বাংলাদেশ ০৮:২৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন সন্ধ্যার মধ্যে উপাচার্য, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাসভবন ছাড়ার আল্টিমেটাম কুবি শিক্ষার্থীদের রাবিতে জড়ো হওয়া আন্দোলনকারীদের পুলিশ-বিজিবির ধাওয়া মেহেন্দিগঞ্জে অজ্ঞাতনামা নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার। মুন্সীগঞ্জে গায়েবানা জানাযা থেকে ঈমাম ও বিএনপি নেতাকে ধরে নিয়ে গেলো পুলিশ কোটা আন্দোলনের পক্ষে সংহতি জানিয়ে ফেনী ইউনিভার্সিটির বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বিবৃতি চলমান পরিস্থিতিতে রাবি ক্যাম্পাসে ছাত্র রাজনীতি আপাতত স্থগিত: উপাচার্য বিদেশের পাঠানো টাকা চাইতে গিয়ে বিপাকে প্রবাসী স্বামী রাজশাহীতে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পবিত্র আশুরা পালিত চট্রগ্রামের কোটা সংস্কার আন্দোলনে নিহত ওয়াসিমের জানাজায় মানুষের ঢল পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া পৌরসভার রাস্তায় সমবায় সমিতি ভবনের ট্যাংকির ময়লা: জনদুর্ভোগ মুন্সীগঞ্জে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের উপর হামলা, আহত ৫ হরিপুরে, প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড এর পক্ষ থেকে কর্মী মিটিং ও গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্ঠিত। গৌরীপুরে উদীচী কার্য়ালয়ে হামলা ও ভাংচুর স্ত্রীর যৌতুক মামলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কারাগারে

কচুয়া তালা ভেঙ্গে শিবলিঙ্গ বেদি হতে উপড়ে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা 

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৮:০৫:৫২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১০ এপ্রিল ২০২২
  • ১৬৭৬ বার পড়া হয়েছে

কচুয়া তালা ভেঙ্গে শিবলিঙ্গ বেদি হতে উপড়ে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা 

কচুয়া (বাগেরহাট) প্রতিনিধি:
বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার মঘিয়া ইউনিয়নের প্রায় চার শতাধিক বছরের পুরনো ঐতিহ্যবাহী সার্বজনীন শিব মন্দিরের দরজার তালা ভেঙ্গে শিবলিঙ্গ বেদি হতে উপড়ে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। তবে মঘিয়া সার্বজনীন শিব মন্দির কমিটির সভাপতি সুব্রত রায় চৌধুরী ০৯ এপ্রিল(শনিবার)আমাদের প্রতিনিধিকে জানান, চোরের দল হয়তো কোন দামী জিনিসের খোঁজে দরজার তালা ভেঙ্গে মন্দিরে ঢোকে এবং কষ্টি পাথর ভেবে শিবলিঙ্গটি বেদি হতে তোলার চেষ্টা করেছে। কে বা কারা কখন এটা করেছে তা জানা যায়নি। বিষয়টি খতিয়ে দেখছে থানা পুলিশ।
বাগেরহাটের মঘিয়া ইউনিয়ন পরিষদ থেকে কিছু দুরে কচুয়া-গজালিয়া সড়কের পাশে এই মন্দিরের অবস্থান হওয়ায় সহজেই সবার দৃষ্টি আকৃষ্ট হয়। প্রাচীন এই মন্দিরটি একজন বাংলাদেশী পর্যটক (নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) দেখতে যায় এবং মন্দিরের দরজার তালা ভাঙ্গা ও বেদি হতে শিবলিঙ্গ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। বিষয়টি তিনি মিডিয়াকর্মীদের জানান। শনিবার মিডিয়াকর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই পর্যটকের বয়ানের সত্যতা পায়।
সরেজমিনকালে মঘিয়া সার্বজনীন শিব মন্দির কমিটির সভাপতি সুব্রত রায় চৌধুরী আরো জানান, জমিদারী আমলের প্রাচীন স্থাপত্য নিদর্শন হিসেবে এই মন্দির এলাকা প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের দায়িত্বে সংরক্ষণের জন্য কচুয়া সহ গোটা অঞ্চলবাসীর দীর্ঘদিনের দাবী রয়েছে। যথাযথভাবে সংরক্ষণ করতে না পারায় প্রায়ই মন্দির এলাকার প্রাচীন নানা জিনিস চুরি হতে থাকে। তারই ধারাবাহিকতায় বর্তমান ঘটনাটি ঘটেছে। তিনি বলেন, মন্দিরের পুরোহিত কার্তিক মুখার্জী পুজো দিতে গিয়ে প্রথম মন্দিরের তালা ভাঙ্গা এবং শিবলিঙ্গ বেদি হতে পড়ে থাকতে দেখেন। বিষয়টি তিনি স্থানীয় প্রশাসনকে জানিয়েছেন বলে জানান।
শনিবার মঘিয়া ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট পংকজ কান্তি অধিকারী জানান, তিনি গতকাল রাতে ঘটনাটি শুনেছেন। খোঁজ নিয়ে দেখেছেন মন্দিরের তালা ভাঙ্গা এবং মন্দিরের অভ্যন্তরে শিবলিঙ্গ শাবল জাতীয় কিছু দিয়ে বেদি হতে উপড়ে ফেলা হয়েছে। তবে কে বা কারা এটা করেছে তা জানা যায়নি।
কচুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জীনাত মহল শনিবার জানান, তিনি বিষয়টি খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম জানান, মন্দির কমিটির পক্ষ হতে এখনো কেউ তাকে এই বিষয়টি জানায়নি। তবে তিনি বিষয়টি গুরুত্বের সাথে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান। বিষয় টি নিয়ে সনাতন ধর্মাবলম্বী সহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষের মাঝে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন

