বাংলাদেশ ০৮:০৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
গোদাগাড়ীতে বালু মজুদ করতে ১০ একর জমির কাঁচা ধান কর্তন বেপরোয়া গতিতে চলমান রাইদা পরিবহনের বাসের চাপায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যুর ঘটনায় ঘাতক বাস ড্রাইভার গ্রেফতার।  হত্যা মামলার ০১ জন পলাতক আসামীকে ০৬ দিনের মধ্যে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। চট্টগ্রামে বিয়ের নামে ফাঁদ, একাধিক পুরুষকে নিঃস্ব করেছেন সুন্দরী টুম্পা কষ্টিপাথরের নন্দী মূর্তি-সংঘবদ্ধ পাচারকারীচক্রের মূলহোতা সহ ০২জন আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। ভান্ডারিয়ায় আলতাফ হোসেন স্মৃতি সংসদের শুভ উদ্বোধন করলেন শিক্ষানুরাগী ফজলুল করিম মিঠু মিয়া বদলগাছীতে মটর সাইকেল ভুটভুটি সংঘর্ষে ঝরে গেল তাজা একটি প্রান। শতাধিক রোভার সহচরকে দীক্ষা দিলো জবি রোভার স্কাউট গ্রুপ  হত্যা মামলার পলাতক আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রাক্টরচাপায় অটোরিকশা যাত্রী নিহত ১৫ দিনের ঈদযাত্রায় ২৯৪ প্রাণের মৃত্যুমিছিল : সেভ দ্য রোড অতিরিক্ত টোল আদায়, গোনায় ধরছে না কাউকে ইজারাদার ভালুকায় স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর ধর্ষন মামলা স্বামী কারাগারে দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা যশোরে তীব্র তাপদাহে পুড়ছে মানুষ  মাধবপুরে তরুণের বিরুদ্ধে বাবা মা ও ভাইকে নির্যাতনের অভিযোগ
বানারীপাড়ায় বৃদ্ধ-বৃদ্ধার জমকালো বিয়ে নিয়ে আলোড়ন...

বানারীপাড়ায় বৃদ্ধ-বৃদ্ধার জমকালো বিয়ে নিয়ে আলোড়ন…

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০১:৫৪:৫১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২২
  • ১৭২৭ বার পড়া হয়েছে

বানারীপাড়ায় বৃদ্ধ-বৃদ্ধার জমকালো বিয়ে নিয়ে আলোড়ন...

 

 

রাহাদ সুমন, বিশেষ প্রতিনিধি॥

প্রেম-ভালোবাসায় কোন গরীব-ধনী, ধর্ম-বর্ণ কিংবা বয়স নেই, তার প্রমান রাখলেন বানারীপাড়ার ৬২ বছরের বৃদ্ধ আশরাফ আলী বেপারী ও ৫৪ বছরের বৃদ্ধা মোসাম্মৎ বানু বেগম। জীবনের পড়ন্ত বেলায় এসে দীর্ঘ একাকিত্ব ও নিঃসঙ্গতা কাটাতে ভালোবেসে বিয়ে করে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন তারা। জমকালো আয়োজনে চাঞ্চল্যকর এ বিয়ে হয়েছে বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলার শেরে বাংলার স্মৃতিধণ্য পূণ্যভূমি চাখার ইউনিয়নের সোনাহার গ্রামে মুজিব জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার আশ্রয়ন প্রকল্পে।

 

 

 

ব্যতিক্রমধর্মী এ বিয়েতে ১ লক্ষ ১ টাকা দেনমোহর ধার্য করা হয়। নগদ ৫০ হাজার টাকা পরিশোধিত দেনমোহরে ওই দম্পতির বিয়ে সম্পন্ন হয়। বাহারী রঙিন বেলুন আর ফুলে ফুলে সাজানো হয়েছিল তাদের বাসরঘর ( ফুলশয্যা)। শনিবার (১৯ ফেব্রুয়ারী) রাতে দুই বৃদ্ধ-বৃদ্ধার বিয়েতে নিমন্ত্রিত অতিথি পাঁচশ’ হলেও গ্রামের উৎসুক মানুষের অংশগ্রহণে শেষ পর্যন্ত তা প্রায় হাজার ছাড়িয়ে যায়। বর ও কনে চাখার ইউনিয়নের সোনাহার গ্রামের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দা। বিধবা মোসামৎ বানু বেগমের ঘরে এক কন্যা সন্তান থাকলেও বৃদ্ধ আশরাফ আলী ছিলেন চিরকুমার।

 

 

 

