বাংলাদেশ ০২:৪৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
জণগণের পাশে ছিলাম, আছি এবং আজীবন থাকবো-অ্যাড. অরুনাংশু দত্ত টিটো দোকানের বাকির টাকা দিতে দেরি করায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে যখম, থানায় অভিযোগ।  সকল দলের মানুষের সেবক হিসেবে পাশে থাকতে চাই- অধ্যক্ষ সইদুল হক  পিরোজপুরে বর্ণাঢ্য আয়োজনে বাংলা টিভি’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে ঘোড়া মার্কার প্রার্থীকে জরিমানা রায়গঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় গাছে গাছে শোভা পাচ্ছে জামরুল ফল বিদেশী মদসহ ০৩ জন কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। সরকারের অনিচ্ছাতেই উচ্চ শিক্ষায় স্বদেশি ভাষা চালু হয়নি: ড. সলিমুল্লাহ খান রাজশাহীতে ৩০ ছাত্রকে বলাৎকার করে ভিডিও ধারণ করেন শিক্ষক ওয়াকেল ঠাকুরগাঁওয়ে উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে জেলা আওয়ামী রাজনীতিতে বিভক্তি হওয়ার আশঙ্কা রাজশাহীর পুঠিয়ায় তিন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে সম্পদশালী মাসুদ পুঠিয়া উপজেলায় নির্বাচন: চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীদের কার সম্পদ কত? রাজশাহী মহানগরীতে চেকপোস্টে দুই পুলিশ পিটিয়ে আহত! দুইভাই আটক কাউনিয়ায় লিগ্যাল এইড সার্ভিসেস ট্রাস্ট এর সভা অনুষ্ঠিত ধর্ষণ ও পর্নোগ্রাফি মামলার আসামী নাজিবুল ইসলাম নাজিমকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। উল্লাপাড়ায় সড়ক দূর্ঘনায় ১ জনের মৃত্যু 
সোনাগাজীতে চলাচলের পথ বন্ধ করার প্রতিবাদে স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন 

সোনাগাজীতে চলাচলের পথ বন্ধ করার প্রতিবাদে স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন 

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৩:১৫:২০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২২
  • ১৭২৫ বার পড়া হয়েছে

সোনাগাজীতে চলাচলের পথ বন্ধ করার প্রতিবাদে স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন 