কচুয়া তালা ভেঙ্গে শিবলিঙ্গ বেদি হতে উপড়ে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা 

আপডেট সময় ০৮:০৫:৫২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১০ এপ্রিল ২০২২
কচুয়া (বাগেরহাট) প্রতিনিধি:
বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার মঘিয়া ইউনিয়নের প্রায় চার শতাধিক বছরের পুরনো ঐতিহ্যবাহী সার্বজনীন শিব মন্দিরের দরজার তালা ভেঙ্গে শিবলিঙ্গ বেদি হতে উপড়ে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। তবে মঘিয়া সার্বজনীন শিব মন্দির কমিটির সভাপতি সুব্রত রায় চৌধুরী ০৯ এপ্রিল(শনিবার)আমাদের প্রতিনিধিকে জানান, চোরের দল হয়তো কোন দামী জিনিসের খোঁজে দরজার তালা ভেঙ্গে মন্দিরে ঢোকে এবং কষ্টি পাথর ভেবে শিবলিঙ্গটি বেদি হতে তোলার চেষ্টা করেছে। কে বা কারা কখন এটা করেছে তা জানা যায়নি। বিষয়টি খতিয়ে দেখছে থানা পুলিশ।
বাগেরহাটের মঘিয়া ইউনিয়ন পরিষদ থেকে কিছু দুরে কচুয়া-গজালিয়া সড়কের পাশে এই মন্দিরের অবস্থান হওয়ায় সহজেই সবার দৃষ্টি আকৃষ্ট হয়। প্রাচীন এই মন্দিরটি একজন বাংলাদেশী পর্যটক (নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) দেখতে যায় এবং মন্দিরের দরজার তালা ভাঙ্গা ও বেদি হতে শিবলিঙ্গ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। বিষয়টি তিনি মিডিয়াকর্মীদের জানান। শনিবার মিডিয়াকর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই পর্যটকের বয়ানের সত্যতা পায়।
সরেজমিনকালে মঘিয়া সার্বজনীন শিব মন্দির কমিটির সভাপতি সুব্রত রায় চৌধুরী আরো জানান, জমিদারী আমলের প্রাচীন স্থাপত্য নিদর্শন হিসেবে এই মন্দির এলাকা প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের দায়িত্বে সংরক্ষণের জন্য কচুয়া সহ গোটা অঞ্চলবাসীর দীর্ঘদিনের দাবী রয়েছে। যথাযথভাবে সংরক্ষণ করতে না পারায় প্রায়ই মন্দির এলাকার প্রাচীন নানা জিনিস চুরি হতে থাকে। তারই ধারাবাহিকতায় বর্তমান ঘটনাটি ঘটেছে। তিনি বলেন, মন্দিরের পুরোহিত কার্তিক মুখার্জী পুজো দিতে গিয়ে প্রথম মন্দিরের তালা ভাঙ্গা এবং শিবলিঙ্গ বেদি হতে পড়ে থাকতে দেখেন। বিষয়টি তিনি স্থানীয় প্রশাসনকে জানিয়েছেন বলে জানান।
শনিবার মঘিয়া ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট পংকজ কান্তি অধিকারী জানান, তিনি গতকাল রাতে ঘটনাটি শুনেছেন। খোঁজ নিয়ে দেখেছেন মন্দিরের তালা ভাঙ্গা এবং মন্দিরের অভ্যন্তরে শিবলিঙ্গ শাবল জাতীয় কিছু দিয়ে বেদি হতে উপড়ে ফেলা হয়েছে। তবে কে বা কারা এটা করেছে তা জানা যায়নি।
কচুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জীনাত মহল শনিবার জানান, তিনি বিষয়টি খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম জানান, মন্দির কমিটির পক্ষ হতে এখনো কেউ তাকে এই বিষয়টি জানায়নি। তবে তিনি বিষয়টি গুরুত্বের সাথে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান। বিষয় টি নিয়ে সনাতন ধর্মাবলম্বী সহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষের মাঝে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।