্বোধন বিপুল পরিমাণে গাঁজাসহ ০২ জন মাদক কারবারী কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪: মাদক পরিবহণে ব্যবহৃত পিকআপ জব্দ। ওয়াশিংটনে পিঠা উৎসব ও বসন্ত বরণে রাবিয়ানদের মিলন মেলা অতিথি পাখির অভ্যায়রণ্য রানীশংকেলের রামরাই দিঘি তানোরে জিয়ারুল হত্যার ঘটনায় ১৫ জনের নামে মামলা তানোরে পূর্বশত্রুতার জের ধরে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় রাস্তা থেকে উদ্ধার হলো মরদেহ বরুন হত্যা মামলার পলাতক আসামীকে গ্রেফতার এলাকার উন্নয়ন আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে করব: মহিউদ্দিন মহারাজ এমপি। জগন্নাথপুরে কিশোরীকে নিয়ে পলায়ন, ১৮ দিন পর ফিরে প্রেমিক কারাগারে ভালুকায় বাজারের ইজারা নিয়ে মারামারির ঘটনায় আটক- ১

সদরঘাটে এ্যাডভেঞ্চার – ৯ লঞ্চে আগুন  

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৮:১০:২৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৭ মার্চ ২০২২
  • ১৬৯৩ বার পড়া হয়েছে

সদরঘাটে এ্যাডভেঞ্চার - ৯ লঞ্চে আগুন  

জবি প্রতিনিধি। 
রাজধানী সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে বরিশালগামী এ্যাডভেঞ্চার – ৯ লঞ্চে আগুন লেগেছে। লঞ্চ স্টাফদের একাগ্রতা চেষ্টা ও ফায়ার সার্ভিসের সাতটি ইউনিটের টানা তিন ঘন্টার লড়াইয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে।
(রবিবার) সকাল সাড়ে ১০ টায় সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালের মসজিদের পাশে থাকা অ্যাডভাঞ্চ-৯ লঞ্চে তৃতীয় তলার ভিআইপি কেবিন থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালের ঢাকা থেকে বরিশাল গামী অ্যাডভাঞ্চ-৯ লঞ্চটিতে হটাৎ করে আগুন দেখতে পায়। তখন লঞ্চ থাকা সকল কর্মচারীরা ঘুম থেকে লাফিয়ে উঠে ভয়ে যে যার মতো করে এদিক-সেদিক ছুটাছুটি শুরু করে।
তখন লঞ্চে থাকা কিছু কর্মচারীরা নিজ উদ্যোগে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। তারপর ফায়ার সার্ভিসের সদরঘাট শাখার দমকলকর্মীরা এসে কাজ শুরু করে লঞ্চ কর্মীদের সাথে। পরবর্তী সময়ে ফায়ার সার্ভিসের সাতটি ইউনিটের প্রচেষ্টায় টানা তিন ঘন্টার লড়াইয়ে বেলা দেড়টায় লঞ্চটির আগুন সম্পন্নভাবে নিয়ন্ত্রণ আসে।
লঞ্চ মালিকেরা বলেছেন, লঞ্চটিতে থাকা ২৫০ টি কেবিনের মধ্যে অন্তত ১৩৫-১৪০ টি কেবিন সম্পন্ন ভাবে আগুনে জ্বলে যায়। এছাড়াও লঞ্চে থাকা হোটেল – রেস্টুরেন্ট সহ সকল দোকানপাটের জিনিসপত্র পুড়ে যায়। ধারণা করা যাচ্ছে লঞ্চটির আনুমানিক ক্ষতি পরিমাণ দাঁড়াবে ১০-১৫ কোটির বেশি।
সদরঘাটে কর্মরত বিআইডব্লিউটিএ’র কর্মচারী আলমগীর বলেন, লঞ্চটি ভোর ৪টার দিকে যাত্রী নিয়ে সদরঘাটে পৌঁছায়। যাত্রী নামানোর পর শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত যন্ত্র (এসি) মেরামতের সময় আগুন লেগে যায়। পরবর্তী সময়ে আগুন চারদিকে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।
এ বিষয়ে ঢাকা বিভাগের ফায়ার সার্ভিসের উপপরিচালক দীন মনি শর্মা বলেন, আমরা প্রাথমিকভাবে আগুনের সূত্রপাত সম্পর্কে কিছুই বলতে পারছি না। তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে আগামী সাত কর্মদিবসে জানা যাবে। আমাদের ৯৯ জন সদস্যের প্রাণপণ চেষ্টায় আগুন সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে এসেছে।
তবে, লঞ্চের দুর্ঘটনা কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।
জনপ্রিয় সংবাদ

