বাংলাদেশ ০৮:২৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
চলতি মৌসুমে ভুট্টার বাম্পার ফলনের আশা করছেন রায়গঞ্জের কৃষকেরা রক্তদানের মাধ্যমে টিউমার রোগীর অপারেশনে সহায়তা করলেন শিক্ষার্থী দেবাশীষ॥ ফুলবাড়ীর বারোকোন গ্রামে ক্রয়কৃত জমির প্রতিপক্ষের গাছ কর্তন।  গলাচিপায় এক সন্তানের জননীকে মধ্যযুগীয় কায়দায় মারধর সিংগাইরে আল ইহসান সমবায় সমিতির সভাপতির বিরুদ্ধে গ্রাহকদের লাখ লাখ টাকা আত্নসাতের অভিযোগ সালথার জয়ঝাফ উচ্চ বিদ্যালয়ের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা । ত্রিশাল পৌরসভার উপ-নির্বাচনে প্রচারণায় ব্যস্ত মেয়র প্রার্থী আমিন সরকার  পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে ছিল নানান আয়োজন, আজ বেশিভাগ ধর্মপ্রাণ মানুষেরা রোজা রেখেছেন ভর্তি পরীক্ষা : গুচ্ছভুক্ত ২৪ বিশ্ববিদ্যালয়ের আবেদনের সময় বাড়ল মোটরসাইকেলের জন্য ওয়ার্কসপ কর্মচারী নাহিদকে হত্যা, গ্রেপ্তার ৫। কাউনিয়ায় দৈনিক যুগান্তরের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  কাউখালীতে অটো টেম্পু মালিক সমিতির সদস্যর মৃত্যুতে স্মরণসভা অনুষ্ঠিত। মধ্যপাড়া খনিজ শিল্পাঞ্চলে যুব সংঘের বিরুদ্ধে বিভ্রান্তীমূলক অপপ্রচারের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা  জাতির পিতার সমাধিতে নেত্রকোনা-১ এবং ময়মনসিংহ- ১০ আসনের সংসদ সদস্যদের শ্রদ্ধা নিবেদন। কাউখালীতে ব্রীজ নির্মান কাজ ৫ বছরে শেষ না হওয়ায় জনগনের ভোগান্তি চরমে।

সাংবাদিকদের জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্য নিয়ে গড়ে উঠছে ই- প্রেসক্লাব

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৫:০১:৪৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৩ মার্চ ২০২২
  • ১৭০২ বার পড়া হয়েছে

সাংবাদিকদের জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্য নিয়ে গড়ে উঠছে ই- প্রেসক্লাব

