বাংলাদেশ ০৮:২৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
জণগণের পাশে ছিলাম, আছি এবং আজীবন থাকবো-অ্যাড. অরুনাংশু দত্ত টিটো দোকানের বাকির টাকা দিতে দেরি করায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে যখম, থানায় অভিযোগ।  সকল দলের মানুষের সেবক হিসেবে পাশে থাকতে চাই- অধ্যক্ষ সইদুল হক  পিরোজপুরে বর্ণাঢ্য আয়োজনে বাংলা টিভি’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে ঘোড়া মার্কার প্রার্থীকে জরিমানা রায়গঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় গাছে গাছে শোভা পাচ্ছে জামরুল ফল বিদেশী মদসহ ০৩ জন কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। সরকারের অনিচ্ছাতেই উচ্চ শিক্ষায় স্বদেশি ভাষা চালু হয়নি: ড. সলিমুল্লাহ খান রাজশাহীতে ৩০ ছাত্রকে বলাৎকার করে ভিডিও ধারণ করেন শিক্ষক ওয়াকেল ঠাকুরগাঁওয়ে উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে জেলা আওয়ামী রাজনীতিতে বিভক্তি হওয়ার আশঙ্কা রাজশাহীর পুঠিয়ায় তিন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে সম্পদশালী মাসুদ পুঠিয়া উপজেলায় নির্বাচন: চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীদের কার সম্পদ কত? রাজশাহী মহানগরীতে চেকপোস্টে দুই পুলিশ পিটিয়ে আহত! দুইভাই আটক কাউনিয়ায় লিগ্যাল এইড সার্ভিসেস ট্রাস্ট এর সভা অনুষ্ঠিত ধর্ষণ ও পর্নোগ্রাফি মামলার আসামী নাজিবুল ইসলাম নাজিমকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। উল্লাপাড়ায় সড়ক দূর্ঘনায় ১ জনের মৃত্যু 

রেশমা খাতুন তৃতীয় লিঙ্গের ব্যক্তিকে নৃশংস ভাবে হত্যার জন্য গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে, ফ্রান্সের জাস্টিস মেকার্স বাংলাদেশ

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৫:১৬:৩৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ এপ্রিল ২০২৪
  • ১৭১৬ বার পড়া হয়েছে

রেশমা খাতুন তৃতীয় লিঙ্গের ব্যক্তিকে নৃশংসভাবে হত্যার জন্য গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে,ফ্রান্সের জাস্টিসমেকার্স বাংলাদেশ

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

ফ্রান্সের জাস্টিসমেকার্স বাংলাদেশ (জেএমবিএফ) রেশমা খাতুন (২৫), তৃতীয় লিঙ্গের ব্যক্তিকে নৃশংসভাবে হত্যার জন্য গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে, যার পচা লাশ ২০২৪ সালের মার্চ মাসে বেনাপোল পোর্ট থানার কাগজপুকুর কবরস্থানে আবিষ্কৃত হয়েছিল। যশোর, বাংলাদেশ।

ফ্রান্স-ভিত্তিক অধিকার সংস্থাটি দ্রুত, নিরপেক্ষ এবং স্বচ্ছ তদন্তের মাধ্যমে এই জঘন্য কাজের জন্য দায়ী ব্যক্তিদের দ্রুত শনাক্তকরণ এবং শনাক্ত করার আহ্বান জানিয়েছে, যার পরে ন্যায্য বিচারের পর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হবে।

বাংলাদেশের বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত খবরে জানা গেছে, যশোরের বেনাপোল পোর্ট থানার কাগজপুকুর কবরস্থান থেকে রেশমা খাতুনের (২৫) তৃতীয় লিঙ্গের গলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

১১ মার্চ ২০২৪ সোমবার বিকেলে যশোর জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) ও বেনাপোল পোর্ট থানার যৌথ অভিযানে রেশমার লাশ উদ্ধার করা হয়। রেশমা খাতুন বেনাপোল থানাধীন কাগজপুকুরের রাজবাড়ী গ্রামের মৃত জাকির হোসেনের মেয়ে। যশোর।

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন ধরে বেনাপোলের কাগজপুকুর গ্রাম থেকে রেশমা (একজন হিজড়া বা তৃতীয় লিঙ্গের ব্যক্তি) নিখোঁজ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। গত ১১ মার্চ সোমবার সকালে কবরস্থানের ভেতরে নতুন মাটি খুঁড়তে দেখে স্থানীয়রা বেনাপোল পোর্ট থানায় খবর দেয়।

পরে স্থানীয় বাসিন্দা ও থানা পুলিশের সহযোগিতায় যশোর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) পুলিশ কবরস্থানের মাটি খনন করে রেশমা খাতুনের আংশিক গলিত লাশ উদ্ধার করে।

এর আগে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে ফারুক হোসেন (২৫) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করা হয় এবং তার স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে পুলিশ রেশমাকে খুঁজে বের করে। আটক ফারুক হোসেন একই গ্রামের নূর ইসলামের ছেলে।

