বাংলাদেশ ০৫:৫৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন সন্ধ্যার মধ্যে উপাচার্য, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাসভবন ছাড়ার আল্টিমেটাম কুবি শিক্ষার্থীদের রাবিতে জড়ো হওয়া আন্দোলনকারীদের পুলিশ-বিজিবির ধাওয়া মেহেন্দিগঞ্জে অজ্ঞাতনামা নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার। মুন্সীগঞ্জে গায়েবানা জানাযা থেকে ঈমাম ও বিএনপি নেতাকে ধরে নিয়ে গেলো পুলিশ কোটা আন্দোলনের পক্ষে সংহতি জানিয়ে ফেনী ইউনিভার্সিটির বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বিবৃতি চলমান পরিস্থিতিতে রাবি ক্যাম্পাসে ছাত্র রাজনীতি আপাতত স্থগিত: উপাচার্য বিদেশের পাঠানো টাকা চাইতে গিয়ে বিপাকে প্রবাসী স্বামী রাজশাহীতে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পবিত্র আশুরা পালিত চট্রগ্রামের কোটা সংস্কার আন্দোলনে নিহত ওয়াসিমের জানাজায় মানুষের ঢল পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া পৌরসভার রাস্তায় সমবায় সমিতি ভবনের ট্যাংকির ময়লা: জনদুর্ভোগ মুন্সীগঞ্জে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের উপর হামলা, আহত ৫ হরিপুরে, প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড এর পক্ষ থেকে কর্মী মিটিং ও গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্ঠিত। গৌরীপুরে উদীচী কার্য়ালয়ে হামলা ও ভাংচুর স্ত্রীর যৌতুক মামলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কারাগারে

বর্ধিত গুরমা হাওরের ধ্বসে যাওয়া ‘বাগমারা’ নামক ফসলরক্ষা বাঁধ পরিদর্শনে এমপি রতন

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৯:৩৩:২৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৯ এপ্রিল ২০২২
  • ১৮১০ বার পড়া হয়েছে

বর্ধিত গুরমা হাওরের ধ্বসে যাওয়া ‘বাগমারা’ নামক ফসলরক্ষা বাঁধ পরিদর্শনে এমপি রতন

 

 

 

 

সামায়ুন আহমদ, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

 

তাহিরপুরে বর্ধিত গুরমা হাওরের ‘বাগমারা’ নামক ফসলরক্ষা বাঁধটি ধ্বসে পড়েছে। বাঁধ এলাকার গোলাবাড়ি গ্রামের খসরুল আলম ও স্থানীয় কৃষকরা জানান, শুক্রবার বিকেলে পাটলাই নদীর পানি ক্রমাগত বৃদ্ধি পাওয়ায় বাগমারা ফসল রক্ষা বাঁধটি ধ্বসে পড়েছে।এ অবস্থায় স্থানীয় কৃষকরা স্বেচ্ছাশ্রমে বাঁধে বাঁশ,কোটা দিয়ে কোন রকমে বাঁধটি টিকিয়ে রেখেছেন।

 

তিনি আরো জানান,বাগমারা বাঁধটি পূনরায় নির্মাণ করতে না পারলে ধর্মপাশা ও তাহিরপুর উপজেলার নোয়াল,খাউজ্যাউরি ও বংশীকুন্ডাসহ ৩টি হাওরের প্রায় ১০ হাজার একর জমির ধান পানির নীচে তলিয়ে যাবে। এ ঘটনায় শনিবার সকাল ১০ টায় তাহিরপুর উপজেলা বঙ্গবন্ধু কর্ণারে তাহিরপুর উপজেলার বিভিন্ন হাওরগুলো রক্ষায় এক জরুরী সভা অনুষ্টিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন,সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন।

 

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রায়হান কবীরের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে সভায় বক্তব্য রাখেন,পানি উন্নয়ন বোর্ডের সিলেট অঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী শহিদুল ইসলাম, সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক (এডিসি) মো. জাকির হোসেন, সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী জহিরুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি হাজী আবুল হোসেন খান, সাধারন সম্পাদক অমল কান্তি কর, থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল লতিফ তরফদার,বালিজুড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আজাদ হোসেন, উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি আমিনুল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগ আহবায়ক হাফিজ উদ্দিন, তাহিরপুর সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি শাহিনুর তালুকদার, আওয়ামীলীগ নেতা লুৎফুর রহমান লাকসাব, মইনুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগ সাবেক সভাপতি আবুল বাশার, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আশ্রাউল জামান ইমন, সহ সভাপতি জাহিদ হাসান রুবেল, সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরাজ শাহ প্রমূখ। সভা শেষে মাটিয়ান হাওরের আনন্দনগর বাঁধ ও বর্ধিত গুরমা হাওরের ধ্বসে যাওয়া বাগমারা বাঁধ পরিদর্শন করেন সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন।