ফলে একাকিত্বের জীবনে একেঅপরকে সঙ্গী হিসেবে বেছে নেয় তারা। দু’জনের মাঝে প্রথমে ভালো লাগা,পরে প্রেম অতঃপর একে অপরকে আরও নিবিড়ভাবে পেতে দুজনের ঘর বাধার সিদ্ধান্ত। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ মজিবুল ইসলাম টুকুর উদ্যোগে বেশ ধুমধাম পরিবেশে তাঁদের প্রেম-প্রণয়কে বিয়ের মাধ্যমে পরিণয়ে রূপান্তর করা হয়। এ প্রসঙ্গে চাখার ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ  মজিবুল হক টুকু বলেন, তার ইউনিয়নের সোনাহার গ্রামে  প্রধানমন্ত্রীর  আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দা আশরাফ আলী বেপারী বিয়ে করেননি। তার কোন সংসার নেই।

 

 

 

ভিক্ষে করে চলে তার জীবন। বৃদ্ধ বয়সে বেশ একাকিত্বের জীবন কাটাতেন তিনি। পরে আশরাফ আলী বেপারী এই নিঃসঙ্গতা কাটাঁতে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন। এক সময় বানারীপাড়া সদর ইউনিয়নের জম্বদ্বীপ গ্রামে আশরাফ আলী বেপারীর বাড়ি হলেও নদী ভাঙনের শিকার হয়ে তার ঠিকানা হয় চাখারের সোনাহার গ্রামের আশ্রয়নে। সেখানে দু’শতক জমিসহ পেয়েছেন চকচকে রঙিন পাকা ঘর। সেই ঘরে একজন সঙ্গী বড়ই প্রয়োজন হয়ে ওঠে তার।

 

 

অপরদিকে একই প্রকল্পের বাসিন্দা একসময় চট্টগ্রাম থেকে আসা মোসাম্মৎ বানু বেগমের স্বামী মারা যাওয়ার পর মেয়ে ও জামাতার সাথে থাকলেও নিঃসঙ্গ জীবন কাটাতেন তিনি। জীবন চলে তার অন্যের বাড়িতে ঝিয়ের কাজ করে। এ অবস্থায় তিনিও বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন। এর মধ্যে উভয়ের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠলে অবশেষে পরিবারের সম্মতিতে শনিবার রাতে খুব ঘটা করেই তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।

 

 

 

এমন আয়োজনে কৌতুহলী  এলাকাবাসী সেখানে ভিড় জমায়। বিয়ের অনুষ্ঠান সবাইকে উপভোগ্য করে তোলে। এলাকাবাসী নবদম্পতির দীর্ঘায়ু কামনা করে সুখী জীবনযাপনের জন্য দোয়া করেন। এদিকে এ বিয়ের মধ্য দিয়ে  প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ন প্রকল্পে প্রেম-প্রণয় পরিণত রূপ পাওয়ার দৃষ্টান্ত স্থাপন হয়েছে। এতে এলাকার সবাই দারুন আনন্দিত ও উচ্ছ্বসিত।

 

 

বৃদ্ধ আশরাফ আলী বেপারী ও বৃদ্ধা মোসাম্মৎ বানু বেগম তাঁদের দাম্পত্য জীবন আমৃত্যু যেন সুখকর ও মধুময় থাকে সেজন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন। এদিকে বৃদ্ধ-বৃদ্ধার ঘটা করে এ বিয়ে এলাকায় টক অব দ্য নিউজে পরিণত হয়েছে।

 

 

 

 

জনপ্রিয় সংবাদ

গোদাগাড়ীতে বালু মজুদ করতে ১০ একর জমির কাঁচা ধান কর্তন

বানারীপাড়ায় বৃদ্ধ-বৃদ্ধার জমকালো বিয়ে নিয়ে আলোড়ন...

বানারীপাড়ায় বৃদ্ধ-বৃদ্ধার জমকালো বিয়ে নিয়ে আলোড়ন…

আপডেট সময় ০১:৫৪:৫১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২২

 

 

রাহাদ সুমন, বিশেষ প্রতিনিধি॥

প্রেম-ভালোবাসায় কোন গরীব-ধনী, ধর্ম-বর্ণ কিংবা বয়স নেই, তার প্রমান রাখলেন বানারীপাড়ার ৬২ বছরের বৃদ্ধ আশরাফ আলী বেপারী ও ৫৪ বছরের বৃদ্ধা মোসাম্মৎ বানু বেগম। জীবনের পড়ন্ত বেলায় এসে দীর্ঘ একাকিত্ব ও নিঃসঙ্গতা কাটাতে ভালোবেসে বিয়ে করে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন তারা। জমকালো আয়োজনে চাঞ্চল্যকর এ বিয়ে হয়েছে বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলার শেরে বাংলার স্মৃতিধণ্য পূণ্যভূমি চাখার ইউনিয়নের সোনাহার গ্রামে মুজিব জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার আশ্রয়ন প্রকল্পে।