সোনাগাজী (ফেনী) প্রতিনিধি
সোনাগাজীতে স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে সরকারি অর্থায়নে নির্মিত ব্রীজ ব্যবহারে জনসাধারনকে বাঁধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত শিক্ষক মহিউদ্দিন সোনাগাজী সরকারী ছাবের পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। এ ঘটনায় তার বিচার ও চলাচলের পথ উম্মুক্ত করার দাবীতে  রবিবার দুপুরে সোনাগাজী পৌর শহরের জিরো পয়েন্টে মানববন্ধন করেন প্রায় দুই শতাধিক ভুক্তভোগী নারী পুরুষ।
স্থানীয়দের বরাতে জানা গেছে, সোনাগাজী পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড মহেশ্বর গ্রামের তেমুহনী নামক স্থানের শকুনিয়া খালের উপর জনসাধারণের চলাচলের জন্য এলজিইডি কর্তৃক বক্স কালভার্ট নির্মান করা হয়। গত ১৩ সালে নির্মিত ওই কালভার্ট নির্মানে খরচ হয় ১৩ লাখ টাকা।
মানববন্ধনে অংশগ্রহনকারীদের অভিযোগ কালভার্ট নির্মাণ হওয়ার পর উত্তর চরছান্দিয়া গ্রামের নজিয়ার বাপের বাড়ীর পাশ দিয়ে পশ্চিম দিকে দাসেরহাট গ্রাম পর্যন্ত রাস্তা সংস্কার করার প্রতিশ্রæতি দিয়ে শিক্ষক মহিউদ্দিন (মমিন হুজুর) আশপাশের লোকদের কাছ থেকে এক লাখ বিশ হাজার টাকা সংগ্রহ করেন। পরে তিনি রাস্তা সংস্কার না করে ঐ টাকা আত্মসাৎ করেন। টাকা ফেরত চাইলে শিক্ষক মহি উদ্দিন রাস্তা ও কালভার্টের সংযোগস্থলে টিনের বেড়া দিয়ে জনসাধারনের চলাচলের পথ বন্ধ করে দেন।
স্থানীয় অধিবাসী মাবুল হক, মকবুল আহমদ, আবদুল শুক্কুরও সিরাজুল হক বলেন,নজিয়ার বাপের বাড়ীতে ১৮টি পরিবারে প্রায় ৩০০জন লোক বসবাস করেন। যাদের চলাচলের জন্য বিকল্প কোন রাস্তা নেই। জমির আইল দিয়ে প্রায় অর্ধ কিলোমিটার পথ হেঁটে সোনাগাজী কাশ্মীর বাজার রোডের মহেশ্বর তেমুহণী আসতে হয় । অনেক কষ্টে ভাঙাচোরা আইলে দিয়ে এসে ব্রীজে উঠতে গেলে  শিক্ষক মহিউদ্দিন মাস্টার ও তার লোকজন আমাদের বাঁধা সৃষ্টি করেন। ইতিমধ্যে শিক্ষক মহিউদ্দিন কালভার্টের পশ্চিমে রাস্তায় ঘর নির্মান করে তিনি চতুর্দিকে দেওয়াল নির্মাণ করে কালভার্টটি এককভাবে ব্যবহার করছেন।
স্থানীয় অধিবাসী সফিউল্যাহ বলেন,কালভার্ট বন্ধ করে দেওয়ার কারনে গ্রামের ছেলে মেয়েরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেতে ভোগান্তি পোহাচ্ছে। প্রস‚তি বা জটিল রোগীদের হাসপাতালে নিতে ও গৃহস্থালি মালামাল বহন এবং কেউ মারা গেলে লাশ বহন করে কবরস্তানে নিতে দীর্ঘপথ পাড়ি দিতে হচ্ছে। ইতিমধ্যে স্থানীয় চেয়ারম্যান, উপজেলা চেয়ারম্যান ও পৌর মেয়র সহ বিভিন্ন দপ্তরে রাস্তা করার জন্য আবেদন করেও অধ্যাবধি কোন সুফল পাইনি বরং শিক্ষক মহিউদ্দিন মাস্টার আমাদের নামে মামলা হামলা দিয়ে হয়রানি করছেন।
মানববন্ধন শেষে অংশগ্রহনকারী শিক্ষক মহিউদ্দিনের বিচার চেয়ে মিছিল সহকারে উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে গিয়ে নির্বাহী কর্মকর্তা জহিরুল হায়াতের কাছে লিখিত অভিযোগ প্রদান করেন।
অভিযোগের বিষয়ে জানতে শিক্ষক মহিউদ্দিনের মুঠোফোনে কল করা হলে তিনি ঢাকাতে রয়েছে জানিয়ে পরে কথা বলবে বলে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

জণগণের পাশে ছিলাম, আছি এবং আজীবন থাকবো-অ্যাড. অরুনাংশু দত্ত টিটো

সোনাগাজীতে চলাচলের পথ বন্ধ করার প্রতিবাদে স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন 

সোনাগাজীতে চলাচলের পথ বন্ধ করার প্রতিবাদে স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন 