 

ধ্বসে যাওয়া বাগমারা বাঁধ পরিদর্শন শেষে সংশ্লিষ্ট কাজের প্রকল্প সভাপতি ও হাওরপাড়ের কৃষকদের উদ্দেশ্যে সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন বলেন, হাওরের ফসল রক্ষা বাঁধ নির্মাণে পর্যাপ্ত পরিমান টাকা রয়েছে। আপনারা দিনরাত পরিশ্রম করে যান। বাঁশ,বস্তা,শ্রমিক যেখানে যা লাগে উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলী হায়দার ও দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলী আহমদ মুরাদকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তারা দু’জনে সবকিছুর ব্যবস্থা করবে। আপনারা নিরলসভাবে বাঁধে কাজ করে যান। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা হাওরের বাঁধের সার্বক্ষণিক খোঁজ খবর রাখছেন।

 

 

 

 

 

জনপ্রিয় সংবাদ

মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন

বর্ধিত গুরমা হাওরের ধ্বসে যাওয়া ‘বাগমারা’ নামক ফসলরক্ষা বাঁধ পরিদর্শনে এমপি রতন

আপডেট সময় ০৯:৩৩:২৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৯ এপ্রিল ২০২২

 

 

 

 

সামায়ুন আহমদ, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

 

তাহিরপুরে বর্ধিত গুরমা হাওরের ‘বাগমারা’ নামক ফসলরক্ষা বাঁধটি ধ্বসে পড়েছে। বাঁধ এলাকার গোলাবাড়ি গ্রামের খসরুল আলম ও স্থানীয় কৃষকরা জানান, শুক্রবার বিকেলে পাটলাই নদীর পানি ক্রমাগত বৃদ্ধি পাওয়ায় বাগমারা ফসল রক্ষা বাঁধটি ধ্বসে পড়েছে।এ অবস্থায় স্থানীয় কৃষকরা স্বেচ্ছাশ্রমে বাঁধে বাঁশ,কোটা দিয়ে কোন রকমে বাঁধটি টিকিয়ে রেখেছেন।

 

তিনি আরো জানান,বাগমারা বাঁধটি পূনরায় নির্মাণ করতে না পারলে ধর্মপাশা ও তাহিরপুর উপজেলার নোয়াল,খাউজ্যাউরি ও বংশীকুন্ডাসহ ৩টি হাওরের প্রায় ১০ হাজার একর জমির ধান পানির নীচে তলিয়ে যাবে। এ ঘটনায় শনিবার সকাল ১০ টায় তাহিরপুর উপজেলা বঙ্গবন্ধু কর্ণারে তাহিরপুর উপজেলার বিভিন্ন হাওরগুলো রক্ষায় এক জরুরী সভা অনুষ্টিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন,সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন।

 

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রায়হান কবীরের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে সভায় বক্তব্য রাখেন,পানি উন্নয়ন বোর্ডের সিলেট অঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী শহিদুল ইসলাম, সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক (এডিসি) মো. জাকির হোসেন, সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী জহিরুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি হাজী আবুল হোসেন খান, সাধারন সম্পাদক অমল কান্তি কর, থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল লতিফ তরফদার,বালিজুড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আজাদ হোসেন, উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি আমিনুল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগ আহবায়ক হাফিজ উদ্দিন, তাহিরপুর সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি শাহিনুর তালুকদার, আওয়ামীলীগ নেতা লুৎফুর রহমান লাকসাব, মইনুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগ সাবেক সভাপতি আবুল বাশার, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আশ্রাউল জামান ইমন, সহ সভাপতি জাহিদ হাসান রুবেল, সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরাজ শাহ প্রমূখ। সভা শেষে মাটিয়ান হাওরের আনন্দনগর বাঁধ ও বর্ধিত গুরমা হাওরের ধ্বসে যাওয়া বাগমারা বাঁধ পরিদর্শন করেন সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন।

 

ধ্বসে যাওয়া বাগমারা বাঁধ পরিদর্শন শেষে সংশ্লিষ্ট কাজের প্রকল্প সভাপতি ও হাওরপাড়ের কৃষকদের উদ্দেশ্যে সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন বলেন, হাওরের ফসল রক্ষা বাঁধ নির্মাণে পর্যাপ্ত পরিমান টাকা রয়েছে। আপনারা দিনরাত পরিশ্রম করে যান। বাঁশ,বস্তা,শ্রমিক যেখানে যা লাগে উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলী হায়দার ও দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলী আহমদ মুরাদকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তারা দু’জনে সবকিছুর ব্যবস্থা করবে। আপনারা নিরলসভাবে বাঁধে কাজ করে যান। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা হাওরের বাঁধের সার্বক্ষণিক খোঁজ খবর রাখছেন।