স্বীকৃতি বিশ্বাস, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
রাষ্ট্রের ৪ টি স্তম্ভের ৩ টি হলো জাতীয় সংসদ, নির্বাহী বিভাগ তথা প্রশাসন এবং বিচার বিভাগ। রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ হিসেবে সংবাদপত্র রাষ্ট্রের অন্য তিনস্তম্ভের ভুলভ্রান্তি তুলে ধরে।একটি রাষ্ট্র কোন দিকে যাচ্ছে, ভালো দিকে যাচ্ছে কিনা, সঠিক পথে আছে কিনা তা সাংবাদিকগণ অত্যন্ত সুন্দরভাবে সাহসিকতার সাথে তুলে ধরেন। আর তাই সাংবাদিকতাকে একটি স্বাধীন পেশা হিসাবে অভিহিত করা হয়।
তথ্য প্রযুক্তির অভাবনীয় উন্নতির ফলে প্রিন্ট,ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাথে মোবাইল বা সেল ফোন, কম্পিউটার এবং ইন্টারনেটকেও অনেক সময় নতুন-যুগের গণমাধ্যম হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়। ইন্টারনেট স্বীয় ক্ষমতাবলে ইতোমধ্যেই অন্যতম গণমাধ্যম হিসেবে ব্যাপক স্বীকৃতি অর্জন করেছে। এ মাধ্যমে অনেক প্রকার সেবা – বিশেষ করে ই-মেইল, ওয়েব সাইট, ব্লগিং, ইন্টারনেট এবং টেলিভিশনের প্রচারকাজ পরিচালনা করছে। দেশের জনগণের একটি বিশাল অংশ আজ এ পেশার সাথে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে যুক্ত।
আর এই পেশার সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের প্রথম কাজ সত্যনিষ্ঠ, বস্তুনিষ্ঠ এবং তথ্যনির্ভর সংবাদ পরিবেশন নিশ্চিত করা। দ্বিতীয় কাজ হচ্ছে সাংবাদিকদের নিজের পরিবার রয়েছে, তাঁদের জীবনজীবিকা ও স্বার্থগুলো নিশ্চিত করা এবং তৃতীয় কাজ হচ্ছে  প্রতিষ্ঠান বা সাংবাদ পত্রের সুবিধা-অসুবিধা দেখা। উপরোল্লেখিত কাজ গুলো যাতে সংবাদপত্র ও সাংবাদিকেরা করতে পারেন সেজন্য সারাদেশে গড়ে ওঠে প্রেস ক্লাব, বিভিন্ন সাংবাদিক ইউনিয়ন। কিন্তু কেতাবে গরু থাকলেও বাস্তবে গোয়ালে নেই।
আর তাই বাংলাদেশের সাংবাদিকদের পাশে থাকার প্রত্যয় নিয়ে ই-প্রেস ক্লাবের যাত্রা শুরু হয়েছে এবং  প্রাথমিকভাবে সদস্য সংগ্রহের কাজ চলছে। এই মহতী কাজের উদ্যোগ নিয়েছেন জনাব সৈয়দ ফজলুল কবীর। তিনি হলেন উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা।
বিজ্ঞান ভিত্তিক ও আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর সাংবাদিকতা, সকল প্রকার অনলাইন সেবা নিয়ে ই -প্রেসক্লাব এর গঠন করা হয়েছে। ই- প্রেস ক্লাবের মাধ্যমে সাংবাদিকরা আইনী সহায়তা, বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা, শিল্পায়নের মাধ্যমে  সাংবাদিকদের আর্থিক উন্নয়ন, পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণ দিয়ে  বিজ্ঞানসম্মত ও যুগোপযোগী  করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে এই প্রতিষ্ঠানের যাত্রা শুরু করেছে। এছাড়া সারাদেশে রক্তদান, বাল্যবিবাহ, যৌতুক, শিশু নির্যাতনসহ সামাজিক সচেতনতা মূলক কার্যক্রম পরিচালনায় বদ্ধ পরিকর থাকবে।
ই-প্রেস ক্লাব সাংবাদিকদের জন্য কিছু সামাজিক নিরাপত্তা মূলক  সেবা যেমন- স্বাস্থ্য সেবা, বীমা সেবা, আর্থিক সেবা, প্রশিক্ষণ এবং সাংবাদিকদের জন্য প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার উদ্যোগ নেওয়া হবে।  ই- প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সৈয়দ ফজলুল কবীর বলেন, এই ক্লাবে ইতিমধ্যে দেশের স্বনামধন্য সংবাদপত্রের সাংবাদিকবৃন্দ যোগদান করেছে। আশা করা যাচ্ছে সকলের সম্মিলিত চেষ্টায় সংগঠনের মাধ্যমে সাংবাদিকরা ভালো সেবা পাবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

চলতি মৌসুমে ভুট্টার বাম্পার ফলনের আশা করছেন রায়গঞ্জের কৃষকেরা

সাংবাদিকদের জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্য নিয়ে গড়ে উঠছে ই- প্রেসক্লাব