ফারুক হোসেন পুলিশকে জানান, ২০২৪ সালের ০৮ মার্চ কাগজপুকুর গ্রামের মৃত সিরাজুল ইসলামের বাগানে রেশমাকে হাত-পা বেঁধে ছুরি দিয়ে হত্যা করা হয়। পরে কবরস্থানে উল্লেখিত স্থানে তার লাশ দাফন করা হয়।

রেশমা হত্যার সঙ্গে ফারুকসহ আরও ৫-৬ জন জড়িত বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। হত্যার পর অপরাধীরা রেশমার কিছু কাপড়, দুটি মোবাইল ফোন ও অন্যান্য আলামত বিভিন্ন স্থানে লুকিয়ে ফেলে নষ্ট করার চেষ্টা করে।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ রেশমার গলিত লাশের ময়নাতদন্ত করেছে এবং এ ঘটনায় যশোরের বেনাপোল পোর্ট থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জাস্টিসমেকার্স বাংলাদেশ ইন ফ্রান্স (জেএমবিএফ) এর প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি অ্যাডভোকেট শাহানুর ইসলাম বাংলাদেশের কর্তৃপক্ষকে এই মামলাটিকে অগ্রাধিকার দেওয়ার এবং জড়িত সকল অপরাধীকে অবিলম্বে গ্রেপ্তার করার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি তাদের লিঙ্গ পরিচয় এবং যৌন অভিমুখ নির্বিশেষে সকল ব্যক্তির নিরাপত্তা এবং সুরক্ষা নিশ্চিত করার গুরুত্বের উপর জোর দেন।

জেএমবিএফ হাইলাইট করে যে রেশমা খাতুন, যিনি হিজড়া হিজড়া হিসাবে চিহ্নিত, তিনি বাংলাদেশী সমাজে একটি প্রান্তিক এবং প্রায়শই দুর্বল সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিত্ব করেন। হিজড়া সম্প্রদায়ের সাথে তার জড়িত থাকার কারণে তার বাসভবনে ঘটে যাওয়া তার হত্যার আশেপাশের পরিস্থিতি গভীরভাবে উদ্বেগজনক এবং বাংলাদেশে হিজড়া ব্যক্তিদের নিরাপত্তা ও নিরাপত্তা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উত্থাপন করে।

অধিকন্তু, জেএমবিএফ উল্লেখ করে যে রেশমা খাতুনের হত্যা একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয় বরং বাংলাদেশে এলজিবিটিকিউআই জনগণের বিরুদ্ধে চলমান লঙ্ঘন এবং বৈষম্যের একটি সাধারণ অংশ। তারা বিশ্বাস করে যে বাংলাদেশে সামাজিক অগ্রহণযোগ্যতার কারণে এলজিবিটি ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সহিংসতার অনেক ঘটনাই রিপোর্ট করা যায় না।

JMBF যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বাংলাদেশ দণ্ডবিধির ৩৭৭ ধারা বাতিল করার পর যৌন সংখ্যালঘু মানুষের সুরক্ষা আইন প্রণয়নের মাধ্যমে বাংলাদেশে এলজিবিটি জনগণের অধিকার ও সুরক্ষার নিশ্চয়তা দেওয়ার জন্য বাংলাদেশী কর্তৃপক্ষকে আহ্বান জানায়।

আপলোডকারীর তথ্য

Banglar Alo News

hello
জনপ্রিয় সংবাদ

জণগণের পাশে ছিলাম, আছি এবং আজীবন থাকবো-অ্যাড. অরুনাংশু দত্ত টিটো

রেশমা খাতুন তৃতীয় লিঙ্গের ব্যক্তিকে নৃশংস ভাবে হত্যার জন্য গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে, ফ্রান্সের জাস্টিস মেকার্স বাংলাদেশ

আপডেট সময় ০৫:১৬:৩৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ এপ্রিল ২০২৪
প্রেস বিজ্ঞপ্তি

ফ্রান্সের জাস্টিসমেকার্স বাংলাদেশ (জেএমবিএফ) রেশমা খাতুন (২৫), তৃতীয় লিঙ্গের ব্যক্তিকে নৃশংসভাবে হত্যার জন্য গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে, যার পচা লাশ ২০২৪ সালের মার্চ মাসে বেনাপোল পোর্ট থানার কাগজপুকুর কবরস্থানে আবিষ্কৃত হয়েছিল। যশোর, বাংলাদেশ।

ফ্রান্স-ভিত্তিক অধিকার সংস্থাটি দ্রুত, নিরপেক্ষ এবং স্বচ্ছ তদন্তের মাধ্যমে এই জঘন্য কাজের জন্য দায়ী ব্যক্তিদের দ্রুত শনাক্তকরণ এবং শনাক্ত করার আহ্বান জানিয়েছে, যার পরে ন্যায্য বিচারের পর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হবে।

