বাংলাদেশ ০৭:০২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
বেইলী রোডের কাচ্চিভাই নামক রেস্টুরেন্টে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় সাহসী ভূমিকা পালন করছে র‌্যাব-৩। অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা মিজানুর রহমানকে জনতা ব্যাংকের নির্বাহী কর্মকর্তা হওয়ায় বেইলি রোডে একটি রেস্টুরেন্টে লাগা আগুন ফায়ার সার্ভিসের ১৩ টি ইউনিটের চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে। বেইলি রোডে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এপর্যন্ত ৬৮ জন জীবিত উদ্ধার, বদলগাছী উপজেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত।  ভোটের সার্বিক কার্যক্রম কমিশন থেকে মনিটরিং ইসি সচিব জাহাঙ্গীর আলম কিশোর গ্যাং আমির গ্রুপের লীডার আমির সহ ০৯ সদস্য গ্রেফতার। নলছিটি তালতলা বাজার থেকে ৫ কেজি গাজা সহ গোশত ব্যবসায়ি ফারুক আটক বঙ্গবন্ধু মুক্তির সংগ্রাম বলতে অর্থনৈতিক মুক্তি বুঝিয়েছেন: কাজী খলীকুজ্জমান প্রায় অর্ধ কোটি টাকার অবৈধ মাদকদ্রব্য উদ্ধার: বিপুল পরিমান ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ০৩ জন বড় মাদক ব্যবসায়ী আটক এবং মাদক পরিবহনকারী গাড়ী জব্দ। জবিতে ‘আমরা তোমাদের ভুলবো না’ শীর্ষক অনুষ্ঠান আয়োজিত  রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক পেলেন মাধবপুর থানার ওসি মোঃ রকিবুল খান দুই মামলা থেকেই অব্যাহতি পেলেন খাদিজা পৌরবাসীর ক্ষোভের মুখে সাবমার্সিবল বিল বাতিল ঘোষণা  জবিতে ক্যান্সার আক্রান্ত শিক্ষার্থীর জন্য ‘কনসার্ট ফর জহির’  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শিশু নাট্যমের ৯ম আর্ট ক্যাম্প আয়োজন।

ফেনীর ফুলগাজীতে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৫:৩৭:৩২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৫ মার্চ ২০২২
  • ১৬৭৫ বার পড়া হয়েছে

ফেনীর ফুলগাজীতে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

বিশেষ প্রতিনিধিঃ
ফেনীর ফুলগাজী উপজেলার আমজাদহাট ইউনিয়নের খাজুরিয়া গ্রামে স্ত্রী আয়েশা আক্তার মুক্তা হত্যার দায়ে স্বামী আবদুল কাদেরের মৃত্যুদণ্ড রায় দিয়েছেন আদালত।
মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) দুপুরে ফেনীর অতিরিক্ত দায়রা জজ সৈয়দ মো. কায়সার মোশারফ ইউছসুফ এ রায় প্রদান করেন।
মামলার বিবরণ ও আদালত সূত্র জানায়, ফেনীর ফুলগাজী উপজেলার আমজাদহাট ইউনিয়নের খাজুরিয়া গ্রামের আবদুল কাদেরের সাথে ২০১২ সালে ছাগলনাইয়া উপজেলার ছয়ঘরিয়া গ্রামের মৃত রফিকুল ইসলামের কন্যা আয়েশা আক্তার মুক্তার বিয়ে হয়। বিয়ের দেড় মাস পরে ২০১২ সালের ৫ জানুয়ারি রাতে আসামি আবদুল কাদের তার শোয়ার ঘরে মারধর ও গলাটিপে শ্বাসরোধে হত্যা করে। তারপর প্রচার করে মুক্তা আকস্মিকভাবে অসুস্থ ও সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়েছে। তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
তখন মুক্তার মা বাদী হয়ে ফুলগাজী থানায় অপমৃত্যুর মামলা রুজু করে। পরে মুক্তার মরদেহ ফেনী সদর হাসপাতালে ময়না তদন্ত হলে প্রতিবেদন পাওয়ার পর মৃত্যুর রহস্য জানা যায়। তখন মুক্তার মা ফিরোজা বেগম থানায় অভিযোগ করেন মুক্তাকে কাদের গলা টিপে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আদালত ১৩ জন স্বাক্ষীর মধ্যে ৯ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য গ্রহণ করেন। আদালত দীর্ঘ শুনানির পর ফেনীর অতিরিক্ত দায়রা জজ সৈয়দ মো. কায়সার মোশারফ ইউছসুফ এ রায় প্রদান করেন।
রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন ফেনী জেলা ও দায়রা জজ আদালতের এপিপি অ্যাডভোকেট দ্বিজেন্দ্র কুমার কংশ বণিক।

বেইলী রোডের কাচ্চিভাই নামক রেস্টুরেন্টে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনায় সাহসী ভূমিকা পালন করছে র‌্যাব-৩।

ফেনীর ফুলগাজীতে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

আপডেট সময় ০৫:৩৭:৩২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৫ মার্চ ২০২২
বিশেষ প্রতিনিধিঃ
ফেনীর ফুলগাজী উপজেলার আমজাদহাট ইউনিয়নের খাজুরিয়া গ্রামে স্ত্রী আয়েশা আক্তার মুক্তা হত্যার দায়ে স্বামী আবদুল কাদেরের মৃত্যুদণ্ড রায় দিয়েছেন আদালত।
মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) দুপুরে ফেনীর অতিরিক্ত দায়রা জজ সৈয়দ মো. কায়সার মোশারফ ইউছসুফ এ রায় প্রদান করেন।
মামলার বিবরণ ও আদালত সূত্র জানায়, ফেনীর ফুলগাজী উপজেলার আমজাদহাট ইউনিয়নের খাজুরিয়া গ্রামের আবদুল কাদেরের সাথে ২০১২ সালে ছাগলনাইয়া উপজেলার ছয়ঘরিয়া গ্রামের মৃত রফিকুল ইসলামের কন্যা আয়েশা আক্তার মুক্তার বিয়ে হয়। বিয়ের দেড় মাস পরে ২০১২ সালের ৫ জানুয়ারি রাতে আসামি আবদুল কাদের তার শোয়ার ঘরে মারধর ও গলাটিপে শ্বাসরোধে হত্যা করে। তারপর প্রচার করে মুক্তা আকস্মিকভাবে অসুস্থ ও সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়েছে। তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
তখন মুক্তার মা বাদী হয়ে ফুলগাজী থানায় অপমৃত্যুর মামলা রুজু করে। পরে মুক্তার মরদেহ ফেনী সদর হাসপাতালে ময়না তদন্ত হলে প্রতিবেদন পাওয়ার পর মৃত্যুর রহস্য জানা যায়। তখন মুক্তার মা ফিরোজা বেগম থানায় অভিযোগ করেন মুক্তাকে কাদের গলা টিপে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আদালত ১৩ জন স্বাক্ষীর মধ্যে ৯ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য গ্রহণ করেন। আদালত দীর্ঘ শুনানির পর ফেনীর অতিরিক্ত দায়রা জজ সৈয়দ মো. কায়সার মোশারফ ইউছসুফ এ রায় প্রদান করেন।
রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন ফেনী জেলা ও দায়রা জজ আদালতের এপিপি অ্যাডভোকেট দ্বিজেন্দ্র কুমার কংশ বণিক।