 

 

 

ব্যতিক্রমধর্মী এ বিয়েতে ১ লক্ষ ১ টাকা দেনমোহর ধার্য করা হয়। নগদ ৫০ হাজার টাকা পরিশোধিত দেনমোহরে ওই দম্পতির বিয়ে সম্পন্ন হয়। বাহারী রঙিন বেলুন আর ফুলে ফুলে সাজানো হয়েছিল তাদের বাসরঘর ( ফুলশয্যা)। শনিবার (১৯ ফেব্রুয়ারী) রাতে দুই বৃদ্ধ-বৃদ্ধার বিয়েতে নিমন্ত্রিত অতিথি পাঁচশ’ হলেও গ্রামের উৎসুক মানুষের অংশগ্রহণে শেষ পর্যন্ত তা প্রায় হাজার ছাড়িয়ে যায়। বর ও কনে চাখার ইউনিয়নের সোনাহার গ্রামের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দা। বিধবা মোসামৎ বানু বেগমের ঘরে এক কন্যা সন্তান থাকলেও বৃদ্ধ আশরাফ আলী ছিলেন চিরকুমার।

 

 

 

ফলে একাকিত্বের জীবনে একেঅপরকে সঙ্গী হিসেবে বেছে নেয় তারা। দু’জনের মাঝে প্রথমে ভালো লাগা,পরে প্রেম অতঃপর একে অপরকে আরও নিবিড়ভাবে পেতে দুজনের ঘর বাধার সিদ্ধান্ত। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ মজিবুল ইসলাম টুকুর উদ্যোগে বেশ ধুমধাম পরিবেশে তাঁদের প্রেম-প্রণয়কে বিয়ের মাধ্যমে পরিণয়ে রূপান্তর করা হয়। এ প্রসঙ্গে চাখার ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ  মজিবুল হক টুকু বলেন, তার ইউনিয়নের সোনাহার গ্রামে  প্রধানমন্ত্রীর  আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দা আশরাফ আলী বেপারী বিয়ে করেননি। তার কোন সংসার নেই।

 

 

 

ভিক্ষে করে চলে তার জীবন। বৃদ্ধ বয়সে বেশ একাকিত্বের জীবন কাটাতেন তিনি। পরে আশরাফ আলী বেপারী এই নিঃসঙ্গতা কাটাঁতে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন। এক সময় বানারীপাড়া সদর ইউনিয়নের জম্বদ্বীপ গ্রামে আশরাফ আলী বেপারীর বাড়ি হলেও নদী ভাঙনের শিকার হয়ে তার ঠিকানা হয় চাখারের সোনাহার গ্রামের আশ্রয়নে। সেখানে দু’শতক জমিসহ পেয়েছেন চকচকে রঙিন পাকা ঘর। সেই ঘরে একজন সঙ্গী বড়ই প্রয়োজন হয়ে ওঠে তার।

 

 

অপরদিকে একই প্রকল্পের বাসিন্দা একসময় চট্টগ্রাম থেকে আসা মোসাম্মৎ বানু বেগমের স্বামী মারা যাওয়ার পর মেয়ে ও জামাতার সাথে থাকলেও নিঃসঙ্গ জীবন কাটাতেন তিনি। জীবন চলে তার অন্যের বাড়িতে ঝিয়ের কাজ করে। এ অবস্থায় তিনিও বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন। এর মধ্যে উভয়ের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠলে অবশেষে পরিবারের সম্মতিতে শনিবার রাতে খুব ঘটা করেই তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।

 

 

 

এমন আয়োজনে কৌতুহলী  এলাকাবাসী সেখানে ভিড় জমায়। বিয়ের অনুষ্ঠান সবাইকে উপভোগ্য করে তোলে। এলাকাবাসী নবদম্পতির দীর্ঘায়ু কামনা করে সুখী জীবনযাপনের জন্য দোয়া করেন। এদিকে এ বিয়ের মধ্য দিয়ে  প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ন প্রকল্পে প্রেম-প্রণয় পরিণত রূপ পাওয়ার দৃষ্টান্ত স্থাপন হয়েছে। এতে এলাকার সবাই দারুন আনন্দিত ও উচ্ছ্বসিত।

 

 

বৃদ্ধ আশরাফ আলী বেপারী ও বৃদ্ধা মোসাম্মৎ বানু বেগম তাঁদের দাম্পত্য জীবন আমৃত্যু যেন সুখকর ও মধুময় থাকে সেজন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন। এদিকে বৃদ্ধ-বৃদ্ধার ঘটা করে এ বিয়ে এলাকায় টক অব দ্য নিউজে পরিণত হয়েছে।