আপডেট সময় ০৫:০১:৪৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৩ মার্চ ২০২২
স্বীকৃতি বিশ্বাস, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
রাষ্ট্রের ৪ টি স্তম্ভের ৩ টি হলো জাতীয় সংসদ, নির্বাহী বিভাগ তথা প্রশাসন এবং বিচার বিভাগ। রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ হিসেবে সংবাদপত্র রাষ্ট্রের অন্য তিনস্তম্ভের ভুলভ্রান্তি তুলে ধরে।একটি রাষ্ট্র কোন দিকে যাচ্ছে, ভালো দিকে যাচ্ছে কিনা, সঠিক পথে আছে কিনা তা সাংবাদিকগণ অত্যন্ত সুন্দরভাবে সাহসিকতার সাথে তুলে ধরেন। আর তাই সাংবাদিকতাকে একটি স্বাধীন পেশা হিসাবে অভিহিত করা হয়।
তথ্য প্রযুক্তির অভাবনীয় উন্নতির ফলে প্রিন্ট,ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাথে মোবাইল বা সেল ফোন, কম্পিউটার এবং ইন্টারনেটকেও অনেক সময় নতুন-যুগের গণমাধ্যম হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়। ইন্টারনেট স্বীয় ক্ষমতাবলে ইতোমধ্যেই অন্যতম গণমাধ্যম হিসেবে ব্যাপক স্বীকৃতি অর্জন করেছে। এ মাধ্যমে অনেক প্রকার সেবা – বিশেষ করে ই-মেইল, ওয়েব সাইট, ব্লগিং, ইন্টারনেট এবং টেলিভিশনের প্রচারকাজ পরিচালনা করছে। দেশের জনগণের একটি বিশাল অংশ আজ এ পেশার সাথে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে যুক্ত।
আর এই পেশার সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের প্রথম কাজ সত্যনিষ্ঠ, বস্তুনিষ্ঠ এবং তথ্যনির্ভর সংবাদ পরিবেশন নিশ্চিত করা। দ্বিতীয় কাজ হচ্ছে সাংবাদিকদের নিজের পরিবার রয়েছে, তাঁদের জীবনজীবিকা ও স্বার্থগুলো নিশ্চিত করা এবং তৃতীয় কাজ হচ্ছে  প্রতিষ্ঠান বা সাংবাদ পত্রের সুবিধা-অসুবিধা দেখা। উপরোল্লেখিত কাজ গুলো যাতে সংবাদপত্র ও সাংবাদিকেরা করতে পারেন সেজন্য সারাদেশে গড়ে ওঠে প্রেস ক্লাব, বিভিন্ন সাংবাদিক ইউনিয়ন। কিন্তু কেতাবে গরু থাকলেও বাস্তবে গোয়ালে নেই।
আর তাই বাংলাদেশের সাংবাদিকদের পাশে থাকার প্রত্যয় নিয়ে ই-প্রেস ক্লাবের যাত্রা শুরু হয়েছে এবং  প্রাথমিকভাবে সদস্য সংগ্রহের কাজ চলছে। এই মহতী কাজের উদ্যোগ নিয়েছেন জনাব সৈয়দ ফজলুল কবীর। তিনি হলেন উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা।
বিজ্ঞান ভিত্তিক ও আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর সাংবাদিকতা, সকল প্রকার অনলাইন সেবা নিয়ে ই -প্রেসক্লাব এর গঠন করা হয়েছে। ই- প্রেস ক্লাবের মাধ্যমে সাংবাদিকরা আইনী সহায়তা, বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা, শিল্পায়নের মাধ্যমে  সাংবাদিকদের আর্থিক উন্নয়ন, পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণ দিয়ে  বিজ্ঞানসম্মত ও যুগোপযোগী  করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে এই প্রতিষ্ঠানের যাত্রা শুরু করেছে। এছাড়া সারাদেশে রক্তদান, বাল্যবিবাহ, যৌতুক, শিশু নির্যাতনসহ সামাজিক সচেতনতা মূলক কার্যক্রম পরিচালনায় বদ্ধ পরিকর থাকবে।
ই-প্রেস ক্লাব সাংবাদিকদের জন্য কিছু সামাজিক নিরাপত্তা মূলক  সেবা যেমন- স্বাস্থ্য সেবা, বীমা সেবা, আর্থিক সেবা, প্রশিক্ষণ এবং সাংবাদিকদের জন্য প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার উদ্যোগ নেওয়া হবে।  ই- প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সৈয়দ ফজলুল কবীর বলেন, এই ক্লাবে ইতিমধ্যে দেশের স্বনামধন্য সংবাদপত্রের সাংবাদিকবৃন্দ যোগদান করেছে। আশা করা যাচ্ছে সকলের সম্মিলিত চেষ্টায় সংগঠনের মাধ্যমে সাংবাদিকরা ভালো সেবা পাবেন।