বাংলাদেশ ০২:৫৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন সন্ধ্যার মধ্যে উপাচার্য, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাসভবন ছাড়ার আল্টিমেটাম কুবি শিক্ষার্থীদের রাবিতে জড়ো হওয়া আন্দোলনকারীদের পুলিশ-বিজিবির ধাওয়া মেহেন্দিগঞ্জে অজ্ঞাতনামা নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার। মুন্সীগঞ্জে গায়েবানা জানাযা থেকে ঈমাম ও বিএনপি নেতাকে ধরে নিয়ে গেলো পুলিশ কোটা আন্দোলনের পক্ষে সংহতি জানিয়ে ফেনী ইউনিভার্সিটির বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বিবৃতি চলমান পরিস্থিতিতে রাবি ক্যাম্পাসে ছাত্র রাজনীতি আপাতত স্থগিত: উপাচার্য বিদেশের পাঠানো টাকা চাইতে গিয়ে বিপাকে প্রবাসী স্বামী রাজশাহীতে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পবিত্র আশুরা পালিত চট্রগ্রামের কোটা সংস্কার আন্দোলনে নিহত ওয়াসিমের জানাজায় মানুষের ঢল পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া পৌরসভার রাস্তায় সমবায় সমিতি ভবনের ট্যাংকির ময়লা: জনদুর্ভোগ মুন্সীগঞ্জে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের উপর হামলা, আহত ৫ হরিপুরে, প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড এর পক্ষ থেকে কর্মী মিটিং ও গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্ঠিত। গৌরীপুরে উদীচী কার্য়ালয়ে হামলা ও ভাংচুর স্ত্রীর যৌতুক মামলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কারাগারে

খানসামায় শিয়ালের উপদ্রব; অতিষ্ঠ এলাকাবাসি।

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৪:১১:৩৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৯ এপ্রিল ২০২২
  • ১৬৯৩ বার পড়া হয়েছে

খানসামায় শিয়ালের উপদ্রব; অতিষ্ঠ এলাকাবাসি।

মাসুদ রানা, দিনাজপুর প্রতিনিধি :

খানসামায় শিয়ালের অত্যাচারে  অতিষ্ট এলাকার সাধারণ লোক। খানসামায় ব্যাপকহারে ভূট্টা চাষাবাদের জন্য শিয়ালের উপদ্রুত বাড়ছে দিনের পর দিন। ভূট্টার গাছ হাটুর সমান হতে না হতেই ঝাঁকে ঝাঁকে শিয়ালের দল সন্ধ্যার পরেই দেখা মিলে।

খানসামায় শিয়াল দিয়ে একাধিকবার মোটরসাইকেল দূর্ঘনা ঘটেছে।  গৃহপালিত পশু যেমন ছাগল ভেড়া বা মুরগি হাঁস নিয়মিত শিয়াল গোয়াল ঘরে বা মুরগির ঘরে ঢুকে খেয়ে ফেলছে। এমনকি গোয়াল ঘরে গরুকে আক্রমণ করে আহত করছে। এমনি একজন কৃষক গৃহিণী উপজেলার ডাঙ্গা পাড়া গ্রামের জানায় ভূট্টা রোপনের আগে শিয়ালের উৎপাত ছিল না। কিন্তু ভূট্টার ক্ষেত যত বড় হতে শুরু করেছে তত শিয়ালের উৎপাত শুরু হয়েছে। এখন মুরগি হাঁস দিনে দুপুরে শিয়াল মুখে নিয়ে ভুট্টা ক্ষেতে নিয়ে খেয়ে ফেলছে।

খানসামা উপজেলা স্বাস্থ্যকম্প্লেক্স এর জরুরি বিভাগের ওয়ার্ড বয় মোকাররম হোসেন ও হাফিস উদ্দিন জানায় গত তিন মাসে শিয়ালের সাথে মোটরসাইকেল দূর্ঘটনা প্রায় দশ বারো জন মেডিক্যাল হাসপাতালে ভর্তি হয়। তবে বেশিভাগ দূঘর্টনাই রোগীর অবস্থা বেগতিক ছিল। আশংকাজনক থাকার কারণে আমরা প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়েই দিনাজপুর আ: রহিম মেডিকেল  কলেজ ও হাসপাতালে পাঠিয়ে দেই। শিয়ালে কামড়িয়েছে এমন একশত এর কাছাকাছি আমাদের ইমার্জেন্সি রুমে এসেছে। যার ভ্যাকসিন নীলফামারীতে নিয়েছে। সেখান থেকে জানতে পারবেন।

