বাংলাদেশ ০৯:৩৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
ঝালকাঠিতে ৮টি গাঁজাগাছ ও ১৫পিস ইয়াবাসহ আটক-২ ঝালকাঠির নবগ্রামের শতবর্ষী রেইন্ট্রি গাছ নিয়ে গুনাই বিবি নাটকের রূপ কথার গল্প ওয়াশিংটনে পিঠা উৎসব ও বসন্ত বরণে রাবিয়ানদের মিলন মেলা অতিথি পাখির অভ্যায়রণ্য রানীশংকেলের রামরাই দিঘি তানোরে জিয়ারুল হত্যার ঘটনায় ১৫ জনের নামে মামলা তানোরে পূর্বশত্রুতার জের ধরে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় রাস্তা থেকে উদ্ধার হলো মরদেহ বরুন হত্যা মামলার পলাতক আসামীকে গ্রেফতার এলাকার উন্নয়ন আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে করব: মহিউদ্দিন মহারাজ এমপি। জগন্নাথপুরে কিশোরীকে নিয়ে পলায়ন, ১৮ দিন পর ফিরে প্রেমিক কারাগারে ভালুকায় বাজারের ইজারা নিয়ে মারামারির ঘটনায় আটক- ১ বানারীপাড়ায় বন্দর মডেল স্কুলে তিনদিন ব্যাপি বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে আগুনে পুড়লো তিনটি বসতঘর মুন্সীগঞ্জে হাসপাতালের লিফট সার্ভিসিং করার সময় লিফট থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু বানারীপাড়ায় আওয়ামী লীগ নেতা আ. হালিম খানের ইন্তেকাল বানারীপাড়ায় অবসরপ্রাপ্ত পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্মকর্তা আব্দুল মতিন চৌধুরীর ইন্তেকাল

খানসামায় সাশ্রয়ী মূল্যে টিসিবির পণ্য পেয়ে স্বস্তির হাসি

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৪:৫৯:১৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৫ মার্চ ২০২২
  • ১৬৬৫ বার পড়া হয়েছে

খানসামায় সাশ্রয়ী মূল্যে টিসিবির পণ্য পেয়ে স্বস্তির হাসি

মোঃ নুরনবী ইসলাম, খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ
দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে যখন মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছে ঠিক সেই তখন দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার নিম্নবিত্ত মানুষের মাঝে একটু হলেও স্বস্তি নিয়ে এল ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। এই সরকারি সংস্থাটি স্বল্পমূল্যে পণ্য বিক্রি শুরু করেছে নিম্নবিত্তদের মধ্যে। আর ওই পণ্য কিনতে পেরে খুশি তাঁরা। লাইনে দাঁড়ানো বেশির ভাগই নিম্ন আয়ের মানুষ। কিছু সময় পরপর ওই লাইন থেকে সয়াবিন তেলের বোতল, চিনি ও মসুর ডালের প্যাকেট নিয়ে বেরিয়ে আসছেন একেকজন। দিচ্ছেন স্বস্তির হাসি। আর হাসবেই না কেন? কারণ এই টানাপোড়নের বাজারে সাশ্রয়ী মূল্যে পণ্য কিনতে পারাটা নিম্ন আয়ের মানুষদের কাছে অনেক বড় পাওয়া।
শুক্রবার সকালে উপজেলার আঙ্গারপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে টিসিবির পণ্য কিনতে সারিতে দাঁড়িয়ে মানুষ। এই সময় কার্যক্রম পরিদর্শন করতে এবং উপকারভোগীদের সঙ্গে কথা বলতে আসেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাশিদা আক্তার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) ও আঙ্গারপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তফা আহমেদ শাহ্, সাধারণ সম্পাদক সফিউল আযম চৌধুরী।
ওই এলাকার টিসিবির পণ্য কিনতে জামিলা খাতুন বলেন, আমরা যা রোজগার করি তা দিয়ে সংসার চালানোই কষ্টসাধ্য, তার মধ্যে জিনিসপত্রের দাম এখন বাড়তি। জিনিসপত্রের দাম বাড়তি থাকলেও আমাদের কাজের দর খুবই কম। কম দামে পণ্য পেয়ে অনেকটা ভালোই লাগছে।
আঙ্গারপাড়া গ্রামের নদীপাড়া এলাকার সাত্তার আলী বলেন, টিসিবি থেকে ১১০ টাকা কেজি দরে ২ লিটার সোয়াবিন তেল, ৬৫ টাকা কেজি দরে ২ কেজি মসুর ডাল এবং ৫৫ টাকা দরে ২ কেজি চিনি কেনার সুযোগ পাচ্ছি।  রোজার সময় নাকি এরসাথে ২ কেজি করে ছোলাও দিবে। এই পণ্য কিনে তো আমাদের প্রায় ২ শত টাকা সাশ্রয় হচ্ছে। এতেই আমরা খুশি।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাশিদা আক্তার বলেন, উপজেলাজুড়ে ২০৭৬৪ পরিবারে টিসিবি’র পণ্য ক্রয়ের জন্য ফ্যামিলি কার্ড দিয়েছি। ইতিমধ্যে দুটি ইউনিয়ন বিতরণ টিসিবি’র পণ্য দেওয়া হয়েছে। আমাদের প্রথম পর্যায়ের পণ্য বিতরণ কার্যক্রমটি সুষ্ঠুভাবেই সম্পন্ন করতে পারবো। তবে উপকারভোগীদের তালিকা পুরো নিষ্ঠার সঙ্গে একটি ডাটাবেজে আনতে পারলে বিতরণ কার্যক্রম আরও সুন্দরভাবে করতে পারব।
জনপ্রিয় সংবাদ

