বাংলাদেশ ০৯:০৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
জণগণের পাশে ছিলাম, আছি এবং আজীবন থাকবো-অ্যাড. অরুনাংশু দত্ত টিটো দোকানের বাকির টাকা দিতে দেরি করায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে যখম, থানায় অভিযোগ।  সকল দলের মানুষের সেবক হিসেবে পাশে থাকতে চাই- অধ্যক্ষ সইদুল হক  পিরোজপুরে বর্ণাঢ্য আয়োজনে বাংলা টিভি’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে ঘোড়া মার্কার প্রার্থীকে জরিমানা রায়গঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় গাছে গাছে শোভা পাচ্ছে জামরুল ফল বিদেশী মদসহ ০৩ জন কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। সরকারের অনিচ্ছাতেই উচ্চ শিক্ষায় স্বদেশি ভাষা চালু হয়নি: ড. সলিমুল্লাহ খান রাজশাহীতে ৩০ ছাত্রকে বলাৎকার করে ভিডিও ধারণ করেন শিক্ষক ওয়াকেল ঠাকুরগাঁওয়ে উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে জেলা আওয়ামী রাজনীতিতে বিভক্তি হওয়ার আশঙ্কা রাজশাহীর পুঠিয়ায় তিন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে সম্পদশালী মাসুদ পুঠিয়া উপজেলায় নির্বাচন: চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীদের কার সম্পদ কত? রাজশাহী মহানগরীতে চেকপোস্টে দুই পুলিশ পিটিয়ে আহত! দুইভাই আটক কাউনিয়ায় লিগ্যাল এইড সার্ভিসেস ট্রাস্ট এর সভা অনুষ্ঠিত ধর্ষণ ও পর্নোগ্রাফি মামলার আসামী নাজিবুল ইসলাম নাজিমকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। উল্লাপাড়ায় সড়ক দূর্ঘনায় ১ জনের মৃত্যু 

বাগেরহাটে বিয়ে বাড়ীসহ দুই পরিবারের লোকজনকে অজ্ঞান করে মালামাল লুট, হাসপাতালে ভর্তি ১৬ জন

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৪:০৭:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪
  • ১৬০১ বার পড়া হয়েছে

বাগেরহাটে বিয়ে বাড়ীসহ দুই পরিবারের লোকজনকে অজ্ঞান করে মালামাল লুট, হাসপাতালে ভর্তি ১৬ জন

 

 

বাগেরহাট প্রতিবেদকঃ 

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে একটি বিয়ে বাড়িসহ দুই পরিবারের ১৬ সদস্যকে অজ্ঞান করে সর্বস্য লুটে নিয়েছে দূর্বৃত্যরা। শনিবার (২০ এপ্রিল) সকালে গুরুত্বর অসুস্থ্য অবস্থায় পরিবারের সদস্যদের শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। মোরেলগঞ্জ উপজেলার বানিয়াখালী বাজার সংলগ্ন এলাকার হাবিবুর রহমান ও নারায়ন চকিদারের পরিবারের এই ঘটনা ঘটেছে। এদের মধ্যে অন্তত ৭ জনের অবস্থা আশঙ্কা জনক।

হাসপাতালে ভর্তি অসুস্থ্য রোগীরা হলেন, হাবিবুর রহমান (৬৫), মোঃ শাহ আলম (৭০), ফিরোজা বেগম (৫০), আখি আক্তার (২০), মারিয়া আক্তার (২২), হাদান হাওলাদার (২৮), আশরাফুল (১২), নাইম হাওলাদার (২৬), শাফিকুল (১০), ফেরদাউসি আক্তার (৩০), হিরা আক্তার (২০), শাফিয়া আক্তার (২০) এবং নায়ারন চন্দ্র পরিবারের  নারয়ন চন্দ্র (৭০), শ্যামলী রানী (৬০), জীবন (৩২) শম্পা (২৭)। এদের মধ্যে অন্তত ৭ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক রয়েছে।