মুক্তিযোদ্বা প্রজন্ম লীগ সভাপতিকে কুপিয়ে জখমকে কেন্দ্র করে পিরোজপুর শহরে উত্তেজনা

সদরঘাটে এ্যাডভেঞ্চার – ৯ লঞ্চে আগুন  

আপডেট সময় ০৮:১০:২৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৭ মার্চ ২০২২
জবি প্রতিনিধি। 
রাজধানী সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে বরিশালগামী এ্যাডভেঞ্চার – ৯ লঞ্চে আগুন লেগেছে। লঞ্চ স্টাফদের একাগ্রতা চেষ্টা ও ফায়ার সার্ভিসের সাতটি ইউনিটের টানা তিন ঘন্টার লড়াইয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে।
(রবিবার) সকাল সাড়ে ১০ টায় সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালের মসজিদের পাশে থাকা অ্যাডভাঞ্চ-৯ লঞ্চে তৃতীয় তলার ভিআইপি কেবিন থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালের ঢাকা থেকে বরিশাল গামী অ্যাডভাঞ্চ-৯ লঞ্চটিতে হটাৎ করে আগুন দেখতে পায়। তখন লঞ্চ থাকা সকল কর্মচারীরা ঘুম থেকে লাফিয়ে উঠে ভয়ে যে যার মতো করে এদিক-সেদিক ছুটাছুটি শুরু করে।
তখন লঞ্চে থাকা কিছু কর্মচারীরা নিজ উদ্যোগে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। তারপর ফায়ার সার্ভিসের সদরঘাট শাখার দমকলকর্মীরা এসে কাজ শুরু করে লঞ্চ কর্মীদের সাথে। পরবর্তী সময়ে ফায়ার সার্ভিসের সাতটি ইউনিটের প্রচেষ্টায় টানা তিন ঘন্টার লড়াইয়ে বেলা দেড়টায় লঞ্চটির আগুন সম্পন্নভাবে নিয়ন্ত্রণ আসে।
লঞ্চ মালিকেরা বলেছেন, লঞ্চটিতে থাকা ২৫০ টি কেবিনের মধ্যে অন্তত ১৩৫-১৪০ টি কেবিন সম্পন্ন ভাবে আগুনে জ্বলে যায়। এছাড়াও লঞ্চে থাকা হোটেল – রেস্টুরেন্ট সহ সকল দোকানপাটের জিনিসপত্র পুড়ে যায়। ধারণা করা যাচ্ছে লঞ্চটির আনুমানিক ক্ষতি পরিমাণ দাঁড়াবে ১০-১৫ কোটির বেশি।
সদরঘাটে কর্মরত বিআইডব্লিউটিএ’র কর্মচারী আলমগীর বলেন, লঞ্চটি ভোর ৪টার দিকে যাত্রী নিয়ে সদরঘাটে পৌঁছায়। যাত্রী নামানোর পর শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত যন্ত্র (এসি) মেরামতের সময় আগুন লেগে যায়। পরবর্তী সময়ে আগুন চারদিকে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।
এ বিষয়ে ঢাকা বিভাগের ফায়ার সার্ভিসের উপপরিচালক দীন মনি শর্মা বলেন, আমরা প্রাথমিকভাবে আগুনের সূত্রপাত সম্পর্কে কিছুই বলতে পারছি না। তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে আগামী সাত কর্মদিবসে জানা যাবে। আমাদের ৯৯ জন সদস্যের প্রাণপণ চেষ্টায় আগুন সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে এসেছে।
তবে, লঞ্চের দুর্ঘটনা কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।