ঝালকাঠিতে ৮টি গাঁজাগাছ ও ১৫পিস ইয়াবাসহ আটক-২

খানসামায় সাশ্রয়ী মূল্যে টিসিবির পণ্য পেয়ে স্বস্তির হাসি

আপডেট সময় ০৪:৫৯:১৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৫ মার্চ ২০২২
মোঃ নুরনবী ইসলাম, খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ
দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে যখন মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছে ঠিক সেই তখন দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার নিম্নবিত্ত মানুষের মাঝে একটু হলেও স্বস্তি নিয়ে এল ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। এই সরকারি সংস্থাটি স্বল্পমূল্যে পণ্য বিক্রি শুরু করেছে নিম্নবিত্তদের মধ্যে। আর ওই পণ্য কিনতে পেরে খুশি তাঁরা। লাইনে দাঁড়ানো বেশির ভাগই নিম্ন আয়ের মানুষ। কিছু সময় পরপর ওই লাইন থেকে সয়াবিন তেলের বোতল, চিনি ও মসুর ডালের প্যাকেট নিয়ে বেরিয়ে আসছেন একেকজন। দিচ্ছেন স্বস্তির হাসি। আর হাসবেই না কেন? কারণ এই টানাপোড়নের বাজারে সাশ্রয়ী মূল্যে পণ্য কিনতে পারাটা নিম্ন আয়ের মানুষদের কাছে অনেক বড় পাওয়া।
শুক্রবার সকালে উপজেলার আঙ্গারপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে টিসিবির পণ্য কিনতে সারিতে দাঁড়িয়ে মানুষ। এই সময় কার্যক্রম পরিদর্শন করতে এবং উপকারভোগীদের সঙ্গে কথা বলতে আসেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাশিদা আক্তার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) ও আঙ্গারপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তফা আহমেদ শাহ্, সাধারণ সম্পাদক সফিউল আযম চৌধুরী।
ওই এলাকার টিসিবির পণ্য কিনতে জামিলা খাতুন বলেন, আমরা যা রোজগার করি তা দিয়ে সংসার চালানোই কষ্টসাধ্য, তার মধ্যে জিনিসপত্রের দাম এখন বাড়তি। জিনিসপত্রের দাম বাড়তি থাকলেও আমাদের কাজের দর খুবই কম। কম দামে পণ্য পেয়ে অনেকটা ভালোই লাগছে।
আঙ্গারপাড়া গ্রামের নদীপাড়া এলাকার সাত্তার আলী বলেন, টিসিবি থেকে ১১০ টাকা কেজি দরে ২ লিটার সোয়াবিন তেল, ৬৫ টাকা কেজি দরে ২ কেজি মসুর ডাল এবং ৫৫ টাকা দরে ২ কেজি চিনি কেনার সুযোগ পাচ্ছি।  রোজার সময় নাকি এরসাথে ২ কেজি করে ছোলাও দিবে। এই পণ্য কিনে তো আমাদের প্রায় ২ শত টাকা সাশ্রয় হচ্ছে। এতেই আমরা খুশি।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাশিদা আক্তার বলেন, উপজেলাজুড়ে ২০৭৬৪ পরিবারে টিসিবি’র পণ্য ক্রয়ের জন্য ফ্যামিলি কার্ড দিয়েছি। ইতিমধ্যে দুটি ইউনিয়ন বিতরণ টিসিবি’র পণ্য দেওয়া হয়েছে। আমাদের প্রথম পর্যায়ের পণ্য বিতরণ কার্যক্রমটি সুষ্ঠুভাবেই সম্পন্ন করতে পারবো। তবে উপকারভোগীদের তালিকা পুরো নিষ্ঠার সঙ্গে একটি ডাটাবেজে আনতে পারলে বিতরণ কার্যক্রম আরও সুন্দরভাবে করতে পারব।