আপডেট সময় ০৩:১৫:২০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২২
সোনাগাজী (ফেনী) প্রতিনিধি
সোনাগাজীতে স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে সরকারি অর্থায়নে নির্মিত ব্রীজ ব্যবহারে জনসাধারনকে বাঁধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত শিক্ষক মহিউদ্দিন সোনাগাজী সরকারী ছাবের পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। এ ঘটনায় তার বিচার ও চলাচলের পথ উম্মুক্ত করার দাবীতে  রবিবার দুপুরে সোনাগাজী পৌর শহরের জিরো পয়েন্টে মানববন্ধন করেন প্রায় দুই শতাধিক ভুক্তভোগী নারী পুরুষ।
স্থানীয়দের বরাতে জানা গেছে, সোনাগাজী পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড মহেশ্বর গ্রামের তেমুহনী নামক স্থানের শকুনিয়া খালের উপর জনসাধারণের চলাচলের জন্য এলজিইডি কর্তৃক বক্স কালভার্ট নির্মান করা হয়। গত ১৩ সালে নির্মিত ওই কালভার্ট নির্মানে খরচ হয় ১৩ লাখ টাকা।
মানববন্ধনে অংশগ্রহনকারীদের অভিযোগ কালভার্ট নির্মাণ হওয়ার পর উত্তর চরছান্দিয়া গ্রামের নজিয়ার বাপের বাড়ীর পাশ দিয়ে পশ্চিম দিকে দাসেরহাট গ্রাম পর্যন্ত রাস্তা সংস্কার করার প্রতিশ্রæতি দিয়ে শিক্ষক মহিউদ্দিন (মমিন হুজুর) আশপাশের লোকদের কাছ থেকে এক লাখ বিশ হাজার টাকা সংগ্রহ করেন। পরে তিনি রাস্তা সংস্কার না করে ঐ টাকা আত্মসাৎ করেন। টাকা ফেরত চাইলে শিক্ষক মহি উদ্দিন রাস্তা ও কালভার্টের সংযোগস্থলে টিনের বেড়া দিয়ে জনসাধারনের চলাচলের পথ বন্ধ করে দেন।
স্থানীয় অধিবাসী মাবুল হক, মকবুল আহমদ, আবদুল শুক্কুরও সিরাজুল হক বলেন,নজিয়ার বাপের বাড়ীতে ১৮টি পরিবারে প্রায় ৩০০জন লোক বসবাস করেন। যাদের চলাচলের জন্য বিকল্প কোন রাস্তা নেই। জমির আইল দিয়ে প্রায় অর্ধ কিলোমিটার পথ হেঁটে সোনাগাজী কাশ্মীর বাজার রোডের মহেশ্বর তেমুহণী আসতে হয় । অনেক কষ্টে ভাঙাচোরা আইলে দিয়ে এসে ব্রীজে উঠতে গেলে  শিক্ষক মহিউদ্দিন মাস্টার ও তার লোকজন আমাদের বাঁধা সৃষ্টি করেন। ইতিমধ্যে শিক্ষক মহিউদ্দিন কালভার্টের পশ্চিমে রাস্তায় ঘর নির্মান করে তিনি চতুর্দিকে দেওয়াল নির্মাণ করে কালভার্টটি এককভাবে ব্যবহার করছেন।
স্থানীয় অধিবাসী সফিউল্যাহ বলেন,কালভার্ট বন্ধ করে দেওয়ার কারনে গ্রামের ছেলে মেয়েরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেতে ভোগান্তি পোহাচ্ছে। প্রস‚তি বা জটিল রোগীদের হাসপাতালে নিতে ও গৃহস্থালি মালামাল বহন এবং কেউ মারা গেলে লাশ বহন করে কবরস্তানে নিতে দীর্ঘপথ পাড়ি দিতে হচ্ছে। ইতিমধ্যে স্থানীয় চেয়ারম্যান, উপজেলা চেয়ারম্যান ও পৌর মেয়র সহ বিভিন্ন দপ্তরে রাস্তা করার জন্য আবেদন করেও অধ্যাবধি কোন সুফল পাইনি বরং শিক্ষক মহিউদ্দিন মাস্টার আমাদের নামে মামলা হামলা দিয়ে হয়রানি করছেন।
মানববন্ধন শেষে অংশগ্রহনকারী শিক্ষক মহিউদ্দিনের বিচার চেয়ে মিছিল সহকারে উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে গিয়ে নির্বাহী কর্মকর্তা জহিরুল হায়াতের কাছে লিখিত অভিযোগ প্রদান করেন।
অভিযোগের বিষয়ে জানতে শিক্ষক মহিউদ্দিনের মুঠোফোনে কল করা হলে তিনি ঢাকাতে রয়েছে জানিয়ে পরে কথা বলবে বলে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।