বাংলাদেশ ০৩:০৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন সন্ধ্যার মধ্যে উপাচার্য, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাসভবন ছাড়ার আল্টিমেটাম কুবি শিক্ষার্থীদের রাবিতে জড়ো হওয়া আন্দোলনকারীদের পুলিশ-বিজিবির ধাওয়া মেহেন্দিগঞ্জে অজ্ঞাতনামা নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার। মুন্সীগঞ্জে গায়েবানা জানাযা থেকে ঈমাম ও বিএনপি নেতাকে ধরে নিয়ে গেলো পুলিশ কোটা আন্দোলনের পক্ষে সংহতি জানিয়ে ফেনী ইউনিভার্সিটির বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বিবৃতি চলমান পরিস্থিতিতে রাবি ক্যাম্পাসে ছাত্র রাজনীতি আপাতত স্থগিত: উপাচার্য বিদেশের পাঠানো টাকা চাইতে গিয়ে বিপাকে প্রবাসী স্বামী রাজশাহীতে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পবিত্র আশুরা পালিত চট্রগ্রামের কোটা সংস্কার আন্দোলনে নিহত ওয়াসিমের জানাজায় মানুষের ঢল পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া পৌরসভার রাস্তায় সমবায় সমিতি ভবনের ট্যাংকির ময়লা: জনদুর্ভোগ মুন্সীগঞ্জে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের উপর হামলা, আহত ৫ হরিপুরে, প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড এর পক্ষ থেকে কর্মী মিটিং ও গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্ঠিত। গৌরীপুরে উদীচী কার্য়ালয়ে হামলা ও ভাংচুর স্ত্রীর যৌতুক মামলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কারাগারে

প্রেমিককে মাদক দিয়ে ফাঁসিয়ে প্রেমিকাকে বিয়ের পরিকল্পনা ইউপি সদস্যের অতপর সহচর আটক

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৯:৪৭:০৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ মার্চ ২০২২
  • ১৭১২ বার পড়া হয়েছে

প্রেমিককে মাদক দিয়ে ফাঁসিয়ে প্রেমিকাকে বিয়ের পরিকল্পনা ইউপি সদস্যের অতপর সহচর আটক

নিরেন দাস (জয়পুরহাট) প্রতিনিধিঃ-
রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে থানার দেওপাড়া ইউনিয়নের নব-নির্বাচিত ইউপি সদস্য প্রদীপ এককা (৪২)। সে পাশ্ববর্তী গোগ্রাম ইউনিয়নের পূজাতলা গ্রামের ১৫ বছরের এক তরুণীকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়।
কিন্তু মেয়ের বাবা ইউপি সদস্য বিয়ের প্রস্তাবদাতা পাত্রের বয়স চিন্তা করে তার সাথে মেয়ের বিয়ে দিতে রাজি হননি। এরপর চৌদুয়ার গ্রামের ২২ বছরের যুবকের সাথে ওই তরুণীর বিয়ে ঠিক করেন। এ ঘটনার পাঁচদিন পরেই তাদের বিয়ে হবার কথা।
এরই মধ্যে বিয়ের বিষয়টি ইউপি সদস্য প্রদীপ এককা জানতে পারেন। এরপর তিনি বিষয়টি সহ্য করতে না পেড়ে ওই যুবককে মাদক দিয়ে ফাঁসিয়ে মেয়েটিকে বিয়ে করার পরিকল্পনা করেন তিনি।
এ ব্যাপারে তাকে সহযোগীতা করতে রাজি হয় তারই গ্রামের ছেলে মিল্টন (২১) নামের এক যুবক। পরিকল্পনা অনুযায়ী তারা দু‘জন মিলে ৯ বোতল ফেন্সিডিল এবং এক শত গ্রাম হেরোইন ক্রয় করে।
এরপর বিষয়টি জানতে পেড়ে গতকাল বুধবার (২ রা মার্চ) দিবাগত রাত আনুমানিক ১০ টার দিকে জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশকে খবর দেয়া হয়।
তাদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী ডিবি পুলিশের ইন্সপেক্টর রুহুল আমিন চৌদুয়ার গ্রামে ছেলেটির বাড়িতে অভিযান চালিয়ে মেয়েটির সাথে বিয়ে ঠিক হওয়া ওই যুবককে আটক করে। ওই সময় ইউপি সদস্যের সহচর মিল্টনের দেখিয়ে দেয়া জায়গা থেকে ৯ বোতল ফেন্সিডিল এবং একশত গ্রাম হেরোইন জব্দ করে ডিবিপুলিশ।ওই যুবককে আটকের পর ডিবি পুলিশ এলাকায় জরিপ চালিয়ে জানতে পারে ছেলেটি প্রকৃত একটি ভালো ছেলে তাকে ফাঁসানো হচ্ছে।
পরে বিষয়টি নিয়ে ডিবি পুলিশের আভিযানিক ওই দলটির সদস্যদের কাছে বিষয়টি সন্দেহ হলে। পরে ইউপি সদস্যের সহচর মিল্টনকে ডেকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করার এক পর্যায়ে সে ইউপি সদস্য প্রদীপের পরিকল্পনা অনুযায়ী ছেলেটিকে ফাঁসানোর কথা স্বীকার করে।মিল্টন ডিবিপুলিশ কে সে জানায় ইউপি সদস্য প্রদীপ মেয়েটিকে বিয়ে করতে ব্যর্থ হয়ে এমন ষড়যন্ত্র করেছে।
পরে ডিবিপুলিশের ইন্সপেক্টর রুহুল ইউপি সদস্যকে আটকের জন্য অভিযান চালায়। তার আগেই ষড়যন্ত্র কারী কুচক্রি ইউপি সদস্য পালিয়ে যায়।
এ ব্যপারে মিল্টন এবং ইউপি সদস্য প্রদীপকে আসামি করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ইউপি সদস্যকে আটকের জন্য পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছে। পুলিশের বুদ্ধিমত্তায় মিথ্যা মামলা থেকে এভাবেই রক্ষা পেল কয়েকটি নিরপরাধ যুবক।
জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) মো. ইফতেখায়ের আলম বিষয়টি নিশ্চিত করে তিনি জানান, ইউপি সদস্যের সহচর আটক মিল্টন বৃহস্পতিবার বিজ্ঞ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. লিটন হোসেন এর আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি প্রদান করেছে এবং পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
জনপ্রিয় সংবাদ

মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন

প্রেমিককে মাদক দিয়ে ফাঁসিয়ে প্রেমিকাকে বিয়ের পরিকল্পনা ইউপি সদস্যের অতপর সহচর আটক

আপডেট সময় ০৯:৪৭:০৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ মার্চ ২০২২
নিরেন দাস (জয়পুরহাট) প্রতিনিধিঃ-
রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে থানার দেওপাড়া ইউনিয়নের নব-নির্বাচিত ইউপি সদস্য প্রদীপ এককা (৪২)। সে পাশ্ববর্তী গোগ্রাম ইউনিয়নের পূজাতলা গ্রামের ১৫ বছরের এক তরুণীকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়।
কিন্তু মেয়ের বাবা ইউপি সদস্য বিয়ের প্রস্তাবদাতা পাত্রের বয়স চিন্তা করে তার সাথে মেয়ের বিয়ে দিতে রাজি হননি। এরপর চৌদুয়ার গ্রামের ২২ বছরের যুবকের সাথে ওই তরুণীর বিয়ে ঠিক করেন। এ ঘটনার পাঁচদিন পরেই তাদের বিয়ে হবার কথা।
এরই মধ্যে বিয়ের বিষয়টি ইউপি সদস্য প্রদীপ এককা জানতে পারেন। এরপর তিনি বিষয়টি সহ্য করতে না পেড়ে ওই যুবককে মাদক দিয়ে ফাঁসিয়ে মেয়েটিকে বিয়ে করার পরিকল্পনা করেন তিনি।
এ ব্যাপারে তাকে সহযোগীতা করতে রাজি হয় তারই গ্রামের ছেলে মিল্টন (২১) নামের এক যুবক। পরিকল্পনা অনুযায়ী তারা দু‘জন মিলে ৯ বোতল ফেন্সিডিল এবং এক শত গ্রাম হেরোইন ক্রয় করে।
এরপর বিষয়টি জানতে পেড়ে গতকাল বুধবার (২ রা মার্চ) দিবাগত রাত আনুমানিক ১০ টার দিকে জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশকে খবর দেয়া হয়।
তাদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী ডিবি পুলিশের ইন্সপেক্টর রুহুল আমিন চৌদুয়ার গ্রামে ছেলেটির বাড়িতে অভিযান চালিয়ে মেয়েটির সাথে বিয়ে ঠিক হওয়া ওই যুবককে আটক করে। ওই সময় ইউপি সদস্যের সহচর মিল্টনের দেখিয়ে দেয়া জায়গা থেকে ৯ বোতল ফেন্সিডিল এবং একশত গ্রাম হেরোইন জব্দ করে ডিবিপুলিশ।ওই যুবককে আটকের পর ডিবি পুলিশ এলাকায় জরিপ চালিয়ে জানতে পারে ছেলেটি প্রকৃত একটি ভালো ছেলে তাকে ফাঁসানো হচ্ছে।
পরে বিষয়টি নিয়ে ডিবি পুলিশের আভিযানিক ওই দলটির সদস্যদের কাছে বিষয়টি সন্দেহ হলে। পরে ইউপি সদস্যের সহচর মিল্টনকে ডেকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করার এক পর্যায়ে সে ইউপি সদস্য প্রদীপের পরিকল্পনা অনুযায়ী ছেলেটিকে ফাঁসানোর কথা স্বীকার করে।মিল্টন ডিবিপুলিশ কে সে জানায় ইউপি সদস্য প্রদীপ মেয়েটিকে বিয়ে করতে ব্যর্থ হয়ে এমন ষড়যন্ত্র করেছে।
পরে ডিবিপুলিশের ইন্সপেক্টর রুহুল ইউপি সদস্যকে আটকের জন্য অভিযান চালায়। তার আগেই ষড়যন্ত্র কারী কুচক্রি ইউপি সদস্য পালিয়ে যায়।
এ ব্যপারে মিল্টন এবং ইউপি সদস্য প্রদীপকে আসামি করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ইউপি সদস্যকে আটকের জন্য পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছে। পুলিশের বুদ্ধিমত্তায় মিথ্যা মামলা থেকে এভাবেই রক্ষা পেল কয়েকটি নিরপরাধ যুবক।
জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) মো. ইফতেখায়ের আলম বিষয়টি নিশ্চিত করে তিনি জানান, ইউপি সদস্যের সহচর আটক মিল্টন বৃহস্পতিবার বিজ্ঞ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. লিটন হোসেন এর আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি প্রদান করেছে এবং পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।