হাবিবুর রহমানের পরিবারের দাবি, শুক্রবার (১৯ এপ্রিল)রাতে নববিবাহিত মেয়ে জামাই সহ আত্মীয় স্বজন নিয়ে মোরেলগঞ্জ উপজেলার বানিয়াখালী বাজার সংলগ্ন হাবিবুর রহমার তোতা মিয়ার পরিবারে ছিল উৎসবের আমেজ। এই সুযোগে দূর্বৃত্তরা হয়ত খাবারের সাথে মিশিয়েছেন চেতনা নাশক। চেতনানাশক মেশানো খাবার খেয়ে অসুস্থ্য হয়ে পড়েন নববিবাহিত জামাই-মেয়েসহ পরিবারের ১২ সদস্য। চেতনানাশক মেশানো খাবার খেয়ে হাবিবুর রহমানের প্রতিবেশী নারায়ন চন্দ্রের বাড়ির চার সদস্য অসুস্থ্য হয়েছেন। দুই বাড়ি থেকে স্বর্নালংকার ও নগদ টাকা লুটে নিয়েছে দূর্বৃত্তরা। তবে কি পরিবান স্বর্নালংকার ও টাকা খোয়া গেছে সে বিষয়ে এখনও নিশ্চিত করতে পারেনি পরিবার গুলো।

হাবিবুর রহমানের নিকট আত্মীয় মোঃ মনির তালুকদার বলেন, ১৫ এপ্রিল হাবিবুর রহমানের মেয়ের সাথে আমার ছেলের বিয়ে হয়। আমার ছেলে ও ছেলের বউসহ বেশকিছু আত্মীয় স্বজনরা হাবিবুর রহমানের বাড়িতে ছিল। সকালে অচেতন অবস্থায় সবাইকে আমরা হাসপাতালে ভর্তি করেছি। বাড়ির সবকিছু লুটে নিয়ছে তারা। বেশি কিছু স্বর্নালংকার ও নগদ ৫ লক্ষাধিক টাকা ছিল ঘরে কিছু পাওয়া যায়নি। সবাই সুস্থ্য হলে কি পরিমান মালামাল খোয়া গেছে তা জানা যাবে।

নারায়ন চন্দ্রের ছেলে জীবন চন্দ্র বলেন, কিভাবে কি হল জানি না। বাবা-মা এখনও সুস্থ্য হয়নি। আমাদের মালামাল ফেরত চাই আমরা।

শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আশফাক আহমেদ বলেন, দুটি পরিবারের ১৬ জন অসুস্থ্য অবস্থায় এসেছে। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে এদেরকে চেতনানাশক খাওয়ানো হয়েছে। এদের মধ্যে ৭ জনের অবস্থা আশংকাজনক। সর্বোচ্চ সেবা দেওয়ার চেষ্টা চলছে বলে ৭ জনের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানান এই চিকিৎসক।

মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সামছউদ্দিন বলেন, ঘটনা শুনেছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

 

আপলোডকারীর তথ্য

Banglar Alo News

hello
জনপ্রিয় সংবাদ

জণগণের পাশে ছিলাম, আছি এবং আজীবন থাকবো-অ্যাড. অরুনাংশু দত্ত টিটো

বাগেরহাটে বিয়ে বাড়ীসহ দুই পরিবারের লোকজনকে অজ্ঞান করে মালামাল লুট, হাসপাতালে ভর্তি ১৬ জন

আপডেট সময় ০৪:০৭:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪

 

 

বাগেরহাট প্রতিবেদকঃ 

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে একটি বিয়ে বাড়িসহ দুই পরিবারের ১৬ সদস্যকে অজ্ঞান করে সর্বস্য লুটে নিয়েছে দূর্বৃত্যরা। শনিবার (২০ এপ্রিল) সকালে গুরুত্বর অসুস্থ্য অবস্থায় পরিবারের সদস্যদের শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। মোরেলগঞ্জ উপজেলার বানিয়াখালী বাজার সংলগ্ন এলাকার হাবিবুর রহমান ও নারায়ন চকিদারের পরিবারের এই ঘটনা ঘটেছে। এদের মধ্যে অন্তত ৭ জনের অবস্থা আশঙ্কা জনক।

