বাংলাদেশ ১২:৪৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :

সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,, সাংবাদিক নিয়োগ চলছে,,০১৯৯৯-৯৫৩৯৭০, ০১৭১২-৪৪৬৩০৬,০১৭১১-০০৬২১৪ সম্পাদক

     
ব্রেকিং নিউজ ::
মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন সন্ধ্যার মধ্যে উপাচার্য, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাসভবন ছাড়ার আল্টিমেটাম কুবি শিক্ষার্থীদের রাবিতে জড়ো হওয়া আন্দোলনকারীদের পুলিশ-বিজিবির ধাওয়া মেহেন্দিগঞ্জে অজ্ঞাতনামা নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার। মুন্সীগঞ্জে গায়েবানা জানাযা থেকে ঈমাম ও বিএনপি নেতাকে ধরে নিয়ে গেলো পুলিশ কোটা আন্দোলনের পক্ষে সংহতি জানিয়ে ফেনী ইউনিভার্সিটির বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বিবৃতি চলমান পরিস্থিতিতে রাবি ক্যাম্পাসে ছাত্র রাজনীতি আপাতত স্থগিত: উপাচার্য বিদেশের পাঠানো টাকা চাইতে গিয়ে বিপাকে প্রবাসী স্বামী রাজশাহীতে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পবিত্র আশুরা পালিত চট্রগ্রামের কোটা সংস্কার আন্দোলনে নিহত ওয়াসিমের জানাজায় মানুষের ঢল পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া পৌরসভার রাস্তায় সমবায় সমিতি ভবনের ট্যাংকির ময়লা: জনদুর্ভোগ মুন্সীগঞ্জে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের উপর হামলা, আহত ৫ হরিপুরে, প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড এর পক্ষ থেকে কর্মী মিটিং ও গ্রাহক সমাবেশ অনুষ্ঠিত। গৌরীপুরে উদীচী কার্য়ালয়ে হামলা ও ভাংচুর স্ত্রীর যৌতুক মামলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কারাগারে

মুলাদীতে অবৈধভাবে বিদ্যালয়ের গাছ কেটে নেয়ার অভিযোগ ॥ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে চড়ম ক্ষোভ

  • নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৮:০৮:২৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ এপ্রিল ২০২২
  • ১৬৭৫ বার পড়া হয়েছে

মুলাদীতে অবৈধভাবে বিদ্যালয়ের গাছ কেটে নেয়ার অভিযোগ ॥ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে চড়ম ক্ষোভ

 

 

 

মুলাদী প্রতিনিধিঃ

 

মুলাদীতে অবৈধভাবে বিদ্যালয়ের গাছ কেটে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার মুলাদী সদর ইউনিয়নের কুতুবপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৩লক্ষাধিক টাকার গাছ কেটে নেয়া হয়। বিদ্যালয়ের সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক কাউকে না জানিয়ে গাছগুলো কেটে ফেলেছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

 

 

গত ৪দিন থেকে বিদ্যালয়ের ৬টি গাছ কাটছেন তারা। তবে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ শহিদুল ইসলাম ও সভাপতি মোঃ ইসাহাক সিকদার অবৈধভাবে গাছ কাটার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। প্রধান শিক্ষক বেঞ্চ তৈরির জন্য গাছ কেটেছেন বলে দাবী করেছেন। এছাড়াও বিদ্যালয়ের সভাপতি মসজিদের জন্য গাছ নিয়েছেন বলে জানান।

 

 

জানাগেছে, কুতুবপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে লাগানো বড় গাছগুলো গত বৃহস্পতিবার কয়েকজন শ্রমিক কাটা শুরু করলে তাদের কাছে স্থানীয়রা জানতে চাইলে বিদ্যালয়ের সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক গাছ কাটতে বলেছেন বলে তারা জানান। ব্যবস্থা কমিটির সিদ্ধান্ত ছাড়াই অনেক দিনের পুরনো গাছগুলো কেটে ফেলায় অভিভাবক ও প্রাক্তন শিক্ষার্থী ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম জানান, বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুর মোহাম্মদ হোসাইনী সহ সংস্লিষ্ঠরা জানেন, ২টি গাছ কাটা হয়েছে বেঞ্চ বানানোর জন্য বাকী পাঁচটি গাছ কি জন্য কাটা হয়েছে সে বিষয়ে আমার জানা নেই।