বাংলাদেশের বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত খবরে জানা গেছে, যশোরের বেনাপোল পোর্ট থানার কাগজপুকুর কবরস্থান থেকে রেশমা খাতুনের (২৫) তৃতীয় লিঙ্গের গলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

১১ মার্চ ২০২৪ সোমবার বিকেলে যশোর জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) ও বেনাপোল পোর্ট থানার যৌথ অভিযানে রেশমার লাশ উদ্ধার করা হয়। রেশমা খাতুন বেনাপোল থানাধীন কাগজপুকুরের রাজবাড়ী গ্রামের মৃত জাকির হোসেনের মেয়ে। যশোর।

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন ধরে বেনাপোলের কাগজপুকুর গ্রাম থেকে রেশমা (একজন হিজড়া বা তৃতীয় লিঙ্গের ব্যক্তি) নিখোঁজ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। গত ১১ মার্চ সোমবার সকালে কবরস্থানের ভেতরে নতুন মাটি খুঁড়তে দেখে স্থানীয়রা বেনাপোল পোর্ট থানায় খবর দেয়।

পরে স্থানীয় বাসিন্দা ও থানা পুলিশের সহযোগিতায় যশোর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) পুলিশ কবরস্থানের মাটি খনন করে রেশমা খাতুনের আংশিক গলিত লাশ উদ্ধার করে।

এর আগে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে ফারুক হোসেন (২৫) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করা হয় এবং তার স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে পুলিশ রেশমাকে খুঁজে বের করে। আটক ফারুক হোসেন একই গ্রামের নূর ইসলামের ছেলে।

ফারুক হোসেন পুলিশকে জানান, ২০২৪ সালের ০৮ মার্চ কাগজপুকুর গ্রামের মৃত সিরাজুল ইসলামের বাগানে রেশমাকে হাত-পা বেঁধে ছুরি দিয়ে হত্যা করা হয়। পরে কবরস্থানে উল্লেখিত স্থানে তার লাশ দাফন করা হয়।

রেশমা হত্যার সঙ্গে ফারুকসহ আরও ৫-৬ জন জড়িত বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। হত্যার পর অপরাধীরা রেশমার কিছু কাপড়, দুটি মোবাইল ফোন ও অন্যান্য আলামত বিভিন্ন স্থানে লুকিয়ে ফেলে নষ্ট করার চেষ্টা করে।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ রেশমার গলিত লাশের ময়নাতদন্ত করেছে এবং এ ঘটনায় যশোরের বেনাপোল পোর্ট থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জাস্টিসমেকার্স বাংলাদেশ ইন ফ্রান্স (জেএমবিএফ) এর প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি অ্যাডভোকেট শাহানুর ইসলাম বাংলাদেশের কর্তৃপক্ষকে এই মামলাটিকে অগ্রাধিকার দেওয়ার এবং জড়িত সকল অপরাধীকে অবিলম্বে গ্রেপ্তার করার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি তাদের লিঙ্গ পরিচয় এবং যৌন অভিমুখ নির্বিশেষে সকল ব্যক্তির নিরাপত্তা এবং সুরক্ষা নিশ্চিত করার গুরুত্বের উপর জোর দেন।

জেএমবিএফ হাইলাইট করে যে রেশমা খাতুন, যিনি হিজড়া হিজড়া হিসাবে চিহ্নিত, তিনি বাংলাদেশী সমাজে একটি প্রান্তিক এবং প্রায়শই দুর্বল সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিত্ব করেন। হিজড়া সম্প্রদায়ের সাথে তার জড়িত থাকার কারণে তার বাসভবনে ঘটে যাওয়া তার হত্যার আশেপাশের পরিস্থিতি গভীরভাবে উদ্বেগজনক এবং বাংলাদেশে হিজড়া ব্যক্তিদের নিরাপত্তা ও নিরাপত্তা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উত্থাপন করে।

অধিকন্তু, জেএমবিএফ উল্লেখ করে যে রেশমা খাতুনের হত্যা একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয় বরং বাংলাদেশে এলজিবিটিকিউআই জনগণের বিরুদ্ধে চলমান লঙ্ঘন এবং বৈষম্যের একটি সাধারণ অংশ। তারা বিশ্বাস করে যে বাংলাদেশে সামাজিক অগ্রহণযোগ্যতার কারণে এলজিবিটি ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সহিংসতার অনেক ঘটনাই রিপোর্ট করা যায় না।

JMBF যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বাংলাদেশ দণ্ডবিধির ৩৭৭ ধারা বাতিল করার পর যৌন সংখ্যালঘু মানুষের সুরক্ষা আইন প্রণয়নের মাধ্যমে বাংলাদেশে এলজিবিটি জনগণের অধিকার ও সুরক্ষার নিশ্চয়তা দেওয়ার জন্য বাংলাদেশী কর্তৃপক্ষকে আহ্বান জানায়।