হাসপাতালে ভর্তি অসুস্থ্য রোগীরা হলেন, হাবিবুর রহমান (৬৫), মোঃ শাহ আলম (৭০), ফিরোজা বেগম (৫০), আখি আক্তার (২০), মারিয়া আক্তার (২২), হাদান হাওলাদার (২৮), আশরাফুল (১২), নাইম হাওলাদার (২৬), শাফিকুল (১০), ফেরদাউসি আক্তার (৩০), হিরা আক্তার (২০), শাফিয়া আক্তার (২০) এবং নায়ারন চন্দ্র পরিবারের  নারয়ন চন্দ্র (৭০), শ্যামলী রানী (৬০), জীবন (৩২) শম্পা (২৭)। এদের মধ্যে অন্তত ৭ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক রয়েছে।

হাবিবুর রহমানের পরিবারের দাবি, শুক্রবার (১৯ এপ্রিল)রাতে নববিবাহিত মেয়ে জামাই সহ আত্মীয় স্বজন নিয়ে মোরেলগঞ্জ উপজেলার বানিয়াখালী বাজার সংলগ্ন হাবিবুর রহমার তোতা মিয়ার পরিবারে ছিল উৎসবের আমেজ। এই সুযোগে দূর্বৃত্তরা হয়ত খাবারের সাথে মিশিয়েছেন চেতনা নাশক। চেতনানাশক মেশানো খাবার খেয়ে অসুস্থ্য হয়ে পড়েন নববিবাহিত জামাই-মেয়েসহ পরিবারের ১২ সদস্য। চেতনানাশক মেশানো খাবার খেয়ে হাবিবুর রহমানের প্রতিবেশী নারায়ন চন্দ্রের বাড়ির চার সদস্য অসুস্থ্য হয়েছেন। দুই বাড়ি থেকে স্বর্নালংকার ও নগদ টাকা লুটে নিয়েছে দূর্বৃত্তরা। তবে কি পরিবান স্বর্নালংকার ও টাকা খোয়া গেছে সে বিষয়ে এখনও নিশ্চিত করতে পারেনি পরিবার গুলো।

হাবিবুর রহমানের নিকট আত্মীয় মোঃ মনির তালুকদার বলেন, ১৫ এপ্রিল হাবিবুর রহমানের মেয়ের সাথে আমার ছেলের বিয়ে হয়। আমার ছেলে ও ছেলের বউসহ বেশকিছু আত্মীয় স্বজনরা হাবিবুর রহমানের বাড়িতে ছিল। সকালে অচেতন অবস্থায় সবাইকে আমরা হাসপাতালে ভর্তি করেছি। বাড়ির সবকিছু লুটে নিয়ছে তারা। বেশি কিছু স্বর্নালংকার ও নগদ ৫ লক্ষাধিক টাকা ছিল ঘরে কিছু পাওয়া যায়নি। সবাই সুস্থ্য হলে কি পরিমান মালামাল খোয়া গেছে তা জানা যাবে।

নারায়ন চন্দ্রের ছেলে জীবন চন্দ্র বলেন, কিভাবে কি হল জানি না। বাবা-মা এখনও সুস্থ্য হয়নি। আমাদের মালামাল ফেরত চাই আমরা।

শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আশফাক আহমেদ বলেন, দুটি পরিবারের ১৬ জন অসুস্থ্য অবস্থায় এসেছে। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে এদেরকে চেতনানাশক খাওয়ানো হয়েছে। এদের মধ্যে ৭ জনের অবস্থা আশংকাজনক। সর্বোচ্চ সেবা দেওয়ার চেষ্টা চলছে বলে ৭ জনের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানান এই চিকিৎসক।

মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সামছউদ্দিন বলেন, ঘটনা শুনেছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।