খানসামার সড়কের রাতের পাহারাদার আনছার ভিডিপি ও বিভিন্ন এলাকার লোকজন জানায় শিয়ালের উপদ্রব সবখানেই। শিয়াল আর মানুষকে ভয় পায় না। বরং মানুষেই শিয়ালকে ভয় পায়। শিয়ালের খাবার আর আগের মত নেই। তাই দিনে রাতে শিয়াল মুরগির খোপড়া বা ঘরে ঢুকে মুরগি হাসঁ খেয়ে ফেলছে বা সমস্ত মুরগি হাসঁ মেরে ফেলে চলে যাচ্ছে। শিয়ালের ভয়ে সন্ধ্যার আগে বাচ্চাদের বাইরে যেতে দিচ্ছেনা। সবাই মনে করছে শিয়াল ভূট্টার আবাদ শেষ হলে কিছুটা উপদ্রব কমবে।

জনপ্রিয় সংবাদ

মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন

খানসামায় শিয়ালের উপদ্রব; অতিষ্ঠ এলাকাবাসি।

আপডেট সময় ০৪:১১:৩৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৯ এপ্রিল ২০২২

মাসুদ রানা, দিনাজপুর প্রতিনিধি :

খানসামায় শিয়ালের অত্যাচারে  অতিষ্ট এলাকার সাধারণ লোক। খানসামায় ব্যাপকহারে ভূট্টা চাষাবাদের জন্য শিয়ালের উপদ্রুত বাড়ছে দিনের পর দিন। ভূট্টার গাছ হাটুর সমান হতে না হতেই ঝাঁকে ঝাঁকে শিয়ালের দল সন্ধ্যার পরেই দেখা মিলে।

খানসামায় শিয়াল দিয়ে একাধিকবার মোটরসাইকেল দূর্ঘনা ঘটেছে।  গৃহপালিত পশু যেমন ছাগল ভেড়া বা মুরগি হাঁস নিয়মিত শিয়াল গোয়াল ঘরে বা মুরগির ঘরে ঢুকে খেয়ে ফেলছে। এমনকি গোয়াল ঘরে গরুকে আক্রমণ করে আহত করছে। এমনি একজন কৃষক গৃহিণী উপজেলার ডাঙ্গা পাড়া গ্রামের জানায় ভূট্টা রোপনের আগে শিয়ালের উৎপাত ছিল না। কিন্তু ভূট্টার ক্ষেত যত বড় হতে শুরু করেছে তত শিয়ালের উৎপাত শুরু হয়েছে। এখন মুরগি হাঁস দিনে দুপুরে শিয়াল মুখে নিয়ে ভুট্টা ক্ষেতে নিয়ে খেয়ে ফেলছে।

খানসামা উপজেলা স্বাস্থ্যকম্প্লেক্স এর জরুরি বিভাগের ওয়ার্ড বয় মোকাররম হোসেন ও হাফিস উদ্দিন জানায় গত তিন মাসে শিয়ালের সাথে মোটরসাইকেল দূর্ঘটনা প্রায় দশ বারো জন মেডিক্যাল হাসপাতালে ভর্তি হয়। তবে বেশিভাগ দূঘর্টনাই রোগীর অবস্থা বেগতিক ছিল। আশংকাজনক থাকার কারণে আমরা প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়েই দিনাজপুর আ: রহিম মেডিকেল  কলেজ ও হাসপাতালে পাঠিয়ে দেই। শিয়ালে কামড়িয়েছে এমন একশত এর কাছাকাছি আমাদের ইমার্জেন্সি রুমে এসেছে। যার ভ্যাকসিন নীলফামারীতে নিয়েছে। সেখান থেকে জানতে পারবেন।

খানসামার সড়কের রাতের পাহারাদার আনছার ভিডিপি ও বিভিন্ন এলাকার লোকজন জানায় শিয়ালের উপদ্রব সবখানেই। শিয়াল আর মানুষকে ভয় পায় না। বরং মানুষেই শিয়ালকে ভয় পায়। শিয়ালের খাবার আর আগের মত নেই। তাই দিনে রাতে শিয়াল মুরগির খোপড়া বা ঘরে ঢুকে মুরগি হাসঁ খেয়ে ফেলছে বা সমস্ত মুরগি হাসঁ মেরে ফেলে চলে যাচ্ছে। শিয়ালের ভয়ে সন্ধ্যার আগে বাচ্চাদের বাইরে যেতে দিচ্ছেনা। সবাই মনে করছে শিয়াল ভূট্টার আবাদ শেষ হলে কিছুটা উপদ্রব কমবে।