বাংলাদেশ ১০:৪৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন সন্ধ্যার মধ্যে উপাচার্য, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাসভবন ছাড়ার আল্টিমেটাম কুবি শিক্ষার্থীদের রাবিতে জড়ো হওয়া আন্দোলনকারীদের পুলিশ-বিজিবির ধাওয়া মেহেন্দিগঞ্জে অজ্ঞাতনামা নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার। মুন্সীগঞ্জে গায়েবানা জানাযা থেকে ঈমাম ও বিএনপি নেতাকে ধরে নিয়ে গেলো পুলিশ কোটা আন্দোলনের পক্ষে সংহতি জানিয়ে ফেনী ইউনিভার্সিটির বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বিবৃতি চলমান পরিস্থিতিতে রাবি ক্যাম্পাসে ছাত্র রাজনীতি আপাতত স্থগিত: উপাচার্য বিদেশের পাঠানো টাকা চাইতে গিয়ে বিপাকে প্রবাসী স্বামী রাজশাহীতে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পবিত্র আশুরা পালিত চট্রগ্রামের কোটা সংস্কার আন্দোলনে নিহত ওয়াসিমের জানাজায় মানুষের ঢল পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া পৌরসভার রাস্তায় সমবায় সমিতি ভবনের ট্যাংকির ময়লা: জনদুর্ভোগ মুন্সীগঞ্জে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের উপর হামলা, আহত ৫ হরিপুরে, প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড এর পক্ষ থেকে কর্মী মিটিং ও গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্ঠিত। গৌরীপুরে উদীচী কার্য়ালয়ে হামলা ও ভাংচুর স্ত্রীর যৌতুক মামলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কারাগারে

বরকতময় মাহে রমজান” আজকের বিষয়:-রোজার সামাজিক ও মানবিক গুরুত্ব

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৯:২৬:০৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৯ এপ্রিল ২০২২
  • ১৭০৭ বার পড়া হয়েছে
গাজী মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম জাবির।।
আজ মাহে রমজানের ৮ দিবস। অর্থাৎ রহমত দশকের আর মাত্র ২ দিন বাকী । দেখতে দেখতে চলে গেল রহমতের দিন গুলো ফুরিয়ে। সম্মানিত পাঠক, আজকের বিষয় রোজার মানবিক ও সামাজিক  গুরুত্ব। এখানে এ বিষয়ে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করা হলো। রোজার মানবিক গুরুত্ব: রোজাদার ব্যক্তি ভোর রাত থেকে ইফতারের সময় পর্যন্ত পানাহার বন্ধ রাখে। ফলে তারা অনুভব করতে পারে বছরের অন্যান্য সময় না খেয়ে থাকা গরীবদের দুঃখ।
তাদের মনে গরীবের জন্য সৃষ্টি হয় মমতাবোধ। এই জন্যই আল্লাহর নবী সাল্লাল্লাহু তায়ালা আলাইহি ওয়া সাল্লাম রমজানের এ মাসকে সহানুভূতি ও সহমর্মিতার মাস বলেছেন। মুসলমানরা এ রমজান মাসে গরীব রোজাদারদের ইফতার করায়। কেউ সাথে নিয়ে ইফতার করে, কেউ আবার তাদেরকে ইফতার সামগ্রী কিনে দেয়। এভাবে তাদের মানবিকতার প্রকাশ পায় এবং মানবিক গুণের বিকাশ ঘটে। এছাড়া ধনবান রোজাদার মুসলমান গরীবদের এ মাসে যাকাত ও ফিতরা দেয়, বেশি বেশি করে দান করে। এভাবে গরীবদের প্রতি তাদের আন্তরিকতা ও ভালোবাসার প্রকাশ ঘটে। যে গুণ বিকাশের মধ্য দিয়ে তারা আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের লক্ষ্যে এগিয়ে যেতে সক্ষম হয়।
রোজার সামাজিক গুরুত্ব: মুসলমানদের সামাজিক হওয়া ঈমানের দাবি। কারণ রাসুল সাল্লাল্লাহু তায়ালা আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, সে মুমিন নয়, যে পেট পুরে খায় তার প্রতিবেশী উপোস থাকে। ইসলামী এই চেতনার কারণে মুসলমানকে সামাজিক হওয়ার কোনো বিকল্প নেই। আর মুসলমানদের মধ্যে সামাজিক বন্ধন, সামাজিক গুণ সৃষ্টিতে রমজান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। রমজানে মুসলমানরা একসাথে ইফতার করে। আত্মীয়স্বজন ও প্রতিবেশীর মাঝে ইফতার বিলি- বণ্টন ও দান করে। এভাবে তাদের আত্মীয়তা ও সামাজিক বন্ধন মজবুত হয়।
গরীব-এতিম-মিসকিন মুসলমান নারী-পুরুষরা এবং অভাবী আত্মীয়গণ যেন রোজা রমজানে সুন্দরভাবে খানাপিনা খেতে পারে এবং ভালোভাবে চলতে পারে সে ব্যাপারে খেয়াল রাখে। তাদের সহযোগিতায় এগিয়ে আসে। পরিশেষে বলা যায়, খোদাভীতির পাশাপাশি যারা মানবিক ও সামাজিক গুণ লাভ করতে পারে, তাদেরই রোজা পালন সার্থক ও সফল হয়। কারণ আল্লাহ তাদেরকে নিজের খলিফা স্বীকৃতি দিয়ে সমাজবাসীর কল্যাণ সাধনে ভুমিকা রাখার দায়িত্ব দিয়েছেন। সেহেতু তাদেরকে মানবিক ও সামাজিক ব্যাপারেও সচেতন ও সক্রিয় থাকতে হবে। মহানবী সাল্লাল্লাহু তায়ালা আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, ‘আল্লাহ তাকে ভালোবাসেন, যে আল্লাহর পরিবারকে ভালোবাসে। আর সমগ্র সৃষ্টি হল আল্লাহর পরিবার।।
জনপ্রিয় সংবাদ

মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন

বরকতময় মাহে রমজান” আজকের বিষয়:-রোজার সামাজিক ও মানবিক গুরুত্ব

আপডেট সময় ০৯:২৬:০৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৯ এপ্রিল ২০২২
গাজী মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম জাবির।।
আজ মাহে রমজানের ৮ দিবস। অর্থাৎ রহমত দশকের আর মাত্র ২ দিন বাকী । দেখতে দেখতে চলে গেল রহমতের দিন গুলো ফুরিয়ে। সম্মানিত পাঠক, আজকের বিষয় রোজার মানবিক ও সামাজিক  গুরুত্ব। এখানে এ বিষয়ে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করা হলো। রোজার মানবিক গুরুত্ব: রোজাদার ব্যক্তি ভোর রাত থেকে ইফতারের সময় পর্যন্ত পানাহার বন্ধ রাখে। ফলে তারা অনুভব করতে পারে বছরের অন্যান্য সময় না খেয়ে থাকা গরীবদের দুঃখ।
তাদের মনে গরীবের জন্য সৃষ্টি হয় মমতাবোধ। এই জন্যই আল্লাহর নবী সাল্লাল্লাহু তায়ালা আলাইহি ওয়া সাল্লাম রমজানের এ মাসকে সহানুভূতি ও সহমর্মিতার মাস বলেছেন। মুসলমানরা এ রমজান মাসে গরীব রোজাদারদের ইফতার করায়। কেউ সাথে নিয়ে ইফতার করে, কেউ আবার তাদেরকে ইফতার সামগ্রী কিনে দেয়। এভাবে তাদের মানবিকতার প্রকাশ পায় এবং মানবিক গুণের বিকাশ ঘটে। এছাড়া ধনবান রোজাদার মুসলমান গরীবদের এ মাসে যাকাত ও ফিতরা দেয়, বেশি বেশি করে দান করে। এভাবে গরীবদের প্রতি তাদের আন্তরিকতা ও ভালোবাসার প্রকাশ ঘটে। যে গুণ বিকাশের মধ্য দিয়ে তারা আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের লক্ষ্যে এগিয়ে যেতে সক্ষম হয়।
রোজার সামাজিক গুরুত্ব: মুসলমানদের সামাজিক হওয়া ঈমানের দাবি। কারণ রাসুল সাল্লাল্লাহু তায়ালা আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, সে মুমিন নয়, যে পেট পুরে খায় তার প্রতিবেশী উপোস থাকে। ইসলামী এই চেতনার কারণে মুসলমানকে সামাজিক হওয়ার কোনো বিকল্প নেই। আর মুসলমানদের মধ্যে সামাজিক বন্ধন, সামাজিক গুণ সৃষ্টিতে রমজান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। রমজানে মুসলমানরা একসাথে ইফতার করে। আত্মীয়স্বজন ও প্রতিবেশীর মাঝে ইফতার বিলি- বণ্টন ও দান করে। এভাবে তাদের আত্মীয়তা ও সামাজিক বন্ধন মজবুত হয়।
গরীব-এতিম-মিসকিন মুসলমান নারী-পুরুষরা এবং অভাবী আত্মীয়গণ যেন রোজা রমজানে সুন্দরভাবে খানাপিনা খেতে পারে এবং ভালোভাবে চলতে পারে সে ব্যাপারে খেয়াল রাখে। তাদের সহযোগিতায় এগিয়ে আসে। পরিশেষে বলা যায়, খোদাভীতির পাশাপাশি যারা মানবিক ও সামাজিক গুণ লাভ করতে পারে, তাদেরই রোজা পালন সার্থক ও সফল হয়। কারণ আল্লাহ তাদেরকে নিজের খলিফা স্বীকৃতি দিয়ে সমাজবাসীর কল্যাণ সাধনে ভুমিকা রাখার দায়িত্ব দিয়েছেন। সেহেতু তাদেরকে মানবিক ও সামাজিক ব্যাপারেও সচেতন ও সক্রিয় থাকতে হবে। মহানবী সাল্লাল্লাহু তায়ালা আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, ‘আল্লাহ তাকে ভালোবাসেন, যে আল্লাহর পরিবারকে ভালোবাসে। আর সমগ্র সৃষ্টি হল আল্লাহর পরিবার।।