 

 

বিদ্যালয়েল সভাপতি এসহাক সিকদার বলেন, বিদ্যালয় সংলগ্ন একটি মসজিদ রয়েছে ঐ গাছগুলো মসজিদের জমিতে রয়েছে সে জন্য মসজিদ সংস্কারের লক্ষে গাছগুলো কাটা হয়েছে। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ শহিদুল ইসলাম জানান, ম্যানেজিং কমিটির সিদ্ধান্ত ছাড়া বিদ্যালয়ের গাছ কাটা অবৈধ, বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। গাছ কাটার ফলে পরিবেশ বিনষ্ট হওয়ার ফলে প্রাক্তন সচেতন শিক্ষকরা অবৈধভাবে গাছ কাটার জন্য গন স্বাক্ষর করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, শিক্ষা কর্মকর্তা, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সহ বিভিন্ন দপ্তরে প্রেরন করেন।

 

 

 

 

জনপ্রিয় সংবাদ

মুন্সীগঞ্জ সদর ইউএনওর চরডুমুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন

মুলাদীতে অবৈধভাবে বিদ্যালয়ের গাছ কেটে নেয়ার অভিযোগ ॥ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে চড়ম ক্ষোভ

আপডেট সময় ০৮:০৮:২৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ এপ্রিল ২০২২

 

 

 

মুলাদী প্রতিনিধিঃ

 

মুলাদীতে অবৈধভাবে বিদ্যালয়ের গাছ কেটে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার মুলাদী সদর ইউনিয়নের কুতুবপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৩লক্ষাধিক টাকার গাছ কেটে নেয়া হয়। বিদ্যালয়ের সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক কাউকে না জানিয়ে গাছগুলো কেটে ফেলেছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

 

 

গত ৪দিন থেকে বিদ্যালয়ের ৬টি গাছ কাটছেন তারা। তবে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ শহিদুল ইসলাম ও সভাপতি মোঃ ইসাহাক সিকদার অবৈধভাবে গাছ কাটার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। প্রধান শিক্ষক বেঞ্চ তৈরির জন্য গাছ কেটেছেন বলে দাবী করেছেন। এছাড়াও বিদ্যালয়ের সভাপতি মসজিদের জন্য গাছ নিয়েছেন বলে জানান।

 

 

জানাগেছে, কুতুবপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে লাগানো বড় গাছগুলো গত বৃহস্পতিবার কয়েকজন শ্রমিক কাটা শুরু করলে তাদের কাছে স্থানীয়রা জানতে চাইলে বিদ্যালয়ের সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক গাছ কাটতে বলেছেন বলে তারা জানান। ব্যবস্থা কমিটির সিদ্ধান্ত ছাড়াই অনেক দিনের পুরনো গাছগুলো কেটে ফেলায় অভিভাবক ও প্রাক্তন শিক্ষার্থী ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম জানান, বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুর মোহাম্মদ হোসাইনী সহ সংস্লিষ্ঠরা জানেন, ২টি গাছ কাটা হয়েছে বেঞ্চ বানানোর জন্য বাকী পাঁচটি গাছ কি জন্য কাটা হয়েছে সে বিষয়ে আমার জানা নেই।

 

 

বিদ্যালয়েল সভাপতি এসহাক সিকদার বলেন, বিদ্যালয় সংলগ্ন একটি মসজিদ রয়েছে ঐ গাছগুলো মসজিদের জমিতে রয়েছে সে জন্য মসজিদ সংস্কারের লক্ষে গাছগুলো কাটা হয়েছে। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ শহিদুল ইসলাম জানান, ম্যানেজিং কমিটির সিদ্ধান্ত ছাড়া বিদ্যালয়ের গাছ কাটা অবৈধ, বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। গাছ কাটার ফলে পরিবেশ বিনষ্ট হওয়ার ফলে প্রাক্তন সচেতন শিক্ষকরা অবৈধভাবে গাছ কাটার জন্য গন স্বাক্ষর করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, শিক্ষা কর্মকর্তা, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সহ বিভিন্ন দপ্তরে প্রেরন করেন।